ইউএসবি কি ? | usb এর পূর্ণরূপ কি ? | ইউএসবি এর কাজ কি বিস্তারির দেখুন

ইউএসবি (USB) যার পূর্নরুপ হলো, Universal Serial Bus. যার ব্যবহার প্রায় প্রত্যেকটি কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোনে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ইউএসবি কি ? | usb এর পূর্ণরূপ কি ? | ইউএসবি এর কাজ কি
ইউএসবি কি ? usb এর পূর্ণরূপ কি

কেননা, USB এর মাধ্যমে একটি ডিভাইসের সাথে অন্য কোনো ডিভাইস এর সংযোগ স্থাপন করা হয়ে থাকে। তবে শুধুমাত্র যোগাযোগ স্থাপনের মধ্যেই ইউএসবি এর ব্যবহার সীমাবদ্ধ নয়।

বরং আরও বিভিন্ন কাজে USB এর ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

কিন্তুু এখনও এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা সঠিকভাবে জানেনা যে, ইউএসবি কি, USB এর পূর্ণরুপ কি, আর কি কারনে ইউএসবি এর ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

কিন্তুু এখনও যদি আপনি না জানেন, ইউএসবি কি  . তাহলে আপনার অনেক কিছুই অজানা থেকে যাবে। আর সে কারনেই মূলত আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে।

কেননা, আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল থেকে আপনি ইউএসবি সম্পর্কিত সমস্ত বিষয়ে ধারনা পেয়ে যাবেন। আর যদি আপনি USB সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান।

তবে আজকের পুরো লেখাটি মন দিয়ে পড়ুন।

আপনি আরো পড়তে পারেন…

আশা করা যায়, আজকের পর থেকে আপনার মনে ইউএসবি রিলেটেড কোনো অজানা বিষয় থাকবে না। তো চলুন সরাসরি মূল টপিকে ফিরে যাওয়া যাক। 

ইউএসবি কি? (What is USB in Bangla)

ইউএসবি সম্পর্কে আপনি অবশ্যই বিস্তারিত জানবেন। তবে সবার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে। USB আসলে কাকে বলে।

কেননা, যখন আপনি এ বিষয়ে জানতে পারবেন। তখন আপনার পরবর্তী আলোচনা গুলো বুঝতে সুবিধা হবে। তো এবার চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক, USB কাকে বলে।

সহজ ভাষায়, ইউএসবি হলো একটি Plug & Play Interface.

যার সাহায্য কোনো একটি কম্পিউটার ডিভাইস এর বিভিন্ন কম্পোনেন্ট গুলো কে আলাদা আলাদা ভাবে প্যারাল্যাল পদ্ধতিতে যোগযোগ স্থাপন করে থাকে।

তবে আপনি যদি USB কে ব্যবহার করতে চান। তবে অবশ্যই আপনার নিকট এক বা একাধিক কম্পিউটার ল্যাপটপ অথবা USB Supported একটি মোবাইল ফোন থাকতে হবে। 

USB এর পূর্ণরূপ কি – USB Full Form in Bengali 

উপরের অংশে আপনি জানতে পারলেন যে, ইউএসবি কি . তো এই usb শব্দটি হলো এক প্রকার সংক্ষিপ্ত রুপ।

অর্থ্যাৎ, এই শব্দের একটি পূর্নরুপ আছে। কিন্তুু আমাদের মধ্যে অনেক মানুষ আছেন। যারা প্রতিনিয়ত এই শব্দটির ব্যবহার করে। অথচ এই USB full meaning টা জানেনা ৷

চলুন এবার সে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

 সহজ ভাষায় বলতে গেলে USB এর পূর্নরুপ হলো Universal Serial Bus (ইউনিভার্সাল সিরিয়াল বাস).

তবে শুধু পূর্ণরুপ জানলেই হবেনা। বরং এই USB এর পূর্নরুপ যে অর্থকে নির্দেশ করে ৷ সেটিও আপনাকে বুঝে নিতে হবে। তাহলে এ বিষয়ে আপনি একটা ক্লিয়ার ধারনা পেয়ে যাবেন।

আপনি জানলে অবাক হয়ে যাবেন। কারন, আজকের দিনে ইউনিভার্সাল সিরিয়াল বাস অনেক বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে ৷

কেননা, আপনি USB Port অথবা USB Cable এর মাধ্যমে। কোনো কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল কিংবা নোটবুক এর সাথে হার্ডওয়্যার এর মধ্যে সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব। 

Usb (ইউএসবি) এর কাজ কি?

আর্টিকেলের শুরু থেকে এখন অবধি আপনি ইউএসবি এর নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যেমন, শুরুতে আপনি জেনেছেন যে, ইউএসবি কাকে বলে

এরপর আপনি জেনেছেন যে, USB এর পূর্ণরুপ কি। তো এই বিষয় গুলো জানার পাশাপাশি আপনাকে আরও একটি বিষয়ে ধারনা রাখতে হবে ৷

সেটি হলো, এই USB এর কাজ কি। তো চলুন এবার সে সম্পর্কে ধারনা নেয়া যাক।

যদি আপনি একান্তভাবে জানতে চান যে, usb এর কাজ কি

তাহলে আমি বলবো যে, ইউএসবি এর মূল কাজ হলো,

কোনো একটি ডিভাইস কে অন্য একটি ডিভাইস কিংবা ঐ ডিভাইসের অভ্যান্তরীন হার্ডওয়্যার গুলোর সাথে সংযোগ স্থাপন করার জন্য USB বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

যেমন, আপনার কাছে একটি মোবাইল ফোন এবং একটি কম্পিউটার আছে ৷ এখন আপনি চাইলে আপনার এই দুই ডিভাইস এর মধ্যে ভিন্নভাবে সংযোগ স্থাপন করতে পারবেন।

তবে এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে অন্যতম মাধ্যম হলো ইউএসবি। কেননা, এগুলোর মাধ্যমে শুধমাত্র  আলাদা কোনো ডিভাইস নয়।

বরং এর পাশাপাশি আপনি হার্ডওয়্যার গুলোর মধ্যেও যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবেন ।

কেন usb পোর্ট ব্যবহার করা হয়?

ইউএসবি এর কাজ কি ? আশা করি উপরের আলোচনা থেকে পরিস্কার ভাবে বুঝতে পেরেছেন। কিন্তুু এখন যদি আপনাকে প্রশ্ন করা হয়।

যে, কেন usb পোর্ট ব্যবহার করা হয়। তাহলে কি এর উত্তর  দিতে পারবেন? – থাক, এর উত্তর আপনাকে দিতে হবে না। বরং আমি নিজেই এর উত্তরটা দিচ্ছি। 

অবাক করার মতো বিষয় হলো, USB Port কে বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ফোনের চার্জিং থেকে শুরু করে একটি ডিভাইস এর হার্ডওয়্যার এর মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনের কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আর অতীতের দিন গুলোর তুলনায়। এখনকার দিনে ব্যাপক হারে USB এর ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে।

কেননা, এখন অনেক কাজে ইউএসবি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যেমন, আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার করা Printer, Mouse, Keyboard, Flash Drive, Camera, External hard drive Joystick ইত্যাদি।

তো এইসব গুলো ক্ষেত্রে মূলত ইউএসবি এর ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

তাছাড়া আজকের দিনে ইউএসবি এর ব্যবহার এতোটাই সহজ হয়ে দাড়িয়েছে। যে কারনে এখন বিভিন্ন রকমের ইলেকট্রনিকস ডিভাইস যেমন, Gaming Device, Audio কিংবা Video ডিভাইস গুলোতেও।

ইউএসবি কানেক্ট করার সুবিধা দেয়া থাকে। এর বাইরেও Smartphone, E-Book readers, Notebook এর মধ্যেও ইউএসবি এর ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

USB এর বিভিন্ন ভার্সন গুলো কি কি? 

বর্তমান সময়ে Different kind of usb version আছে। তবে সবগুলো ভার্সনের মধ্যে একবারে আপডেট ভার্স হলো USB Version 3.1 যা একেবারে নতুন এসেছে।

কিন্তুু এই নতুন ভার্সন আসার আগেও অনেক গুলো ইউএসবি ভার্সন ছিলো৷ এবার সেই সবগুলো ভার্সন নিয়ে কথা বলবো। যেন আপনার বুঝতে সুবিধা হয়।

তো চলুন এবার ইউএসবি এর সকল ভার্সন গুলো সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক। 

০১| USB 1.1

শুরুতেই আপনার জেনে রাখা উচিত। যে ইউএসবি এর ভার্সন গুলো মূলত এদের Data Transmission Rate এর উপর নির্ভর করে থাকে।

যেমন, যেসব ইউএসবি এর ডাটা ট্রান্সমিশন রেট সর্বোচ্চ 12Mbps. সেই USB গুলোকে 1.1 Version হিসেবে ধরা হয়। আর এই ভার্সনকে বলা হয়, Full Speed usb.  

আপনার জন্য আরো লেখা…

০২| USB 1.2 

আপনি যদি ইউএসবি এর 1.1 Version টি ব্যবহার না করে USB Version 1.2 ব্যবহার করেন। তবে আপনি এখানে আরও বেশি পরিমানে ট্রান্সমিশন রেট দেখতে পারবেন।

কারন, এই ভার্সনে আপনি সর্বোচ্চ 480Mbps পর্যন্ত ডাটা Transmission Rate পাবেন। যার কারনে একে বলা হয়, High Speed usb. 

০৩| USB 3.0

এই ভার্সনের ইউএসবি গুলোকে বলা হয়, Super Speed usb. কারন, অন্যান্য ভার্সনের তুলনায় এই ভার্সনে অনেক বেশি পরিমানে ট্রান্সমিশন রেট দেখতে পারবেন ৷

যেমন, 1.1 এবং 1.2 তে আপনি 480Mbps পর্যন্ত সর্বোচ্চ রেট দেখতে পারবেন। কিন্তুু USB Version 3.0 তে আপনি সর্বোচ্চ Transmission Rate পাবেন 5GBps.

যা 5,120 Mbps এর সমান। আর এ কারনেই এই ইউএসবি ভার্সন কে বলা হয়, Super Speed USB.  

০৩| USB 3.1

বর্তমান সময় পর্যন্ত (২০২২) ইউএসবি এর সর্বশেষ ভার্সন টি হলো, 3.1 কেননা, এই ভার্সনটি একেবারে নতুন এসেছে।

এবং ইউএসবি এর সর্বশেষ এই নতুন ভার্সনকে Super Speed+ ও বলা হয়ে থাকে।

কারন, এই ধরনের ইউএসবি গুলোর মাধ্যমে অনেক দ্রুত গতি সম্পন্ন ডাটা ট্রান্সমিশন রেট পাওয়া যায়।

কেননা, USB 3.1 Version এর সাহায্য আপনি 10GBps পর্যন্ত Transmission Rate পাবেন। যা একেবারে (10,240Mbps) এর সমান।

কিন্তুু ইউএসবি এর অনেক গুলো ভার্সন থাকার পরেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে USB 2.0 এবং USB 3.0 এর ভার্সন গুলো অধিক ব্যবহার করা হয়।

এবং আমরা সবাই সচারাচর কম্পিউটার কিংবা মোবাইল এর জন্য যেসব USB ব্যবহার করি। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ সময় USB 2.0 এবং USB 3.0 ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

ইউএসবি কত প্রকার?

উপরের আলোচনা থেকে আপনি Usb এর সকল ভার্সন গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। কিন্তুু জানার বিষয় হলো যে, বর্তমানে কিন্তুু অনেক প্রকারের ইউএসবি রয়েছে ৷

বং আপনি যত প্রকারের usb দেখতে পারবেন। সেগুলোর কিন্তুু আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্য আছে। কিন্তুু এখনও এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা এখনও সেই বৈশিষ্ট্য গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানেনা।

তো আপনি যদি সংক্ষিপ্ত আকারে ইউএসবি কত প্রকার তা জানতে চান। তাহলে বলবো, আপনি বিভিন্ন প্রকারের usb দেখতে পারবেন। যেমনঃ

  1. USB Type C
  2. USB Type A
  3. USB Type B
  4. USB Micro-A
  5. USB Micro-B
  6. USB Mini-A
  7. USB Mini-B

এখন আপনি যদি এই প্রকারভেদ গুলো জেনেই চলে যান। তবে বলবো যে, আপনার জানার পরিমানটা অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। কারন এই বিভিন্ন প্রকারের usb গুলোর ভিন্ন ভিন্ন বৈশিষ্ট্য আছে।

আর এবার সেগুলো নিয়ে একবারে বিষদ ভাবে আলোচনা করবো। আর আপনি যদি সেগুলো সম্পর্কে জানতে চান। তবে নিচের আলোচিত বিষয় গুলো একটু মন দিয়ে পড়ুন। 

USB Connectors এর প্রকার | Type of usb connector 

বর্তমান সময়ে আপনি Different type of usb connector দেখতে পারবেন। কেননা, একেকটি ইউএসবি কানেক্টর এর একেক রকম কাজ রয়েছে।

আর সেই কাজের উপর নির্ভর করে আমরা ভিন্ন ভিন্ন usb connector ব্যবহার করে থাকি।

এবার আমি কাজের দিক এবং ব্যবহারগত দিক থেকে প্রতিটা ইউএসবি কানেক্টর কে আলাদা আলাদা করে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

যেন আপনার বুঝতে কোনো রকম অসুবিধা না হয়। তো চলুন এবার সে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

০১| USB Type A

অনেক সময় বিভিন্ন usb connector গুলোকে ইউএসবি স্ট্যান্ডার্ড A বলা হয়। আর অন্যান্য কানেক্টর গুলোর মতো Type A এর ব্যবহার সর্বাধিক পরিমানে লক্ষ্য করা যায়।

আর এই ধরনের কানেক্টর গুলো দেখতে কিছুটা আয়তক্ষেত্র এর মতো হয়ে থাকে।

আর USB Type A এর আওতায় আপনি আরও বেশ কিছু ভার্সন দেখতে পারবেন। যেমন, USB-1.1, USB-2.0 এবং USB-3.0 ইত্যাদি।

০২| USB Type B

সহজভাবে বলতে গেলে, এই ধরনের ইউএসবি গুলোকে Standard Type B বলা হয়ে থাকে। এই ধরনের কানেক্টর গুলো দেখতে কিছুটা বর্গাকার হয়ে থাকে।

তবে এর মধ্যে কিছু Extra Notch থাকে। যা মূলত USB Version 3.0 এর অন্তর্ভুক্ত। এগুলো ছাড়াও আরও কিছু ভার্সন আছে। যেমন, USB 1.1 Type-B, USB-2.0 Type-B এর সাথে ফিজিক্যালি কম্পেটিবল। 

০৩| USB Micro-A

এই ধরনের ইউএসবি গুলো দেখতে কিছুটা দুইটি আয়ত ক্ষেত্রের মিশ্রনের মতো। যেখানে একটি অন্যটির থেকে কিছুটা বড় হয়ে থাকে।

USB 3.0 Micro-A প্লাগ গুলো মূলত USB 3.0 Micro AB এর সাথে কম্পেটেবল হয়ে থাকে। তাছাড়া USB 2.0 Micro- A প্লাগ গুলি আকারের দিক থেকে অনেক ছোটো হয়ে থাকে। 

০৪| USB Micro-B

USB 3.0 Micro-A এর মতোই দেখতে আরেকটি প্লাগ এর নাম হলো USB 3.0 Micro-B Plug এর মতো। আর এটি এমনভাবে সাজানো হয়ে থাকে ৷

যার কারনে Connected এবং Plug গুলোকে আলাদা আলাদা ভাবে প্রদর্শিত হয়ে থাকে। USB 3.0 Micro-B এর প্লাগ গুলো USB 3.0 Micro-B এবং USB 3.0 Micro-AB এর সাথে সরাসরি কম্পেটিবল। 

০৫| USB Mini-A

সচারাচর আপনি যেসব USB Mini-A Plug গুলো দেখতে পারবেন। সেগুলো মূলত আয়তক্ষেত্র এর মতো হয়ে থাকে।

এবং এর একপাশ কিছুটা গোলাকার হয়ে থাকে।

তবে এই ধরনের ইউএসবি গুলোতে কোনো প্রকার USB 3.0 Mini-A এর কানেক্টর থাকেনা। তবে এগুলো মূলত USB Mini -AB এর সাথে কম্পেটিবল। 

০৬| USB Mini-B

আজকের দিনে যেসব USB Mini-B দেখতে পাওয়া যায়। সেগুলো দেখতে কিছুটা আয়তক্ষেত্র এর মতো হয়ে থাকে।

তবে এর মধ্যে আপনি কোনো প্রকার USB 3.0 Mini-B কানেক্টর এর অস্তিত্ব খুজে পাবেন না ৷

কিন্তুু USB 2.0 Mini B Plug গুলো মূলত USB 2.0 Mini B এবং Mini AB এই দুটোর সাথেই কম্পেটিবল। 

০৭| USB Type C

আপনার একটা বিষয় জেনে রাখা উচিত। সেটি হলো আজকের দিনে আমরা যেসব এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করি। সেগুলোর চার্জিং পোর্টে যে usb গুলো ব্যবহার করা হয়।

সেগুলোর বেশিরভাগই এখন USB Type C ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আর শুধুমাএ স্মার্টফোনেই নয় বরং এখন অনেক কাজের ক্ষেত্রে  এই ধরনের Type C usb ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

Usb type c এর কাজ কি?

বর্তমান সময়ে আপনি বেশিরভাগ সময় Type C নামক নতুন এই ইউএসবি সম্পর্কে জানতে পারবেন। যা অন্যান্য সকল usb গুলোর মতো হলেও।

কাজের দিক থেকে আপনি কিছুটা ভিন্নতা খুজে পাবেন। আর সে কারনে আমি এই ইউএসবি সম্পর্কে একটু আলাদা ভাবে বর্ননা করবো।

মূলত আপনি বাজারে যেসব দামী ফোন যেমন, অ্যাপল, স্যামসাং ইত্যাদি। এই ফোন গুলোতে এই ধরনের Type C ইউএসবি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

এর পোর্টগুলো দুপাশে কিছুটা গোলাকার এবং মাঝখানে কিছুটা চওড়া হয়ে থাকে। যার সাহায্য আপনি মোবাইলের চার্জিং সুবিধা থেকে শুরু করে Data Transfer পর্যন্ত।

প্রায় সকল কাজ অনায়াসেই করতে পারবেন ৷

ইউএসবি এর জানা অজানা বিষয় | Know about USB

এবার আমি আপনাকে সেইসব প্রশ্নের উওর দেয়ার চেস্টা করবো। যেগুলোর অনেক মানুষ প্রতিনিয়ত গুগলে সার্চ করে। কিন্তুু এই প্রশ্ন গুলোর সঠিক উওর বাংলা ভাষার ব্লগ গুলোতে তেমন পরিস্কার ভাবে বলা হয়নি।

তাই এবার আমি সেগুলোর সংক্ষিপ্ত রুপে আলোচনা করবো। যেন, এইসব উওর জানার জন্য আপনাকে আর অন্য ওয়েব সাইটে যেতে না হয়। 

০১| Usb type c এর কাজ কি?

 উত্তরঃ বর্তমান সময়ের এন্ড্রয়েড ফোন গুলোতে এই ধরনের USB Type C ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যেখানে আপনি ফোনের চার্জিং সুবিধা থেকে শুরু করে দ্রুত ডাটা Transfer করতে পারবেন।

কেননা, Type C নামক USB গুলো অধিক পরিমানে শক্তিশালী হয়ে থাকে। 

০২| ইউএসবি টাইপ সি কি? 

 উত্তরঃ ইউএসবি টাইপ সি, হলো একটি শক্তিশালী USB Plug.

যার সাহায্য আপনি অনেক কম সময়ের মধ্যে অধিক ডাটা ট্রান্সফার করতে পারবেন।

এবং যেসব মোবাইল ফোনের চার্জারে এই ধরনের টাইপ সি ইউএসবি ব্যবহার করা হয়। সেগুলোও অনেক পাওয়ারফুল হয়ে থাকে। 

০৩| Usb এর কাজ কি?

 উত্তরঃ যখন কোনো একটি ডিভাইস এর সাথে অন্য কোনো ডিভাইস এর মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করার দরকার হয়। তখন এই USB বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

এছাড়াও কোনো একটি নির্দিষ্ট ডিভাইস এর ভেতরে থাকা হার্ডওয়্যার এর সাথে সংযোগ স্থাপনেও ইউএসবি এর ভূমিকা অপরিসীম। 

আমাদের শেষকথা 

ইউএসবি কি এবং usb এর পূর্নরুপ কি। এ বিষয় গুলো নিয়ে আজকে আমি স্টেপ বাই বুঝিয়ে দেয়ার চেস্টা করেছি।

আপনি যদি আজকের এই পুরো লেখাটি মন দিয়ে পড়ে থাকেন। তাহলে আমার বিশ্বাস আপনার মনে আর ইউএসবি নিয়ে কোনো প্রশ্নের অবকাশ থাকবে না।

আপনি আরো দেখতে পারেন…

তবে এরপরও যদি আপনার মনের কোনো USB নিয়ে কোনো প্রশ্ন উঁকিঝুঁকি মারে। তাহলে আপনার জন্য নিচে কমেন্ট বক্স উন্মুক্ত আছে।

সেখানে কমেন্ট করে জানিয়ে দিন আর Banglaitblog আপনার মতো মানুষের জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

আপনাদের অজানা বিষয় গুলো কে এই ব্লগের মাধ্যমে জানিয়ে দিচ্ছে। তাই আপনাদের ভালোবাসা এবং সাপোর্ট অতি গুরুত্বপূর্ণ। সেজন্য আমাদের সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ। 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

HandsUp! কপি করা যাবে না বস!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap