ফরেক্স ট্রেডিং কি? ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম ? [বিস্তারিত জানুন]

বাংলা আইটি ব্লগের ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে লেখা নতুন একটি এপসোডে আপনাকে স্বাগতম। আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি ” ফরেক্স ট্রেডিং কি”? – সে সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারনা পাবেন।

এছাড়াও কিভাবে আপনি Forex trading করবেন, সেজন্য আপনাকে কি কি কাজ করতে হবে। এসব কিছু বিষয় নিয়ে আজকে স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করবো।

ফরেক্স ট্রেডিং কি
ফরেক্স ট্রেডিং কি

বর্তমানে সময়ে এমন অনেক মানুষকে পাওয়া যাবে। যারা মূলত এখনও জানে না যে, ফরেক্স ট্রেডিং কি। আর কেনই বা ফরেক্স ট্রেডিং করা হয়।

সত্যি বলতে আমি নিজেও এই বিষয়ে তেমন কিছু জানতাম না। কিন্তুু ব্লগে আর্টিকেল লেখার তাগিদে এই বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েকদিন থেকে যথেষ্ট ঘাটাঘাটি করেছি।

আমি গুগল এবং ইউটিউব থেকে অনেক ব্লগ ও ভিডিও দেখার পরে আমি ফরেক্স ট্রেডিং নিয়ে বেশ কিছু তথ্য জোগাড় করতে পেরেছি।

যে তথ্য গুলো জানার পরে আপনার Forex Trading নিয়ে আরো কোনো প্রশ্ন থাকবে না। এছাড়াও যখন আমি Forex নিয়ে যথেষ্ট রিসার্চ করছিলাম। তখন আমার মনে একটি প্রশ্ন বারবার ঘুরপাক খাচ্ছিলো।

সেটি হলো, ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম? অবশেষে এই প্রশ্নেরও একটি সঠিক উওর পেতে সক্ষম হয়েছি। যা আমি এই আর্টিকেল এর কোনো একটা অংশে আলোচনা করবো।

তো যদি আপনার মনে Forex Trading নিয়ে জানার আগ্রহ থাকে। আপনি যদি জানতে চান যে, ফরেক্স ট্রেডিং কি এবং ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম।

তাহলে আজকের পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। তাহলে আশা নয় বরং আমার বিশ্বাস যে, আজ থেকে আপনি ফরেক্স ট্রেডিং সম্পর্কিত অনেক অজানা তথ্য সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। 

ফরেক্স কি? (What is Forex)

আমরা ফরেক্স ট্রেডিং কি, সে সম্পর্কে অবশ্যই বিস্তারিত আলোচনা করবো। তবে সবার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে যে, ফরেক্স আসলে কি জিনিস। আর এর প্রয়জনীয়তা কি।

সহজ কথায় বলতে গেলে, Forex শব্দটির মূল অর্থ হলো Foreign Exchange. যাকে এক কথায় বলা হয়, Fx মার্কেট। যার প্রধান কাজ হলো, বিদেশি মুদ্রার লেনদেন করা বা বিদেশি মুদ্রার আদান প্রদান করা।

যা একটি গ্লোবাল মার্কেট যেখানে আলাদা আলাদা ভাবে মুদ্রাকে লেনদেন করা হয়ে থাকে।

আপনার জন্য আরো লেখা…

আর এই ফরেক্স এর আধিপত্য কোনো দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। বরং এটি বর্তমান সময়ে গোটা বিশ্বব্যাপি বিস্তৃত রয়েছে। আর এ ফরেক্স এর চাহিদা দিন কে দিন বেড়েই চলেছে।

যেখানে সপ্তাহ এর মোট ৫ দিনের মধ্যে ২৪ ঘন্টা করেই Forex এর কার্যক্রম চলমান থাকে।

বর্তমানে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে একদেশের মুদ্রা কে অন্য দেশের মুদ্রাতে কনভার্ট করে থাকে।

আর বিভিন্ন দেশের মুদ্রা ভিন্ন রকমের হওয়ার কারনে মূলত ফরেক্স এর মাধ্যমে অদল বদল করা হয়ে থাকে। যেমন, Commerce, Training, Tourism ইত্যাদি। 

ফরেক্স ট্রেডিং কি? 

উপর এর আলোচনা থেকে আমরা জানলাম যে, ফরেক্স কাকে বলে। এবার আমরা জানবো যে, ফরেক্স ট্রেডিং কি। এবং কেন আপনার Forex trading করা উচিত।

তো ফরেক্স থেকে আমরা জানলাম যে, বিভিন্ন দেশের মুদ্রা আলাদা হয়ে থাকে। এবং বিভিন্ন দেশের মুদ্রা আলাদা হওয়ার পরেও এক দেশ থেকে অন্য দেশের মুদ্রার আদান প্রদান করাকে বলা হয় ফরেক্স।

এখন Trade শব্দটির অর্থ হলো, কেনা বেচা করা।

এখন আমরা যদি Forex শব্দটির সাথে Trading শব্দটি কে যুক্ত করে দেই। তাহলে এর অর্থ দাড়াবে, বিভিন্ন দেশের ভিন্ন মুদ্রাকে কেনা বেচা করা।

তো যখন আপনি অনলাইন এক্সচেঞ্জ মার্কেটপ্লেসে এক দেশের মুদ্রাকে অন্য দেশের মুদ্রাকে কেনা বেচা করবেন ৷ তখনি তাকে বলা হবে ফরেক্স ট্রেডিং।

আর এ ফরেক্স ট্রেডিং এর ফলে আপনি এখন নিজেই এক দেশের মুদ্রাকে অন্য যেকোনো দেশের মুদ্রার সাথে কেনা বেচা করতে পারবেন।

আর এই Forex Trading এর মাধ্যমে যে কোনো দেশের মুদ্রার একচেন্জ রেট নির্ধারন করা হয়ে থাকে। 

কেন ফরেক্স ট্রেডিং করবেন?

ফরেক্স কি এবং ফরেক্স ট্রেডিং কি আশা করা যায় উপর এর আলোচনা থেকে এ সম্পর্কে একটা ক্লিয়ার ধারনা পেয়ে গেছেন। আর যদি না বুঝে থাকেন, তাহলে উপরের লেখাটি আরেকবার পড়ে নিন।

না হলে পরবর্তী আলোচনা গুলোর কিছুই বুঝতে পারবেন না।

তো এবার আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, মুদ্রা কেনাবেচা করা যায় এটা তো বুঝলাম। কিন্তুু আপনি কেন ফরেক্স ট্রেডিং এর মাধ্যমে এক দেশের মুদ্রা কে অন্য দেশের মুদ্রার সাথে কেনাবেচা করবেন?

চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

মূলত এর অনেক গুলো কারন থাকলেও আমি শুধুমাএ দুইটি কারন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো ৷ কারন মানুষ এই মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই দুই ধরনের কাজের জন্য ফরেক্স ট্রেডিং করে থাকে। যেমন, 

০১ঃ দেশ স্থানান্তর করার জন্য 

আমরা যেমন প্রয়োজন কিংবা অপ্রয়োজনে দেশের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাই। ঠিক তেমনি এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত ব্যক্তিগত কিংবা ব্যবসায়িক কাজে এক দেশ থেকে অন্য দেশে গিয়ে থাকেন।

তো এই মানুষ গুলোর জন্য ফরেক্স সম্পর্কে জানা অতি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাড়াবে। কারন, আমরা তো সবাই জানি যে, প্রত্যেকটি দেশের মুদ্রা কিন্তুু আলাদা আলাদা হয়ে থাকে।

যেমন ধরুন, আপনি একজন বাংলাদেশি নাগরিক। এখন কোনো একটি প্রয়োজনে আপনাকে ইন্ডিয়া তে যাওয়ার প্রয়োজন হলো।

এখন আপনি একটা বিষয় চিন্তা করে দেখুন, সেটি হলো আপনি চাইলেও কিন্তুু ইন্ডিয়া তে গিয়ে বাংলাদেশি টাকা দিয়ে ইন্ডিয়া তে কোনো কিছু কিনতে পারবেন না। কারন সেই দেশের টাকার পরিবর্তে রুপি (Rupees) ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আর সেজন্য প্রথমে আপনার টাকা গুলো কে রুপিতে কনভার্ট করতে হবে। তারপর আপনি ইন্ডিয়া তে গিয়ে আপনার কনভার্ট করা রুপি দিয়ে কেনাকাটা থেকে শুরু করে যাবতীয় কাজকর্ম গুলো সম্পন্ন করতে পারবেন।  

০২ঃ বেশি অর্থ লাভ করার জন্য 

আগের দিনে বেশিরভাগ ক্ষেএে ফরেক্স এক্সচেঞ্জ মার্কেটপ্লেস গুলো মুদ্রা অদল বদল করার কাজে ব্যবহার করা হলেও। বর্তমান সময়ে কিন্তুু অনেকেই বেশি পরিমানে অর্থ লাভ করার আশায় ফরেক্স ট্রেডিং করে থাকে।

আর আজকের দিনে এমন মানুষের সংখ্যা কিন্তুু ক্রমেই বেড়ে চলেছে। বর্তমানে আপনি এমন অনেক মানুষ কে খুজে পাবেন। যারা মূলত এই ধরনের কাজ করে আসছেন।

এবং তাদের মধ্যে অনেকেই আছেন। যারা এই মুদ্রা অদল বদল করে কেনা বেচা করার মাধ্যমে বেশ ভালো পরিমানে প্রফিট অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

কেননা, আমরা সবাই জানি যে কোনো একটি দেশের মুদ্রার মান বেশ কিছু কারনে কম বা বেশি হয়ে থাকে। কখনও দেখা যায় যে, একটি দেশের মুদ্রাস্ফিতি হঠাৎ করেই উপরে উঠে যায়।

আবার কোনো সময় হঠাৎ করেই মুদ্রার মান একেবারে তলানিতে এসে ঠেকে পড়ে।

আর এই সুযোগ কে কাজে লাগায় বেশ কিছু সুবিধাবাদী মানুষ। কারন এই মুদ্রার স্ফিতি কে কাজে লাগিয়ে আপনিও একটা ভালো মানের প্রফিট আয় করতে সক্ষম হবেন।

যার কারনে আজকের দিনে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা দীর্ঘদিন থেকে ফরেক্স একচেন্জ মার্কেটপ্লেস গুলোতে মুদ্রার কেনাবেচা করে বেশি অর্থ লাভ করে আসছেন। 

ফরেক্স ট্রেডিং কিভাবে কাজ করে?

উপরের আলোচনা থেকে ফরেক্স ট্রেডিং কি এবং কেন আপনিও ফরেক্স ট্রেডিং করবেন। সে সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারনা দেয়ার চেস্টা করছি। আশা নয় বরং বিশ্বাস করি যে আপনি সে বিষয় গুলো ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

তো সেই ধারাবাহিকতায় এবার আমরা নতুন একটা টপিক নিয়ে আলোচনা করবো ৷ সেটি হলো, বর্তমানে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা ফরেক্স ট্রেডিং আসলে কিভাবে কাজ করে।

এর কাজের প্রক্রিয়া গুলো কি কি ৷ চলুন তাহলে এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

সবার আগে একটি কথা বলে নেই যে, ফরেক্স ট্রেডিং এর মুল উদ্দেশ্য হলো, মুদ্রা কে বিক্রি করে দেওয়া। তবে অবশ্যই তা অন্য একটি দেশের মুদ্রার বিপরীত হতে হবে। অর্থ্যাৎ, আপনি একই দেশে একই মুদ্রা বিক্রি করতে পারবেন না।

কারন আপনি যদি বাংলাদেশি হয়ে থাকেন। তাহলে কিন্তুু কোনো বাংলাদেশি আপনার কাছে বেশি টাকা দিয়ে আপনার কাছে টাকা কিনে নিবে না।

আর এই ট্রেডিং এর কাজ গুলো করার জন্য বর্তমান সময়ে এমন অনেক কোম্পানি বা এজেন্ট রয়েছে।

যাদের মাধ্যমে আপনি খুব সহজে ট্রেডিং এর মাধ্যমে এক দেশের মুদ্রাকে অন্য একটি দেশের মুদ্রাতে অদল বদল বা কেনা বেচা করতে পারবেন।

তবে বর্তমান সময়ে ট্রেডিং এর কাজ গুলো কে সম্পন্ন করার জন্য ছোট খাটো অনেক ধরন এর কোম্পানি বা এজেন্ট থাকলেও মূল কোম্পানির সংখ্যা কিন্তুু হাতে গোনা কয়েটা রয়েছে।

আর এই মুল কোম্পানি গুলো মূলত London, New York, Tokyo, Sedney তে রয়েছে।

তো এখানে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে যে, এই ট্রেডিং সেন্টার গুলো আসলে কি কাজ করে। যার কারনে মূলত এক দেশের মুদ্রাকে অন্য দেশের মুদ্রাতে কেনা বেচা করে লাভবান হওয়া যায়।

এবার সে বিষয়ে একটা পরিস্কার ধারনা নেয়া চেস্টা করা যাক।

মনে করুন, আপনি কোনো এক কারনে ইন্ডিয়া তে যেতে চাইলেন ৷ সেক্ষেএে আপনার কাছে ১০,০০০ টাকা আছে । এবং সেই টাকা গুলো কে আপনি ইন্ডিয়ার রুপিতে কনভার্ট করলেন।

এবং বাংলাদেশের সাথে ইন্ডিয়ার টাকার মান কম বেশি হওয়ার কারনে আপনি ১০ হাজার বাংলাদেশি টাকার বিনিময়ে ইন্ডিয়ার ৯ হাজার রুপি পেলেন।

এখন এই বাংলাদেশি টাকা গুলো কে ইন্ডিয়ান রুপিতে কনভার্ট করার পর আপনার কোনো কারনে ইন্ডিয়া যাওয়া হলো না। তখন কিন্তুু আপনার কাছে কনভার্ট করা টাকা গুলো জমা হয়ে থাকবে।

এখন আপনি কয়েকদিন পর লক্ষ্য করলেন যে, হঠাৎ করেই ইন্ডিয়ান রুপির স্ফিতি বেড়ে গেছে। অর্থ্যাৎ, প্রতি ১ ইন্ডিয়ান রুপির স্ফিতি এখন ১.২ এ বেড়ে গেছে।

আপনি আরো দেখুন…

সেক্ষেএে আপনার কাছে জমাকৃত যে ৯ হাজার রুপি থাকবে ৷ সেগুলোতে কিন্তুু প্রতি রুপি অনুসারে ০.২ বাড়তি যোগ হবে। এবার আপনি যদি সেই রুপি গুলোকে পুনরায় বাংলাদেশি টাকা তে রুপান্তর করেন।

তাহলে আপনি শুরুতে যে ১০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন কনভার্ট করার জন্য। সেই টাকা বেড়ে ১১ হাজার বা তার থেকেও বেশি পরিমান হবে। 

আপনি কি ফরেক্স ট্রেডিং করতে পারবেন?

যাক এতোক্ষন এর আলোচনা থেকে ফরেক্স ট্রেডিং কি তা জানার পর এবং মানি একচেন্জ সম্পর্কে বিস্তারিত জানার পর আপনার মনে একটি প্রশ্ন জাগতে পারে।

সেটি হলো, আপনি কি নিজেই এই ফরেক্স ট্রেডিং করতে পারবেন কিনা। এবং আপনি যদি এই কাজটি করতে চান। তাহলে আপনাকে কি কি করতে হবে।

এবার চলুন তাহলে সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

দেখুন এই কাজটি করতে হলে আপনাকে যে রকেট সায়েন্স জানতে হবে। বিষয়টা আসলে তেমন নয়। বরং আপনি চাইলে খুব সহজেই মাএ কয়েকটি স্টেপ ফলো করার মাধ্যমে ফরেক্স ট্রেডিং এর কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

তাহলে এই কাজটি করার জন্য সবার আগে আমাদের জানতে হবে যে উক্ত কাজের জন্য কোন কোন ইকুইপমেন্ট গুলোর প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তো ফরেক্স ট্রেডিং করার জন্য সবচেয়ে যে জরুরি ইকুইপমেন্ট এর প্রয়োজন হবে। সেটি হলো আপনার একটি উপযুক্ত ডিভাইস। যার মাধ্যমে আপনি এই কাজ গুলো করতে পারবেন।

সেটা হতে পারে একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ অথবা একটি ভালো মানের মোবাইল ফোন। এবং আপনি যে ডিভাইস দিয়ে কাজ করবেন। সেই ডিভাইস এ অবশ্যই একটি হাই গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে।

যখন আপনার কাছে হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন ডিভাইস এবং একটি উচ্চ গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট কানেকশন থাকবে।

তখন আপনার প্রয়োজন হবে এক বা একাধিক দেশ বিদেশে লেনদেন করার জন্য একটি ডুয়েল কারেন্সি একাউন্ট। যার মাধ্যমে আপনি দেশ থেকে অন্যান্য যে কোনো দেশ এর সাথে লেনদেন করতে পারবেন।

তবে এক্ষেএে যেটি বেশি প্রাধান্য পাবে। সেটি হলো আপনার কাছে একটি মাস্টার কার্ড (Master Card) থাকতে হবে। সেক্ষেএে আপনি পেপাল, স্ক্রিল বা অন্যান্য কোনো ভার্চুয়াল লেনদেন করার মাধ্যম গুলো কে ব্যবহার করতে পারবেন।

তবে কিছু কিছু ক্ষেএে আপনি আপনার Bank Transfer এর মাধ্যমটিও ব্যবহার করতে পারবেন ৷ তবে এর ব্যবহার অনেক ক্ষেএে প্রাধান্য পাবে না। 

ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল?

যখন আপনিও নিজেকে এই কাজে নিযুক্ত করার জন্য ইচ্ছে পোষন করবেন। তখন আপনার মনে বেশ কিছু প্রশ্ন জাগবে। তার মধ্যে যে প্রশ্ন গুলোর উওর জানাটা একান্ত জরুরী সেটি হলো, 

  • ফরেক্স ট্রেডিং কি বাংলাদেশে বৈধ?
  • ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল?

তো যদি আপনি নিজেকে ফরেক্স ট্রেডিং এর সাথে যুক্ত করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই দুটো বিষয় সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। কেননা, এটি যদি বাংলাদেশে অবৈধ হয়ে থাকে।

তাহলে কিন্তুু আপনাকে এসব থেকে অনেক দুরে থাকতে হবে।

অপরদিকে এটি পদ্ধতিটি যদি হারাম হয়ে থাকে। তাহলে কিন্তুু আপনার ধর্মীয় অনুভূতিতে যথেষ্ট আঘাত হানবে। তাই এই কাজে নিজেকে যুক্ত করার আগে অবশ্যই আপনাকে এই দুটো বিষয় সমন্ধে যথেষ্ট ধারনা নিতে হবে।

তো বাংলাদেশে ফরেক্স ট্রেডিং বৈধ নাকি অবৈধ। সে নিয়ে একটু পরে আলোচনা করবো। তবে সবার আগে আমাদের জানতে হবে যে, ধর্মীয় মোতাবেক ফরেক্স ট্রেডিং হালাল নাকি হারাম।

দেখুন, যদি আপনি আর্টিকেলটি সম্পূর্ন পড়ে থাকেন। তাহলে এতোক্ষনে বুঝে গেছেন যে, এখানে আপনি বিনা পরিশ্রমে বেশি টাকা আয় করতে পারবেন। যাকে আমাদের দেশে এক কথায় বলা হয় সুদ।

কারন সুদের ক্ষেএেও কিন্তুু টাকার মাধ্যমে টাকার পরিমান কে বাড়িয়ে নেয়া যায়।

আর আমার মতে এমন কোনো ধর্ম নেই। যেখানে বলা আছে যে,  সুদ নেয়া ভালো কাজ। বরং প্রত্যেক ধর্মেই এটা উল্লেখ করা আছে যে, সুদ এর মতো হারাম কাজ থেকে সর্বদা দুরে থাকার জন্য।

তো এটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না যে, ফরেক্স ট্রেডিং এর সাথে সুদের একটা বিশেষ যোগসাজশ রয়েছে।

আর এই সুদের সাথে যোগসাজশ এর কারনে যেহুতু এটি আপনার ধর্মের নীতির বাইরে চলে যাচ্ছে৷ সেহুতু এই কারনে অবশ্যই আপনার এই ধরনের কাজকর্ম থেকে দুরে থাকা উচিত। 

ফরেক্স ট্রেডিং বাংলাদেশে বৈধ?

তো এবার আমাদের জেনে নিতে হবে যে, বাংলাদেশে ফরেক্স ট্রেডিং বৈধ নাকি অবৈধ সে সম্পর্কে। কিন্তুু এ বিষয়টি যদি পরিস্কার ভাবে বুঝতে চান।

তাহলে আপনাকে বাংলাদেশের দেয়া বেশ কিছু নিয়ম কানুন জানতে হবে। এবং এই নিয়ম কানুন গুলো দেখার পর আপনিই বিবেচনা করুন যে এটা আসলে বাংলাদেশের জন্য বৈধ নাকি অবৈধ।

💡 রুলস-১ঃ ফরেক্স ট্রেডিং এর মাধ্যমে কখনই বে-আইনিভাবে অর্থ লেনদেন করা যাবে না।

💡 রুলস-২ঃ ফরেক্স ট্রেডিং শেখানোর জন্য আপনি যদি কোনো ভাবে ভুয়া প্রশিক্ষন কেন্দ্র চালু করেন। তাহলে তা আইনের চোখে বেআইনি। এবং মানুষের কাছে প্রশিক্ষন শেখানোর নামে মোটা অংকের টাকা দাবি করাটাও একেবারে বে-আইনি। 

💡 রুলস-৩ঃ ফরেক্স ট্রেডিং থেকে শুরু করে আপনি অনলাইনে লেনদেন করার জন্য সেইসব মাধ্যম গুলো কে ব্যবহার করতে পারবেন না ৷ যেগুলো বাংলাদেশে একেবারে ব্যান করে দেয়া হয়েছে। যেমন, পেপাল কিন্তুু বাংলাদেশ থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

💡 রুলস-৪ঃ আপনি ফরেক্স ট্রেডিং করার জন্য শুধুমাএ বাংলাদেশ কোর্ট কতৃক সেইসব দেশের সাথে লেনদেন করতে পারবেন। যেই দেশগুলোতে বাংলাদেশ পারমিশন দিয়েছে।

এর বাইরে আপনি যদি কোনোরুপ প্রক্সি ব্যবহার করেন৷ তাহলে আইনের চোখে তা সম্পূর্ন অবৈধ।

আপনি আরো দেখতে পারেন…

এখন এই নিয়ম গুলো দেখার পর আপনার কি মনে হয়, বাংলাদেশে ফরেক্স ট্রেডিং বৈধ নাকি অবৈধ। এর উওরটা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। 

আমাদের শেষকথা 

আশা করি এই আর্টিকেল থেকে ফরেক্স ট্রেডিং কি সে সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারনা পেয়ে গেছেন৷ যদি এরপরও আপনার মনে কোনো প্রশ্ন থাকে। তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

পরের আর্টিকেলর জন্য আমন্ত্রন থাকল । বাংলা আইটি ব্লগ নিয়মিত ভিজিট করুন আর আমাদের ব্লগের সাথে থাকুন। ধন্যবাদ। 

Related article

3 thoughts on “ফরেক্স ট্রেডিং কি? ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম ? [বিস্তারিত জানুন]”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই লেখা কপি করবেন না!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap