কম্পিউটারের গ্রাফিক্স কার্ড (graphics card) কি ? এটি কিভাবে কাজ করে ?

কম্পিউটারের গ্রাফিক্স কার্ড : আমরা যারা কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ব্যবহার করি। তারা বেশ ভালো করেই জানি যে, গ্রাফিক্স কার্ড কি

কম্পিউটারের গ্রাফিক্স কার্ড (graphics card) কি ? এটি কিভাবে কাজ করে ?
কম্পিউটারের গ্রাফিক্স কার্ড (graphics card) কি ? এটি কিভাবে কাজ করে ?

কেননা, এটি হলো কোনো একটি কম্পিউটার ডিভাইস থেকে অন্যান্য হার্ডওয়্যার গুলোর মতো বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। যার সাহায্য আমরা আমাদের কম্পিউটার স্কিনে হাই রেজুলেশন এর আউটপুট পেয়ে থাকি।

তবে সত্যিকার অর্থে Graphic Card Ki তা না জানা মানুষ এর সংখ্যাটাও নেহাৎ কম নয়।

আপনি এমন অনেক মানুষ কে খুজে পাবেন, যারা দীর্ঘদিন থেকে কম্পিউটার ব্যবহার করছে।

অথচ তিনি জানেন না যে আসলে, গ্রাফিক্স কার্ড কি এবং আমাদের কম্পিউটার ডিভাইসে Graphic Card নামক হার্ডওয়্যার টি ব্যবহার করলে কি কি সুবিধা পাবো।

তাই আজকের আর্টিকেলে আমি গ্রাফিক্স কার্ড এর সমস্ত বিষয়কে স্টেপ বাই স্টেপ তুলে ধরার চেস্টা করবো।

মূলত গ্রাফিক্স কার্ড কি (what is graphics card in bengali), কেন গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করা হয় এবং আমাদের বাংলাদেশে গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম কেমন।

আপনি আরো পড়তে পারেন…

গ্রাফিক্স কার্ড কি ধরনের ডিভাইস তার প্রতিটা খুটিনাটি বিষয় নিয়ে আজকে বিষদভাবে আলোচনা করবো।

তাহলে আর দেরী কেন, চলুন মূল আলোচায় ফিরে যাওয়া যাক। 

কম্পিউটার গ্রাফিক্স কার্ড কি ? (What Is A Graphics Card)

আপনি হয়তবা জেনে থাকবেন যে, একটি কম্পিউটার নানা রকম হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার এর সমন্বয়ে গঠিত হয়ে থাকে। যেমন, RAM, Rom, Hard Disk ইত্যাদি।

ঠিক তেমনিভাবে গ্রাফিক্স কার্ড হলো একটি কম্পিউটার এর গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস। যার মাধ্যমে আপনি আপনার কম্পিউটার স্কিনে হাই রেজুলেশন এর আউটপুট দেখতে পারবেন।

হয়তবা বিষয়টি আপনার কাছে তেমন ক্লিয়ার নাও হতে পারে। তাই চলুন, গ্রাফিক্স কার্ড কি এই বিষয়কে আরেকটু সহজ ভাবে আলোচনা করা যাক। এতে করে আপনার বুঝতে সুবিধা হবে।

সহজ ভাষায় বলতে গেলে, গ্রাফিক্স কার্ড কে সংক্ষেপে বলা হয়, Video Card.তবে এটি ছাড়াও গ্রাফিক্স কার্ড কে আরো ভিন্ন ভিন্ন নামে ডাকা হয়ে থাকে যেমন, GPU, Display Card, Display Adepter ইত্যাদি ইত্যাদি।

তো এই গ্রাফিক্স কার্ডের মাধ্যমে আমরা আমাদের কম্পিউটার স্ক্রিনে হাই রেজুলেশন এর ইমেজ/ভিডিও দেখতে পারি। 

গ্রাফিক্স কার্ড কিভাবে কাজ করে ?

উপরের সংক্ষিপ্ত আলোচনার মাধ্যমে আপনি গ্রাফিক্স কার্ড কি, সে সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। কিন্তুু এখন যদি আপনাকে প্রশ্ন করা হয় যে, গ্রাফিক্স কার্ড কিভাবে কাজ করে।

তাহলে কি আপনি এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন ? – থাক! এই প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আপনাকে ভাবতে হবেনা। বরং আমিই বলে দিচ্ছি আসলে, গ্রাফিক্স কার্ড কিভাবে কাজ করে।

দেখুন, আমরা আমাদের কম্পিউটার বা ল্যাপটপ স্ক্রিনে যেসব ছবি বা ভিডিও দেখি। সেগুলো কিন্তুু অনেক ছোট ছোট Pixel এর সমন্বয়ে তৈরি করা হয়ে থাকে।

আর এই অসংখ্য ছোট ছোট পিক্সেল এর সমন্বয়ে তৈরি হওয়া দৃশ্যমান হয় বলেই আমরা কম্পিউটার এর মনিটরে নানা রকম ভিডিও/ইমেজ দেখতে পাই।

একটি গ্রাফিক্স কার্ড কে সংক্ষেপে বলা হয় GPU. যার পূর্ন অর্থ  GPU full meaning হলো, Graphics Processing Unit.

তো এই ইউনিট এর প্রধান কাজ হলো, আমাদের কম্পিউটার এর সিপিইউ তে যেসব বাইনারি ডাটা সংবলিত হয়। সেই ডাটা গুলো কে মনিটর এর সাহায্য আউটপুট হিসেবে প্রদর্শন করা।

প্রথমে এই বাইনারি ডাটা গুলো প্রসেস করার জন্য গ্রাফিক্স কার্ডে যায়। তারপর সেখান থেকে প্রসেস হয়ে মনিটর স্কিনে প্রদর্শিত হয়। 

Computer Graphics Card ব্যবহারের লাভ কি ?

একটি কম্পিউটার ডিভাইসের সাথে সংযুক্ত থাকা প্রতিটা হার্ডওয়্যার এর কোনো না কোনো কাজ আছে।

ঠিক তেমনি ভাবে আপনি আপনার কম্পিউটারে ভিন্ন ভিন্ন কারনে এই Graphic Card ব্যবহার করতে পারবেন।

তো এখন হয়তবা আপনার মনে প্রশ্ন জেগে থাকতে পারে যে, আসলে কি কি কারনে গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করতে হয়। তো চলুন এবার সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

০১| High Regulation Video/Image 

আমরা আমাদের কম্পিউটারে যেসব কাজ করি। সেই কাজ গুলো মূলত মনিটর স্ক্রিনে আউটপুট হিসেবে দেখতে পাই। কিন্তুুু যেসব কম্পিউটারে কোনো ভালো মানের Graphic Card থাকেনা।

সেইসব কম্পিউটারে আপনি তেমন হাই রেজুলেশন এর ফটো কিংবা ভিডিও দেখতে পারবেন না ৷ তবে আপনি যদি উক্ত কম্পিউটারে ভালো মানের একটি GPU ব্যবহার করেন।

তাহলে সেই কম্পিউটারে আপনি High Regulations এর Video/Image দেখতে পারবেন। 

০২| Play High Quality Game 

আপনি এমন অনেক মানুষকে খুজে পাবেন, যারা মূলত কম্পিউটার ডিভাইসে Video Games খেলতে অনেক পছন্দ করেন।

আর আপনি হয়তবা জেনে থাকবেন যে, যদি আপনার কম্পিউটারে হাই কোয়ালিটি ভিডিও গেমস খেলতে চান।

তাহলে আপনাকে অবশ্যই সেই কম্পিউটার ডিভাইসে Graphic Card ব্যবহার করতে হবে। 

০৩| Video Editing & Photo Editing 

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা নানা রকম 3D Photo editing এবং Video Editing এর কাজ করে থাকেন।

তো এই ধরনের এডিটিং করার জন্য একটি হাই কনফিগারেশন এর কম্পিউটার অবশ্যই থাকতে হবে।

কিন্তুু এর পাশাপাশি রেন্ডারিং করতে সেই কম্পিউটারে একটি ভালো মানের গ্রাফিক্স কার্ড থাকতে হবে। 

গ্রাফিক্স কার্ডের সুবিধা ? | Benifit Of Graphics Card 

উপরের আলোচনা থেকে আপনি গ্রাফিক্স কার্ড রিলেটেড অনেক বিষয়ে জানতে পেরেছেন।

যেমন শুরুতে আপনি জানতে পেরেছেন যে, গ্রাফিক্স কার্ড কি এবং গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করার কিছু কারন সম্পর্কে।

কিন্তুু এসবের পাশাপাশি আপনাকে গ্রাফিক্স কার্ডের সুবিধা সম্পর্কেও জেনে নিতে হবে। তো চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

তো আধুনিক বিজ্ঞানের প্রত্যেকটা আবিস্কারের পেছনে কোনো না কোনো সুবিধাজনক দিক আছে।

ঠিক তেমনিভাবে আপনি যদি Graphic Card ব্যবহার করেন তাহলে আপনি বিশেষ কিছু সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। যেমন, 

  1. বর্তমানে উন্নত প্রযুক্তির বদৌলতে আমরা বিভিন্ন রকমের ফরম্যাটের ভিডিও দেখতে পাওয়া যায়। পূর্বের দিন গুলোতে ভিডিও এর ফরম্যাট শুধুমাএ HD এর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও আজকের দিনে আমরা 4K Video পর্যন্ত দেখতে পাচ্ছি।
  2. আর এতো হাই রেজুলেশন এর ভিডিও দেখার সুযোগটা মূলত Graphic Card এর কারনেই হচ্ছে। 
  3. 4K Video Formet এর পাশাপাশি আপনি গ্রাফিক্স কার্ড এর মাধ্যমে HDR Video দেখার সুবিধাও পাবেন। 
  4. আজকের দিনে অনলাইন প্লাটফর্ম গুলোতে Live Video এবং HD quality এর পিক দেখার সুযোগ হয়েছে এই গ্রাফিক্স কার্ড এর বদৌলতে। 
  5. এখনকার দিনে ক্রমাগত ভাবে অ্যাপস ডেভলপার থেকে শুরু করে ভিডিও এডিটর এর পরিমান বেড়ে গেছে। কিন্তুু এই কাজ গুলো করতে গেলে অনেক সময় Rendering করার প্রয়োজন হয়।
  6. আর সেই গেন্ডারিং করার কাজটা সহজ হয়েছে গ্রাফিক্স কার্ড এর মাধ্যমে। 
  7. একটি গ্রাফিক্স কার্ড এর যতগুলো সুবিধা আছে। তার মধ্যে অধিক সুবিধা ভোগ করতে পারবে গেম প্রিয় মানুষ গুলো।
  8. কারন এই Graphic Card এতোটাই উন্নত প্রযুক্তি যার মাধ্যমে আপনি অনেক হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন Games খেলতে পারবেন। 

তো একটি গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহারের যে সুবিধা জনক দিক গুলো রয়েছে। তা নিয়ে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

আর আপনি যদি উপরে উল্লেখিত সুবিধা গুলো ভোগ করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনার কম্পিউটার ডিভাইস এর সাথে একটি Graphic Card যুক্ত থাকতে হবে। 

গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়া কম্পিউটারে গেম খেলা সম্ভব ?

উপরোক্ত আলোচিত বিষয় গুলো জানার পর আপনার মনে আরো একটি প্রশ্ন জেগে থাকতে পারে।

সেটি হলো, যদি আপনি আপনার কম্পিউটারে কোনো প্রকার Graphic Card না থাকে, তাহলে কি আপনি সেই কম্পিউটার দিয়ে গেম খেলতে পারবেন কিনা।

তো চলুন এবার সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

আপনি হয়তবা জেনে থাকবেন যে, আমাদের ব্যবহার করা প্রতিটা কম্পিউটারের সাথে গ্রাফিক্স কার্ড সংযুক্ত করা থাকে। কেননা, একটি কম্পিউটারের মনিটর স্ক্রিনে আউটপুট প্রদর্শনের জন্য Graphic Card এর কোনো বিকল্প নেই।

আপনি আরো দেখতে পারেন…

তবে আপনি চাইলে সেই গ্রাফিক্স কার্ডের মাধ্যমে আপনার কম্পিউটার দিয়ে বিভিন্ন ধরনের গেমস খেলতে পারবেন।

তবে বিপত্তি সৃষ্টি হবে সেই সময়ে, যখন আপনি কোনো হাই রেজুলেশন এর ভিডিও গেমস প্লে করবেন। কেননা, আজকের দিনের যেসব Video Games গুলোকে ডেভলপ করা হচ্ছে।

সেগুলো তুলনায় ভাবে অনেক হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন গ্রাফিক্সের। আর আপনি যদি সেই ভিডিও গেমস গুলোকে স্মুথলি প্লে করতে চান।

তবে অবশ্যই আপনাকে সেই কম্পিউটারে আলাদা ভাবে Graphic Card যুক্ত করে নিতে হবে।

গ্রাফিক্স কার্ড কি ধরনের ডিভাইস

একটি গ্রাফিক্স কার্ড হল একটি হার্ডওয়্যার উপাদান যা একটি কম্পিউটারে ছবি এবং ভিডিও প্রদর্শন করতে ব্যবহৃত হয়। এটি 3D রেন্ডারিং গেমিং এবং ভিডিও সম্পাদনার মতো কাজের জন্যও ব্যবহৃত হয়।

গ্রাফিক্স কার্ডটি কম্পিউটারের মাদারবোর্ডে প্লাগ করা থাকে এবং এতে সাধারণত এক বা একাধিক ভিডিও পোর্ট থাকে যেমন HDMI DisplayPort বা DVI।

গেমিং ভিডিও এডিটিং এবং অন্যান্য গ্রাফিক্স-নিবিড় কাজগুলির জন্য এটি একটি কম্পিউটারের একটি অপরিহার্য অংশ। অনেক নতুন ল্যাপটপ বিল্ট ইন একটি গ্রাফিক্স কার্ড থাকে।

কিন্তু আপনি যদি একটি পুরানো ল্যাপটপ আপগ্রেড করতে চান বা একটি ডেস্কটপ ব্যবহার করতে চান তবে আপনাকে আলাদাভাবে একটি গ্রাফিক্স কার্ড কিনতে হবে।

কম্পিউটারের জন্য কোন গ্রাফিক্স কার্ড ভালো হবে ?

গ্রাফিক্স কার্ড কি এবং গ্রাফিক্স কার্ড এর সুবিধা কি, আশা করি উপরের আলোচনা থেকে এ বিষয়ে পরিস্কার ধারনা পেয়েছেন।

তবে এবার আমি মূল টপিক নিয়ে আলোচনা করবো। সেটি হলো, কম্পিউটারের জন্য কোন গ্রাফিক্স কার্ড ভালো হবে। তো চলুন এবার সে বিষয়ে সঠিক তথ্য গুলি জেনে নেয়া যাক।

দেখুন, আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা শুরুর দিকে অনেক সস্তা মানের Graphic Card কিনে থাকেন।

আসলে যারা এই কাজটি করেন, তারা তাদের নিজের অজান্তে বেশ বড়সড় একটা ভুল করে ফেলেন ৷ কেননা, মাত্র ৩-৪ হাজার দিয়ে কেনা এই গ্রাফিক্স কার্ড গুলো ততোটা মানসম্মত হয়না।

আর আপনি যেন এই ধরনের সস্তা মানের গ্রাফিক্স কার্ড কিনে নানা সমস্যার সম্মুখীন না হোন। সেজন্য নিচে আমি আপনাকে কিছু ভালো মানের Graphic Card এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো।

যেগুলো আজকের দিনে কম্পিউটার এর জন্য অনেক ভালো মানের গ্রাফিক্স কার্ড হিসেবে পরিচিত। 

০১| GeForce ®GT 1030

আপনি যদি অনেক কম দামের মধ্যে ভালো কোনো গ্রাফিক্স কার্ড খুজে থাকেন। তাহলে এটি হবে আপনার জন্য মানসম্মত একটি Graphic Card.

যা আপনি মাত্র ৫০০০/- দিয়ে কিনে নিতে পারবেন।

2GB RAM, SDDR4-64 Bit, DDR4 কনফিগারেশন থাকা এই গ্রাফিক্স কার্ডের সাহায্য আপনি যেকোনো ধরনের ভিডিও গেমস কে Low & Medium রেজুলেশনে স্মুথলি প্লে করতে পারবেন।

সচরাচর যারা নতুন গেমার, তাদের জন্য এই মিডিয়াম রেন্জের গ্রাফিক্স কার্ডটি অনেক বেশি কাজে দিবে।

কেননা, এটি দিয়ে আপনি বিভিন্ন ধরনের মিডিয়াম গ্রাফিক্স সম্পন্ন গেমস গুলো প্লে করতে পারবেন। যেমন, 

  1. Fifa (15-19)
  2. Fortnite 
  3. Call of duty
  4. NFS MW 2013 
  5. CS Go 
  6. Farcry 3 
  7. Rise of tomb Rider 
  8. Pubg 

আপনি যদি কমদামে ভালো কোনো গ্রাফিক্স কার্ড খুজে থাকেন। তবে আপনি GeForce ®GT 1030 কে নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারবেন। 

০২| GeForce GTX 1050 Ti OC Edition

যদি আপনি গেমিং থেকে শুরু করে টুকটাক ভিডিও এডিট করে থাকেন। তবে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি গ্রাফিক্স কার্ড হবে GeForce GTX 1050 Ti OC Edition.

বলা বাহুল্য যে, বর্তমান সময়ে রিলিজ হওয়া প্রায় অধিকাংশ ভিডিও গেমস কে এর সাহায্য কোনো প্রকার ল্যাগ ছাড়াই প্লে করতো পারবেন। বিশেষ এই Graphics Card টি আপনি মাএ ১০,০০০/- দিয়ে কিনতে পারবেন।

4GB ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন এই গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে আপনি 1080p এর বিভিন্ন ধরনের গেম কে স্মুথলি রান করতে পারবেন। যেমন, 

  1. Fer Cry Primal 
  2. GTA V 
  3. Far Cry 4 
  4. Watch Dogs 

আপনার যদি গ্রাফিক্স কার্ড কেনার জন্য মোটামুটি পর্যায়ের বাজেট থাকে। তাহলে আমি আপনাকে GeForce GTX 1050 Ti OC Edition এটি কেনার জন্য সাজেষ্ট করবো। 

০৩| Radeon RX 560 OC 4GB

মিড লেভেল বাজেট এর মধ্যে উপযুক্ত একটি গ্রাফিক্স কার্ড হলো, Radeon RX 560 OC 4GB. এটি আপনি মাএ ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা দিয়ে কিনে নিতে পারবেন।

যদি আপনি এই বাজেটে ভালো একটি গ্রাফিক্স কার্ড খুজে থাকেন। তবে এটিই হবে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি Graphic Card.

বর্তমান সময়ে অনেক হাই রেজুলেশন যুক্ত গেমস গুলোকে এর মাধ্যমে অনায়াসেই খেলতে পারবেন। তবে যেগুলো একেবারে হাই কোয়ালিটি গেমস, সেগুলো আপনি Low এবং Medium সেটিংসে খেলতে পারবেন। যেমন, 

  1. Grand Theft Auto 5 
  2. Far Cry 5 
  3. Witcher 3 Wild Hunt 
  4. AAA Title Games 

বিশেষ এই গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে উপরোক্ত গেমস গুলো খেলার পাশাপাশি যেগুলো 40/50FPS এর ফ্রেম রেটে খেলা যায়।

সেই ধরনের গেমগুলো কে কোনো প্রকার ল্যাগ ছাড়া স্মুথলি রান করতে পারবেন। 

০৪| Radeon RX570 Gaming – 4GB GDDR5

আপনি যদি ১১ হাজার থেকে ১৩ টাকা দিয়ে কোনো ভালো মানের গ্রাফিক্স কার্ড কিনতে চান। তবে আপনার জন্য Radeon RX570 Gaming – 4GB GDDR5 যথোপযুক্ত একটি গ্রাফিক্স কার্ড।

কেননা, এর মাধ্যমে আপনি যেসব গেমস এর ফ্রেম রেট ৬০+ সেই গেমস গুলোকে আপনি স্মুথলি রান করতে পারবেন।

বলা বাহুল্য যে, এই GPU কে তৈরি করার সময় গেমিং পারফরম্যান্স এর দিকে যথেষ্ট নজর দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

বিশেষ এই গেমিং পারফরম্যান্স যুক্ত Graphic Card দিয়ে অনেক হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন গেমস খেলতে পারবেন। যেমন, 

  1. Apex 
  2. PUBG 
  3. Far Cry 4 
  4. SEIGE 
  5. Battlefield V 
  6. Sniper Warrior 3 

তবে গেমস খেলার পাশাপাশি এই ধরনের গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে আরো বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন।

যেমন, আপনি যদি নানা রকম ভিডিও এডিটিং এর কাজ করে থাকেন। তবে এটি হবে আপনার জন্য মানসম্মত একটি Graphic Card.

০৫| GeForce GTX 1650 – OC Edition – 4GB

আজকের আলোচিত সর্বশেষ গ্রাফিক্স কার্ডের নাম হলো, GeForce GTX 1650 – OC Edition – 4GB.

উপরে আমি যেসব জিপিইউ এর কথা বলেছি, সেগুলোর মধ্যে দামের দিক থেকে এবং পারফরম্যান্স দিক থেকে ভালো একটি GPU.

এর সাহায্য আপনি অনেক বড় বড় হাই রেজুলেশন এর গেমস গুলো কে প্লে করতে পারবেন।

কেননা, এর মাধ্যমে 100 FPS এর ফ্রেম রেট সম্পন্ন গেমস কে অনায়াসে রান করা যায়।

শুধুমাত্র গেমস এর দিক থেকে নয়, বরং এই গ্রাফিক্স কার্ড টি যদি আপনার কম্পিউটার এর সাথে সংযুক্ত থাকে।

তবে আপনি ভিডিও এডিটিং, 3D ফটো এডিং কিংবা অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর মতো কাজ গুলো কোনো প্রকার বাধা ছাড়াই সম্পন্ন করতে পারবেন।

আর যদি আপনি উচ্চ মান সম্পন্ন এই Graphic Card টি কিনতে চান। তাহলে আপনাকে প্রায় ১৫ হাজার টাকা ব্যয় করার প্রয়োজন হবে। 

গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম কেমন? | Graphics Card Price in BD 

কোনো একটি গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম কত টাকা হবে আসলে সেটি নির্ভর করবে আপনার চাহিদার উপর।

কেননা, বর্তমান বাজারে আপনি ৩ হাজার টাকা থেকে শুরু করে লাখ টাকা দিয়েও গ্রাফিক্স কার্ড কিনতে পারবেন।

তবে আপনার সুবিধার জন্য নিচে আমি নিচে কিছু ভালো মানের গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম কেমন List আকারে দিচ্ছি। এতে করে আপনার বুঝতে সুবিধা হবে। 

  1. RX550-2G GDDR5 ( প্রায় ৫০০০/-)
  2. GeForce GTX 1050 Ti OC Edition (প্রায় ১০,০০০/-)
  3. RX570  4GB (প্রায় ১১,০০০/-)
  4. RX 580 4GB OC Edition (প্রায় ১১,০০০/-)
  5. Rx 590 Gaming 8GB ( প্রায় ১৭,০০০/-)

তবে একটা কথা বলে রাখা ভালো যে, উপরে আমি যেসব গ্রাফিক্স কার্ডের দাম উল্লেখ করেছি। সেগুলো সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে বাড়তেও পারে।

কিন্তুু যখন আপনি কোনো গ্রাফিক্স কার্ড কিনবেন। তখন অবশ্যই তার দাম অনুযায়ী কোয়ালিটির দিকে বিশেষ নজর রাখবেন। 

কোন Graphics Card ভাল ?

গ্রাফিক্স কার্ড কি এই বিষয়ে মোটামুটি ধারনা নেয়ার পর এবার আপনার মনে আরো একটি প্রশ্ন ঘুরপাক খেতে পারে। সেটি হলো, উপরে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের গ্রাফিক্স কার্ড নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

তো এগুলোর মধ্যে কোন Graphics Card ভালো৷ এবার চলুন সে বিষয়ে স্বল্প করে আলোচনা করা যাক।

দেখুন আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন।  কেউ কেউ ভিডিও এডিটিং করার জন্য Graphics Card কিনে থাকে।

আবার এমন অনেকেই আছে যারা মূলত গেমস খেলার জন্য গ্রাফিক্স কার্ড কিনে থাকেন। তো আপনি যে কোনো উদ্দেশ্যেই গ্রাফিক্স কার্ড কিনেন না কেন।

আপনি আরো দেখতে পারেন…

আপনি চেস্টা করবেন NVIDIA ও AMD এই দুটো কোম্পানির Graphics Card কিনে নেয়ার ৷ তাহলে আপনি অনেক ভালো মানের জিপিইউ পাবেন। 

আপনি কি কি শিখলেন ? 

আজকে আমি গ্রাফিক্স কার্ড কি সে নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার পাশাপাশি আরো বেশ কিছু বিষয়ে কথা বলেছি। যেমন, 

  1. গ্রাফিক্স কার্ড কেন ব্যবহার করা হয়
  2. কোন গ্রাফিক্স কার্ড ভাল
  3. গ্রাফিক্স কার্ড প্রাইস ইন বাংলাদেশ
  4. গ্রাফিক্স কার্ড কেনার আগে
  5. গ্রাফিক্স ডিজাইন কি
  6. গ্রাফিক্স কার্ড এর দাম
  7. সাউন্ড কার্ড কি
  8. গ্রাফিক্স কার্ড কি ধরনের ডিভাইস

তো আপনি যদি এই বিষয় গুলো সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে অবশ্যই উপরের আর্টিকেল টি মন দিয়ে পড়বেন।

কেননা, এই বিষয় গুলোকে আমি স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করার চেস্টা করেছি। 

গ্রাফিক্স কার্ড কি নিয়ে আমাদের শেষকথা 

কোনো একটি কম্পিউটার ডিভাইস এর জন্য গ্রাফিক্স কার্ড যে অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি হার্ডওয়্যার। আশা করি উপরের আলোচনায় আপনি তা ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

আর যদি আপনি গেম পাগল মানুষ হয়ে থাকেন। তবে অবশ্যই আপনার এই গ্রাফিক্স কার্ড কি, তা সম্পর্কে পরিস্কার ধারনা রাখতো হবে।

আজকের আর্টিকেলে আমি গ্রাফিক্স কার্ড কি, সেটি নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আর আপনি যদি সহজ ভাষায় এমন সব অজানা তথ্য কে জানতে চান।

তাহলে Bangla it blog এর সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ। 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap