ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় (Earn money from youtube shorts)

ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় (Earn money from youtube shorts) আপনারা যারা ইউটিউব শর্টস থেকে আয় করতে চান।

ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় (Earn money from youtube shorts)
ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার উপায়

তাদের একটা কথা বলে রাখি। সেটি হলো, ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করার কাজ টি খুব বেশী কঠিন নয়।

বরং আপনি যদি এই ইউটিউব শর্টস এর মধ্যে কিছু টেকনিক ফলো করেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই এই ধরনের ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবে।

তো ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার টেকনিক গুলো কি কি। এবং এই ধরনের ইউটিউব শর্টস নিয়ে কাজ করলে কি পরিমান টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

আপনি আরোও পড়ুন…

অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় নিয়ে কথা বলব।

আজ সে সম্পর্কে সঠিক ধারণা দেয়ার চেষ্টা করব। তো চলুন ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

YouTube shorts কি ?

What is YouTube shorts in bengali আজকের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে আমি অবশ্যই ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

তবে তার আগে আপনাকে জানতে হবে যে, এই ইউটিউব শর্টস কি। আর যখন আপনি বিষয় টি সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাবেন।

তখন আপনার আজকের পরবর্তী আলোচনা গুলো বুঝতে সুবিধা হবে। তো চলুন সবার শুরুতেই জেনে নেওয়া যাক, ইউটিউব শর্টস কি।

সহজ কথায় বলতে গেলে ইউটিউব শর্টস হল এমন একটি প্লাটফর্ম। যেখানে আপনি অনেক স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও তৈরি করে, সে গুলো ইউটিউব এর মধ্যে আপলোড করে দিতে পারবেন।

কেননা আপনি যদি অতীতের দিন গুলির কথা চিন্তা করে দেখেন। তাহলে লক্ষ্য করতে পারবেন যে, সেই সময়ে ইউটিউব এর মধ্যে অনেক বড় বড়  দৈর্ঘ্যের ভিডিও আপলোড করা হতো।

কিন্তু বর্তমান সময়ে মানুষের শর্ট ভিডিও প্ল্যাটফর্ম এর প্রতি আগ্রহী হয়ে পড়েছে। আর সে কারণে ইউটিউব বিশেষ এই ফিচার টি নিয়ে এসেছে।

যেখানে আপনি একজন ইউটিউব ব্যবহারকারী হিসেবে।  বিভিন্ন ধরনের ছোট ছোট দৈর্ঘ্যের ভিডিও আপলোড করতে পারবেন।

এবং এই ধরনের ভিডিও গুলো তে আপনি খুব অল্প সময়ের মধ্যে দর্শকদের বিভিন্ন মেসেজ দিতে পারবেন।

আর ইউটিউব থেকে বিশেষ এই ফিচার কে বলা হয়ে থাকে, ইউটিউব শর্টস। যা থেকে বর্তমান সময়ে আমরা টাকা ইনকাম করতে পারব।

আর এই টাকা ইনকামের পদ্ধতি গুলো নিয়ে এবার আমি আপনাকে  পরিষ্কার ভাবে ধারণা দিব। চলুন এবার তাহলে How to earn from YouTube short সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

YouTube shorts এর কাজ কি?

ইউটিউব শর্টস কি তা আপনি উপরের আলোচনা থেকে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। তো এবার অনেকের মনে একটি প্রশ্ন জেগে থাকবে।

সেটি হল, ইউটিউব শর্টস এর কাজ কি। আর আপনার মনে যদি এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে আপনাকে নিচের আলোচনায় নজর রাখতে হবে।

কারণ এবার আমি আপনাকে ইউটিউব এর কাজ কি সে বিষয়টি খুব সহজভাবে তুলে ধরবো। চলুন এবার তাহলে সে সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

যদি আপনি ইউটিউব শর্টস এর কাজ কি সে সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আমি আপনাকে বলবো যে, ইউটিউব শর্টস এর মূল কাজ হলো দর্শকদের কাছে খুব স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও প্রদর্শন করা।

কারণ আপনি যদি বর্তমান সময়ে অন্যান্য শর্ট ভিডিও প্লাটফর্ম  গুলোর দিকে লক্ষ্য করেন। যেমন, টিকটক, লাইকি ইত্যাদি।

তাহলে দেখতে পারবেন যে, এই প্ল্যাটফর্ম গুলো তে প্রচুর পরিমাণ দর্শকদের আনাগোনা থাকে।

কারন মানুষ এখন পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ভিডিও দেখার পাশাপাশি শর্ট ভিডিও দেখতে অনেক বেশি আগ্রহী হয়ে পড়েছে।

কারণ এই ধরনের ছোট ছোট দৈর্ঘ্যের ভিডিও গুলো দেখতে দর্শকদের খুব একটা সময় ব্যয় করার প্রয়োজন হয় না।

এর পাশাপাশি এই ছোট ভিডিও গুলো থেকে অল্প সময়ের মধ্যে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা। দর্শকদের নিদৃষ্ট কোনো মেসেজ দিতে পারেন।

আর সে কারণে মানুষ যাতে এই ছোট ছোট ভিডিও গুলো ইউটিউব থেকে দেখতে পারে। সে কারণে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বিশেষ একটি ফিচার চালু করেছে।

এবং ইউটিউব থেকে এই নতুন ফিচারের নাম দেওয়া হয়েছে, ইউটিউব শর্টস। আশা করি, ইউটিউব শর্টস এর কাজ কি তা আপনি উপরের আলোচনা থেকে পরিষ্কার ভাবে জানতে পেরেছেন।

ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করা যায়?

উপরের আলোচনা থেকে আমরা ইউটিউব শর্টস সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ে জানতে পেরেছি। যেমন, শুরুতেই আমরা জেনেছি ইউটিউব শর্টস কি।

এর পাশাপাশি আমি আপনাকে জানিয়ে দিয়েছি, ইউটিউব শর্টস এর কাজ কি। তো  ধারাবাহিক ভাবে এবার আমি আপনাকে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে বলবো।

সেটি হলো, আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন। যারা আসলে জানতে চায় যে, ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করা যায় কি না।

আর আপনার মনে এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে শুনে রাখুন, দেখুন ইউটিউব ইতিহাস এর অনেক আগে থেকে।

মানুষ এই প্লাটফর্ম কে কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকাম করার একটা পথ সৃষ্টি করতে পেরেছিল। কারণ এখন আপনার কাছে যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে।

তাহলে কিন্তু আপনি সেই চ্যানেলের মাধ্যমে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কিন্তু যেহেতু এই ইউটিউব শর্টস নামক ফিচার টি নতুন এসেছে। সেহুতু অনেকের মনে একটি সন্দেহ রয়েছে। সেটি হল, ইউটিউব চ্যানেল থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।

কিন্তু ইউটিউবস শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করা যায় কি না। যদিওবা প্রথম দিকে ইউটিউব থেকে অফিশিয়ালি ভাবে কোন কিছু প্রকাশ করা হয়নি।

কিন্তু পরবর্তী সময়ে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ নিজেই জানিয়েছে। এখন চাইলে একজন কনটেন্ট ক্রিয়েটর ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে আপনি যদি ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে তাদের দেওয়া নিয়ম কানুন মেনে কাজ করতে হবে।

আর আপনি যদি তাদের দেওয়ার রুলস অনুযায়ী কাজ করতে পারেন। তাহলে আপনি ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার উপায়

আপনি যদি একজন কনটেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন। তাহলে আপনাকে ইউটিউব এর সকল নিয়ম অনুসরণ করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে সেই নিয়ম কানুন গুলো নিয়ে পরে আলোচনা করবো। তার আগে আমি আপনাকে ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় জানিয়ে দিবো।

কারন বর্তমান সময়ে আপনি এমন অনেক উপায় অনুসরণ করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আর এবার আমি আপনাকে সেই উপায় গুলো সম্পর্কে ধাপে ধাপে জানিয়ে দিব।

বিজ্ঞাপন দিয়ে ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম 

দেখুন বর্তমান সময়ে যারা ইউটিউব এর মধ্যে কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসাবে কাজ করে। তাদের ইউটিউব ইনকাম এর অধিকাংশ নির্ভর করে বিজ্ঞাপন এর ইনকাম।

কারণ যখন আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকবে। এবং সেই চ্যানেল এর মধ্যে মনিটাইজেশন অন থাকবে।

তখন ইউটিউব কর্তৃপক্ষ আপনার ভিডিও তে বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে। আর যখন দর্শক আপনার ভিডিও দেখার পাশাপাশি ইউটিউব থেকে প্রদান করা সেই বিজ্ঞাপন গুলো দেখবে।

এবং উক্ত বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবে। তখন উক্ত ভিডিও এর মালিক কিছু পরিমাণ রেভিনিউ পাবেন। আর এভাবেই মূলত ইউটিউব এর অধিকাংশ চ্যানেলের মালিক ইনকাম করে থাকে।

তবে এটি হলো ইউটিউব ইনকাম করার অনেক পুরাতন একটি প্রক্রিয়া। তাই আপনি এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এখন ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে আগেকার দিন গুলো তে যেমন একটি ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজ করার জন্য 1000 সাবস্ক্রাইবার এবং 40 হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম এর প্রয়োজন হতো না।

ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যদি আপনার ইউটিউব এর মধ্যে মনিটাইজেশন অন করতে চান। তাহলে কিন্তু আপনাকে বেশ কিছু টার্গেট পূরণ করতে হবে।

যেমন, একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে শর্টস ভিডিও তে মনিটাইজেশন চালু করতে হলে। অবশ্যই সেই চ্যানেলে 1000 সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে।

এর পাশাপাশি আপনি আপনার যে চ্যানেলে ইউটিউব শর্টস ভিডিও আপলোড করবেন। সেই ভিডিও গুলিতে কমপক্ষে 10 মিলিয়ন ভিউ থাকতে হবে।

এবং এই টার্গেট আপনাকে সর্বশেষ 90 দিনের মধ্যে পূরণ করতে হবে। যদি আপনি এই টার্গেট পূরণ করতে পারেন।

তাহলে আপনি আপনার ইউটিউব শর্টস ভিডিও তে মনিটাইজেশন অন করতে পারবেন।

এবং তখন থেকে আপনার ইউটিউব শর্টস ভিডিও তে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে। আর তার বিনিময়ে আপনি ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম

যারা দীর্ঘদিন থেকে ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে কাজ করে। তাদের অধিকাংশ কনটেন্ট ক্রিয়েটর এখন ইউটিউব বিজ্ঞাপন এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার পাশাপাশি।

আরো অন্য উপায়ে অনুসরণ করে টাকা ইনকাম করে। আর তারা একটা কথা বেশ ভালো করেই জানে।

সেটি হলো, অনলাইন থেকে টাকা উপার্জন করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

কারণ ইউটিউব হলো এমন একটি প্লাটফর্ম। যেখানে আপনি একজন কনটেন্ট ক্রিয়েটর হতে পারলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে খুব সহজেই এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন।

আপনি আরোও দেখতে পারেন…

আর অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে কি পরিমাণ টাকা ইনকাম করা সম্ভব। সে সম্পর্কে তো আপনি অনেক আগে থেকেই জানেন।

কারন আপনি এমন অনেক মানুষ কে খুজে পাবেন। যারা মূলত আ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে। নিজের একটা সফল ক্যারিয়ার গড়ে নিতে পেরেছে।

তবে আপনি যদি ইউটিউব শর্টস থেকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করতে চান। তাহলে কিন্তু আপনাকে এমন সব আকর্ষণীয় ইউটিউব শর্টস ভিডিও তৈরি করতে হবে।

যে গুলো দেখে দর্শকদের কাছে অনেক ভালো লাগে। কারণ আপনি যত বেশি দর্শকদের আকৃষ্ট করতে পারবেন। ঠিক তত বেশি মানুষের কাছে আপনার আ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর লিংক প্রচার হবে।

আর এভাবে আপনি যদি অধিক পরিমাণ দর্শকদের টার্গেট করতে পারেন। তাহলে আপনার এফিলিয়েট লিংক থেকে প্রোডাক্ট কিনে নেওয়ার সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।

কিন্তু আপনি যদি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে চান।

তাহলে অবশ্যই আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে বৃহৎ অডিয়েন্স তৈরি করার চেষ্টা করবেন। এবং সেই অডিয়েন্সের যেন আপনার প্রতি বিশ্বাস রাখতে পারে। সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাবেন।

আর এভাবে যখন আপনি আপনার অডিয়েন্স এর আকার বৃহৎ করতে পারবেন।

ঠিক তখনই আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা শর্টস ভিডিও থেকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে  টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

স্পন্সর করে ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম

ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার আরো একটি উপায় রয়েছে। সেটি হল, স্পনসর্শিপ। মূলত আপনার যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে।

এবং আপনি যদি সেই চ্যানেলের মধ্যে ইউটিউব ছোট ছোট ভিডিও আপলোড করেন। তাহলে কিন্তু আপনি এই ছোট ছোট ভিডিও আপলোড করার বিনিময়ে।

প্রচুর পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কারণ যখন আপনি আপনার ইউটিউব এর মধ্যে আপলোড করা ছোট ছোট ভিডিও গুলো. লক্ষ লক্ষ মানুষের নিকট পৌঁছাতে পারবেন।

তখন অনেক কোম্পানি আপনাকে তাদের প্রোডাক্ট এর স্পন্সর করার জন্য অফার করবে। আর আপনি জানলে অবাক হয়ে যাবেন।

কারণ যখন আপনার একটি জনপ্রিয় ছোট ভিডিও আপলোড করার ইউটিউব চ্যানেল থাকবে।

তখন এই ছোট ভিডিও গুলোতে অন্যান্য কোম্পানির স্পন্সর করার বিনিময়ে। আপনি অনেক বেশি টাকা উপার্জন করার সুযোগ পাবেন। 

ইউটিউব ফান্ড থেকে টাকা ইনকাম

দেখুন,যখন আপনার ইউটিউব শর্টস ভিডিও তে 100 মিলিয়ন এর বেশি ভিউ আসবে। তখন কিন্তু আপনাকে ইউটিউব এর পক্ষ থেকে বিশেষ এক ধরনের বোনাস দেওয়া হবে।

কিন্তু এই বোনাস এর পরিমাণ কতটা হবে সেটা আসলে আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। কারণ বর্তমান সময়ে এমন অনেক ইউটিউবার আছেন।

যারা মূলত তাদের ইউটিউবে আপলোড করা ছোট ছোট ভিডিও এর মাধ্যমে। 100 ডলার থেকে শুরু করে 200 ডলার পর্যন্ত বোনাস পেয়েছে।

আর একটা কথা বলে রাখা ভালো যে আপনি যদি এই ধরনের ইউটিউব ফান্ড থেকে টাকা ইনকাম করতে চান। তাহলে কিন্তু অবশ্যই আপনার এই ধরনের ভিডিও গুলোর ভিউ অনেক ভালো হতে হবে।

কারণ ইউটিউব থেকে যদি দেখে যে আপনার আপলোড করা ভিডিও গুলো দর্শকদের কাছে অনেক বেশি আর্ষণীয় মনে হচ্ছে।

তাহলে কিন্তু আপনার এই বোনাস এর পরিমাণ অনেক বেশি হবে। 

ইউটিউব শর্টস থেকে আয় করার নিয়ম

আপনি যদি উপরের আলোচনা গুলো মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন। তাহলে আমার দীর্ঘ বিশ্বাস যে, এতক্ষণে আপনি ইউটিউব শর্টস থেকে আয় করার উপায় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

কারণ আমি যথেষ্ট চেষ্টা করেছি, উপরের আলোচনার মাধ্যমে। YouTube short থেকে আয় করার উপায় গুলো কে তুলে ধরার।

তো এবার আমি আপনাকে ইউটিউব থেকে আয় করার নিয়ম গুলো সম্পর্কে বলবো। অর্থাৎ এমন কোন নিয়ম রয়েছে।

যে গুলো অনুসরণ করে ইউটিউব শর্টস নিয়ে কাজ করতে হবে। চলুন. এবার সে সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

শর্টস ভিডিও রেভিনিউঃ যখন আপনি ইউটিউব শর্টস ভিডিও নিয়ে কাজ করবেন। এবং youtube-এর দেওয়া সকল গাইডলাইন ফলো করবেন।

তখন ইউটিউব কর্তৃপক্ষ আপনার ভিডিও তে মনিটাইজেশন অন করবে। এবং তারপর আপনার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখার বিনিময়ে 45 শতাংশ রেভিনিউ দেওয়া হবে।

মনিটাইজেশন রুলসঃ আপনি যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে শর্টস ভিডিও তে মনিটাইজেশন অন করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনার সেই ইউটিউব চ্যানেলে ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে।

এর পাশাপাশি আপনার আপলোড করা স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও গুলো তে। সর্বশেষ 90 দিনের মধ্যে 10 মিলিয়ন বৈধ ভিডিও ভিউ থাকতে হবে। 

নিজস্ব কন্টেন্ট হতে হবেঃ দেখুন আপনি যদি ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনার নিজস্ব কনটেন্ট থাকতে হবে।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

অর্থাৎ আপনি যদি অন্যের ভিডিও ইউটিউব শর্টস এর মধ্যে আপলোড করেন। তাহলে কিন্তু আপনি কোনো ভাবেই ইউটিউব শর্টস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। 

ইউটিউব শর্টস ইনকাম নিয়ে আমাদের শেষকথা 

আজকের এই গুরুত্বপূর্ন আলোচনায় আমি আপনাকে ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করার নতুন উপায় গুলো জানিয়ে দিয়েছি।

আশা করি, আপনি কিভাবে ইউটিউব শর্টস থেকে ইনকাম করা যাবে। সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে পেরেছেন।

আর আপনি যদি এই ধরনের অনলাইন ইনকাম রিলেটেড নতুন নতুন তথ্য জানতে চান। তাহলে আমাদের সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ্। 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap