পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কি ? কিভাবে পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করবেন ?

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কিঃ বর্তমান আধুনিক যুগে ব্যবসায়ের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি প্ল্যাটফর্ম। যার মাধ্যমে নিজের ব্যবসার খারাপ ভালো যেমন বোঝা যায় তেমনি বাজারে কি ধরনের পন্যের চাহিদা তা বোঝা যায়।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম দিয়ে নিজের পন্যের বাজার চাহিদা সম্পর্কে ধারনা হয় এবং ক্রেতা সে পন্য কিভাবে নিচ্ছে বা নিজের পন্যের কতটা উন্নত করা যায় সে সম্পর্কে একটা ধারনা পাওয়া যায়।

পিন্টারেস্ট কি? Pinterest মার্কেটিং কি
Pinterest মার্কেটিং কি

তাছাড়া বর্তমান সময়ে ব্যবসা করতে হলে আধুনিকায়ন বিষয়টা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ব্যবসার উন্নতির জন্য বর্তমান সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেশ সহায়ক। সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ব্যবসাকে নতুন এক উন্নতির শিখরে নিয়ে গিয়েছে। যার মাধ্যমে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষ ব্যবসা করছেন এবং সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব উপলব্ধি করছেন।

স্যোশাল মিডিয়ার একটি স্থান হল পিন্টারেস্ট। আজ আমরা জানব কিভাবে পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করতে পারবেন বা কেন Pintarest Marketing করবেন। তাহলে চলুন জেনে নেই Pinterest মার্কেটিং কিভাবে আপনাকে সাহায্য করবে।

পিন্টারেস্ট কি? (Pintarest কি?)

Pinterest একটি সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম যেখানে ব্যবহারকারীরা তাদের পন্য, ব্যবসায়ীক কার্ড, বা বিনোদনমূলক ভিজ্যুয়াল সামগ্রী সবার সাথে শেয়ার করে।

আপনি Pinterest ব্যবহারকারী হয়ে থাকলে আপনার নির্বাচিত পণ্য বা সাইট কে  একটি সাধারণ থিম সহ বোর্ড অনুযায়ী সংযুক্ত করে পিন করতে পারবেন। যাতে অন্যান্য ব্যবহারকারীরা তাদের আগ্রহের বিষয়গুলো আপনার বোর্ড বা পিন থেকে পেয়ে যায়।

আরো পড়ুন…

আপনি যদি এখনও Pinterest অ্যাকাউন্টটি না খোলেন, তবে এখনই সময় এটি ব্যবহার করার। একবার আপনি সাইন আপ করার পরে, আপনি নিজের পন্য যেকোন ভাবে শেয়ার করতে পারবেন। যার জন্য এটি একটি জনপ্রিয় সামাজিক প্ল্যাটফর্ম।

প্ল্যাটফর্মটিতে নিজের পন্য প্রচার করতে, আপনার কম্পিউটার বা মোবাইল ডিভাইস থেকে আপনার ব্যবসায়ের পন্য ছবি বা ভিডিও আপলোড করুন, প্ল্যাটফর্মটিতে আপনি পিন করতে পারবেন যেকোন পন্য এবং পিন্টারেস্ট ব্রাউজার বোতামটি ব্যবহার করে ওয়েবে আপনার পণ্যের সম্পর্কে নোটিফিকেশন পাবেন।

সবচেয়ে ভালো প্রচারের সিস্টেম হল আপনার বন্ধু এবং প্রতিযোগীদের বোর্ডগুলি অনুসরণ করুন। লাইক করুন এবং অন্যের পিনগুলিতে মন্তব্য করুন। পুনরায় পিন করুন (বা পুনরায় পোস্ট করুন) পন্য বা সেবা এবং আপনার পিন গুলিতে আপনার ওয়েবসাইট এবং ব্লগের লিঙ্কগুলি যোগ করুন এবং সবার সাথে শেয়ার করুন।

Pinterest এ ব্যক্তিগত এবং ব্যবসায়িক অ্যাকাউন্ট রয়েছে তা সম্পর্কে জানা জরুরী। একটি ব্যবসায়িক অ্যাকাউন্ট তৈরি আপনাকে পিন্টেস্ট অ্যানালিটিক্স এবং ভিজ্যুয়াল বিষয়গুলো অনুসন্ধান করতে সাহায্য করবে।

আপনি যদি একটি নেটিভ ভিডিও প্লেয়ার তৈরি করেন তবে পিন্টারেস্ট বিজ্ঞাপন গুলি চালানোর ক্ষমতা সহ অন্যান্য বৈশিষ্ট্য গুলিতে অ্যাক্সেস পাওয়ার অনুমতি আপনাকে দেবে।

মার্কেটারদের জন্য Pinterest প্ল্যাটফর্ম সবচেয়ে কার্যকরী করে তোলে। এখন, আপনাকে আপনার ভিজিটরদের উপর কিছু পিন্টারেস্ট কৌশল অবলম্বন করতে হবে। 

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং কি?

Pinterest মার্কেটিং আপনার ব্যবসায়ের প্রচার করতে যত ধরনের কৌশল ব্যবহার করতে হয় তার একটি অংশ। পিন্টারেস্ট মার্কেটিং শুধুমাত্র ব্লগারদের জন্য নয়, পিন্টারেস্ট ব্যবসায়ের জন্যও যা ব্যবসায়ের কাস্টোমারদের ভিজ্যুয়াল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে আগ্রহী করে। Pinterest একটি ব্যবসা, সাইট, ব্লগ, পেজ যেকোন কিছুওকে প্রচার করতে সর্বোচ্চ সহায়তা করে থাকে।

কেন পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করব?

আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে বা কোন ব্লগ পেজ আছে। যেখানে অনেক ধরনের ভিজিটর আসে কিন্তু আপনি চাচ্ছেন আরও বেশি ভিজিটর যেন আপনার কাজ সম্পর্কে জানে। বাইরের দেশের মানুষ যেন আপনার পন্য সম্পর্কে বা সাইট সম্পর্কে জানে।

তার জন্য আপনাকে করতে হবে Pinterewharst Marketing যা করার ফলে খুব দ্রুত প্রচার করা সম্ভব এবং পিন্টারেস্টে লক্ষ লক্ষ মানুষের এক সম্ভার। যেখানে পণ্যের বা সাইটের প্রচার করা খুব সহজ।

কিভাবে পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করবেন ?

Pintaest Marketing করা খুব সহজ। বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় Marketing করার প্ল্যাটফর্ম হল পিন্টারেস্ট। তাই আপনাকে আগে জানতে হবে কিভাবে মার্কেটিং করা হয় এবং কোন বিষয়গুলোতে গুরুত্ব দিতে হয়। আমাদের এই সম্পূর্ন আর্টিকেলে আপনি পেয়ে যাবেন ফুল গাইডলাইন।

আপনাকে পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করতে হলে ৪টি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

  • আপনার পণ্যের ছবি বা ভিডিও প্রকাশ করুন,বা আপনার সাইটের কনটেন্ট প্রকাশ করুন।
  • প্রতিটির আলাদা বোর্ড তৈরি করুন এবং পিন করুন।
  • অন্যদের সাথে শেয়ার করুন বোর্ড বা পিন।
  • ওয়েবসাইট ট্র্যাফিক এবং অনলাইন বিক্রয় বাড়াতে বেশি বেশি পিন করুন।

যত বেশি পিন করা যায় তত বেশি আপনার সাথে অন্যদের যোগাযোগ তৈরি হবে এবং পণ্যের সম্পর্কে প্রচার হবে। এছাড়া আলাদা আলাদা করে বোর্ড তৈরি করার ফলে পণ্যের বা সাইটের প্রচার হয় ভালো।

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করতে কি লাগে?

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করতে হলে প্রয়োজন ইমেইল আইডি যার মাধ্যমে আপনি ওপেন করবেন একটি একাউন্ট। আপনার ওপেন করতে হবে বিজনেস একাউন্ট যার মাধ্যমে আপনার সাইটের প্রচার করার বিভিন্ন সুবিধা পাবেন।

এরপর আপনার সাইটের লোগো এবং সাইটের সম্পর্কে কিছু ধারণা দিয়ে ফুল একাউন্ট সাজাবেন। এরপর আপনি সাইটের বা পণ্যের প্রচার বা মার্কেটিং শুরু করবেন। প্রতিদিন একটি করে বোর্ড তৈরি করবেন এবং পিন করবেন।

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এর লাভ কি?

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পিন্টারেস্ট ৮৩ শতাংশ মানুষের মাঝে পৌছায়, যা ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট এবং টুইটারের চেয়ে অনেক বেশি এবং দ্রুত। Pinterest এর পিনগুলি একটি ফেসবুক পোস্টের চেয়ে ১৬শ গুণ বেশি দীর্ঘ সময় নিয়ে স্থায়ী হয়।

পিন্টারেস্টের ৭৮ শতাংশ ব্যবহারকারী জানান যে কোনও ব্যবসায়ের পন্য কিনার জন্য আগ্রহী করে তোলে এবং সহায়তা করে। পিন্টারেস্টের ৬০ শতাংশ ব্যবহারকারী বলেছেন যে তারা পিন্টারেস্ট থেকে একটি নতুন ব্র্যান্ড বা পণ্য, সাইট সম্পর্কে জেনেছে। Pinterest ব্যবহারকারীরা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া সাইট থেকে ২৯ শতাংশ বেশি সময় ব্যয় করে পিন্টারেস্টে।

এখন আপনি বুঝে নিন যে কতটা লাভ পিন্টারেস্ট ব্যবহার করলে। আপনার পন্য খুব সহজে পিন্টারেস্টের মাধ্যমে মার্কেটিং করতে পারবেন। আপনার সাইটকে রিচ করতে হলে প্রচারের মাধ্যম হবে পিন্টারেস্ট।

পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করার ৭টি টিপস

পিন্টারেস্টে প্রচারের সময় কিছু বিষয় আপনাকে মাথায় রেখে কাজ করতে হবে। এধরনের বিষয় গুলো যদি আপনি মাথায় রেখে কাজ করেন তবে আপনার পন্য বা সাইট প্রচার হবে দ্রুত। আমরা আপনাদের ৭টি গুরুত্বপূর্ন বিষয় সম্পর্কে জানাচ্ছি যা একটি সাইট বা পন্যকে মার্কেটিং করতে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করে।

১। আকর্ষনীয় পন্য প্রচার করুন

পিন্টারেস্টে ভিজ্যুয়ালকে ভলিউম বলে। আসলে একটি পিন্টারেস্ট স্টাডিতে ৮৫% পিনার রাইটিং কন্টেন্টের চেয়ে ভিজ্যুয়াল কন্টেন্ট বেশি পছন্দ করে।

তবে এর অর্থ এই নয় যে আপনার কন্টেন্ট আরেকজনের টা নেয়া উচিত। আপনার পিনগুলি সমস্ত ফ্রন্টে আনার জন্য ডিজাইন করা উচিত।

একটি ভাল পিন কি করে তৈরি করা যায়?
  • আকর্ষনীয় ছবিঃ ঠিক ৮৫% পিনার মোবাইলে পিন্টারেস্ট ব্যবহার করে। তাই যেকোন ছবি যেন ক্রোপ না হয়। ছবি প্রতিটি দিক সমান ভাবে স্পষ্ট যেন দেখা যায় তা লক্ষ রাখতে হবে।
  • বর্ণনামূলক কন্টেন্টঃ প্রতিটি বিষয়কে খুব ভালো ভাবে বর্ননা করুন। ছবি বা ভিডিও হলে তার সম্পর্কে কিছু লিখুন এবং লিংক যোগ করুন।
  • হেডলাইনঃ আপনার কন্টেন্টকে শক্তিশালী করে এমন একটি শিরোনাম অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়টি বিবেচনা করুন।
  • আগ্রহী করে তোলে ব্র্যান্ডিংঃ আপনার লোগোটি সব সময় ছবি হোক ভিডিও হোক যোগ করুন আপনার ব্র্যান্ডকে তাহলে সবাই চিনবে।
  • ভাল গল্প বলাঃ আপনার সাইট বা ব্র্যান্ডকে মার্কেটিং করতে হলে প্রয়োজন সুন্দর গল্প বলা যা মানুষের মনে একদম গেথে যাবে।

২। ধারাবাহিক ভাবে পিন করুন

Pinterest প্রতিদিন একবার করে পিন করার পরামর্শ দেয়। এটি বোর্ড একবারে একটি তৈরি করার থেকে বেশি কার্যকরী।নিয়মিত পিন করার ফলে আপনার কন্টেন্টের বিস্তৃত ভিজিটরের কাছে পৌঁছানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে।আপনার পিন গুলো শিডিউল করতে পারবেন। যে সময় গুলোতে ভিজিটর বেশি অনলাইনে থাকে সে সময় অনুযায়ী আপনি মার্কেটিং করতে পারবেন।

৩। মৌসুম বুঝে পরি কল্পনা করুন

ব্র্যান্ড মার্কেটিং এ আরও উন্নত পরিকল্পনাকারী হতে হবে।যেকোন উৎসবে Pinterest ৩০-৪৫ দিন আগে থেকে পরিকল্পনা করে নেওয়ার পরামর্শ দেয়।উৎসব এবং ছুটির দিন সবচেয়ে মোক্ষম সুযোগ পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এর।

 

৪। পিন গুলির সাথে সংযোগ রাখতে বোর্ডগুলি ব্যবহার করুন

পিনারদের আপনার পিন্টারেস্ট বোর্ড অনুসরণ করার একটি কারণ রাখুন। টিউটোরিয়াল বা DIY এর একটি সিরিজ তৈরি করুন। কারণ আপনি যদি ভালো কোন বোর্ড তৈরি না করেন তাহলে কিন্তু কোন পিনার আপনার বোর্ড দেখবে না। ফলে আপনার পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এ শুধু সময় যাবে।

প্রতিটি বিষয় ভিত্তিক বোর্ড তৈরি করুন। একসাথে সব টপিক কে এক বোর্ডে রাখবেন না। এছাড়াও, পিন্টারেস্ট সম্প্রতি নতুন গ্রুপ বোর্ডের পদ্ধতি যোগ করেছে। যাতে আপনি গ্রুপ সদস্যদের সাথে শেয়ার করা পোস্টগুলিতে সহজেই প্রতিক্রিয়া জানাতে পারেন।

৫। Pinterest SEO করুন

Pinterest একটি ভিজ্যুয়াল অনুসন্ধান ইঞ্জিন। যে কোনও সার্চ ইঞ্জিনের মতো কীওয়ার্ডগুলি পিন্টারেস্ট এ যোগ করলেই তা Ranking করা সম্ভব। এ কারণেই কীওয়ার্ড আপনার সাইট বা ব্যবসায়িক বোর্ড এবং পিনের নাম এবং বিবরণে ব্যবহার করা উচিত। হ্যাশট্যাগগুলিও দরকারী, বিশেষ করে পিনাররা তাদের আগ্রহের বিষয়গুলো সার্চ করে।

ভাল কীওয়ার্ড গবেষণা করা ছাড়াও Pinterest এ SEO এর জন্য আপনি করতে পারেন এমন বেশ কয়েকটি কাজ। আপনার ওয়েবসাইট থেকে রাইটিং কনটেন্ট পিনিং থেকে শুরু করে নিয়মিত পর্ব অনুযায়ী বোর্ড তৈরি করুন।

৬। বিজ্ঞাপনসহ পিনগুলিকে লক্ষ্য করুন

Pinterest এ মার্কেটিং করার আর একটি কার্যকর উপায় হ’ল বিজ্ঞাপন। পিন্টারেস্ট বিজ্ঞাপনদাতাদের কীওয়ার্ড, আগ্রহ, অবস্থান, বয়স এবং অন্যান্য বিষয়ের উপরে বিজ্ঞাপন টার্গেট করতে দেয়।

এদিকে, ভিজিটরদের লক্ষ্যবস্তুর উপর মার্কেটারদের  বিজ্ঞাপন করার জন্য আগ্রহ তৈরি করে পিন্টারেস্টঃ 

  • ভিজিটরদের জন্য নিউজলেটার ব্যবস্থা করা
  • আপনার ওয়েবসাইট যা ভিজিট করছে তাদের জন্য অফার ব্যবস্থা করা
  • আপনার পিনগুলো যারা যুক্ত করছে বা লাইক করে।
  • ভিজিটর কোন বিষয়গুলো বেশি পছন্দ করে বা কোন টপিক সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় তার উপর লক্ষ্য করা।

৭। পিনার্সের জন্য শপিং সহজ করুন

শপিং সব সময় অনলাইনের জনপ্রিয়তায় থাকে। কারন মানুষ শপিং করতে পছন্দ করার পাশাপাশি শপিং আইটেম দেখতে পছন্দ করে। তাই তাদের জন্য শপিং ব্যবস্থা সহজ করুন।

অবশ্যয় পড়ুন…

যেমন আপনার সাইটের লিংক শেয়ার করুন বা সিপিএ মার্কেটিং করে থাকলে বা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে থাকলে আপনার সাইটের লিংকের সাথে শপিং লিংক যোগ করুন। Pinterest সম্প্রতি ব্যবসায়ের প্রোফাইলগুলির জন্য একটি শপ ট্যাব সিস্টেম তৈরি করেছে।যাতে একজন ভিজিটর খুব সহজে শপিং লিংকে প্রবেশ করতে পারে।

পিন্টারেস্ট থেকে কীভাবে আপনার ব্লগে বা সাইটে ট্রাফিক বাড়াবেন? 

আপনার সাইটে ট্রাফিক বাড়াতে আপনার প্রতিদিন কিছু কাজ করতেই হবে। তবেই আপনার সাইটে ট্রাফিক বাড়বে। আপনার প্রতিদিন একবার করে হলেও পিন করতে হবে পোস্ট। আপনি যদি প্রতিদিন দশটি করে পিন করতে পারেন তাহলে খুবই ভালো।

মনে রাখবেন পিন্টারেস্টে ভিজ্যুয়াল কন্টেন্ট বেশি চলে। অর্থাৎ কোন ছবির উপর সুন্দর করে লেখা বা ছবিটি দিয়েই সব বোঝানো যাচ্ছে এমন ধরনের কন্টেন্ট। এছাড়া অন্যদের পিনে লাইক করুন, বোর্ড ফল করুন। চেষ্টা করবেন নিজের প্রতিটি পিনের জন্য আলাদা টপিক ভিত্তিক বোর্ড তৈরি করতে। অন্যদের পিনে লাইক করলে সেও আপনার পিন বা বোর্ড ঘুরে দেখবে।

পিন্টারেস্টে আপনার একাউন্ট আছে তো?

পিন্টারেস্টে আপনার একাউন্ট আছে কি? যদি না থাকে তবে আজই করে ফেলুন। কারন একটি পিন্টারেস্ট একাউন্ট দিয়ে আপনি আপনার পন্য যেমন সেল করতে পারবেন তেমনি আপনার সাইটে ভিজিটর বাড়াতে পারবেন।

আবার আপনি যদি ইমেইল মার্কেটিং, সিপিএ মার্কেটিং করে থাকেন বা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে থাকেন তবে পিন্টারেস্ট আপনার জন্য সবচেয়ে বড় মার্কেট।

একাউন্ট খুলতে যা যা করবেনঃ

  • একটি ব্যবসায়িক অ্যাকাউন্টের জন্য সাইন আপ করুন।
  • আপনার ব্যবসায়িক বা সাইটের টপিক অনুযায়ী বিভাগ নির্বাচন করুন।
  • প্রোফাইল পিক বা ভিডিও সেট করুন।
  • কিওয়ার্ড নির্ধারন করুন।
  • আপনার প্রোফাইলে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন।
  • অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে আপনার পিন্টারেস্ট একাউন্ট শেয়ার করুন।
  • পিন্টারেস্টে অন্যদের প্রোফাইল ফলো করুন।

ওয়েবসাইটে পিন্টারেস্টের ফলো বাটন অবশ্যই এড করতে হবে

সময়ের সাথে সাথে দেখতে পাবেন যে কোন বোর্ডগুলি বেশি জনপ্রিয় এবং আরও বেশি জনপ্রিয় পেতে পারে। সেই সকল টপিকগুলো নিয়ে আপনি সেম হেডলাইন দিয়ে বোর্ড তৈরি করুন।

সেম হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন। যেন ভিজিটরের কাছে আপনার বোর্ড পৌছায়। তাহলে তারা আপনাকে ফলো করবে। ফলে আপনার যেকোন নতু পন্য বা সাইটের অফার তাদের কাছে সাথে সাথে পৌছাবে। তাই নিজের বোর্ডগুলোতে বা প্রোফাইলে ফলো বাটন এড করে নিন।

সোশাল নেটওার্কের সাথে যুক্ত থাকুন

Pinterest ব্যবহার করার সময়, অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে আপনি এক্টিভ থাকুন। পারলে পিন্টারেস্ট প্রোফাইল বা বোর্ডের লিংক শেয়ার করুন সেসব সামাজিক মিডিয়াতে। পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এর জন্য সব সময় ভিজিটরের চাহিদা বা পছন্দ মাথায় রাখতে হবে, কোন ট্রেন্ড বেশি চলছে তা লক্ষ্য রাখতে হবে।

প্রচার করতে হবে এবং হ্যাঁ এক্টিভ থাকতে হবে। ভালো কন্টেন্ট তৈরি করতে হবে। যাতে একজন ভিজিটর বার বার আপনার সাইটে আসে আপনি কি নতুনত্ব এনেছেন তা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন। একজন ভিজিটর কখনও একই জিনিস দেখতে পছন্দ করে না। তাই আপনাকে সব সময় ক্রিয়েটিভ চিন্তা করতে হবে।

পিনেবেল(Pinable) টেক্সট ইমেজ ক্রিয়েট করুন 

আপনি প্রথম পর্যায়ে পিন্টারেস্ট ঘুরলে দেখবেন ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের উপর অনেক বেশি জোর দেয় পিন্টারেস্ট। এর কারন হল মানুষ এধরনের কন্টেন্টের উপর অনেক বেশি আকর্ষন বোধ করে। তাই যখনই ছবি এড করবেন চেষ্টা করবেন টেক্সট ইমেজ এড করতে।

অর্থাৎ, ছবির উপরে লেখা, আপনি যদি ফটোশপ না জানেন তাহলে কোন সমস্যা নেই। বর্তমানে প্রচুর ইমেজ এডিট করার ফ্রি অনলাইন টুলস পাওয়া যায়। সেগুলো থেকে আপনি এডিট করে পিন্টারেস্টে দিতে পারেন। ইমেজ সব সময় ভালো কোয়ালিটির এবং এইচডি রেজুলেশনের দিবেন। খারাপ কোয়ালিটির ছবি পিন্টারেস্ট মার্কেটিং হয় না।

পিন এর ডেসক্রিপশনে অবশ্যই সাইট লিঙ্ক দেবেন

আপনি যে পোস্ট পিন করবেন তাতে যদি নিজের সাইটের লিংক না দেন তাহলে কিন্তু সাইটে ভিজিটর যাবে না। তাই আপনার উচিত হবে যখন পিন করবেন তা ছবি হোক বা ভিডিও ডেস্ক্রিপশনে যেন সাইটের লিংক থাকে, ভালো হেডলাইন থাকে, স্টোরি থাকে ছোট। এতে ভিজিটর বুঝতে পারবে আপনি কি বলতে চাচ্ছেন এবং আইডিয়া হবে ফলে আপনার লিংকে যাওয়ার আগ্রহ বোধ করবে।

বোর্ড ক্যাটাগরি ক্রিয়েট করুন

আপনার পিন্টারেস্ট এ অবশ্যই বোর্ডটি ক্যাটাগরি অনুযায়ী নির্ধারন করবেন। আপনার বোর্ডের নাম দিবেন তা কোন টপিকের উপর তৈরি করছেন। হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করবেন যে টপিক নিয়ে কাজ করছেন।

এতে ম্মার্কেটিং এর একটি লাইন ধরে রাখা যায় সাথে মার্কেটিং করতে সহজ হয়। পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এ ক্যাটাগরি অনেকটা গুরুত্বপূর্ন তাই এই বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

জনপ্রিয় বোর্ডগুলো তে Contribute করুন

বিভিন্ন ফলোয়ারের দেখবেন বোর্ড আছে যেগুলো অনেক বেশি জনপ্রিয়। আবার জনপ্রিয় কিছু টপিকের বোর্ড যাতে অনেকে তাদের লিংক বা কাজ কন্ট্রিবিউট করে। তাদের বোর্ডগুলোতে কন্ট্রিবুট করতে পারেন। এতে আপনার সাইটের পিন্টারেস্ট মার্কেটিং হবে।

এছাড়া মাসের একটি সময় হাতে রাখবেন কন্ট্রিবিউট করার জন্য এতে তাদের কাছে আপনার সাইট যেমন পরিচিত হবে তেমনি হয়ত আপনি কোন ভালো অফারও পেয়ে যেতে পারেন।

আরো পড়তে পারেন…

এনগেইজড থাকুন

এখন আপনি কীভাবে পিনগুলি জনপ্রিয় করবেন এবং কীভাবে আপনার পিনগুলি দেখতে পাবেন তা জানেন, পিন্টারেস্ট মার্কেটিং এর পরবর্তী পদক্ষেপটি হল আপনার পিনগুলি ভিজিটর দের নিকট সব সময় পৌঁছে দেয়া, যা আপনার সাইটকে ট্রাফিক বাড়াতে সাহায্য করবে।

যেমনটি আমরা সবাই জানি, ভিজিটরের নিকট বেশি পৌঁছাতে পারা মানে বেশি সাফাল্য।তাই অন্যান্য অ্যাকাউন্টগুলি ফলো করার সময় ব্যবহারকারীরা কী খোজ করে তা জানা। এই বিষয়গুলো যত জানতে পারবেন আপনি তত বেশি ভিজিটরকে জানতে পারবেন সাথে আপনার সাইতে তাদের আনতে পারবেন।

মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের পিন্টেরেস্টের গবেষণায় দেখা গেছে যে পিন্টেস্ট ব্যবহারকারীরা যে তিনটি প্রধান বিষয় লক্ষ্য করে একটি পিন্টারেস্ট প্রোফাইলে তা হলঃ

  • আপনার ফলোয়ার কত/আপনি কতজনের ফলোয়ার
  • আপনার পিন সংখ্যা কত
  • এবং সর্বশেষ আপনার বোর্ড সংখ্যা কত

তাই যত বেশি পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করতে এনগেইজড থাকবেন তত বেশি আপনি ভিজিটর আনতে পারবেন।

ফলোয়ারদের খুশি রাখুন

ভিজিটরের মন্তব্যের জবাব দিন আপনি যেমন টুইটার, ফেসবুক পোস্ট এবং ইনস্টাগ্রামের মন্তব্যে জবাব জানান ঠিক তেমন ভাবে আপনার ফলোয়ারের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে। তাদের মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে তাদের সাথে যুক্ত থাকুন। তাদের মন্তব্যে তাদের নাম ব্যবহার করে সরাসরি সম্বোধন করুন।

এতে তারা অনেক বেশি নিজেদেরকে আপনার সাথে আপন ভাববে এবং খুশি হবে। আপনার ফলোয়ারদের পিন গুলি তে মন্তব্য করুন, লাইক করুন । আপনার ফলোয়ারদের বোর্ডও ফলো করুন। এতে করে তারা আপনার পিন বা বোর্ড গুলোতে যাবে এবং ভিজিট করবে।

পন্য প্রচারের বর্তমান জনপ্রিয় সাইত হল পিন্টারেস্ট। যেখানে আপনি করতে পারবেন আপনার পণ্যের বা সাইটের পিন্টারেস্ট মার্কেটিং। আপনাকে উপরের নির্দেশিত গুরুত্বপূর্ন কাজ গুলো প্রতিনিয়ত মনোযোগ সহকারে শুধু করতে হবে।

১ থেকে ২ মাস সময় দিলে দেখবেন আপনার সাইট বা পন্য কট বেশি পরিমানে ভিজিট হয়েছে। পিন্টারেস্ট মার্কেটিং করে আয় করা যেমন অনেক সহজ তেমনি আপনাকে দিতে হবে কিছুটা কোয়ালিটি টাইম।

আমি নিলয় হাসান-এই ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা পাশাপাশি লেখালেখির কাজটাও করি। অনলাইনে প্রযুক্তির বিষয় নিয়ে যা জানি তা মানুষের মাঝে শেয়ার করার ইচ্ছায় এ ব্লগ টি তৈরি করা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা যাবে না !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap