Realme কোন দেশের কোম্পানি । Realme এর মালিক কে

Realme কোন দেশের কোম্পানি : আজকে আমি আপনাকে একটা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বলার চেষ্টা করব। সেটি হল যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি এই বিষয়ে আজকে আমি আপনাকে জানিয়ে দিবো।

Realme কোন দেশের কোম্পানি । Realme এর মালিক কে
Realme কোন দেশের কোম্পানি

কেননা আপনি হয়তোবা বেশ ভালো করে জানবেন যে। বর্তমান সময়ে রিয়েল মি মোবাইল জগতে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করতে পেরেছে।

কারণ অন্যান্য মোবাইল কোম্পানি গুলোর তুলনায় মানুষ এখন Realme ফোন কেনার প্রতি যথেষ্ট আগ্রহ প্রকাশ করছে। আর যখন কোন নতুন ব্যক্তি এই কোম্পানির মোবাইল ফোন কেনার কথা ভাবছে।

ঠিক তখনই তাদের মনে একটি প্রশ্ন জেগে থাকে যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি। আর আজকে আমি আপনাকে এই বিষয় টি সম্পর্কে বিস্তারিত বলবো।

এর পাশাপাশি আমি আপনাকে আরো বেশ কিছু তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব।

যেমন, Realme কোম্পানির মালিক কে, Realme স্মার্ট ফোন এর ইতিহাস সহ আরো অনেক অজানা বিষয় নিয়ে বিষদ ভাবে আলোচনা করব।

Realme কি?

আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে আমি আপনাকে Realme কোন দেশের কোম্পানি সে সম্পর্কে অবশ্যই বলব।

তবে তার আগে আপনাকে জানতে হবে যে, এই রিয়েল মি আসলে কি। তো এই Realme হলো এটি বিখ্যাত মোবাইল প্রস্তুত কারক কোম্পানি।

যে কোম্পানির স্মার্ট ফোন গুলো আপনি অনেক কম দামে কিনতে পারবেন। এবং Realme স্মার্টফোন গুলো সাধারণত উন্নত বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন হয়ে থাকে।

যার কারণে একজন ব্যবহারকারী হয়ে আপনি যদি এই কোম্পানির মোবাইল ব্যবহার করেন। তাহলে আপনার কাছে অনেক বেশি ভালো লাগবে।

আর একটা কথা অবশ্যই জেনে রাখা উচিত যে। জনপ্রিয় এই মোবাইল কোম্পানির থেকে উৎপাদিত হওয়া স্মার্টফোন গুলো ভারতে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছে।

কেননা এই জনপ্রিয় স্মার্ট ফোন প্রস্তুত কারক কোম্পানি থেকে যে সকল মোবাইল তৈরি করা হয়। সে গুলো গুণগত মানের দিক থেকে অনেক উন্নত।

এর পাশাপাশি দামের দিক থেকেও খুব কম দাম দিয়ে এই কোম্পানির স্মার্টফোন গুলো কিনে নেওয়া যায়।

Realme কোন দেশের কোম্পানি?

তো আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা আসলে নতুন কোন মোবাইল কেনার সময় যদি realme নামক কোম্পানির নাম শুনে।

তাহলে সেই সময় তারা জানতে চায় যে, এই Realme কোন দেশের কোম্পানি। তো যারা আসলে এই কোম্পানি সম্পর্কে জানতে চায়।

তাদের উদ্দেশ্য করে বলবো যে, Realme হলো একটি চায়না কোম্পানি। এবং এই জনপ্রিয় কোম্পানির সদর দপ্তর চিনের শেনজেনে অবস্থিত।

জনপ্রিয় স্মার্টফোন প্রস্তুত কারক কোম্পানি টির যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১০ সালের দিকে। এবং তারপর থেকেই তারা তাদের এই মোবাইল গুলো কে গোটা বিশ্বব্যাপী বাজারজাতকরণ এর কথা ভেবেছিল।

তবে শুরুর দিকে যখন এই স্মার্টফোন কোম্পানি থেকে তৈরি হওয়া মোবাইল গুলো বাজারে উন্মুক্ত করা হয়। তারপর থেকেই এই জনপ্রিয় কোম্পানির মোবাইল গুলো অনেক বেশি বিক্রি হতে থাকে।

এবং তার পরবর্তীতে এটি অনেক বড় একটি স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক কোম্পানি হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।

Realme এর মালিক কে?

উপরের আলোচনা থেকে আপনি জানতে পারলেন যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি। এখন এই বিষয়টা জানার পরে অনেকের মনে একটি প্রশ্ন জেগে থাকবে।

আর সেই প্রশ্ন টি হল যে, Realme (রিয়েল মি) এর মালিক কে। তো আপনার মনে যদি এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে আমি আপনাকে খুব ছোট্ট করে বলবো যে, Realme এর মালিক হলো স্কাই লি

তিনি মূলত একজন চীনের বাসিন্দা। এবং তিনি এই রিয়েলমি কোম্পানির মালিক হওয়ার পাশাপাশি তিনি হলেন এই কোম্পানির একজন সিইও।

একটা কথা বলে রাখা ভালো যে রিয়েলমি কোম্পানি এর মালিক ২০১৮ সালে রিয়েল মি স্মার্টফোন জগতে নতুন কিছু নিয়ে আসার চেষ্টা করে।

এবং সেই উদ্দেশ্যে তারা তাদের এই কোম্পানি টি পরিচালনা করে। আর যখন এই রিয়েলমি কোম্পানি থেকে স্মার্ট ফোন প্রস্তুত করা হয়।

তার পরবর্তী সময়ে বা চীন সহ ভারতের অধিকাংশ মানুষের কাছে এই কোম্পানি টি ব্যাপক পরিমাণে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

Realme কোম্পানির সিইও এর নাম কি?

এতক্ষণের আলোচনা থেকে আপনি জানতে পারলেন যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি এবং Realme এর মালিক কে।

তো এই বিষয় গুলো জানার পাশাপাশি এবার আপনাকে অন্য একটি বিষয় সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। সেটি হল যে, Realme কোম্পানির সিইও এর নাম কি।

তো এই জনপ্রিয় স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক কোম্পানি রিয়েলমি এর সিইও হলেন স্কাই লি। এই বিশেষ ব্যক্তি মূলত চীনের একজন স্থায়ী বাসিন্দা।

যদিওবা Realme কোম্পানি অনেক পুরাতন। কিন্তু ২০১৮ সালে তিনি realme কোম্পানি থেকে মোবাইল প্রস্তুত করার কথা ভাবেন।

আর যখন তিনি এই সিদ্ধান্ত নেন, তার পরবর্তী সময়ে তিনি ইন্ডিয়াতে realme কোম্পানির একজন কে সিইও হিসেবে নিযুক্ত করেন। আর সেই ব্যক্তির নাম হল, মাধব শেঠ।

Realme কোম্পানি কি কি তৈরি করে?

দেখুন আমরা অনেকেই মনে করি যে জনপ্রিয় এই রিয়েলমি নামক কোম্পানি টি শুধুমাত্র মোবাইল ফোন প্রস্তুত করে থাকে।

আর যারা আসলে এই বিষয়টি ভেবে থাকেন তাদের ভাবনা সম্পূর্ণ ভুল। কেননা এই কোম্পানি থেকে স্মার্টফোন তৈরি করার পাশাপাশি আরো বিভিন্ন রকমের ইলেকট্রনিক্স পণ্য তৈরি করা হয়।

আর আজকের দিনে আমরা রিয়েল মি স্মার্টফোনের যেরকম জনপ্রিয়তা দেখতে পাই। ঠিক একই জনপ্রিয়তা আপনি এই কোম্পানির অন্যান্য প্রোডাক্ট গুলোর ক্ষেত্রে দেখতে পারবেন।

কেননা এই জনপ্রিয় কোম্পানি টি তাদের প্রোডাক্ট গুলো যেন কোয়ালিটি সম্পন্ন হয়। সেই দিকে যথেষ্ট পরিমাণে গুরুত্ব রাখে।

চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক যে, রিয়েল মি কোম্পানি স্মার্ট ফোন ছাড়াও আরো কি কি ইলেকট্রনিক্স প্রোডাক্ট উৎপাদন করে।

তো আমি আপনাকে উপরই একটা কথা বলেছি। আর সেই কথাটি হল যে, জনপ্রিয় এই রিয়েল মি কোম্পানি স্মার্ট ফোন তৈরি করার পাশাপাশি আরও বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট তৈরি করেন।

যেমন, Bags, Realme Cases, Power Bank, Earphone, Smart TV, Smart Phone ইত্যাদি। তো এতক্ষণ আপনি বুঝতে পেরেছেন যে, রিয়েল মি শুধুমাত্র একটি স্মার্ট ফোন তৈরি করার কোম্পানি নয়।

বরং এই কোম্পানি থেকে আরও বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট উৎপাদন করা হয়। এবং স্মার্ট ফোনের যে রকম জনপ্রিয়তা রয়েছে।

ঠিক তেমনি ভাবে রিয়েল মির অন্যান্য সব প্রোডাক্ট এর ক্ষেত্রে আপনি একই জনপ্রিয়তা লক্ষ্য করতে পারবেন।

আর সময়ের সাথে সাথে এই কোম্পানি থেকে উৎপাদিত পণ্যের চাহিদা আরো অধিক পরিমাণে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কারণ এই কোম্পানির উৎপাদিত প্রোডাক্ট গুলো অনেক মানসম্মত হয়ে থাকে।

Realme কোম্পানির ইতিহাস

যেহেতু আপনি জানতে এসেছেন যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি। সেহুতু অবশ্যই আপনাকে এই জনপ্রিয় কোম্পানি এর পেছনের ইতিহাস সম্পর্কে জেনে নিতে হবে।

কারণ আমরা বর্তমান সময়ে যে সকল সফল কোম্পানি দেখতে পাই। তাদের এই সফলতার পেছনে রয়েছে অনেক ইতিহাস। যা আমাদের অনেকের কাছেই অজানা থাকে।

আর আপনি একজন রিয়েল মি স্মার্টফোন ইউজার হিসেবে যেন এই ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারেন।

সে কারণে এবার আমি আপনাকে Realme কোম্পানির সঠিক ইতিহাস জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। যাতে করে আপনার এই কোম্পানির কোন কিছু অজানা না থাকে।

তাহলে চলুন এবার সেই Realme কোম্পানির ইতিহাস জেনে নেওয়া যাক।

তো আর্টিকেলে শুরুতেই আমি আপনাকে একটা কথা বলেছি যে। এই Realme হল একটি চীনা কোম্পানি। এবং জনপ্রিয় এই কোম্পানির সদর দপ্তর মূলত চীনে অবস্থিত।

দিও বা আমরা ২০১৮ সালের শুরুর দিকে রিয়েলমি কোম্পানি থেকে বিভিন্ন রকমের স্মার্টফোন দেখেছি।

তবে এই জনপ্রিয় কোম্পানিটির সর্বপ্রথম সূচনা হয়েছিল ২০১০ সালের দিকে। আর প্রথম থেকেই জনপ্রিয় কোম্পানি থেকে কোন ধরনের স্মার্টফোন প্রস্তুত করা হতো না।

বরং অন্যান্য আরো বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক্স প্রোডাক্ট তৈরি করা হতো। কিন্তু যখন এই রিয়েল মি কোম্পানির মালিক এবং সিইও স্কাইলি নতুন কিছু করার চিন্তা করেন।

তখন সেই ব্যক্তি এই কোম্পানি থেকে স্মার্টফোন প্রস্তুত করার কথা ভাবেন। আর ২০১৮ সালে দিকে এই জনপ্রিয় কোম্পানি থেকে বিভিন্ন ধরনের মান সম্মত স্মার্টফোন তৈরি করার কাজ শুরু হয়।

কিন্তু এখানে আপনাকে একটা কথা জেনে রাখতে হবে। সেটি হল যে, এই রিয়েল মি হল BBK Electronics Corporation এর অধীনস্থ একটি প্রতিষ্ঠান।

তবে এই বৃহৎ প্রতিষ্ঠান এর আরো অনেক ধরনের কোম্পানি যুক্ত আছে। যেমন, Oppo, Vivo, OnePlus ইত্যাদি। আর এই সব ধরনের বড় বড় কোম্পানিগুলোর মালিক হলো BBK Electronics.

আর এই জনপ্রিয় ইলেকট্রনিক্স কোম্পানির যে মালিক রয়েছে তার নাম হলো ডুয়ান ইয়াং পিং। যে মূলত বিশ্বের এই বড় বড় মোবাইল কোম্পানি গুলো পরিচালনা করে থাকে।

তবে realme এর মালিক চেয়েছিল তার মোবাইল কোম্পানি কে একটি উন্মুক্ত ব্রান্ড হিসাবে তৈরি করবে। আর সেই উদ্দেশ্য সাধন করার জন্য স্কাইলি ২০১৮ সালে তার জনপ্রিয় কোম্পানি থেকে স্মার্টফোন প্রস্তুত করা শুরু করে।

আর যখন ২০১৮ সালে রিয়েল মি কোম্পানি থেকে নতুন স্মার্টফোন তৈরি করা হয়। তখন সেই স্মার্ট ফোন গুলোর নাম দেওয়া হয় Oppo Real.

কিন্তু পরবর্তী সময়ে এই নাম পরিবর্তন করে সরাসরি কোম্পানির নামে এই স্মার্ট ফোন গুলো বাজারে ছাড়া হয়।

তবে এই রিয়াল মি কোম্পানি স্মার্ট ফোন তৈরি করার আগে থেকেই বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক্স প্রোডাক্ট তৈরি করতো।

এবং তারা ইতি মধ্যেই গোটা বিশ্ব বাজারের মধ্যে তাদের উৎপাদিত ইলেকট্রনিক্স পণ্য গুলো বাজারজাত শুরু করেছিল। এবং ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছিল।

আর সে কারণেই পরবর্তী সময়ে যখন তারা স্মার্টফোন তৈরি করে। তখন তাদের এই স্মার্ট ফোনকে জনপ্রিয় করতে খুব বেশি একটা বেগ পোহাতে হয়নি।

বরং তাদের স্মার্ট ফোন গুলো চীন সহ ভারতের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারে। এবং realme কোম্পানি তাদের স্মার্ট ফোন বাজার জাত করণে সফলতা অর্জন করতে পারে।

Realme কোম্পানি নিয়ে আমাদের শেষ কথা

প্রিয় মোবাইল ব্যবহারকারী বন্ধুরা। আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা আসলে Realme কোম্পানির মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে অনেক বেশি পছন্দ করেন।

আর যেহেতু তারা Realme কোম্পানির স্মার্টফোন ইউজার। সেহেতু তাদের মনে একটি প্রশ্ন জেগে থাকে। আর সেটি হল যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি।

তো তারা যেন এই বিষয়টি সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে পারে। সে কারণেই আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে।

কারণ আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাকে জানিয়ে দিয়েছি যে, Realme কোন দেশের কোম্পানি। তো আপনি যদি এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো খুব সহজ ভাষায় জানতে চান।

তাহলে অবশ্যই আমাদের এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করবেন। কারণ আমরা টেকনোলজি রিলেটেড যাবতীয় বিষয় গুলো নিয়মিত এই ওয়েবসাইটে আর্টিকেল হিসেবে পাবলিশ করি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link