ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার Free Download (PC and Mobile )

ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার Free Download : আপনি যদি একজন ভিডিও কনটেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনার একটি বিষয় জানা থাকবে।

ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার Free Download (PC and Mobile )
ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার Free Download

আর সেই বিষয় টি হলো যে  একটি ভিডিও তৈরি করার সময় বিভিন্ন ধরনের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার অথবা Online video editor ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে হয়। সেটা হতে পারে আপনি যখন কম্পিউটার ব্যবহার করবেন। তখন আপনাকে বিভিন্ন প্রকারের কম্পিউটারের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে। এবং আপনি যদি একজন মোবাইল ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনাকে মোবাইলের জন্য ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে। 

আর বর্তমান সময়ে আপনি এমন অনেক ধরনের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার পাবেন। যে গুলো মূলত টাকা দিয়ে কিনে নিতে হয়।

কিন্তু আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাকে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব।

দেখুন যে সফটওয়্যার কিংবা মোবাইল অ্যাপস গুলো টাকা দিয়ে কিনে নিবেন। সেই সফটওয়্যার কিংবা অ্যাপস গুলো তে আপনি একটু বেশি সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

আর এই বিষয় টি সম্পর্কে আমরা কম বেশি সবাই জানি। তবে সব মানুষের ক্ষেত্রে টাকা দিয়ে এই ধরনের সফটওয়্যার কিংবা অ্যাপস গুলো কিনে নেওয়া সম্ভব হয় না।

সে ক্ষেত্রে সেই মানুষ গুলো কে বিভিন্ন ধরনের Free video editor Software অথবা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download ডাউনলোড করার প্রয়োজন হয়ে থাকে।

কিন্তু এই ধরনের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download কোথা থেকে করবে। এবং কোথায় এই ধরনের ফ্রি সফটওয়্যার পাওয়া যায়।

আপনি আরোও দেখুন…

সে সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। আর সে কারণে আমরা খুঁজতে থাকি যে, কিভাবে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করা যাবে।

মূলত এই উদ্দেশ্য কে পূরণ করার জন্যই আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে। কারণ গুরুত্বপূর্ণ এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আমি আপনাদের জানিয়ে দেয়ার চেষ্টা করব।

যে আপনি একজন নতুন ব্যক্তি হিসেবে কিভাবে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করবেন।

আর আপনি যদি সেই বিষয় গুলো সম্পর্কে একেবারে বিস্তারিত ভাবে জেনে নিতে চান। তাহলে আপনাকে আজকে পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

এর পাশাপাশি আপনি যদি কম্পিউটার ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন। তাহলে আমি আপনাকে বেশ কিছু সফটওয়্যার এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব।

আর আপনি যদি মোবাইল ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন। তাহলে কোন চিন্তার কারণ নেই।

কেননা আজকে আমি মোবাইলের জন্য বেশ কিছু ফ্রি ভিডিও এডিটিং অ্যাপস এর সাথে আপনাকে পরিচয় করিয়ে দিব।

পিসির জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download

যদিও বা আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল এর মাধ্যমে আমি আপনাকে মোবাইল এবং কম্পিউটার দুটো ডিভাইসের জন্য ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করার উপায় গুলো শেয়ার করব।

তবে সবার শুরুতে আমি পিসির জন্য বেশ কিছু সফটওয়্যার এর কথা উল্লেখ করব। যে গুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার পিসি থেকে প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিট করতে পারবেন।

এবং এই ধরনের সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার টাকা দেয়ার প্রয়োজন পড়বে না।

অর্থাৎ আপনি চাইলে বিনামূল্যে এই ধরনের পিসির জন্য ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার গুলো ডাউনলোড করতে পারবেন।

এবং এই সফটওয়্যার গুলো দিয়ে অন্যান্য মানুষদের মতো প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিট করে নিতে পারবেন। নিচে Video Editor for PC free download নিয়ে পড়ুন।

Hitfilm Express (PC Video Editor)

আপনি যদি আপনার কম্পিউটার এর জন্য কোন প্রফেশনাল মানের Video Editor download করার জন্য সফটওয়্যার খুজে থাকেন।

এবং সেই সফটওয়্যার গুলো আপনি যদি একেবারেই বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে চান।  তাহলে আপনার জন্য উপযুক্ত একটি সফটওয়্যার হবে Hitfilm Express.

মূলত এই সফটওয়্যার এর বিশেষত্ব হল, আপনি এমন কোন ফিচার খুঁজে পাবেন না। যেগুলো মূলত এই সফটওয়্যার এর মধ্যে নেই।

কেননা কোন একটি ভিডিও কে যথেষ্ট প্রফেশনাল মানের এডিট করার জন্য যে সমস্ত বিষয় থাকা উচিত।

তার সব গুলোই আপনি উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে খুঁজে পাবেন। মূলত আপনি যদি একজন ইউটিউবার হয়ে থাকেন।

কিংবা ভিডিও কনটেন্ট নিয়ে কাজ করে থাকেন। তাহলে এই জনপ্রিয় সফটওয়্যার টি হবে আপনার জন্য অন্যতম।

কারণ উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে এমন কিছু ফিচার রয়েছে।

যা আপনাকে মুগ্ধ করে দিবে। যেমন এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি Full 2D, Professional Timeline, 3D Compositing করার সুযোগ পাবেন।

এর পাশাপাশি উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি প্রচুর পরিমাণে Video Effect দেখতে পারবেন। যে গুলো আপনি আপনার ভিডিও তে সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলতে পারবেন।

শুধু তাই নয়, এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি এমন অনেক ধরনের প্রফেশনাল মান এর Preset পাবেন। যে গুলোর সাহায্য আপনার কাজের গতি কে আরো কয়েক গুণ বৃদ্ধি করতে পারবেন।

সত্যি বলতে যদি আপনি ভিডিও এডিটিং করার জন্য এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করে থাকেন।

তাহলে এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি এমন অনেক ধরনের অ্যাডভান্স ফিচার পাবেন। যা আপনার ভিডিও এর আকর্ষণীয়তা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

এর পাশাপাশি আপনি উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে আরো বিশেষ কিছু ফিচার দেখতে পারবেন। যেমন, Audio Editing, Text, Title, Trimming, Cutting সহ বিভিন্ন ধরনের এডভান্স ফিচার রয়েছে।

তো আমাদের মধ্যে যারা মূলত নতুন ব্যক্তি হিসেবে ভিডিও এডিটিং এর কাজ করতে চায়। তাদের জন্য এই ধরনের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করা উচিত।

কেননা এই সফটওয়্যার গুলোর কাজ খুব দ্রুত ভাবে শেখা যায়। এবং আপনি যদি এই সফটওয়্যার গুলোর সকল প্রকার টুলস কে সঠিক ভাবে ব্যবহার করতে পারেন।

তাহলে আপনিও অন্যান্য ব্যক্তিদের মতো এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে আপনার এডিট করা ভিডিও কে প্রফেশনাল লুক দিতে পারবেন। 

Shotcut – (Open source)

আমাদের মধ্যে যে মানুষ গুলো খুব সহজ একটা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ভিডিও এডিট করতে চায়।

তাদের জন্য Shotcut – (Open source) এই সফটওয়্যার টি হবে একেবারেই উপযুক্ত।

মূলত আপনি আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজ কিংবা লিনাক্স অথবা অন্যান্য কোন অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করেন না কেন।

আপনি সব ধরনের অপারেটিং সিস্টেম এর মধ্যে এই জনপ্রিয় ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারবেন। আর সবচেয়ে অবাক করা মতো বিষয় হল।

বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় তার শীর্ষে থাকা এই ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করার জন্য। আপনাকে কোন প্রকার অর্থ প্রদান করার প্রয়োজন হবে না।

অর্থাৎ আপনি একেবারে বিনামূল্যে এই বিশেষ ভিডিও এডিটিং করার সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে পারবেন।

এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আমি চমৎকার কিছু ফিচার লক্ষ্য করতে পারবেন। যেমন, Video Trimming, Video Cropping, Effect, Easy Editor Timeline.

আর আপনি যদি কম্পিউটারের জন্য ভালো কোন স্কিন রেকর্ডার খুঁজে থাকেন। সে ক্ষেত্রে আপনি এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারবেন।

কেননা এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি ভিডিও এডিটিং করার পাশাপাশি আপনার স্কিনের যাবতীয় কাজ গুলো।

আপনি উক্ত সফটওয়্যার এর মাধ্যমে রেকর্ড করে নিতে পারবেন। তো আপনি যদি ভিডিও এডিটিং করার জন্য সহজ কোনো সফটওয়্যার খুজে থাকেন।

তাহলে অন্তত পক্ষে একবার হলেও এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করে দেখবেন। আশা করি এই সফটওয়্যারটি আপনার অনেক ভালো লাগবে।

Light Works video editor

মূলত আপনার কম্পিউটারের মধ্যে প্রায় সব ধরনের অপারেটিং সিস্টেমের জন্য। উপযুক্ত একটি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার হল LightWorks video editor.

তো অন্যান্য সব পিসির জন্য ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার গুলোর মত। আপনি এই সফটওয়্যার এর মধ্যে অনেক উন্নত মানের ফিচার এবং টুলস পাবেন।

যে টুলস গুলো কে সঠিক ভাবে ব্যবহার করতে পারলে। আপনিও আপনার ভিডিওর আকর্ষণীয়তা আরো কয়েকগুণ বৃদ্ধি করতে পারবেন।

এর পাশাপাশি আপনি যদি এই সফটওয়্যার এর টুলস গুলোর কাজ জানার জন্য youtube এ সার্চ করেন। তাহলে আপনি ইউটিউব এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিডিও পাবেন।

যে গুলো মূলত এই সফটওয়্যার কে নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। আর যদি আপনি আপনার পিসি দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করেন।

সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনি চমৎকার কিছু অ্যাডভান্স ফিচার উপভোগ করতে পারবেন। যেমন, Video FX, Video Editing Timeline, Copyright Free Stock Footage, Stock Image.

এর পাশাপাশি যারা মূলত নতুন ব্যক্তি হিসেবে ভিডিও এডিটিং শিখতে চান। তাদের জন্য এই সফটওয়্যারে কাজ করা উচিত বলে আমি মনে করি।

কারণ এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি অনেক সহজ ইন্টারফেস দেখতে পারবেন। অর্থাৎ পূর্ব থেকে যদি আপনার ভিডিও এডিটিং সম্পর্কে ধারণা না থাকে।

তারপরও আপনি খুব সহজেই এই সফটওয়্যারটি কে ব্যবহার করতে পারবেন।

Camtasia Video Editor 

যখন আপনি নতুন ব্যক্তি হিসেবে আপনার পিসি দিয়ে ভিডিও এডিট করতে চাইবেন। তখন আপনি অবশ্যই camtasia নামক ভিডিও এডিটর সফটওয়্যার এর নাম শুনে থাকবেন।

কেননা বর্তমান সময়ে প্রায় অধিকাংশ মানুষ তাদের পিসি দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য। এই সফটওয়্যার কে ব্যবহার করে থাকে।

এর মূল কারণ হলো এই সফটওয়্যার এর মধ্যে আপনি অনেক সহজ একটা ইন্টারফেস দেখতে পারবেন। যেখানে বেশ কিছু টুলস থাকবে।

আর এই টুলস গুলো সম্পর্কে জানতে খুব বেশি একটা সময়ের প্রয়োজন হয় না। এর ফলে নতুন ব্যক্তিরা খুব সহজেই এই সফটওয়্যার কে বুঝতে পারে।

এবং উক্ত সফটওয়্যার এর মাধ্যমে ভিডিও এডিট করতে পারে। তো অন্যান্য সব সফটওয়্যার গুলোর মধ্যে আপনি উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে বিভিন্ন রকমের প্রফেশনাল মানের টুলস দেখতে পারবেন।

যেমন আমরা অনেকেই চাই যে, গ্রীন স্ক্রিন নিয়ে কাজ করার। আর আপনি যদি গ্রিন স্ক্রীন এর মাধ্যমে ভিডিও এডিট করতে চান। তাহলে এই সফটওয়্যারটি হবে আপনার জন্য একেবারেই উপযুক্ত।

কারণ এই সফটওয়্যার এর মধ্যে গ্রীন স্ক্রিন নিয়ে কাজ করার চমৎকার একটি ফিচার রয়েছে।

শুধু তাই নয় উক্ত সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি অন্যান্য সফটওয়্যার এর মতো একটি অডিও এডিটর পাবেন।

যার ফলে আপনি ভিডিও এডিট করার পাশাপাশি সেই ভিডিওর জন্য যে অডিও থাকবে। সেটি কে আপনার পছন্দমত এডিট করে নিতে পারবেন।

আর সে কারণে মূলত আপনি চাইলে এই সফটওয়্যার টি কে আপনার পিসি তে ব্যবহার করতে পারেন।

Best PC Video Editing Software List 

উপরের আলোচনায় আমি আপনাকে পিসির জন্য বেশ কিছু ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছি।

তবে এইসব সফটওয়্যার গুলো ছাড়াও আপনি পিসি দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য। আরও বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার দেখতে পারবেন।

যে গুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার ভিডিও এডিট করতে পারবেন। আর সেই সফটওয়্যার গুলোর নাম হল:

  1. Adobe After Effects
  2. Adobe Premiere Pro
  3. VFX
  4. Camtasia
  5. Light Works video editor
  6. Shotcut – (Open source)

তো আপনি চাইলে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করার পাশাপাশি। এই সফটওয়্যার গুলো আপনার পিসি তে ব্যবহার করতে পারবেন।

কেননা এই সফটওয়্যার গুলো মূলত এডভান্স সব ফিচার সমৃদ্ধ। যার মাধ্যমে অনেক প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিট করা যায়।

কিভাবে পিসির জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করবেন?

এতক্ষণের আলোচনা থেকে আপনি জানতে পারলেন যে। পিসি দিয়ে এমন কোন কোন সফটওয়্যার গুলোর মাধ্যমে ভিডিও এডিট করা যায়।

এবং আমি উপরের আলোচনায় এই বিষয়টি কে খুব সহজ ভাবে বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করেছি। তো এখন এইসব সফটওয়্যার এর নাম জানার পরে অনেকের মনে একটি প্রশ্ন জেগে থাকবে।

আপনি আরোও পড়ুন…

আর সেই প্রশ্ন টি হল যে, Free video editing software for Windows 7 অথবা অন্য যেকোন ভার্সন এর পিসির জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করবেন।

তো আপনার মনে যদি এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে এবার আপনাকে নিচের আলোচিত আলোচনায় নজর রাখতে হবে।

কারণ এবার আমি আপনাকে দেখিয়ে দিব যে, কিভাবে আপনি পিসির জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করবেন।

তো চলুন এবার সেই বিষয় টি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

তো যদিও বা আমরা অধিকাংশ সময় বলে থাকি। যে এই ধরনের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার গুলো একবারে ফ্রিতে ব্যবহার করা যায়।

আসলে বিষয়টা কিন্তু এমন নয়, কেননা যখন আপনি হাই লেভেলের এই ধরনের সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করে ভিডিও এডিটিং করতে চাইবেন।

তখন অবশ্যই আপনাকে সেই সফটওয়্যার গুলো টাকা দিয়ে কিনতে হবে। আর এমন অনেক ধরনের উপায় রয়েছে। যে উপায় গুলোর মাধ্যমে আপনি বিনামূল্যে সেই সফটওয়্যার গুলো কে ডাউনলোড করতে পারবেন।

এবং কোন প্রকার টাকা খরচ ছাড়াই উক্ত সফটওয়্যার এর মধ্যে থাকা সকল প্রকার ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন।

আর এই সফটওয়্যার গুলো কে ফ্রি ব্যবহার করার অন্যতম একটি উপায় আছে।

আর সেই উপায় টি হলো আপনাকে একটি ওয়েবসাইট থেকে উক্ত সফটওয়্যার গুলো কে ফ্রি ডাউনলোড করতে হবে।

আর সেই ওয়েবসাইটের নাম হল Get into pc. মূলত আমরা আমাদের কম্পিউটার এর মধ্যে যে সকল সফটওয়্যার ব্যবহার করি।

তার অধিকাংশ প্রিমিয়াম সফটওয়্যার গুলো এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে একেবারেই বিনামূল্যে ডাউনলোড করি। তো আপনি যদি আপনার কম্পিউটারের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download খুজে থাকেন।

তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই ওয়েবসাইট কে কাজে লাগাতে হবে। যেখান থেকে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করে নিতে পারবেন।

মোবাইলের জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download

উপরের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা থেকে আপনি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করার উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

তবে এবার আমি আপনাকে মোবাইলের জন্য চমৎকার কিছু ভিডিও এডিটিং অ্যাপস এর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার চেষ্টা করব।

যে গুলো মূলত ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার অর্থ ব্যয় করার প্রয়োজন হবে না।

এবং আপনি এক বারে বিনামূল্যে এই ধরনের মোবাইল ভিডিও এডিটিং অ্যাপস গুলো ডাউনলোড করার পরে।

আপনি আপনার পছন্দ মত যে কোন ধরনের ভিডিও কে এডিট করতে পারবেন।

চলুন এবার তাহলে মোবাইলের জন্য ভিডিও এডিটিং করার ফ্রি অ্যাপস গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Kinemaster – Pro

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য চমৎকার একটি এপস খুঁজে থাকেন। তাহলে আমি সরাসরি আপনাকে Kinemaster অ্যাপস এর কথা বলব।

কারণ এই অ্যাপটির মধ্যে আপনি এমন সব ফিচার দেখতে পারবেন। যে গুলো কে সঠিক ভাবে কাজে লাগাতে পারলে।

আপনি আপনার ফোন দিয়ে কম্পিউটারের মতো প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিট করতে পারবেন।

আর বর্তমান সময়ে যারা মূলত মোবাইল দিয়ে ইউটিউবিং করে। তাদের অধিকাংশ মানুষ এই Kinemaster নামক অ্যাপস টি ব্যবহার করে থাকে।

মূলত আপনি যদি এই অ্যাপস টি ব্যবহার করেন। তাহলে আপনি অনেক ধরনের ফিচার দেখতে পারবেন।

যেমন, প্রথমত আপনি এই অ্যাপসটির মাধ্যমে অনেক সুক্ষভাবে গ্রিন স্ক্রিন এর কাজ করতে পারবেন। এর পাশাপাশি আপনি উক্ত অ্যাপসের মধ্যে অনেক Preset পাবেন।

যে গুলোর মাধ্যমে আপনার ভিডিওর আকর্ষণীয়তা আরো কয়েকগুণ বৃদ্ধি করতে পারবেন। সেই সাথে এই অ্যাপস এর মধ্যে আপনি যে ইন্টারফেস দেখতে পারবেন, তা মূলত অনেক সহজ।

যার ফলে নতুন ব্যক্তিরা এই অ্যাপস কে খুব সহজেই ব্যবহার করতে পারবে।

FilmoraGo – Free Video Editor

মূলত কম্পিউটার এবং মোবাইল এই দুটো ডিভাইসের জন্য চমৎকার একটি ভিডিও এডিটিং অ্যাপস হলো FilmoraGo.

যারা মূলত মোবাইল দিয়ে প্রফেশনাল ভাবে ইউটিউবিং কিংবা ফেসবুকের জন্য ভিডিও কনটেন্ট নিয়ে কাজ করে তারা এই জনপ্রিয় অ্যাপস টি ব্যবহার করে থাকে।

কেননা আপনি যদি আপনার ভিডিও এডিট করার জন্য এই অ্যাপস কে ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনি অবাক করার মতো কিছু ফিচার দেখতে পারবেন।

যেমন এই অ্যাপসের নিজস্ব কিছু Music Library, Sound Effect রয়েছে যেগুলো আপনি আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করতে পারবেন।

এর পাশাপাশি একটি ভিডিও কে আকর্ষণীয় করার জন্য যে সকল বিষয়ের প্রয়োজন হয়ে থাকে। তার অধিকাংশ বিষয় গুলো আপনি একবারে বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন।

তো আপনি যদি আপনার মোবাইলে ভিডিও এডিট করার জন্য অন্যতম কোন অ্যাপস খুঁজে থাকেন। তাহলে আপনার এই অ্যাপ টি ব্যবহার করা উচিত বলে আমি মনে করি।

তবে যেহেতু এটি প্রফেশনাল মানের একটি অ্যাপস। সেহেতু প্রথমে আপনাকে এই অ্যাপস এর সকল টুলস সম্পর্কে জানতে হবে। এবং পরবর্তী সময়ে আপনাকে সেই টুলস গুলো ব্যবহার করে ভিডিও এডিট করতে হবে।

Adobe Premiere Clip

মোবাইলে ভিডিও এডিট করার জন্য এই অ্যাপটি অনেক ভালো সার্ভিস দিয়ে থাকে। কারণ আপনি যদি খুব দ্রুত গতিতে কোন একটি ভিডিও মোবাইল দিয়ে এডিট করতে চান।

তাহলে আপনি এই অ্যাপসের মাধ্যমে খুব সহজেই যে কোনো ধরনের ভিডিও কে খুব দ্রুততার সাথে এডিট করতে পারবেন।

কেননা এই অ্যাপসের মধ্যে আপনি পুর্বে থেকেই অনেক Preset দেখতে পারবেন। যেগুলোর মাধ্যমে আপনি শুধুমাত্র আপনার ভিডিও এর ক্লিপ গুলো কে এই অ্যাপের মধ্যে প্রবেশ করাবেন।

এবং অটোমেটিক ভাবে উক্ত অ্যাপস টি আপনার সেই ভিডিও ক্লিপ গুলো কে একত্রে করে। আকর্ষণীয় সব ভিডিও তৈরি করবে।

তাই চাইলে আপনি অন্যান্য ভিডিও এডিটিং অ্যাপস গুলো ব্যবহার করার পাশাপাশি। Adobe Premiere Clip নামক অ্যাপ টি ব্যবহার করে দেখবেন।

আশা করি উক্ত ভিডিও এডিটিং করার অ্যাপস টি আপনার অনেক ভালো লাগবে।

PowerDirector

উপরে আপনি মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য যে সকল এপ্স সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

মূলত সেই সব অ্যাপস এর মত আরও একটি জনপ্রিয় মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার অ্যাপস হলো Power Director.

যে অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি মোবাইল দিয়ে অনেক প্রফেশনাল মানের ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

মূলত যখন আপনি ভিডিও এডিট করার জন্য Power Director অ্যাপস কে ব্যবহার করবেন।

তখন আপনি এর মধ্যে আকর্ষণীয় সব ফিচার দেখতে পারবেন। যেমন, Video Background, Slow motion, Slider, Effect ইত্যাদি।

এর পাশাপাশি আপনি এই অ্যাপসের মাধ্যমে 720p থেকে 1080p এর ভিডিও এক্সপোর্ট করতে পারবেন।

VivaVideo – editor and photo movie

আপনি যদি অন্যান্য ইউটিউবার এর রিভিউ দেখেন। তাহলে তাদের মধ্যে অনেকেই মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য VivaVideo এর নাম সাজেস্ট করে থাকে।

কেননা মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য যে সকল দরকারি টুলস এর প্রয়োজন হয়। তার সবগুলো আপনি এই অ্যাপস এর মধ্যে দেখতে পারবেন।

এর পাশাপাশি আপনি উক্ত অ্যাপস এর মধ্যে আরো বিশেষ কিছু টুলস পাবেন। যেমন, Trimming, Video Marge, Video Effect ইত্যাদি।

আর আপনি যদি এই অ্যাপস টি গুগল প্লে স্টোরে সার্চ করেন। তাহলে দেখতে পারবেন যে, প্রায় 200 মিলিয়ন এর বেশি এই অ্যাপ টি ডাউনলোড হয়েছে।

তাই আপনি চাইলে ভিডিও এডিট করার জন্য এই অ্যাপস টি ডাউনলোড করে দেখতে পারেন।

মোবাইলের জন্য  ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করবেন

তো আপনি যদি আপনার মোবাইল ফোনে ভিডিও এডিট করার জন্য এই অ্যাপস গুলো একবারে ফ্রিতে ডাউনলোড করতে চান।

তাহলে আপনি মূলত দুইটি উপায়ে উক্ত এপস গুলো কে ডাউনলোড করতে পারবেন। প্রথমত আপনি যদি সরাসরি গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে এই অ্যাপস গুলোর নাম লিখে সার্চ করেন।

তাহলে আপনি প্লে স্টোর থেকে সরাসরি আপনার ফোনে জনপ্রিয় এই ভিডিও এডিটিং করার অ্যাপস গুলো ডাউনলোড করতে পারবেন।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

অথবা আপনি যদি কোন কারনে প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপস গুলো ডাউনলোড করতে না পারেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটের সহায়তা নিতে হবে।

কেননা বর্তমান সময়ে গুগল প্লে স্টোরের পাশাপাশি এমন অনেক ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে। যেখান থেকে এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য যাবতীয় অ্যাপস গুলো একবারে ফ্রিতে ডাউনলোড করা যায়।

আমাদের শেষকথা

ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার free download করার উপায় গুলো নিয়ে আজকে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করা হয়েছে। তো আপনি যদি ভিডিও কনটেন্ট নিয়ে কাজ করেন।

এবং আপনার যদি নিয়মিত ভিডিও এডিটিং করার প্রয়োজন হয়ে থাকে। তাহলে আজকের এই আর্টিকেল টি আপনার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

কেননা এই আর্টিকেলে আমি আপনাকে জনপ্রিয় সব ভিডিও এডিটিং করার অ্যাপস এবং সফটওয়্যার গুলো ফ্রিতে ডাউনলোড করার উপায় গুলো শেয়ার করেছি।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

HandsUp! কপি করা যাবে না বস!

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap