মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ৬ ওয়েবসাইট । Make android apps from website

মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট : (Create mobile apps from website) মোবাইল app তৈরি করার নিয়ম কি ? নিজে android app তৈরি করব।

মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট । Make android apps from website
মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট

কিভাবে এন্ড্রয়েড এপস তৈরি করা যায় ? Free-তে কিভাবে এপস বানানো যায় ? মোবাইল সফটওয়্যার বানানোর উপায় সম্পর্কে নিয়ে আপনার মনে যদি এ ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে।

আপনার মনের প্রশ্নের সকল উত্তর দেয়ার জন্য মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার  উপায় নিয়ে আমি আপনাদের মাঝে আলোচনা করব।

নিজেই কিভাবে নিজের একটি মোবাইল app তৈরী  করবেন এবং ফ্রীতে কোনো কোন ধরনের কোডিং ছাড়া মোবাইল এপস বানানোর নিয়ম সম্পর্কে খুব সহজেই জানতে পারবেন।

আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাকে এমন কয়েকটি ওয়েব সাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দিব। তার পর কিভাবে এন্ড্রয়েড অ্যাপ বানানো যায় শিখে যাবেন।

সে সকল ওয়েবসাইট থেকে আপনি নিজে এন্ড্রয়েড মোবাইল এপ্স ফ্রিতে বানিয়ে নিতে পারবেন।

আর সে সকল ওয়েবসাইট থেকে আপনার কোন ধরনের কোডিং নলেজ ছাড়াই যেকোনো ধরনের অ্যাপস অনায়াসেই আপনার মোবাইলের জন্য বানিয়ে নিতে পারবেন।

আপনি আরোও দেখতে পারেন…

মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানার পাশাপাশি আপনি আরো জানতে পারবেন । কিভাবে এপস বানানো যায়, কিভাবে এন্ড্রয়েড এপস তৈরি করা যায়।

এবং আরোও জানতে পারবেন যে, মোবাইল দিয়ে সফটওয়্যার তৈরি করার আদ্যপাদ্য বিষয়সহ সফটওয়্যার তৈরি করার অ্যাপস সম্পর্কে।

মোবাইল app তৈরি করার উপায়

কিভাবে এপস বানানো যায় ? দিনে দিনে প্রতিনিয়ত অ্যান্ড্রয়েড ইউজার বেড়ে যাচ্ছে এবং সেইসাথে ওয়েব ভার্শন এর পাশাপাশি অ্যাপ ভার্সন এর বিভিন্ন ওয়েবসাইট প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি করছে।

ওয়েবসাইট ভার্শন এর পাশাপাশি এখন মানুষ প্রতিনিয়ত অ্যাপ ভার্সন এর প্রতি বেশি ঝুকে যাচ্ছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বলেন অথবা বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বলেন সকলে তাদের নিজস্ব সফটওয়্যার অথবা মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার মাধ্যমে তাদের গ্রাহক সেবা এবং শিক্ষার্থীদের বেশি সুবিধা দিতে পারবে।

সেজন্য প্রতিনিয়ত মোবাইল অ্যাপের ব্যবহার বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে আজকে আমি আলোচনা করব কিভাবে মোবাইল দিয়ে মোবাইল সফটওয়্যার বানানো যায় ।

সাধারণত আপনি যদি মোবাইল সফটওয়্যার বানাতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে কম্পিউটার ব্যবহার করতে হবে।

সেইসাথে আপনাকে বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানতে হবে।

বিশেষ করে JAVA language অনেক বেশি দরকার পড়ে যখন আপনি কোন ধরনের অ্যাপস বানাতে যাবেন।

সেই সাথে Andoid Studio নামক কম্পিউটার সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হয় এবং এর ব্যবহার সম্পর্কে জানতে হয়।

তবে আমি এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাকে দেখাবো কিভাবে ওয়েবসাইট থেকে মোবাইল সফটওয়্যার বানানো যায়।

তবে আপনি যদি খুব বেশি প্রফেশনাল এবং নিজের মন মত মোবাইল সফটওয়্যার বানাতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানতে হবে।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানার জন্য বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে এবং ইউটিউব এর মাধ্যমে আপনি শিখতে পারবেন।

তবে আপনি যদি মনে করেন যে আমার তো কোন ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানি না। তাহলে কি আমি মোবাইল অ্যাপস তৈরি করতে পারব? তার উত্তরে বলব হ্যাঁ!

অবশ্যই আপনি কোন ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ছাড়াই অ্যাপস বানাতে পারবেন। বর্তমান সময়ে মোবাইল app তৈরি করার বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে।

যেমন ধরেন বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে অ্যাপস রয়েছে যেগুলোর সাহায্যে মোবাইল অ্যাপস বানাতে পারবেন।

কিছু কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে আপনাকে ফি প্রদান করে এপস বানাতে দিবে এবং  কিছু ওয়েবসাইট এবং অ্যাপস রয়েছে।

যেগুলোতে ফ্রিতে আপনি android app বানিয়ে নিতে পারবেন।

এবং সে সকল অ্যাপস বানানোর পর অ্যাপস থেকে এডমোব সহ বিভিন্ন ধরনের এড নেটওয়ার্ক এর এড ব্যবহার করে টাকা আয় করতে পারবেন।

তো আপনি যদি জানতে চান সেই সকল ওয়েবসাইট গুলোর নাম কি?

তাহলে চলুন নিচে আমি কিছু ওয়েবসাইটের নাম দিব যেগুলোর সাহায্যে আপনি ফ্রিতে মোবাইলের জন্য অ্যাপস বানাতে পারবেন।

ফ্রী মোবাইল অ্যাপস তৈরি করে কি লাভ হবে ?

মোবাইল অ্যাপস ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কারণ ব্যবসা, সংস্থা এবং ব্যক্তিরা ডিজিটাল অর্থনীতিতে প্রতিযোগিতামূলক থাকার জন্য প্রযুক্তির সুবিধার দিকে নজর দেয় ৷

একটি মোবাইল অ্যাপ তৈরির প্রথম উল্লেখযোগ্য সুবিধা হল এটি ব্যবহারকারীদের দ্রুত তথ্য অ্যাক্সেস করতে দেয়।

বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান তাদের ব্যবসা পরিচালনা করার জন্য মোবাইলে ব্যবহার করে। যেমন দেখুন bikroy.com, Daraz এবং ই-কমার্স ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য মোবাইল অ্যাপস খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

কেনাকাটা বা ইভেন্ট এবং সংবাদ আপডেট সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তি গ্রহণ করছেন কিনা, ব্যবহারকারীরা তাদের ডিভাইসে ইনস্টল করা একটি অ্যাপের মাধ্যমে  দ্রুত জানতে পারবে।

আপনি খেয়াল করলে দেখবেন যে Google play store বেশিরভাগ অ্যাপসগুলো ফ্রিতে ব্যবহার করা যায় অথবা ডাউনলোড করা যায়।

এবং সেখানে আপনি হাজার হাজার ফ্রী মোবাইল অ্যাপস পেয়ে যাবেন যেগুলো আপনার প্রতিনিয়ত কাজে প্রয়োজন হয়।

আপনি কি মনে করেন যে সকল অ্যাপসের মালিকরা শুধু শুধু অ্যাপ্স বানিয়ে প্লে স্টোরে আপলোড দিয়ে রেখেছে?

কখনই নয়, সবকিছুর করার পেছনে সবারই কিছু স্বার্থ থাকে ঠিক তেমনি সে সকল  মোবাইলের এপ্স এর মালিকরা তাদের লাভের জন্য মোবাইল অ্যাপস বানিয়েছে।

সবথেকে বড় কারণ হলো মোবাইল অ্যাপ্স বানিয়ে প্লে স্টোরে আপলোড দেয়ার পর সে সকল মোবাইল অ্যাপস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারে।

মোবাইল অ্যাপস বানিয়ে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করা অনেক সহজ শুধুমাত্র আপনার মোবাইলে একটি সুন্দর ইন্টারফেস এবং আকর্ষণীয় করতে হবে।

মোবাইল অ্যাপস বানানোর পর প্লে স্টোরে আপলোড করতে হবে এবং তারপর গুগল এডমোব এর বিজ্ঞাপন আপনার মোবাইলে এপ্সে অ্যাপ্রভাল নিতে হবে।

কিভাবে গুগল এডমব দিয়ে টাকা ইনকাম করবেন জানতে Google Admob থেকে আয় এই আর্টিকেল দেখুন।

গুগল এডমোব থেকে অ্যাপ্রভাল নেয়া ছাড়াও আপনি বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন ওয়েবসাইট থেকে এড ব্যবহার করে মোবাইল এপস থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

যারা মোবাইল অ্যাপস বানায় তারা কিভাবে মোবাইল অ্যাপস থেকে টাকা ইনকাম করে যদি জানতে চান তাহলে শুনুন।

তারা তাদের মোবাইলে অ্যাপস এর ভিতর বিভিন্ন ধরনের এড কোড বসিয়ে রাখে।

আপনি যখন কোন মোবাইল অ্যাপস গুগল প্লে স্টোর হোক অথবা অন্য যে কোন ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে ব্যাবহার করবেন।

তখন দেখবেন ব্যবহার করার সময় বিভিন্ন ধরনের এড আসে এবং অ্যাডগুলোতে আপনি যখন ক্লিক করবেন তখন সেই এপসের মালিকরা তাদের অন্য একটি এড একাউন্টে টাকা আয় হয়।

কিভাবে এন্ড্রয়েড এপস তৈরি করা যায় ?

ইতিমধ্যে আপনি জেনে গেছেন যে কিভাবে মোবাইল অ্যাপস বানানো যায় বা মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট আছে কিনা এবং কেন মোবাইল অ্যাপস বানাবেন।

সেই সাথে জেনে গেছেন মোবাইল এপস থেকে আয় করার উপায়

মূলত দুটি উপায়ে মোবাইল অ্যাপস বানানো যায় একটি হলো প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে।

আরেকটি হলো প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার না করে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বানানো।

আজকের আর্টিকেল এর বিষয় হল কিভাবে ফ্রিতে মোবাইল অ্যাপস বানানো যায়। Android app তৈরি করার ফ্রি ওয়েবসাইট কোনটি?

নিচে আমি কিছু ওয়েবসাইটের নাম দিয়ে দিব যেগুলো ব্যবহার করে আপনি মোবাইল এপস বানাতে পারবেন এবং সে সকল অ্যাপস থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

কিভাবে android app বানানো যাবে এই নিয়ে বিস্তারিত ভাবে নিচে কিছু ওয়েবসাইট এর নাম দিয়েছি যে গুলা ব্যবহার করে মোবাইল অ্যাপস বানাতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইট গুলো আপনি কোন রকম টাকা প্রদান করা ছাড়াই ব্যবহার করে নিজের জন্য এবং নানা ধরনের মোবাইল অ্যাপস বানাতে পারবেন।

আপনি চাইলে এই ওয়েবসাইট দ্বারা মোবাইল এন্ড্রয়েড গেম বানাতে পারবেন।

তবে একটি কথা মনে রাখতে হবে যে, এ সকল ওয়েবসাইট থেকে মোবাইল অ্যাপস বানানোর জন্য অবশ্যই আপনার কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ থাকতে হবে।

কেননা আপনি যখন মোবাইল অ্যাপস গুলো বানাবেন তখন নানা প্রকার ফাংশন ফিক্স করতে হবে এবং বিভিন্ন প্রকার আইকন আপলোড করতে হবে।

যেগুলো আপনার সফটওয়্যার ইন্টারফেসের অন্যরকম একটি শুভা দিবে।

সেজন্য আপনি যখন ওয়েবসাইট দ্বারা মোবাইল অ্যাপস বানাতে চাইবেন তখন অবশ্যই কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ ব্যবহার করতে হবে।

এতে করে আপনার মোবাইল অ্যাপস এর কাজ দ্রুত করতে পারবেন এবং অনেক কিছু সুন্দরভাবে শেষ করতে পারবেন।

Android apps তৈরী করার টি ফ্রী ওয়েবসাইট

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশানগুলি তৈরি করা একটি জটিল প্রক্রিয়া ছিল যার জন্য নির্দিষ্ট প্রযুক্তিগত জ্ঞানের প্রয়োজন ছিল ।

কিন্তু প্রযুক্তি এবং সফ্টওয়্যার বিকাশে আজকের বিভিন্ন অগ্রগতির সাথে, যে কেউ এখন একটি Android অ্যাপ তৈরি করতে পারে ৷
এমন অনেকগুলি ফ্রি ওয়েবসাইট রয়েছে যা ব্যবহারকারীদের সামান্য কোন কোডিং এর অভিজ্ঞতা ছাড়াই তাদের নিজস্ব অ্যাপ তৈরি করতে দেয় ।

এরকম কিছু ফ্রি ওয়েবসাইট নাম হচ্ছে হচ্ছে…

 1. Appsgeyser.Com – build unlimited apps

Appsgeyser.Com একটি শক্তিশালী অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যা ব্যবহারকারীদের সহজেই তাদের নিজস্ব মোবাইল অ্যাপস তৈরি এবং পাবলিশ করতে দেয়।

এটি একটি সহজে ব্যবহারযোগ্য ইন্টারফেস প্রদান করে এবং কোন কোডিং জ্ঞানের প্রয়োজন নেই।

ব্যবহারকারীরা কয়েক মিনিটের মধ্যে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করতে পারে, প্রয়োজনীয়তা অনুসারে তাদের কাস্টমাইজ করতে পারে।

এমনকি বিজ্ঞাপন বা সাবস্ক্রিপশনের মাধ্যমে তাদের টাকা আয় করা যেতে পারে।

Appsgeyser.Com -এর মাধ্যমে, ব্যবহারকারীরা বিনামূল্যে সীমাহীন অ্যাপ তৈরি করতে পারে।

তাদের প্রয়োজনীয় বৈশিষ্ট্য বা অ্যাপ ব্যবহার করা লোকের সংখ্যার উপর নির্ভর করে বিভিন্ন মূল্যের অ্যাপসের সাবস্ক্রিপশন যুক্ত করে দিতে পারে।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারকারীদের বেছে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন টেমপ্লেটও অফার করে, যাতে তারা অ্যাপস বানানোর কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই তাদের অ্যাপ তৈরি করতে পারে।

এই প্ল্যাটফর্মে তৈরি সমস্ত অ্যাপ iOS এবং অ্যান্ড্রয়েড উভয় ডিভাইসের সাথেই সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং বৃহত্তর নাগালের জন্য সহজে Google Play Store বা App Store-এ প্রকাশ করতে পারবেন।

 2. Mobincube – create apps and earn

Mobincube.com হল একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যা তাদের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যারা কোনো কোডিং বা ডিজাইন জ্ঞান ছাড়াই তাদের নিজস্ব মোবাইল apps তৈরি করতে চান।

এটি একটি সহজ, ব্যবহারকারী-বান্ধব ইন্টারফেস যা ব্যবহারকারীদের কয়েকটি সহজ ধাপে তাদের অ্যাপ তৈরি করতে দেয়।

Mobincube-এর মাধ্যমে, আপনি স্ক্র্যাচ থেকে iOS এবং Android-এর জন্য অ্যাপ তৈরি করতে পারেন,

বিদ্যমান টেমপ্লেটগুলি কাস্টমাইজ করতে পারবেন। এমনকি নতুন বৈশিষ্ট্য সহ একটি বিদ্যমান অ্যাপ আপডেট করতে পারেন ৷

Mobincube কে অনন্য করে তোলে তা হল এর  বিজ্ঞাপন বৈশিষ্ট্য যা আপনাকে আপনার নিজস্ব অ্যাপ তৈরি করে টাকা উপার্জন করতে দেয়।

আপনি  এডস নেটওয়ার্ক প্রোগ্রামের জন্য সাইন আপ করে ইনকাম করতে পারবেন।

এবং apps গুলির মধ্যে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনগুলির পাশাপাশি ইন-অ্যাপ কেনাকাটা এবং অন্যান্য আয়ের স্ট্রিমগুলির মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

 Mobincube নানা ধরনের টিউটোরিয়ালও প্রদান করে যাতে আপনি কিভাবে বেশ বেশি টাকা ইনকাম করতে পারেন এবং আরো ভালো মোবাইল অ্যাপস বানাতে পারেন।

 3. App.Yet – convert any website to an app

ডিজিটাল প্রযুক্তির বিকাশ অব্যাহত থাকায়, গ্রাহকদের জীবনকে সহজ করে তোলে এমন অ্যাপ্লিকেশনের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

প্রতিনিয়ত মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট বৃদ্ধি পাচ্ছে যাতে মানুষেরা খুব সহজেই তাদের বুদ্ধি খাটিয়ে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে পারে।

App.Yet ব্যবহারকারীদের দ্রুত এবং সহজে যেকোনো ওয়েবসাইট বা ব্লগকে একটি app রূপান্তর করতে পারবেন কয়েক মিনিটের মধ্যে।

অ্যাপটি বানাতে ব্যবহারকারীর পক্ষ থেকে কোন কোডিং জ্ঞানের প্রয়োজন নেই।

যা দরকার তা হল একটি URL, যা কয়েক মিনিটের মধ্যে ওয়েবসাইটি একটি Android এবং iOS সংস্করণ তৈরি করতে পারবে।

আপনার ওয়েবসাইটের প্রতিটি নতুন কিছু আপডেটের সাথে ওয়েবপৃষ্ঠাগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে এপ্সে আপডেট হবে, ব্যবহারকারীদের রিয়েল টাইম তথ্য প্রদান করতে পারবে।

4. Andromo – Mobile App builder for Android and iOS

Andromo.com হল Android এবং iOS এর জন্য একটি শক্তিশালী মোবাইল অ্যাপ নির্মাতা যা ডেভেলপারদের সহজেই অত্যাশ্চর্য অ্যাপ তৈরি করতে দেয়।

একটি স্বজ্ঞাত ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ ইন্টারফেসের সাহায্যে, Andromo যে কেউ তাদের নিজস্ব কাস্টম মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে পারবে।

সমস্ত ব্যবহারকারীর প্রয়োজন একটি কম্পিউটার এবং আশ্চর্যজনক কিছু তৈরি করার ইচ্ছা!

প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারকারীদের সোশ্যাল মিডিয়া ইন্টিগ্রেশন, অ্যানালিটিক্স, পুশ নোটিফিকেশন, ইন-অ্যাপ কেনাকাটা এবং আরও অনেক কিছু করতে পারবেন।

ব্যবহারকারীরা হাজার হাজার টেমপ্লেট এবং থিম থেকেও বেছে নিতে পারেন বা স্ক্র্যাচ থেকে শুরু করতে পারেন যদি তারা পছন্দ করেন।

এছাড়াও, Andromo-এর টুলগুলির অনেক সহজ যা তৈরি করা প্রতিটি অ্যাপের গুণমানের নিশ্চয়তা নিশ্চিত করতে সাহায্য করে।

যাতে আপনি নিশ্চিত থাকতে পারেন যে আপনার কাজ গুলা সর্বদা মোবাইল প্রবণতা এবং প্রযুক্তির সাথে আপ টু ডেট রয়েছে।

5. QuickAppNinja.com: Create Android Games without any Coding!

একটি অ্যান্ড্রয়েড গেম তৈরি করা সহজ ছিল না! বিনামূল্যের অ্যান্ড্রয়েড গেম মেকার প্ল্যাটফর্ম গেম ডেভেলপমেন্টে এর জন্য quickappninja.com.

কোন কোডিং অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই এবং একটি সাধারণ ব্যবহারকারী ইন্টারফেস ছাড়াই, এই প্ল্যাটফর্মটি আপনাকে মাত্র 10 মিনিটের মধ্যে আপনার নিজস্ব অনন্য অ্যান্ড্রয়েড গেম তৈরি করতে দেয়।

এই দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্মটি 2D এবং 3D উভয় গেমকে সমর্থন করে এবং প্রচুর বৈশিষ্ট্য সরবরাহ করে যা আপনার গেমটি কাস্টমাইজ করা সহজ করে তোলে।

আপনি গ্রাফিক্স, সাউন্ড ইফেক্ট, মিউজিক, অ্যানিমেশন যোগ করতে পারেন এবং এমনকি আপনার গেমের লেভেল ডিজাইন করতে পারবেন যা আপনি চান।

একবার আপনি এটি তৈরি করা হয়ে গেলে, আপনি এটিকে Google Play Store-এ প্রকাশ করতে পারবেন যাতে অন্যরা ব্যবহার করতে পারে।

শুধু তাই নয়, বিল্ট-ইন অ্যাড নেটওয়ার্ক সাপোর্টের সাহায্যে আপনি আপনার অ্যাপে প্রদর্শিত যেকোনো বিজ্ঞাপন থেকে  টাকা আয় করতে পারবেন।

6. AppyGEN.Net: Create your own apps & games without coding

আপনার কি একটি গেম বা অ্যাপের জন্য একটি ধারণা আছে, কিন্তু কোন কোডিং অভিজ্ঞতা নেই?

AppyGEN.net সাহায্য করতে এখানে! AppyGEN এর মাধ্যমে, এখন যে কেউ কোডিং জ্ঞান ছাড়াই তাদের নিজস্ব অ্যাপ এবং গেম তৈরি করতে পারে।

AppyGEN একটি সহজে ব্যবহারযোগ্য প্ল্যাটফর্ম যা ব্যবহারকারীদের তাদের নিজস্ব উচ্চ কাস্টমাইজযোগ্য অ্যাপ এবং গেম তৈরি করতে দেয়।

এটির জন্য যা লাগে তা হল কয়েকটি ক্লিক এবং অল্প সময়ের মধ্যেই, আপনি আপনার নিজস্ব অর্থ উপার্জনকারী অ্যাপ বা গেমটি বিশ্বের জন্য প্রস্তুত রাখতে পারেন।

তাদের টেমপ্লেটের লাইব্রেরি কোনো প্রচেষ্টা ছাড়াই আপনার প্রকল্প শুরু করতে সাহায্য করে। AppyGEN তাদের স্বপ্নকে সত্যি করে তোলার জন্য এটিকে অবিশ্বাস্যভাবে সহজ করে তুলেছে।

আপনি আরোও পড়তে পারেন…

AppyGEN অ্যাপ তৈরিকে আগের চেয়ে সহজ করে তোলে। তাদের ইন্টারফেস ব্যবহারকারী বান্ধব, তাই যারা অ্যাপ ডেভেলপমেন্টের সাথে অপরিচিত তারাও এখনই শুরু করতে পারেন।

সৃজনশীল নতুন গেম এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলি দ্রুত সহায়তা করার পাশাপাশি, AppyGEN ব্যবহারকারীদের টিউটোরিয়ালের মাধ্যমে সাহায্য করে।

আমাদের শেষ কথা

আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি জানতে পেরেছেন যে কিভাবে ফ্রিতে মোবাইল অ্যাপস বানাতে হয়। এবং আরোও জানতে পেরেছেন কোন কোন উপায় অবলম্বন করে মোবাইল অ্যাপস বানানো যায়।

আশা করি আজকের পর থেকে আপনার বলবেন না যে কিভাবে মোবাইল সফটওয়্যার বানাতে হয়।

আমি বেশ কিছু মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ওয়েবসাইট নাম দিয়েছি যেখান থেকে আপনি চাইলে যেকোন ধরনের মোবাইল অ্যাপ্স বানিয়ে নিতে পারবেন একদম ফ্রীতে।

সেসকল অ্যাপস এবং গেমগুলো প্লে স্টোরে আপলোড দিতে পারবেন এবং অ্যাড নেটওয়ার্কের মাধ্যমে থেকে খুব সহজেই করতে পারবেন।

এরপর আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকেন যে মোবাইল অ্যাপস বানানোর উপায় কি।

তাহলে বলব যে আর্টিকেলটি আবার পুনরায় পড়ুন এবং কোথাও বুঝতে অসুবিধা হলে নিচে কমেন্ট বক্সে আমাদেরকে জিজ্ঞাসা করুন।

অনলাইন থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় এই নিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে অনেক আর্টিকেল রয়েছে।

আপনি চাইলে অনলাইনে ইনকাম ক্যাটাগরি থেকে খুব সহজেই আপনার ইচ্ছে অনুযায়ী পড়ে নিতে পারেন এবং সে অনুযায়ী কাজ করে ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

2 thoughts on “মোবাইল অ্যাপস তৈরি করার ৬ ওয়েবসাইট । Make android apps from website”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap