ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কি? | ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে ইনকাম করার উপায়

আপনি কি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করতে চান? – তাহলে আজকের এই আর্টিকেল টি আপনার জন্য অনেক বেশি হেল্পফুল হবে। কেননা, আজকে আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর শুরু থেকে শেষ অবধি যে সমস্ত বিষয় আছে।

তার প্রত্যেকটি বিষয় সম্পর্কে স্টেপ বাই স্টেপ জানতে পারবেন।

 ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কি? | ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে ইনকাম করার উপায়
ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কি? | ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে ইনকাম করার উপায়

আমরা সবাই জানি যে, বর্তমান সময়ে ব্যবসা করার মতো এমন অনেক অনেক উপায় রয়েছে। আর আমি অলরেডি সেই ব্যবসা করার উপায় গুলো নিয়ে অন্যান্য আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

তবে অন্যান্য সব ব্যবসার মধ্যে অন্যতম একটি ব্যবসা হলো, Event Management Business. 

শুধুমাএ বর্তমান সময়ে নয়, বরং অনেক আগে থেকেই কিন্তুু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে এই ব্যবসার এতো বেশি জনপ্রিয়তা থাকার পরেও এখনও এমন অনেক মানুষ আছে।

যারা এখনও এই ব্যবসাটি সম্পর্কে জানে না।

আপনার জন্য আরো লেখা…

আর অনেক মানুষ না জানার কারনে এই বিজনেসে প্রতিযোগীতা কম থাকবে এটাই স্বাভাবিক। আর প্রতিযোগীতা কম থাকার কারনে আপনি যদি এই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর বিজনেস শুরু করেন।

তাহলে আপনিও অন্যদের মতো বিপুল পরিমান টাকা এই বিজনেস থেকে আয় করে নিতে পারবেন।

তো যদি আপনি Event Management সম্পর্কে অদ্যেপান্ত জেনে নিতে চান। তাহলে আজকের পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়বেন ৷

তাহলে আশা নয় বরং বিশ্বাস করি যে, আজ থেকে আপনার ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট রিলেটেড কোনো প্রকারের সমস্যা থাকবে না। 

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কাকে বলে?

যদি আমরা শব্দগত অর্থ কে প্রাধান্য দেই তাহলে বলবো, সাধারনত কোনো ঘটনার ব্যবস্থাপনা কে বলা হয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট। কিন্তুু এ থেকে আপনি কোনো পরিস্কার ধারনা পাবেন না।

তাই এবার একটু খোলামেলা ভাবে আলোচনা করবো। যেন আপনার বুঝতে সুবিধা হয়।

মনে করুন আপনার বাড়ির কোনো মানুষের বিয়ের অনুষ্ঠান হবে। এখন আপনি হুট করে বুঝতে পারছেন না যে কিভাবে আপনি আপনার বিয়ের অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করবেন।

এই মূহুর্তে আপনি এমন কিছু মানুষকে দায়িত্ব দিলেন। যারা আপনার বিয়ের সকল কার্যক্রম গুলো পরিচালনা করার দায়িত্ব নিলো।

যেমন, কোথায় লোকজন বসবে, কোন জায়গাতে লাইটিং সেট করতে হবে, কোথায় খাবারের আয়োজন করা হবে ইত্যাদি। তো এই জাতীয় কাজ গুলো কে বলা হয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট। 

কেন আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা করবেন? 

বর্তমান সময়ে চাকরির বাজারে অনেক খরা চললেও ব্যবসার কিন্তুু অনেক রকম এর আইডিয়া রয়েছে। যেগুলোর মাধ্যমে আপনি বিপুল পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

তাহলে এবার আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, বর্তমান সময়ে এতো বেশি ব্যবসার আইডিয়া থাকার পরেও কেন আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা করবেন? তাহলে শুনুন…

যদি আমার দৃষ্টিকোন থেকে বলি, তাহলে বলবো সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ হবে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা করা। কেননা, আজকের দিনে সবচেয়ে স্মার্ট ব্যবসা হলো Event Management এর ব্যবসা।

যা আপনার মতো অনেক স্মার্ট মানুষ এই ধরনের ব্যবসার সাথে জড়িত আছে।

তাছাড়া এই ধরনের বিজনেসে আপনি স্বয়ং নিজে জড়িত থাকতে পারবেন। এবং নিজে থাকার ফলে আপনি সবদিক বিবেচনা করে কাজ করতে পারবেন।

যার ফলে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা তে ঝুঁকির পরিমান অনেক গুন কম থাকবে। যা একটি ব্যবসার জন্য অনেক বেশি বেনিফিট বলে আমি মনে করি।

এছাড়াও এই ব্যবসাতে আপনি আরও অনেক কিছু সবিধা পাবেন।

যেমন, এই ব্যবসা করার সময় আপনি অনেক বেশি পরিমানে অবসর সময় পাবেন। যে সময় গুলোতে আপনি চাইলে পাশাপাশি আরও অনেক ধরনের কাজে লাগাতে পারবেন। 

কারা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করতে পারবে? 

উপরের আলোচনা থেকে আমরা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস এর বিভিন্ন সুবিধার কথা সম্পর্কে জানতে পারলাম। আশা করি উপরের প্রত্যেকটি সুবিধা সম্পর্কে বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

আর যদি বুঝে থাকেন, তাহলে আপনার আরও একটি বিষয়ে ক্লিয়ার হওয়া উচিত। সেটি হলো, এমন কোন মানুষ গুলো আছে। যারা মূলত এই ধরনের লাভজনক ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস করতে পারবে।

তো চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

দেখুন সব স্থানে যেমন উপযুক্ত ব্যক্তিরাই স্থান পায়। ঠিক তেমনি আপনি যদি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস করতে চান। তাহলে আপনার ভেতরে বেশ কিছু গুনাবলি থাকতে হবে।

এবার সেই গুনাবলি গুলো সম্পর্কে ক্লিয়ার ভাবে আলোচনা করবো।

তো যদি আপনিও অন্যান্য সফল ব্যবসায়ীর মতো Event Management বিজনেস করতে চান। এবং এই বিজনেস থেকে প্রচুর পরিমান টাকা আয় করে নিতে চান।

তাহলে আপনার ভেতরে অনেক গুনাবলি বা দক্ষতা থাকতে হবে। যেমনঃ

০১| আয়োজন করার যাবতীয় বিষয়ে পর্যাপ্ত জ্ঞান 

যেহুতু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা তে আপনি স্বয়ং জড়িত থাকবেন ৷ এবং আপনি যখন সবকিছুই পরিচালনা করবেন ৷ তখন অবশ্যই আপনার নিজের মধ্যে যেকোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন তৈরিতে দক্ষ হতে হবে।

কেননা, এই কাজে আপনি যতো বেশ দক্ষতার প্রয়োগ করতে পারবেন। আপনার এই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা থেকে লাভ করার চান্স ততোই বেশি থাকবে।

যেমন আপনি যদি একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন তৈরি করেন। তাহলে সেখানে আপনি যেভাবে কাজ করবেন। সেই একই কাজ কিন্তুু আপনি কোনো জন্মদিনের আয়োজনে করতে পারবেন না।

ঠিক একইভাবে আপনাকে এই সব বিষয়ে যথেষ্ট অভিজ্ঞতা সম্পন্ন হতে হবে। 

০২| পরিকল্পনা করার মতো সক্ষমতা

আমরা সবাই জানি যে পরিকল্পনা ব্যাতীত কোনো কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব না ৷ আপনি যে কাজ গুলো তে পূর্বে থেকে সঠিক পরিকল্পনা করবেন।

আপনার সেই কাজ গুলোতে সফলতা পাওয়ার সম্ভাবনা ততো গুন বৃদ্ধি পাবে। আর আশা করা যায় যে, আমার এই কথার সাথে আপনিও কোনো দ্বিমত পোষন করতে পারবেন না।

ঠিক একইভাবে আপনি যখন এই ইভেন্ট রিলেটেড বিজনেস করবেন। তখন আপনাকে যথাযথ সময়ে উপযুক্ত পরিকল্পনা করতে হবে। কিভাবে আপনি যে কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন।

এতে কি পরিমান শ্রমিকের দরকার হবে। এই সব গুলো বিষয়ে আপনাকে দক্ষতার সাথে পূর্ব পরিকল্পনা করার মতো ক্ষমতা থাকতে হবে। 

০৩| উপযুক্ত বাজেট তৈরি করার মতো দক্ষতা থাকতে হবে 

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো বাজেট তৈরি করা। কেননা, এই বাজেট এর উপর ডিপেন্ড করে আপনার আয় হবে নাকি ব্যয় হবে সেটি নির্ভর করবে।

আপনি যতো সঠিক ভাবে বাজেট তৈরি করতে পারবেন। আপনার আয় এর পরিমান ঠিক ততো বেশি নির্ভর করবে।

যেমন ধরুন আপনি কোনো একটা বিয়ে বাড়িতে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর দায়িত্ব নিলেন। এখন সেই অনুষ্ঠানে কি পরিমান খরচ করতে হবে, আর আপনি সেই অনুষ্ঠান থেকে কি পরিমান টাকা চার্জ নিবেন।

আপনি আরো দেখুন…

এ সবকিছু আপনাকে পূর্বে থেকে বাজেট তৈরি করে নিতে হবে। তাহলে আপনি এই ব্যবসা থেকে লাভ করে নিতে পারবেন।

তাই এই ব্যবসা করার অন্যান্য দিক গুলোর চাইতে বাজেটের দিকটা কে অনেক বেশি গুরুত্ব দিতে হবে৷ তাহলে আপনি এই Event Business থেকে ব্যাপক পরিমান টাকা লাভ করে নিতে পারবেন ৷ 

০৩| যোগোযোগ অক্ষুন্ন থাকতে হবে 

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা এর অন্যান্য দিক গুলোর মতো যোগাযোগ ব্যবস্থা হলো অন্যতম একটি দিক। কেননা, আপনি যদি এই দিকটা কে তেমন বেশি গুরুত্ব না দেন।

তাহলে আপনি এই ব্যবসাতে খুব ভালো কিছু করতে পারবেন না। তাই অবশ্যই আপনাকে এই দিকটি কে যথেষ্ট গুরুত্ব দিতে হবে।

যেমন ধরুন, আপনি এই ইভেন্ট ব্যবসার সাথে নিজেকে যুক্ত করলেন। এবং উপরে আলোচিত সব গুলো বিষয় মেনে কাজ করলেন। কিন্তুু একটা সময় দেখা গেলো যে মানুষ আপনার বিজনেস সম্পর্কে কিছুই জানেনা।

এবং পারিপার্শ্বিক মানুষের সাথেও আপনার তেমন একটা যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো নেই।

ঠিক এই সময়ে আপনি কিন্তুু বেশ বিপাকে পড়ে যাবেন। কেননা, শুধু আপনি একাই আয়োজন করলেই হবে না। বরং আপনার আয়োজন কে ব্যবহার করার মতোও মানুষ লাগবে।

আর এই জন্য আপনাকে বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের সাথে উপযুক্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা রাখতে হবে। 

০৪| সঠিকভাবে দল পরিচালনা করার মতো ক্ষমতা থাকতে হবে 

উপরে আমি একটা কথা বলেছি। সেটি হলো, এই ব্যবসাতে আপনি নিজেই স্বয়ং থাকতে পারবেন। যার কারনে আপনি নিজেই এই ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারবেন।

কিন্তুু আপনি নিজে পরিচালনা করতে পারলেও আপনি একাই এই কাজ গুলো করতে পারবেন না।

আপনি যদি এই বিজনেস করতে চান। তাহলে সবার আগে আপনার বেশ কয়েকটি দক্ষ লোকের মাধ্যমে একটি দল বা টিম তৈরি করে নিতে হবে।

কারন কোনো একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে গেলে অনেক ধরনের কাজ করতে হয়। আর এই কাজ গুলোর জন্য আপনাকে অনেক বেশি পরিমান লোকের প্রয়োজন হবে।

আর শুধু বেশি সংখ্যক দলবল নিয়ে টিম তৈরি করলেই হবে না। বরং আপনার টিমে এমন সব মানুষ থাকতে হবে। যারা মূলত ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এ যথার্থ দক্ষতা সম্পন্ন।

আর আপনার টিমে যদি দক্ষতা সম্পন্ন লোক না থাকে। তাহলে আপনি কোনোভাবেই এই ব্যবসা তে সফলতা অর্জন করতে পারবেন না। 

০৫| পরিশ্রম করার মতো ধৈর্য এবং মানসিকতা 

পরিশ্রম না করলে আপনি কোনো কাজেই সফলতা অর্জন করতে পারবেন না। কেননা আপনি যদি শুধু বসে বসে স্বপ্ন দেখেন। কিন্তুু সেই স্বপ্ন পূরনের জন্য চেস্টা না করেন।

তাহলে কিন্তুু আপনি কখনই সেই স্বপ্ন পূরন করতে পারবেন না। কেননা, সফলতার স্বর্নচুড়ায় শুধুমাএ সেইসব ব্যক্তিরা পৌঁছাতে পারে। যারা নিচ থেকে উপরে যাওয়ার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে।

কিন্তুু বেশিরভাগ সময় হিতে বিপরীত হয়ে যায়। কেননা আমাদের মধ্যে এমন অনেক ব্যক্তি আছেন। যারা একটুতেই হতাশ হয়ে পড়ে। যখন কোনো কাজ শুরু করে, তখন বেশিরভাগ মানুষ খুব দ্রুত সফলতা পেতে চায়।

কিন্তুু তারা হয়তবা ভুলে যায় যে, সফলতা পাওয়া এতোটা সহজ নয়।

কিন্তুু আপনি যে কোনো ব্যবসা করেন না কেন। সেই ব্যবসাতে সফল হতে হলে আপনাকে অবশ্যই ধৈর্য ধরতে হবে। কখনও হতাশ হওয়া যাবে না বরং যে কাজে আপনি সফলতা পাচ্ছেন না।

সেই কাজে একেবারে লেগে থাকতে হবে। তাহলেই আপনি সফলতা অর্জন করে নিতে পারবেন। 

ইভেন্ট ম্যানেজারের মাসিক আয় কি রকম হতে পারে?

বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন, সেটি হলো আপনি যদি একজন ইভেন্ট ম্যানেজার হতে পারেন৷ তাহলে আপনি কি পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন?

আমার মনে হয় এই বিষয়টি নিয়ে আপনাকে একটা ক্লিয়ার ধারনা নেয়া উচিত। কারন আপনি একটা বিজনেস করবেন, কিন্তুু সে বিজনেসে কি পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন।

সে সম্পর্কে অবশ্যই আপনাকে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে।

আমরা উপরের আলোচনা থেকে জানতে পারলাম যে, একজন ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজনে করা হয়ে থাকে।

এখন আপনি একজন Event Maneger হিসেবে মোট কত টাকা আয় করতে পারবেন। সেটি নির্ভর করবে আসলে আপনি কি ধরনের অনুষ্ঠানের ম্যানেজমেন্ট করছেন।

এখন আপনি যদি বড় কোনো অনুষ্ঠানের ম্যানেজমেন্ট করেন। তাহলে আপনি সেখান থেকে মোটা অংকের টাকা লাভ করতে পারবেন।

আর আপনি যদি কোনো ছোটো খাটো অনুষ্ঠানের ম্যানেজমেন্ট করেন। তাহলে আপনার আয় এর পরিমান অনেক কম হবে, এটা স্বাভাবিক একটা বিষয়।

তবে প্রশ্ন হলো যে, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে মোট কত টাকা আয় করা যাবে। সে সম্পর্কে কি নির্দিষ্ট কোনো আইডিয়া দেয়া সম্ভব নয়? – হুমমম! যদি আপনি সেরকম আইডিয়া পেতে চান।

তাহলে নিচের আলোচনা গুলির দিকে নজর রাখুন।

আপনার জন্য আরো লেখা হয়েছে…

দেখুন আপনি যদি একজন দক্ষ ইভেন্ট ম্যানেজার হতে পারেন। এবং আপনি যদি আপনার বিজনেস কে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারেন।

তাহলে আপনি এই ব্যবসার কোনো একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন থেকে প্রায় ১০০ ভাগের মধ্যে ৪০ ভাগ লাভ করে নিতে পারবেন।

আর আপনার পারিপাশ্বিক খরচ এর তুলনা করলে আপনি ছোট একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন থেকে প্রায় ২০-৩০ হাজার টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

আবার আপনি যদি বড় কোনো অনুষ্ঠানের ইভেন্ট ম্যানেজিং করেন। তাহলে কিন্তুু আপনি এর থেকে আরও বেশি পরিমানে টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

ক্যারিয়ার হিসেবে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কতটা উপযুক্ত হবে? 

উপরের আলোচনা গুলো থেকে আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট রিলেটেড অনেক অজানা তথ্য সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

যেমন, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কি, এই ব্যবসা করার জন্য আপনার কি কি গুনাবলি থাকতে হবে, এবং আপনি যদি একজন ইভেন্ট ম্যানেজার হতে পারেন। তাহলে আপনার মাসিক ইনকাম কত টাকা হবে।

তো এখন আপনার মনে আরও একটি প্রশ্ন জাগতে পারে। সেটি হলো, আপনি যদি ক্যারিয়ার গড়ার লক্ষ্যে এই ধরনের বিজনেস শুরু করেন। তাহলে সেটি কতটুকু যুক্তিসঙ্গত হবে? – এবার সে বিষয়ে একটু ক্লিয়ার ধারনা নেয়া যাক।

দেখুন, অন্যান্য ব্যবসা গুলোর মতো ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ও এক ধরনের লাভজনক ব্যবসা ৷ যেখানে আপনি আপনার দক্ষতার পরিচয় দিয়ে প্রচুর পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

যা আপনার মতো অনেক মানুষ আয় করে আসছে।

এখন আপনি যদি এই ব্যবসা থেকে নিজের ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্ন দেখেন। তাহলে আমার দৃষ্টিকোন থেকে বলবো, আপনি অনেক বুদ্ধিমান একটা সিন্ধান্ত নিয়েছেন।

কেননা, এই ধরনের বিজনেস এ ক্যারিয়ার গড়ার ব্যাপক সুবিধা রয়েছে। যেটিকে কেন্দ্র করে আপনি আপনার শ্রম ও দক্ষতার প্রয়োগ করে খুব দ্রুততার সাথে সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

আপনি চাইলে আমি আপনাকে এমন অনেক মানুষের উদাহরন দিতে পারবো। যারা মূলত অন্যান্য ব্যবসাতে না গিয়ে শুধুমাএ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে প্রচুর পরিমান টাকা আয় করে নিতে পেরেছে।

এবং বর্তমান সময়েও তারা সমান তালে ইনকাম করে আসছে।

তাহলে একবার ভেবে দেখুন, সেই মানুষ গুলো যদি এই বিজনেস করে টাকা আয় করতে পারে। তারা যদি তাদের একটা সফল ক্যারিয়ার গড়ে নিতে পারে। তাহলে আপনি কেন পারবেন না?

কোথায় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর কাজ করতে পারবেন? 

যাক উপরে আমরা Event Management রিলেটেড কি, কেন, কিভাবে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। এবং কিভাবে আপনি এই ধরনের ব্যবসার সাথে জড়িত থেকে প্রচুর পরিমান টাকা আয় করবেন।

এ সমস্ত বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

তো এবার আপনাকে জানতে হবে যে, আপনি যদি একজন ইভেন্ট ম্যানেজার হয়ে থাকেন। তাহলে আপনি কোন কোন জায়গা গুলোতে কাজ করতে পারবেন।

এবং সেই কাজের বিনিময়ে আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা থেকে আয় করতে পারবেন। তো চলুন এবার সে বিষয়ে ক্লিয়ার ধারনা নেয়া যাক।

যদি আপনি একজন দক্ষ ইভেন্ট ম্যানেজার হতে পারেন। তাহলে আপনি এমন ভিন্ন ভিন্ন জায়গাতে এই ধরনের বিজনেস করতে পারবেন। যেমনঃ 

 বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানেঃ আমরা সবাই জানি যে বিয়ের অনুষ্ঠান মানে হলো বিশাল একটি আয়োজন। যেখানে প্রায় সব ধরনের আত্মীয়দের আনাগোনা হয়ে থাকে।

আর এতো বড় আয়োজন কে পরিচালনা করার জন্য প্রয়োজন হয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর। আর সেই সুবাদে আপনি বিয়ের অনুষ্ঠানে কাজ করতে পারবেন।

জন্মদিনের অনুষ্ঠানেঃ বিয়ের অনুষ্ঠানের মতো জন্মদিনের অনুষ্ঠানও এখন ব্যাপক ভাবে আয়োজন করা হয়ে থাকে। যেখানে ছোট থেকে বড় অনেক ধরনের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট করার প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তাই আপনি এই জন্মদিনের অনুষ্ঠান গুলোতেও কাজ করে টাকা আয় করে নিতে পারবেন ৷

বিবাহবার্ষিকী এর অনুষ্ঠানেঃ অন্যান্য আনন্দ মুখর দিন গুলোর মতো বর্তমান সময়ে বিবাহ বার্ষিকীর অনুষ্ঠান গুলোও বেশ জাঁকজমক ভাবে পালিত হয়ে আসছে।

আর সেজন্য আপনি এই বিবাহ বার্ষিকীর অনুষ্ঠান গুলোতেও ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করতে পারবেন৷

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেঃ আমরা মাঝে মধ্যে বিভিন্ন স্থানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখে থাকি। এই অনুষ্ঠান গুলোর পরিবেশ সাজিয়ে নেয়ার জন্য কিন্তুু বিভিন্ন আয়োজন করার প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তাই আপনি এইসব অনুষ্ঠান গুলোতেও ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর বিজনেস করতে পারবেন।

মেলার অনুষ্ঠানেঃ কারনে কিংবা অকারনে আমরা বিভিন্ন স্থানে মেলার আয়োজন করতে দেখি। আপনি কি জানেন এই আয়োজন গুলোকে সাজিয়ে নেয়ার জন্য ইভেন্ট ম্যানেজার এর প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তাই আপনি এই সব মেলার অনুষ্ঠান গুলোতেও কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন ৷

তো বেশিরভাগ ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর কাজ গুলো এই ধরনের অনুষ্ঠান গুলোতে প্রয়োজন হয়ে থাকে। তবে এগুলো ছাড়াও আরও অনেক রকমের অনুষ্ঠান আছে।

যেখানে আপনি খুব সহজেই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা করে ব্যাপক পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

কিভাবে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রশিক্ষন নিবেন? 

দেখুন যারা দীর্ঘদিন ধরে এই ধরনের বিজনেস করেন। তারা কিন্তুু এই ব্যবসা গুলোতে অনেক গুন অভিজ্ঞ হয়ে থাকে। যার কারনে তারা তাদের এই ব্যবসা কে পরিচালনা করতে তেমন একটা বেগ পেতে হয়না।

কারন তাদের এসব কিছু সম্পর্কে পূর্বে থেকেই অনেক ধারনা থাকে।

কিন্তুু সমস্যা হলো যখন আপনি একেবারে নতুন হিসেবে এই ধরনের ইভেন্ট বিজনেস করবেন। তখন আপনি বেশ বিপাকে পড়ে যাবেন। কেননা, নতুন মানুষ হিসেবে আপনার এই বিজনেস সম্পর্কে তেমন কোনো ধারনা থাকবে না।

তাই সবার আগে আপনাকে ইভেন্ট ব্যবসা করার সমস্ত প্রক্রিয়া গুলো সম্পর্কে জানতে হবে। আগে আপনাকে বুঝতে হবে যে কিভাবে আপনি একজন ইভেন্ট ম্যানেজার এর দায়িত্ব পালন করবেন।

আর কিভাবে পরিচালনা করলে আপনি বেশি পরিমানে আয় করতে পারবেন।

আপনি আরো পড়ুন…..

তবে প্রশ্ন হলো যে কিভাবে আপনি এই ব্যবসা সম্পর্কে শিখবেন। তো আপনি যদি একান্তই এই ধরনের ইভেন্ট ব্যবসা করতে চান। তাহলে আপনি অনেক ভাবে এই ব্যবসা শিখে নিতে পারবেন।

যেমন, প্রথমত কোনো ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির সাথে কাজ করে দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে অফলাইন কিংবা অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোর্স করেও প্রশিক্ষন নিতে পারবেন। 

আজকে কি কি শিখলাম?

বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলে আমরা যে বিষয় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। সেগুলো পুনরায় আরেকবার রিপিড করবো। যেন আপনি কোনো ভাবে আলোচিত বিষয় গুলো ভুলে না যান।

তো আজকে আমরা এমন অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। যেমনঃ

  • বিয়ের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর নাম
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রশিক্ষণ
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোর্স
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট খরচ
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ছবি
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর নাম
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কার্ড
  • ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রশিক্ষণ
  • বিয়ের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট

তো উপরোক্ত বিষয় গুলো নিয়ে আজকের আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। যদি আপনি এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন।

তাহলে আশা করবো যে, আপনি উপরোক্ত বিষয় গুলো বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

আমাদের শেষকথা 

যদি আপনি আজকের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন। তাহলে আশা করা যায় আপনি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারনা পেয়ে গেছেন।

এরপরও যদি আপনার ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা সম্পর্কে কোনো কিছু জানার থাকে। কিংবা কোনো প্রকার প্রশ্ন থেকে থাকে। তাহলে অবশ্যই এই আর্টিকেলে একটা কমেন্ট করবেন।

বাংলা আইটি ব্লগের সাথে থাকার জন্য অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap