ইন্টার্নশিপ কি | কেন internship করবেন | Internship meaning in Bengali

ইন্টার্নশিপ কি (What Is Internship in Bengali) আপনি কি আপনার ক্যারিয়ার উন্নয়ন পরিকল্পনার অংশ হিসাবে একটি ইন্টার্নশিপ করতে চাচ্ছেন?

ইন্টার্নশিপ কি | কেন internship করবেন | Internship meaning in Bengali
ইন্টার্নশিপ কি

আপনি যে কোন ডিপার্টমেন্ট এর ছাত্র হোন না কেন লেখাপড়া করার সময় অবশ্যই ইন্টার্শিপ নামে শব্দটির সাথে আপনার পরিচিত হয়েছে।

হয়তোবা ইন্টার্নশিপ সম্পর্কে আপনার বিস্তারিত ধারণা নেই ।

কিন্তু বর্তমান সময়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি লেখাপড়ার বাইরে বিভিন্ন বিষয়ে অভিজ্ঞতা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যেকোনো চাকরির ক্ষেত্রে।

একাডেমিক সার্টিফিকেট আপনার যতই ভাল রেজাল্ট থাকুক না কেন যদি কর্ম ক্ষেত্রে আপনার যদি ক্রিয়েটিভিটি এবং স্কিল ভালো না হয়।

সে ক্ষেত্রে আপনার কর্মক্ষেত্রে খুব কম সফলতা পাবেন। তাই অবশ্যই চেষ্টা করবেন লেখাপড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন কোম্পানিতে ইন্টারসিপ করার চেষ্টা করবেন।

আপনার পরবর্তী চাকরি জীবনে হোক অথবা ব্যবসায়ী জীবনে হোক এটি আপনার অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এবং ইন্টার্নশিপ সম্পর্কে আপনার বিভিন্ন প্রকার বাস্তব অভিজ্ঞতা সম্পন্ন হবে।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

তাই সবসময় চেষ্টা করবেন আপনি যে বিষয়ে লেখাপড়া করেন না কেন বিভিন্ন কোম্পানি অথবা ব্যবসা সম্পর্কে খুব ভাল আইডিয়া জেনারেট করে রাখা।

যাতে পরবর্তী জীবনে আপনি যেকোনো কাজে সফলতা খুব দ্রুত পেতে পারেন।

তো আজকের এই আর্টিকেল দ্বারা আমি আপনাকে জানাবো ,  internship  কি বা ইন্টার্নশিপ মানে কি (internship meaning in Bengali). 

এই ইন্টার্নশীপ এর প্রকার, ইন্টার্নশিপ এর প্রয়োজনীয়তা, ইন্টার্নশিপ এর বৈশিষ্ট্য এবং internship কিভাবে করবেন ? internship ki এই নিয়ে সম্পন্ন একটি আর্টিকেল লিখেছি।

আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ার পর আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। চলুন জেনে নেয়া যাক ইন্টার্নশিপ সম্পর্কে বাংলা ভাষায়।

ইন্টার্নশিপ কি – What Is Internship in Bengali ?

ইন্টার্নশিপ হল একটি প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ, কাজের অভিজ্ঞতা বা শিক্ষার সুযোগের সময়কাল। ইন্টার্নশিপ একটি নির্দিষ্ট এলাকা বা পেশায় জ্ঞান এবং দক্ষতা অর্জনের সুযোগ প্রদান করে।

তারা প্রায়ই অবৈতনিক এবং একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য স্থায়ী হয়। ইন্টার্নশিপের সুবিধার মধ্যে রয়েছে নতুন দক্ষতা শেখা, সম্পর্ক তৈরি করা এবং পেশাদার অভিজ্ঞতা অর্জন।

অনেকেই জানতে চাই যে ইন্টার্নশিপ এর বাংলা অর্থ কি? তাদের উদ্দ্যেশে বলল যে ইন্টার্নশিপ এর বাংলা অর্থ হচ্ছে শিক্ষানবিসি বা শিক্ষানবিসের কাজ।

আমি যদি আরোও সহজ ভাবে বোঝায় তাহলে বলা যায়, internship মানে হলো কোনো ছাত্র বা ডাক্তার এর জন্য প্রাকট্রিকাল অভিজ্ঞতা নেয়ার জন্য

একটি নির্দিষ্ট সময় এর মধ্যে কোনো প্রতিষ্ঠানের মধ্য থেকে বিভিন্ন্য ধরনের বিষয় সম্পর্কে জানা।

উধাহরন স্বরূপ বলা যায়, যখন কোন একজন ডাক্তার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা সম্পন্ন শেষ করার পর বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য কোন একটি হসপিটালে সহকারি ডাক্তার হিসেবে কাজ করে।

আর এই কাজগুলোর নির্দিষ্ট একটি সময়ে পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং মূলত তাকে ইন্টার্নশিপ বলা হয়।

ইন্টার্নশিপ মানে কি – internship meaning in Bengali

উপরে আমি ইতিমধ্যে আপনাকে জানিয়েছি যে ইন্টার্নশিপ কি।

এখন আপনাদের মাঝে আবারো বলতে চাচ্ছি যে ইন্টার্নশিপ মানে হল স্বল্পসময়ের কোন একটি কাজের অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য কোন কাজে যুক্ত হওয়াকে কাজকে ইন্টার্নশিপ বলে।

সাধারণত ইন্টার্নশিপ কাজগুলোতে ছাত্র-ছাত্রীরা বেশি আগ্রহী হয়ে থাকে। কেননা এটি তাদের পরবর্তী চাকরিজীবনে এবং অন্যান্য নানা ধরনের কাজে অভিজ্ঞতাগুলো নানা রকম সাহায্য করে থাকে।

আমি ইতিপূর্বে আপনাকে বলেছি ইন্টার্নশিপ মানে কি অথবা ইন্টার্নশিপ কি।

পূর্বের ন্যায় আমাকে এবারও বলতে হচ্ছে যে, ইন্টার্নশিপ মানে হচ্ছে  নির্দিষ্ট কোন সময় অথবা অনেক কম সময়ের জন্য কোন একটি সংগঠন, কোম্পানি, বা কোন অফিসে কাজ করা।

এবং সে কাজের বিনিময়ে কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করার জন্য যে প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করা হয় তাকে ইন্টার্নশিপ বলা হয়।

আর এই ধরনের ইন্টার্নশিপের কারণে তাদের পরবর্তী জীবনে বিভিন্ন চাকরির ক্ষেত্রে রেফারেন্স হিসেবে কাজ করে।

এবং বিভিন্ন প্রকার অফিশিয়াল কাজ সম্পর্কে তাদের অভিজ্ঞতা অর্জন হয় পরবর্তীতে তাদের কাজগুলো খুব সহজ হয়ে যায়।

বিশেষ করে ডাক্তার এবং ইঞ্জিনিয়ার দের ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলক করা হয়ে থাকে।

এমন অনেক ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেখানে আপনার ইন্টার্নশিপের বিভিন্ন রিপোর্ট এবং কাজকর্মের একটা ফাইল শিক্ষাঙ্গনে জমা দিতে হয়।

এবং ফাইনাল রিপোর্ট এর সাথে আপনার ইন্টার্নশিপের রিপোর্টের অনেক ভূমিকা পালন করে।

ইন্টার্নশিপের রিপোর্টে যে ধরনের বিষয়গুলো লিখিতো দিতে হয়।

  • আপনি যেখানে ইন্টার্নশিপ করেছেন সেই কোম্পানির অথবা অফিসের নাম।
  • ইন্টারে থাকার সময় আপনাকে কি কাজ দেয়া হয়েছে এবং আপনি কিভাবে কাজগুলো সম্পন্ন করেছেন এ বিষয়ে লিখিত দিতে হবে।
  • আপনার কাজগুলো করতে কতদিন সময় লেগেছে অথবা আপনি কাজগুলো করার সময় কি রকম ফিল করেছেন।
  • সে কোম্পানি অথবা অফিসে ইন্টার্নশিপ করার পর আপনি সেখানে কি কি কাজ জমা দিয়েছেন সে সম্পর্কে লিখিত।
  • আপনি যে ইন্টার্নশিপ করেছিলেন এবং সেখানে আপনি কি কাজ করেছেন এবং আপনার ইন্টার কাজগুলো কেমন ছিল সে সম্পর্কে একটি সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে হবে।
  • সেই রিপোর্ট এর ভিতরে অবশ্যই আপনাকে ইন্টার্নশিপের যোগ দেয়ার তারিখ থেকে শুরু করে ইন্টার্নশিপ থেকে প্রস্থান করার ডেট গুলো উল্লেখ করতে হবে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আপনার internship report এর সাথে মিল রেখে আপনার ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষার রেজাল্টের মান বন্টন করা হয়।

সেজন্য ইন্টার্নশিপ করার পর আপনার সেই অফিস, কোম্পানিতে খুব সুন্দরভাবে কাজগুলো সম্পন্ন করতে হবে।

কেননা সে অনুযায়ী রিপোর্ট হবে এবং সেই রিপোর্টগুলো আপনার পরীক্ষার সাথে যুক্ত হয়ে যাবে।

উপরের আলোচনা থেকে হয়তো আপনি বুঝে গেছেন যে ইন্টার্নশিপ মানে কি, ইন্টার্নশিপ কাকে বলে এবং ইন্টার্নশিপ কেন প্রয়োজনীয়।

এবার আমরা জানবো যে ইন্টার্নশিপ কত প্রকার এবং কি কি। নিচের আলোচনা থেকে জেনে নিন এর প্রকার সমূহ গুলা।

ইন্টার্নশিপ এর প্রকার – Types Of Internship

সাধারণত ইন্টার্নশিপ ৫ প্রকারের হয়ে থাকে নিম্নে এর প্রকারভেদ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ইন্টার্নশিপ একজন শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বিভিন্ন ধরনের ইন্টার্নশিপ আছে, এবং প্রতিটি তার নিজস্ব সুবিধা প্রদান করে।

এখানে ইন্টার্নশিপের সবচেয়ে সাধারণ প্রকারগুলি দেখুন.

Paid Internships

ইন্টার্নশিপ অনেক ক্যারিয়ারের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। তারা লোকেদের কাজের অভিজ্ঞতা অর্জনের, নতুন দক্ষতা শিখতে এবং এমন সংযোগ তৈরি করে যা ভবিষ্যতে কাজের সুযোগের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

Paid Internships বলতে যেখানে ইন্টার্নশিপ করার পর আপনার কাজের পাশাপাশি সেই কোম্পানি অথবা অফিস আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণে কিছু অর্থ প্রদান করে থাকবে।

এটি মূলত হয়ে থাকে বিভিন্ন প্রকার প্রাইভেট সেক্টরের অফিস অথবা কোম্পানিতে। যারা কিনা আপনার ইন্টার্নশিপের কাজের জন্য অর্থ প্রদান করে থাকে।

আপনার জেনে রাখা ভালো যে, ইন্টার্নশিপ  যে টাকা গুলা আপনাকে দেওয়া হয়ে থাকে তাকে stipend amoun বলা হয়ে থাকে।

আর আপনাকে ইন্টার্নশিপের দেয়া এই stipend amount গুলো খুব একটা বেশি হয় না।

প্রদত্ত ইন্টার্নশিপ মূল্যবান অভিজ্ঞতা প্রদান করতে পারে এবং আপনাকে ক্যারিয়ারের পথ খুঁজে পেতে সহায়তা করতে পারে।

আপনি কলেজে থাকা কালিন  চাকরি খোঁজার সময় এই রকম ইন্টার্নশিপ আপনাকে অর্থ উপার্জন করতে সহায়তা করবে।

ইন্টার্নশিপ বেছে নেওয়ার সময়, আপনার ক্যারিয়ারের লক্ষ্য এবং আপনি কী ধরনের অভিজ্ঞতা চান তা বিবেচনা করা গুরুত্বপূর্ণ।

Unpaid Internship

একটি অবৈতনিক ইন্টার্নশিপ এমন একটি অভিজ্ঞতা যা প্রায়শই মূল্যবান কাজের অভিজ্ঞতা প্রদান করে।

আনপেইড ইন্টার্নশিপ বলতে, তাকে বোঝায় যেখানে আপনি ইন্টার্নশিপ করার পর কাজের পাশাপাশি তারা কোন ধরনের অর্থ প্রদান করবে না।

যাকে আমরা stipend amount বলে থাকি। তবে এখান থেকে আপনি আপনার ইন্টার্নশিপের কাজের রিপোর্টসহ সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন খুব সহজেই।

যা কিনা আপনার পরবর্তী কাজের ক্ষেত্রে বা রেজাল্টের জন্য বিশেষ ভূমিকা রাখবে । Unpaid internship মুলত  Non – Profit Organisation হয়ে থাকে।

এছাড়াও বিভিন্ন ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান, অফিস এবং কোম্পানিতে unpaid internship হয়ে থাকে।

তাহলে আমরা বলতে পারি যে, আনপেইড ইন্টারনেট বলতে তাকে বোঝায় যেখানে ইন্টার্নশিপ করার পর আপনার কাজের জন্য কোন ধরনের অর্থ প্রদান করা হয় না।

Summer Internships

ইন্টার্নশিপ যেকোনো শিক্ষার্থীর শিক্ষার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তারা শিক্ষার্থীদের তাদের আগ্রহের ক্ষেত্রে কাজের অভিজ্ঞতা অর্জনের সাহায্য করে।

এবং কখনও কখনও ইন্টার্নশিপ সম্পূর্ণ হওয়ার পরে একটি চাকরি খুঁজে পায়।

পেইড এবং অবৈতনিক পদ সহ অনেক ধরণের ইন্টার্নশিপ রয়েছে। Summer Internships সাধারণত গ্রীষ্মকালীন সময়ে হয়ে থাকে।

গ্রীষ্মকালীন ইন্টার্নশিপগুলি কিছু অর্থ উপার্জনের সাথে সাথে আপনার পছন্দসই ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা অর্জনের একটি দুর্দান্ত উপায়।

এই ধরনের ইন্টার্নশিপগুলি সাধারণত চার থেকে বারো সপ্তাহের মধ্যে স্থায়ী হয় এবং বেশিরভাগ সংস্থাগুলি পেইড এবং অবৈতনিক উভয় অবস্থানই অফার করে।

আবেদন করার আগে আপনি যে ইন্টার্নশিপের বিষয়ে আগ্রহী তার নির্দিষ্ট প্রয়োজনীয়তাগুলি নিয়ে গবেষণা করতে ভুলবেন না।

কিছু সাধারণ গ্রীষ্মকালীন ইন্টার্নশিপ শিরোনাম অন্তর্ভুক্ত: অফিস সহকারী, গবেষণা সহকারী, ইভেন্ট পরিকল্পনাকারী এবং প্রশাসনিক সহকারী।

এধরনের ইন্টার্নশিপ গুলো মূলত গরমকালে হয়ে থাকে এবং এইটা আপনার পার্ট টাইম অথবা ফুল টাইম হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

Work Research Internship

ইন্টার্নশিপ শিক্ষার্থীদের জন্য কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন এবং তাদের দক্ষতা বিকাশের একটি চমৎকার সুযোগ প্রদান করে।

তারা ইন্টার্নদের তাদের ক্ষেত্রের পেশাদারদের সাথে নেটওয়ার্ক করার এবং কর্মজগত সম্পর্কে জানার সুযোগ দেয়।

অনেক কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় কাজের গবেষণা ইন্টার্নশিপ অফার করে, যা অনন্য কারণ তারা পেশাদার পরিবেশে কাজ করার সময় শিক্ষার্থীদের নিজস্ব গবেষণা পরিচালনা করতে দেয়।

আপনি আরোও দেখতে পারেন…

সাধারণত Work Research Internship এ কলেজ এবং ইউনিভার্সিটির ফাইনাল ইয়ারের স্টুডেন্টরা করে থাকে।

এক্ষেত্রে ইন্টার্শিপ করার একটাই কারন হয়ে থাকে সেটা হল, আপনি যে কোম্পানির উপর ইন্টার্নশিপ করেছেন।

সেই কোম্পানি সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের রিসার্চ  করে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে রিপোর্ট তৈরি করতে হবে।

আর এই ধরনের ইন্টারসিটি বলা হয়ে থাকে Work Research Internship.

Virtual Internship

একটি ভার্চুয়াল ইন্টার্নশিপ, যা টেলিকমিউটিং ইন্টার্নশিপ নামেও পরিচিত, এটি একটি অনলাইন কাজের সুযোগ যা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে দেয়।

আজকের প্রযুক্তির সাথে, ভার্চুয়াল ইন্টার্নশিপ ব্যবসাগুলিকে সারা বিশ্বের মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে সংযোগ করার ব্যবস্থা করে দেয়।
ভার্চুয়াল ইন্টার্নশিপগুলি ব্যস্ত শিক্ষার্থীদের জন্য উপযুক্ত যারা তাদের আরামদায়ক বাড়ি ছাড়াই বাস্তব-বিশ্বের কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে চান।

আরও সহজভাবে বললে বলা যায়, যে ইন্টার্শিপ গুলো দ্বারা কোন ধরনের অফিসে সরাসরি না গিয়ে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঘরে বসেই সকল কাজকর্ম সম্পন্ন করা যায়। তখনই তাকে বলা হয় Virtual Internship.

ইন্টার্নশীপ করলে কি কি লাভ হবে ?

উপরের আর্টিকেল থেকে আমরা জানতে পেরেছি ইন্টার্নশিপ কি বা ইন্টার্শিপ কাকে বলে এবং কত প্রকার ও কি কি।

এখন আমরা জানতে পারব ইন্টার্নশিপ করলে কি কি লাভ হবে এ সম্পর্কে বিস্তারিত।

ইন্টার্নশিপ করার মাধ্যমে আপনার লাভ ছাড়া কোনো ক্ষতি নেই। কেননা আপনার চাকরির জীবনে অনেক ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রভাব ফেলবে।

যদি আপনি কোন ধরনের ইন্টার্নশিপ এ আগেই সে সম্পর্কে কাজ করে থাকেন যুক্ত হয়ে থাকেন। তাহলে যেকোনো কাজ আপনার জন্য সহজ হয়ে থাকবে।

ধরুন আপনার ছাত্রজীবনে অর্থাৎ শিক্ষা লাভ করার সময় আপনি যদি কখনো অ্যাসিস্ট্যান্ট টিচার অথবা যে কোন ডাক্তারি কাজের জন্য অ্যাসিস্ট্যান্ট এর কাজ করে থাকেন।

তাহলে আপনি বাস্তব জীবনের সকল কাজের অভিজ্ঞতা আপনার চাকরি জীবনের আগে থেকেই পেয়ে গেলেন।

এতে করে আপনার চাকরির ক্ষেত্রে অনেকগুলো কাজ খুব সহজ মনে হবে। কেননা আপনার চাকরির আগেই আপনি এই ধরনের কাজগুলো আগেও করেছেন ইন্টার্নশিপের যুক্ত থেকে।

চলুন জেনে নেয়া যাক ইন্টার্শিপ করলে কি কি লাভ হবে আপনার

১. কাজের অভিজ্ঞতা বাড়ে

আপনি যদি একজন কলেজের স্টুডেন্ট অথবা গ্রেজুয়েশন সবেমাত্র শেষ করেছেন এবং আপনার কোন কাজের অভিজ্ঞতা নাই।

কিন্তু আপনি চাচ্ছেন কোন কাজের অভিজ্ঞতা হোক আপনার। আর সেজন্য আপনার জন্য বেস্ট পথ হচ্ছে কোন একটি কোম্পানি,অফিসে অথবা অন্য যে কোন কাজে ইন্টার্নশিপ করা।

এতে করে আপনার লাইফের সাথে নতুন একটি কাজের অভিজ্ঞতা যুক্ত হয়ে যাবে যা পরবর্তীতে আপনার কাজকে আরও দ্রুত পরিসরে সাহায্য করবে।

আপনি হয়তো জেনে থাকবেন এখন ডিজিটাল যুগ। এই সময় শুধুমাত্র একাডেমিক শিক্ষা দিয়ে অনেক কিছুই করা সম্ভব হয় না ।

কিন্তু আপনার যদি সাথে বাস্তব কাজের অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনার কাজ পেতে অথবা চাকরি পেতে অনেক ক্ষেত্রে সাহায্য করে থাকে।

তাই লেখা পড়ার পর অথবা লেখাপড়ার সাথে অন্য কোন কাজে ইন্টার্নশিপ করা অবশ্যই আপনার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হতে পারে।

২. পরবর্তীতে কাজ পেতে সুবিধা

ধরুন আপনার লেখাপড়ার পাশাপাশি আপনি কোন একটা অফিসে অফিস সহায়ক হিসেবে কাজ করেছেন। আর আপনি এটা কিভাবে জানেন যে একজন অফিস সহায়ক এর কি কি কাজ করতে হয় এবং কিভাবে করতে হয়।

কেননা আপনি ইতিপূর্বে পড়ালেখার পাশাপাশি অফিস সহায়ক হিসেবে একটি কাজ করেছিলেন ।

সেহেতু আপনি ভালো করেই জানেন অফিসারের কোন কাজগুলো করা দরকার এবং কোন কাজগুলো করা দরকার নাই।  এবং আপনার বাস্তবিকতা অবশ্যই হয়েছে ইন্টার্নশিপের কারণে।

সেজন্য পরবর্তী সময়ে যখন আপনি কোন অফিসে অথবা কোন চাকরির ক্ষেত্রে যদি অফিস সহায়ক হিসেবে নিয়োগ পেতে চান ।

তাহলে সবার থেকে আপনি বেশি গ্রহনযোগ্য হবেন কেননা আপনার আগের কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। আর আপনি যখন ইন্টারভিউ বোর্ড অথবা কাগজপত্র জমা দিবেন।

সেক্ষেত্রে আপনার কাজের অভিজ্ঞতা রেফারেন্স হিসেবে আপনার কাজগুলো কাগজপত্র জমা দিতে পারবেন।

৩. নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস তৈরি হওয়া

আপনি যখন আগে থেকেই এসমস্ত কাজগুলো করে থাকেন তখন আপনার প্রতি একটি আত্মবিশ্বাস তৈরি হয়ে যাবে। যে হা আমি এই কাজগুলো পারবো ।

কেননা আমি এই কাজগুলো সাথে আগেও যুক্ত ছিলাম। সেজন্য ইন্টার্নশিপ অবশ্যই আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় যা আপনার পরবর্তী সকল ধরনের কাজে সাহায্য করে থাকে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আপনি যখন পড়ালেখা শেষ করে কোন ইন্টারভিউ দিতে যাবেন অথবা বাস্তব অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হবে।

তখন আপনি বিড়ম্বনায় পড়ে যাবেন কেননা আপনি এই কাজগুলোর সাথে আগে কখনো জড়িত ছিলেন না।

তাই আপনি সঠিক প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন না বা আপনি কিভাবে কাজ সম্পন্ন করবেন এ সম্পর্কে এক্সপ্লেইন করতে পারবেন না।

প্রথমত আপনার জন্য সঠিক উপায় হল ফুলটাইম চাকরির আগে অবশ্যই একটি পার্ট টাইম জব এর উপর ইন্টার্নশিপ করা।  এতে করে আপনার চাকরির এক্সপেরিয়েন্স বেড়ে যাবে।

আর আপনার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে যখন কাজগুলো করে ফেলবেন তখন যেকোনো কাজের প্রতি আপনার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে।

আর এভাবে ইন্টার্শিপ আপনার কাজের অভিজ্ঞতা বাড়িয়ে দিবে যে কোন কাজের।  তাই অবশ্যই আপনার উচিত full-time কোন চাকরির আগেই ইন্টার্নশিপ এ যুক্ত হয়ে অভিজ্ঞতা অর্জন করা।

৬. টাকা ইনকাম করার সুযোগ

ইন্টার্নশিপ করলে শুধুমাত্র যে কাজের অভিজ্ঞতায় বারে শুধু এটা নয়। এর পাশাপাশি আপনি টাকা আয় করতে পারবেন।

কেননা এমন অনেক ধরনের ইন্টার্নশিপ রয়েছে যেখানে আপনার কাজের অভিজ্ঞতার পাশাপাশি আপনি টাকা আয় করতে পারবেন ।

আপনি ইতিমধ্যে জেনে গিয়েছেন যে পেইড ইন্টার্নশিপের কাজের জন্য আপনাকে কিছু টাকা পেমেন্ট করা হয়ে থাকে।

তাই এখানে বলা যায় যে কাজের অভিজ্ঞতার পাশাপাশি ইন্টার্নশিপের মাধ্যমে আয় করা সম্ভব।

মেডিকেল ইন্টার্নশিপ কি

স্বাস্থ্যসেবা ক্ষেত্রে মূল্যবান অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য উচ্চাকাঙ্ক্ষী ডাক্তারদের জন্য একটি মেডিকেল ইন্টার্নশিপ একটি দুর্দান্ত উপায়।

এটি শিক্ষার্থীদের অভিজ্ঞ পেশাদারদের সাথে কাজ করতে, নতুন দক্ষতা শিখতে এবং চিকিৎসা পেশা সম্পর্কে বোঝার বিকাশ করতে দেয়।

মেডিকেল ইন্টার্নশিপগুলি সাধারণত কাঠামোগত প্রোগ্রাম যা ছাত্রদের রোগীর যত্ন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ এবং অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করে।

শিক্ষার্থীরাও চিকিৎসা পেশাজীবীদের ছায়া দিতে পারে এবং গবেষণা প্রকল্পে তাদের সাথে কাজ করতে পারে।

ইন্টার্নশিপগুলি সাধারণত এক সেমিস্টার থেকে এক বছর পর্যন্ত স্থায়ী হয় এবং হাতে-কলমে শেখার অভিজ্ঞতা অফার করে।

যা ওষুধের বিভিন্ন দিক যেমন রোগ নির্ণয়, চিকিত্সার বিকল্প এবং রোগীর ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তাদের জ্ঞান বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

মেডিকেল ইন্টার্নশিপ শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যসেবা ক্ষেত্রের মধ্যে বিভিন্ন বিশেষত্ব যেমন সার্জারি, জরুরী ওষুধ, শিশুরোগ বা মনোরোগবিদ্যা অন্বেষণ করার সুযোগ দেয়।

ব্যাংক ইন্টার্নশিপ কি

একটি ব্যাংক ইন্টার্নশিপ হল ব্যাংক এবং ফিনান্স শিল্পে আগ্রহীদের জন্য অভিজ্ঞতা অর্জন, নতুন দক্ষতা শেখার এবং প্রতিদিনের ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে আরও ভাল বোঝার বিকাশের একটি অমূল্য সুযোগ।

উচ্চ বিদ্যালয়ের স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর সহ শিক্ষার সকল স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যাংক ইন্টার্নশিপ উপলব্ধ।

ইন্টার্নরা ব্যাংক ক্ষেত্রের মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্মুক্ত হতে পারে যেমন বিনিয়োগ ব্যবস্থাপনা, খুচরা ব্যাংকিং, বাণিজ্যিক ঋণ, আর্থিক পরিকল্পনা এবং বৈদেশিক মুদ্রার বাজার।

ইন্টার্নশিপগুলি সাধারণত হাতে-কলমে শেখার ক্রিয়াকলাপগুলিকে জড়িত করে যা ইন্টার্নকে তারা যে বিশেষ সেক্টরে কাজ করছে তার একটি বিস্তৃত ওভারভিউ দেয় ৷

এতে অভিজ্ঞ ব্যাংকদের প্রকল্পের কাজে অংশগ্রহণ করা জড়িত হতে পারে যা তাদের জ্ঞানের ভিত্তিকে আরও উন্নত করে ৷

ইন্টার্নশিপ নিয়ে আমাদের শেষ কথা

উপরের আলোচনা থেকে আমরা জানতে পেরেছি ইন্টার্নশিপ কাকে বলে এবং internship কি  বিস্তারিত জানতে পেরেছি।

আমরা আরও জেনেছি internship meaning in Bengali নিয়ে।

ইন্টার্নশিপ আমাদের ব্যক্তিগত জীবন এবং পরবর্তী জীবনে কিভাবে প্রভাব ফেলবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

এরপরও যদি ইন্টার্নশিপ নিয়ে আপনাদের মনে কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জিজ্ঞাসা করবেন।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

আমরা আপনার কমেন্টের উত্তর দেয়ার জন্য চেষ্টা করব।

আমরা প্রতিনিয়ত তথ্যপ্রযুক্তি এবং অনলাইন থেকে কিভাবে আয় করা হয়। এই সম্পর্কে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন আর্টিকেল প্রবেশ করে যাচ্ছি।

আপনি যদি অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চান।

তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের অনলাইনে ইনকাম ক্যাটাগরি থেকে খুব সহজেই আপনার জন্য উপযুক্ত অনলাইন কাজটি বেছে নিয়ে ইনকাম করতে পারেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap