লোকাল এসইও কি? কিভাবে লোকাল এসইও করতে হয়

লোকাল এসইও কিঃ  এসইও নিয়ে কাজ করার কোনো একটা সময়ে আপনি লোকাল এসইও সম্পর্কে জানতে পারবেন। কারন বেশিরভাগ ব্লগ বা ওয়েবসাইটে অন পেজ থেকে এবং অফ পেজ এসইও নিয়ে আলোচনা করা হয়। 

কিন্তুু একটি ওয়েবসাইটে টার্গেটেড অডিয়্যান্সকে নিয়ে আসার জন্য লোকাল এসইও যে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। তা অনেকের কাছে অজানাই থেকে যায়। 

হ্যালো বন্ধুরা, স্বাগতম আপনাকে বাংলা আইটি ব্লগের নতুন একটি এপিসোডে। আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো, লোকাল এসইও কি

লোকাল এসইও কি
লোকাল এসইও কি বা এর কাজ কি? বুক্স

এর পাশাপাশি আমার দীর্ঘ ৩ বছরের অভিজ্ঞতা থেকে যেভাবে লোকাল এসইও করেছি । সেই টেকনিক গুলো শেয়ার করবো আপনার সাথে।

কিভাবে আপনি লোকাল এসইও করবেন। সে সম্পর্কে অবশ্যই আলোচনা করবো। তবে তার আগে আপনাকে জানতে হবে যে, Local SEO কি?  এবং কেন আমরা লোকাল এসইও করবো? 

লোকাল এসইও কি?

যখন নির্দিষ্ট কোনো স্থান কিংবা নির্দিষ্ট কোনো অডিয়্যান্সকে টার্গেট করে একটি ওয়েবসাইটের জন্য এসইও করা হয়। তখন তাকে বলা হয়, লোকাল এসইও।

বিষয়টা আরেকটু ক্লিয়ার করলে আপনার বুঝতে সুবিধা হবে।

মনে করুন, ঢাকায় আপনার একটি কম্পিউটারের দোকান আছে। এবং সেই কম্পিটারের দোকানের জন্য আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলেন। যেন অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনের মাধ্যমেও কম্পিউটার বিক্রি করা যায়।

এখন আপনি যদি সেই ওয়েবসাইটের জন্য এসইও করেন। তাহলে কি পুরো বিশ্বের অডিয়্যান্সকে টার্গেট করে এসইও করবেন?

আপনার জন্য আরো আর্টিকেল…

না! কারন, আপনার কম্পিউটারের দোকান তো ঢাকায় অবস্থিত। এখন যদি ইন্ডিয়ার কোনো ব্যক্তি আপনার সেই দোকান সম্পর্কে জানতে পারে। তাহলে কিন্তুু সেই ব্যক্তির ইচ্ছে থাকার পরও আপনার দোকান থেকে কম্পিউটার কিনতে পারবে না।

সেজন্য আপনাকে এমনভাবে সেই ওয়েবসাইটের এসইও করতে হবে। যেন ঢাকায় বসবাসরত মানুষেরা যেন আপনার ওয়েবসাইট ও দোকান সম্পর্কে জানতে পারে। এবং আপনার সেই দোকান থেকে কম্পিউটার কিনতে পারে।

মূলত এটিই হলো, নির্দিষ্ট লোকেশনের অডিয়্যান্সকে টার্গেট করা। এবং এই কাজের জন্য আপনি এসইও এর যে যে টেকনিক গুলো অবলম্বন করবেন। তাকে বলা হবে লোকাল এসইও

কেন লোকাল এসইও করবেন?

সত্যি বলতে এসইও নিয়ে আমার ওয়েবসাইটে অনেক গুলো আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে। এবং প্রত্যেকটি আর্টিকেলে আমি একটা কথা গুরুত্বের সাথে বলেছি।

সেই কথাটি হলো,  এসইও করার মূল উদ্দেশ্য হলো, আপনি আসলে কোন টপিক নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করছেন। সে টপিক সম্পর্কে সার্চ ইঞ্জিনকে স্পষ্ট ধারনা দেয়ার জন্যই মূলত এসইও করার প্রয়োজন হয়।

ঠিক তেমনি আপনার যদি কোনো লোকাল বিজনেস বা প্রতিষ্ঠান থাকে। তাহলে আপনার সেই বিজনেস বা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে সার্চ ইঞ্জিনকে ষ্পষ্ট ধারনা দেয়াই হলো লোকাল এসইও এর মূল উদ্দেশ্য।

মনে করুন আপনি ঢাকায় নতুন এসেছেন। ঢাকার অলি-গলি সম্পর্কে আপনার তেমন কোনো ধারনা নেই। এখন হঠাৎ করে আপনার একটি ল্যাপটপ কেনার প্রয়োজন হলো। এখন আপনি কি করবেন?

ঠিক এই মূহুর্তে আপনি যদি গুগলে গিয়ে সার্চ করেন, “New Laptop Shop in Dhaka” – তাহলে গুগল আপনাকে সেই ল্যাপটপের দোকান গুলো দেখাবে। যেগুলো মূলত ঢাকার মধ্যে অবস্থিত।

এখন প্রশ্ন আসতে পারে, গুগল কিভাবে বুঝতে পারলো যে সেই দোকান গুলোতে ল্যাপটপ বিক্রি হয়?  এবং উক্ত দোকান গুলো যে ঢাকায় অবস্থিত, তা গুগল কিভাবে জানলো?

ওয়েট! এটিই হলো Local Seo এর কারিশমা। অর্থ্যাৎ লোকাল এসইওতে এমন কিছু টিপস & ট্রিকস আছে। যার মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিনকে আপনার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে অবগত করা সম্ভব। 

লোকাল এইও কিভাবে কাজ করে? 

উপরের আলোচনায় আমরা দুটি প্রশ্ন পেয়েছি। এটি হলো, 

  1. গুগল কিভাবে জানলো যে আপনার একটি ল্যাপটপের দোকান আছে?  এবং
  2. গুগল কিভাবে বুঝতে পারলো যে, আপনার সেই প্রতিষ্ঠানটি ঢাকায় অবস্থিত? 

সত্যিই বিষয়টি খুব আশ্চর্যের, তাইনা?  আপনার একটি ল্যাপটপের দোকান আছে, সেটিও গুগল জানে। এবং আপনার সেই দোকানটি কোথায় অবস্থিত,  সে সম্পর্কেও গুগলের ধারনা আছে।

তবে বিষয়টা জানাজানির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও তা মেনে নেয়া যেত। কিন্তুু ঢাকা থেকে কেউ যদি “New Laptop Shop”- লিখে সার্চ করে ৷ তাহলে গুগল আপনার দোকানকে শো করবে।

কিন্তুু প্রশ্ন হলো,  কিভাবে এই কাজটি করা সম্ভব?

তবে এই বিষয়টি নিয়ে এতো আশ্চর্য হওয়ার মতো তেমন কিছু নেই। কারন গুগল শুধুমাএ ৩ টি উপায় অনুসরন করে এই কাজটি করে থাকে। যথাঃ 

  1. Index IP & Location Info. 
  2. Detect IP
  3. Detect Location. 

হ্যাঁ!  এই আশ্চর্যজনক এই কাজটি করার জন্য গুগল শুধুমাএ ৩ টি পদ্ধতি অবলম্বন করে থাকে। এই পদ্ধতি গুলো আসলে কি!  এবার সে সম্পর্কে একটু আলোচনা করা যাক। 

What is Index IP & Location Info?

যদি আপনি আমার এসইও নিয়ে লেখা আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন। তাহলে আপনি “ইনডেক্সার”- নামক একটি প্রোগ্রামিং রোবট সম্পর্কে জেনে থাকবেন। যার মূল কাজ হলে, বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করা তথ্য গুলোকে Google এর সার্ভারে জমা করা।

ঠিক তেমনি যখন আপনি আপনার কোনো প্রতিষ্ঠানের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করবেন। এবং সেই ওয়েবসাইটের টার্গেটেড অডিয়্যান্স খুজে পাওয়ার জন্য Local SEO করবেন।

তখন গুগলের সেই “Indexer”- নাম প্রোগ্রামিং রোবোটটি আপনার সমস্ত ডাটা গুলো তার সার্ভারে জমা করে রাখবে।

অর্থ্যাৎ, আপনার প্রতিষ্ঠানে কি কি পণ্যে আছে। আপনি আপনার ওয়েবসাইটে কোন কিওয়ার্ড গুলোকে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেছেন। কোন ধরনের অডিয়্যান্সকে টার্গেট করছেন। ইত্যাদি বিষয়গুলো ইনডেক্সার তার নিজস্ব সার্ভারে জমা করে রাখবে।

আপনার মনে প্রশ্ন জাগছে না, ” গুগল কেন এই তথ্য গুলো তার সার্ভারে জমা করে রাখছে”? যদি আপনার মনে এমন প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে নিচে আলোচিত বিষয়গুলোতে একটু মনোযোগ দিন।

তাহলে সবকিছু ক্লিয়ার বুঝতে পারবেন। 

What is detect IP?

আমরা যখন কোনো নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত হই। তখন আমাদের প্রত্যেকের একটি করে IP Address থাকে। এবং সেই আইপি এড্রেসের মাধ্যমে আপনি আসলে কোন সেই সময়ে কোন জায়গাতে অবস্থান করছেন। সে সম্পর্কে ধারনা পাওয়া সম্ভব।

ঠিক তেমনি যখন কেউ লোকাল এসইও এর মাধ্যমে গুগলকে জানিয়ে দেয় যে, তার প্রতিষ্ঠানটি আসলে কোন IP Address এর আওতাভুক্ত। তখন সেই তথ্যটি গুগল তার নিজস্ব সার্ভারে জমা করে রাখে।

এরপরে কেউ যদি আপনার সিলেক্ট করা আইপির সাথে যুক্ত অবস্থায় আপনার প্রতিষ্ঠান রিলেটেড কোনো বিষয়ে গুগলে সার্চ করে। তখন গুগল খুব সহজেই বুঝতে পারে যে, তার আশেপাশে কোথায় কি কি প্রতিষ্ঠান আছে।

এবং এই ছোট্ট ট্রিকসের মাধ্যমে গুগল তার ভিজিটরকে সঠিক তথ্য দিতে সক্ষম হয়। কি বুঝেন নাই ব্যাপারটা?

What is detect Location? 

যদি আপনি উপরে আলোচিত IP এর বিষয়টি বুঝে থাকেন। তাহলে আপনার Location সম্পর্কে বোঝার জন্য ১০ সেকেন্ড সময়ও লাগবে না।

কারন আমাদের প্রত্যেকের ফোনে Location নামের একটি অপশন দেখা যায়। এবং প্রায় অনেক সময় আমাদের এই অপশটি ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে। এ

ই অপশনের মূল কাজ হলো, আপনি উক্ত সময়ে কোন স্থানে অবস্থান করছেন। তা সম্পর্কে ষ্পষ্ট ধারনা দেওয়া।

ঠিক একইভাবে যখন আপনি নির্দিষ্ট কোনো স্থান থেকে আপনার প্রয়োজনীয় কোনো প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে গুগলে সার্চ করবেন। তখন গুগল সবার আগে আপনার Location কে ডিটেক্ট করবে। 

আপনি আরো পড়ুন…

এরপর সে তার সার্ভারে সেই লোকেশনের আওতায় যেসব প্রতিষ্ঠান গুলো তার সার্ভারে লিষ্টিং করা আছে। সেই প্রতিষ্ঠান গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য গুলো আপনার সার্চ রেজাল্টে শো করবে। 

লোকাল এসইও আসলে কিভাবে কাজ করে। আশা করি এতোক্ষনে তা ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। তো এবার আমরা ফিরে আসবো মূল টপিকে।

এবার আলোচনা করবো, যদি আপনার একটি প্রতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট থাকে। তাহলে কিভাবে আপনি সেই ওয়েবসাইটের জন্য Local এসইও করবেন। 

লোকাল এসইও কত প্রকার?

আমরা জানি যে, এসইওকে প্রধানত দুইটি ভাগে ভাগ করা সম্ভব। যথাঃ 

  1. অফ পেজ এসইও এবং 
  2. অন পেজ এসইও 

ঠিক তেমনিভাবে লোকাল এসইও কে বেশ কয়েকটি ভাগে বিভক্ত করা সম্ভব।

আমার দৃষ্টিকোন থেকে লোকাল এসইও কে ২ টি ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। যেমনঃ

  1. Targeted Products 
  2. Targeted Area

সত্যি বলতে আপনি যদি লোকাল এসইও সম্পর্কে অন্যান্য ব্লগের আর্টিকেল পড়েন। তাহলে সেখানে এই দুইটি ভাগ সম্পর্কে জানতে পারবেন না। কারন এটি শুধুমাএ আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। 

তো কিজন্য আমি লোকাল এসইও কে এই দুইভাগে ভাগ করলাম। এবার সে সম্পর্কে হালকা একটু ধারনা নেয়া যাক। 

Local Seo for Targeted Products 

যখন আপনি কোনো স্পেসিফিক প্রোডাক্টকে টার্গেট করে নির্দিষ্ট অডিয়্যান্সের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করবেন। তখন তাকে বলা হবে, Local Seo For Targeted Products. 

যেমন, যদি আপনি গুগলে গিয়ে সার্চ করেন “Beat Laptop Shop”. তাহলে গুগল সর্বপ্রথম আপনার আইপিকে ডিটেক্ট করবে। এরপর আপনার আইপি এড্রেসের আশেপাশে যে ল্যাপটপের দোকান গুলো আছে।

সেগুলো আপনার সার্চ রেজাল্টে শো করবে।

তো এখানে আপনি একটু চিন্তা করলেই দেখতে পারবেন যে, আপনি শুধুমাএ কোনো একটি প্রোডাক্টকে টার্গেট করে নির্দিষ্ট অডিয়্যান্সের কাছে পৌঁছানোর চেস্টা করছেন।

সেজন্য এই এসইও করার প্রক্রিয়াকে আমি টার্গেটেড প্রোডাক্ট নামে একটি ভাগে বিভক্ত করেছি। 

Local Seo For Targeted Area

যখন আপনি কোনো নির্দিষ্ট এলাকার অডিয়্যান্সকে টার্গেট করে এসইও করবেন৷ তখন তাকে বলা হবে, Local Seo For Targeted Area. 

যেমন, যদি আপনি গুগলে গিয়ে সার্চ করবেন, ” Beat Laptop Shop in Mirpur”.  তাহলে গুগল তার সার্চ রেজাল্টে শুধুমাএ সেইসব দোকান গুলোকে শো করবে। যে দোকান গুলো মিরপুরে অবস্থিত। 

সেজন্য আমি লোকাল এসইওকে Targeted Area নামে আরও একটি ভাগে বিভক্ত করেছি। 

কিভাবে লোকাল এসইও করবেন? 

যখন আপনি সার্চ ইন্জিনের অপটিমাইজেশন জন্য যে কাজগুলো করবেন। সেই কাজ গুলোকে এককথায় বলা হয়, এসইও। এটা তো আমরা সবাই জানি।

ঠিক তেমনিভাবে যখন আপনি আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচার কিংবা প্রসারের জন্য, যেসব এসইও রিলেটেড কাজ করবেন। তখন তাকে বলা হবে, লোকাল এসইও। 

কিন্তুু প্রশ্ন হলো যে, এতোক্ষন থেকে যে লোকাল এসইও সম্পর্কে জ্ঞানার্জন করলেন৷ কিন্তুু সেই কাজটি আপনি কিভাবে করবেন? 

হ্যাঁ! এবার আসবো মূল টপিকে। তবে শুরুতেই একটা কথা বলে রাখি। আপনি যেমন করে কোনো একটি ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের টপ পজিশনে আসার জন্য অনেক কিছু করে থাকেন। 

ঠিক একইভাবে লোকাল এসইও এর মাধ্যমে আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচার বা প্রসারের জন্য আপনাকে বেশ কিছু কাজ করতে হবে। যেমনঃ

Buy A Local Domain

যেহুতু আপনি এসইও সম্পর্কে জানার চেস্টা করছেন। সেহুতু আপনি এই বিষয়টিও জেনে থাকবেন যে, একটি ডোমেইন কোনো একটি ওয়েবসাইটের পরিচয় বহন করে থাকে। 

যেমন, (www.google.com) এই ডোমেইনটি মূলত গুগল নামক একটি প্রতিষ্ঠানের পরিচয় বহন করছে। তাই আপনি চাইলেও এই ডোমেইনটিকে ফেসবুক বলতে পারবেন না। 

ঠিক একইভাবে যখন আপনি লোকাল এসইও করার জন্য একটি ডোমেইন কিনবেন৷ তখন সেই ডোমেইনের এক্সটেনশন এর দিকে একটু নজর দিতে হবে। 

যেমন, আপনার বাংলাদেশে একটি দোকান রয়েছে। এরমানে হলো, আপনি শুধুমাএ বাংলাদেশের অডিয়্যান্সকে সার্ভিস দিতে পারবেন। কিন্তুু কানাডা বা মালেশিয়ার কোনে অডিয়্যান্স আপনার কাছে পন্য কিনতে আসবে না।

আর আপনি তাদেরকে সার্ভিস দিতে পারবেন না। 

সেক্ষেত্রে আপনি কি করবেন?  বা আপনি কোন ধরনের ডোমেইন এক্সটেনশনকে প্রাধান্য দিবেন? 

এ প্রশ্নের উওরটা খুব সহজ৷ যেহুতু আপনি বাংলাদেশের অডিয়্যান্সকে টার্গেট করে এসইও করবেন৷ সেহুতু আপনি (.bd) যুক্ত ডোমেইন এক্সটেনশনকে গুরুত্ব দিতে পারেন। যেমন, (www.maruftelecom.com.bd) 

Add Google My Business 

লোকাল এসইও এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো, Google My Business. অর্থ্যাৎ, আপনি যদি এই স্টেপ টি মিস করেন। তাহলে Local SEO সম্পর্কে আপনা৷ জ্ঞান, অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। 

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, ” গুগল মাই বিজনেস”- কেন এত বেশি গুরুত্বপূর্ণ?  তাহলে শুনুন,

Google My Business মূলত চারটি বিষয়ের সমন্বয়ে গঠিত। যেমন, 

  1. Google Map
  2. Google Business Page
  3. Google Business Page Review
  4. Google Map Based Photo

লোকাল এসইও করার জন্য এই চারটি পয়েন্ট ভীষণ গুরুত্বপূর্ন। আপনাকে অবশ্যই এর পয়েন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে। 

কারন, গুগল হলো একটা প্রোগ্রামিং রোবট। এটি Robot টি নিজে থেকে কোনো তথ্য জমা করে না। মূলত যারা গুগল সার্ভারে নিজের তথ্য জমা রাখে। এই প্রোগ্রামিং Robot টি শুধুমাএ সেই তথ্য গুলোই আমরা Google Search Result এ দেখতে পাই। 

মনে করুন, আপনার একটি Facebook Account আছে। সেখানে যদি আপনি আপনার নিজের Picture Upload না করেন। তাহলে কি ফেসবুক আপনার পিকচার কাউকে দেখাতে পারবে?

ঠিক একইভাবে যদি আপনার একটি দোকান থাকে। এবং সেই দোকানের পন্য অনলাইনের পাশাপাশি অফলাইনেও বিক্রি করতে চান। তাহলে সবার আগে আপনার সেই দোকানের যাবতীয় তথ্য গুগলের সার্ভারে জমা রাখতে হবে। 

আর গুগলে সেই তথ্য জমা দেয়ার সহজ পদ্ধতি হলো,  Google Map. হ্যাঁ! লোকাল এসইও করার জন্য গুগল ম্যাপ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

আপনার জন্য আরো আর্টিকেল…

আমরা জানি, Google Map এ পুরো বিশ্বের মানচিত্র দেখা সম্ভব। তাই যখন আপনি এই গুগল ম্যাপে আপনার দোকানের যাবতীয় তথ্য জমা দিবেন।

তখন গুগলে কেউ আপনার দোকানের নাম বা ঠিকানা লিখলে। সার্চ রেজাল্টের সব উপরে আপনার নাম দেখাবে। 

[মনে রাখবেনঃ যখন আপনার কোনো তথ্য গুগলে জমা দিবেন। তখন চেস্টা করবেন আপনার রিয়েল তথ্য দেয়ার। ]

[PRO TIPS: কিভাবে নিজের যাবতীয় তথ্য Google Map এ জমা দিতে হয়৷ সেটি জানতে চাইলে, এই পোষ্টে একটা Comment করবেন]

লোকাল লিষ্টিং কি?

একটা প্রশ্নের উত্তর দিন, আপনি YouTube এ কি জন্য ব্যবহার করেন?  -নিশ্চই ভিডিও দেখার জন্য, তাইনা? 

ঠিক একইভাবে কিছু কিছু ওয়েবসাইট আছে। যেই ওয়েবসাইট গুলোতে শুধুমাএ বিভিন্ন দোকানের লিষ্ট দেয়া থাকে। এখানে আপনাকেও আপনার দোকানের ওয়েবসাইট কে Listing করতে হবে। 

কারন, গুগল বোট যখন ঐ ওয়েবসাইট গুলো Crawling করবে। তখন তারা আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে পারবে। যা আপনার লোকাল এসইও তে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। 

এলাকা ভিওিক কন্টেন্ট তৈরি করুন

আমি এসইও নিয়ে আলোচনার সময় বারবার একটা কথা বলেছি,  Content is King. আর এটা তো আমরা সবাই জানি যে, একটি ওয়েবসাইট এর প্রাণ হলো, “কন্টেন্ট”।

আপনি যতোই এসইও করুন না কেন, তার সবগুলো টেকনিক জলে ভাসবে। যদি আপনি এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল পাবলিশ না করেন। তাই যথেষ্ট সময় এবং শ্রম ব্যয় করতে হবে, SEO Friendly Article এর উপর।

[PRO Tips: কিভাবে এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হয় ।সে সম্পর্কে জানতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন……]

এবং আরেকটা কথা মনে রাখবেন, যেহুতু আপনি নির্দিষ্ট এলকার মানুষকে টার্গেট করে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন ৷ সেহুতু আপনার ওয়েবসাইটে পাবলিশ করা সেই কন্টেন্ট গুলো অবশ্যই এলাকা ভিওিক হতে হবে। 

আপাততো এই টেকনিক গুলো ফলো করতে পারলে, আপনি লোকাল এসইও সম্পর্কে অনেক কিছু বুঝতে পারবেন।

আর এরপর থেকে আপনি নিজে থেকেই নতুন নতুন Local SEO টেকনিক বের করতে পারবেন। তার সাথে আপনাকে টেকনিক্যাল এসইও দিকে খেয়াল রাখতে পারেন।

আমাদের শেষকথাঃ

লোকাল এসইও সম্পর্কে আমার যতোটুকু জ্ঞান ছিলো ৷ তা আপনার সাথে Share করলাম। আশা করি আপনি ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।  এরপরও যদি Local SEO সম্পর্কে কোনো কিছু জানার থাকে। তাহলে একটা Comment করবেন ৷

আমি আপনার কমেন্টের উত্তর যত দ্রুত সম্ভব দিব আর ব্লগিং এবং অনলাইনে আয় নিয়ে নতুন নতুন আর্টিকেল পড়তে বাংলা আইটি ব্লগ নিয়মিত ভিজিট করুণ। ধন্যবাদ 

3 thoughts on “লোকাল এসইও কি? কিভাবে লোকাল এসইও করতে হয়”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap