টাকা আয় করার apps : কোন app দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় ?

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২১ : সত্যিই কি App থেকে ইনকাম করা সম্ভব? এমন প্রশ্নটা আবার মনে বার বার জেগে থাকবে। কিন্তুু আজকে সেই প্রশ্নের সঠিক উওর জানতে পারবেন। মোবাইল এপ থেকে টাকা আয় করা নিয়ে সকল কিছু ।

হুমম, এটা সত্য যে বর্তমানে মোবাইল আ্যাপ থেকেও অনলাইন ইনকাম করা যায়। আজকের দিনে এমন অনেক তরুন – তরুনী আছে। যারা ঝড়ের বেগে Online Income করে যাচ্ছে।

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২১ - কোন app থেকে টাকা ইনকাম করা যায়
টাকা ইনকাম করার অ্যাপ ২০২১

প্রশ্ন হলো, তারা যদি App থেকে টাকা ইনকাম করতে পারে। তাহলে আপনি কেন ঘরে থাকবেন, ভাই? আপনিও আজ থেকে Mobile App দিয়ে টাকা ইনকাম করা শুরু করে দিন।

[💡Read This: আপনিও যদি মোবাইল আ্যাপ থেকে ইনকাম করতে চান। তাহলে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন]

হ্যালো বন্ধু, কেমন আছেন আপনি ? আশা করি খুব ভালো আছেন। আপনি হয়তবা কোনো না কোনো সময় Online Income এর কথা শুনে থাকবেন। একটা সময় আসবে, যখন আপনি জানবেন যে, “App থেকেও ইনকাম করা যায়”।

এরপর আপনি গুগলে সার্চ করেছেন, তাইনা?

তাহলে একটা কথা শুনুন, আজকের আর্টিকেলে আমি এমন কিছু মোবাইল আ্যাপ সম্পর্কে বিস্তারিত বলবো। যে App গুলো থেকে আপনি বিপুল পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন।

আর সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, আপনি এই আ্যপ গুলো থেকে যা ইনকাম করতে পারবেন। সেই টাকা গুলো বিকাশ পেমেন্ট এর মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন।

এতো সুযোগ থাকার পরেও যদি আপনি এসবে যুক্ত না হোন। তাহলে ভাই, আপনি সারাজীন বোকা থেকে গেলেন।

[💡PRO TIPS: কিভাবে আ্যাপ থেকে বেশি টাকা  ইনকাম করা যায়। সে সম্পর্কে কিছু গোপন টিপস শেয়ার করবো ]

সত্যি কি আ্যাপ থেকে ইনকাম করা যায়?

হ্যা ভাই! এখানে অবিশ্বাস করার মতো কিছু নাই। কারন আপনি না জানলেও অনেকেই এই বিষয়টা সম্পর্কে আগে থেকেই জানে ৷

আর বর্তমান সময়ে হাজার হাজার তরুন তরুনী এই প্রক্রিয়াতে বেশ ভালো পরিমানে app দিয়ে টাকা ইনকাম ইনকাম করতে পারছে। 

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, আপনি মোবাইল আ্যাপ থেকে কি পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন। চলুন, আপনার এই বিষয়টিও ক্লিয়ার করে দেই ৷

আপনার জন্য আরো লেখা…

শুনুন, আপনি মোট কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন৷ তা কিন্তুু বলা সম্ভব নয়। কারন এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনার উপর। আপনি যতোবেশি কাজ করতে পারবেন, আপনার ইনকাম এর পরিমানও ঠিক ততোটাই বৃদ্ধি পাবে। 

মনে করুন, আপনি যদি দৈনিক ২-৪ ঘন্টা সময় দিয়ে কাজ করতে পারেন। তাহলে আপনি সেই কাজের পরিমান অনুযায়ী ইনকাম করতে পারবেন।

তবে আমার দীর্ঘদিনের ধারনা অনুযায়ী আপনাকে কিছু আইডিয়া দিতে পারি। যেমন, আমার এক কলেজ ফ্রেন্ড আছে। সে দৈনিক ৩ থেকে ৪ ঘন্টা সময় ব্যয় করে এই কাজ গুলো করে। তার বিনিময়ে সে দৈনিক ২০০-৩০০ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারে।

এখন আপনি যদি বেশি সময় দিতে পারেন। তাহলে আপনি App থেকেও বেশি পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন। এটা খুব সাধারন একটি বিষয়। 

কিভাবে আ্যাপ থেকে ইনকাম করা যায়? 

যেহুতু আজকে আমাদের মূল টপিক হলো, আ্যাপ থেকে ইনকাম করা। সেহুতু আপনার জানা উচিত যে, কিভাবে আপনার মোবাইল দিয়ে এপ থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তাই এবার এই বিষয়টি সম্পর্কে একটু ক্লিয়ার ধারনা নেয়া যাক।

আপনাকে মূলত বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে হবে। যেমন,

Watching Ad: আ্যাপ থেকে ইনকাম করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় কাজ হলো Ad (বিজ্ঞাপন) দেখা। আমরা যেমন টিভি দেখার সময় হরেক রকমের বিজ্ঞাপন দেখি।

ঠিক তেমনি আপনি যদি এই আ্যাপ গুলো থেকে বিজ্ঞাপন দেখেন। তাহলে কিন্তুু আপনি এর বিনিময়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

Spning: আরও একটি মজার কাজ হলো স্পিনিং করা। অর্থ্যাৎ, একটি গোল বৃওের চারপাশে অনেক গুলো আর্কষনীয় উপহার থাকবে। আপনাকে শুধু Ok ক্লিক করে হুইল বাটনটি ঘুড়িয়ে দিতে হবে।

এবং হুইল ঘোরানোর মাঝে মাঝে আপনাকে ঠিক আগের মতো একটা করে বিজ্ঞাপন দেখতে হবে। 

Watching Video: এটি হলো সবচেয়ে সহজ একটি কাজ। এই কাজটি করতে হলে আপনার যদি অনলাইন সম্পর্কে কোনো প্রকার ধারনা না থাকে। তাহলেও আপনি খুব সহজেই এই কাজটি করে ইনকাম করতে পারবেন।

কারন এই কাজটি হলো, ভিডিও দেখা। অর্থ্যাৎ আপনি শুধু অন্যের তৈরি করা ভিডিও গুলোকে দেখবেন। আর তার বিনিময়ে আপনার ইনকামও আসতে থাকবে৷ কি বিষয়টা মজার না?

Account Creation: অবশ্য মোবাইল আ্যাপস দিয়ে টাকা ইনকাম করার ক্ষেএে এই কাজের সংখ্যা খুবই নগন্য। তবে বর্তমান সময়ে App গুলোর সাহায্যে Account Creation এর কাজের সংখ্যা বেড়ে চলছে।

মোবাইল এপ থেকে এই কাজটি করতে হলে আপনাকে শুধু একাউন্ট তৈরি করতে হবে। যেমন, আপনি যদি Facebook Id তৈরি করে দেন। তার বিনিময়ে আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আবার আপনি যদি Gmail একাউন্ট তৈরি করে দেন। তাহলে কিন্তুু আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

Sign Up & Login: এই কাজটি মূলত Account Creation এর মতোই একবারে সিমিলার। ওখানে যেমন, আপনাকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য একাউন্ট তৈরি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ঠিক তেমনি এখানেও আপনাকে বিভিন্ন ওয়েবসাইট বা এপসে গিয়ে নতুন Account তৈরি করতে হবে। যাকে সহজ কথায় বলা হয়, Sign Up & Login.

Refferal Partnership: বিভিন্ন এপস থেকে আয় করার আরও একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হলো, রেফার করা। অর্থ্যাৎ, আপনি যে এপস বা ওয়েবসাইটে কাজ করবেন।

সেখানে যদি আপনি আপনার কোনো বন্ধুদের যুক্ত করতে পারেন। তাহলে এপস বা ওয়েবসাইট এর মালিক আপনাকে কিছু পরিমান সম্মানি প্রদান করবে।

এখন আপনার যদি Friend Circle এর সংখ্যা বেশি থাকে। তাহলে কিন্তুু আপনি Reffer করেও হিউজ পরিমানে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

কোন app দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়? 

যাক এতোক্ষণ ধরে আপনি অনেক কিছু জেনে গেছেন। এবার আপনাকে জানতে হবে যে, আসলে টাকা ইনকাম করার App কোন গুলো। যেখান থেকে আপনি Income করতে পারবেন।

সত্যি বলতে বর্তমানে অনেক গুলো টাকা ইনকাম করার আ্যাপ রয়েছে। আর অনেকেই এই App গুলো থেকে বেশ ভালো পরিমানে ইনকাম ও করতে পারছে।

কিন্তুু এতো এপসের মধ্যে কিছু কিছু এপস আছে, যারা দীর্ঘদিন ধরে সততার সাথে কাজ করে আসছে। 

আবার কিছু কিছু টাকা ইনকাম করার আ্যাপ আছে। যারা আপনাকে দিয়ে বিভিন্ন কাজ করিয়ে নিবে। কিন্তুু যখন আপনি আপনার উপার্জন করা টাকা তুলতে যাবেন৷ তখন তারা আপনাকে পেমেন্ট না করে উধাও হয়ে যাবে।

আপনি আরো পড়ুন…

যার ফলে আপনি যে সময় ও শ্রম গুলো ব্যয় করবেন। তা সম্পূর্ন জলে ভেসে যাবে। তাই আপনি যেন কোনোভাবে প্রতারিত না হোন এবং আপনার কাজের বিনিময়ে যেন উপার্জিত টাকা উওলন করতে পারেন। সেজন্য আমি বেশ কয়েকটি এপসের লিষ্ট করেছি।

যে এপস গুলো দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছে। এবং অনেকেই এই এপস থেকে ইনকাম করতে পারছে। তাহলে চলুন এবার সেই এপস গুলোর সাথে পরিচিত হওয়া যাক। 

[Small Note: জেনে রাখা ভালো যে, আপনি যখন এপস থেকে ইনকাম করার চেস্টা করবেন। তখন অবশ্যই সেই Apps এর রিভিউ দেখে নিবেন। সেটা বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম করা হোক কিংবা অন্য কোনো এপস। ]

#No-1: Pocket Money

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বিশ্বস্ত ইনকাম করার আ্যাপ হলো, Pocket Money. বর্তমানে আপনার মতো অনেক মানুষ এই এপসে কাজ করে আসছে ৷ এবং কাজের বিনিময়ে বেশ ভালো পরিমানে ইনকাম জেনারেট করতে পারছে।

Pocket Money তে কাজ করলে আপনার উপার্জন করা টাকা খুব সহজেই উওলন করতে পারবেন। এখানে আপনার সাথে কোনো প্রকার প্রতারনা করার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

এছাড়াও আপনি যদি এই এপসের রিভিউ দেখেন। তাহলে আপনি নিজেই সবকিছু বুঝে নিতে পারবেন। আপনি যদি এই এপস থেকে ইনকাম করতে চান।

তাহলে আপনাকে সরাসরি যেতে হবে Google Play Store এ। এবং সেখানে যদি আপনি এই এপসের রেটিং চেক করেন। তাহলে দেখতে পারবেন যে, গুগল প্লে স্টোরে এই এপসের রেটিং হলো 4.2 .

সেই দিক থেকে বলা যায় এই এপসটি অনেকের কাছেই পছন্দের তালিকা দখল করতে পেরেছে। চলুন এবার আমরা জেনে নেই যে, Pocket Money তে কি কি কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন।

এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে পারবেন। যেমন, 

  • আপনি এখানে Apps Download করেও টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ওরা আপনাকে বিভিন্ন এপস কে সাজেস্ট করবে। এবং আপনাকে সেই এপস গুলোকে ডাউনলোড করতে হবে। 
  • সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, আপনি এই এপসে গেম খেলেও ইনকাম করতে পারবেন ৷
  • এখানে Tambola নামের একটি গেমস আছে। আপনি এই গেমটি যতোবেশি খেলবেন ৷ আপনার ইনকামও ঠিক ততোবেশি হবে। 
  • তবে আপনি যদি চান যে কোনো প্রকার কাজ না করে ইনকাম করবেন। তাহলে আপনি এখানে Reffer করেও প্রচুর পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন।
  • এবং প্রতি রেফারে আপনি এখান থেকে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন। 
  • এছাড়াও Pocket Money তে সাপ্তাহিক কনটেস্টের আয়োজন করা হয়। আপনি সেগুলোতে যুক্ত হয়ে ইনকাম করতে পারবেন।
  • এর পাশাপাশি এখানে বিভিন্ন ধরনের Survey Job দেখতে পারবেন। যেগুলো করেও আপনি বেশ ভালো পরিমানে ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

যাক এখানে কি কি কাজ করে ইনকাম করা যায় ৷ সে সম্পর্কে তো জানতে পারলেন ৷ এবার আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, আপনি এই এপস থেকে যে টাকা ইনকাম করবেন। তা আপনি কিভাবে উওলন করতে পারবেন?

তো Pocket Money থেকে আপনি যে টাকা ইনকাম করবেন। তা আপনি সরাসরি মোবাইল রিচার্জ কিংবা আপনার যদি Paytm থাকে। তাহলে আপনি সেখানে সরাসরি উইথড্র করতে পারবেন ৷

এছাড়াও আরও অনেক ধরনের ওয়ালেটের মাধ্যমেও টাকা উওলন করতে পারবেন। 

#No-2: Meesho App 

যেহুতু আপনি অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে জানতে এসেছেন ৷ সেহুতু আপনিAffiliate Marketing এর কথা শুনে থাকবেন। এই কাজের ধরন হলো, বিভিন্ন স্টক মার্কেটের পন্য গুলো আপনি সেল করবেন ৷

এবং তার বিনিময়ে আপনি কিছু পরিমানে ইনকাম করতে পারবেন ৷

যেমন ধরুন, কোনো একটি অনলাইন শপ আছে। যেখানে বিভিন্ন ধরনের পন্য আছে। আপনি যদি সেই পন্য গুলোকে বিক্রি করতে পারেন ৷ তাহলে সেই অনলাইন শপ থেকে আপনাকে কিছু পরিমানে কমিশন প্রদান করবে।

ঠিক তেমনি Meesho App থেকেও আপনি সেম প্রক্রিয়াতে ইনকাম করতে পারবেন ৷ এটি হলো একটি অনলাইন শপ। যেখানে বিভিন্ন ধরনের পন্য রয়েছে যেমন, Saree, Kueta, Ladis Top ইত্যাদি।

এখন আপনি যদি Meesho App এর এই পন্য গুলোকে বিক্রি করতে পারেন। তাহলে কিন্তুু আপনি প্রতি মাসে আপনার কাজের উপর ডিপেন্ড করে ইনকাম করতে পারবেন।

আমার পরিচিত এমন অনেকেই আছেন যারা এই এপস থেকে প্রতি মাসে ৭ থেকে ৮ হাজার পর্যন্ত টাকা ইনকাম করছে।

আর আপনি এই এপস থেকে যে পরিমানে টাকা ইনকাম করবেন। সেগুলো আপনি Cradit Crad কিংবা বিভিন্ন Wallet এর মাধ্যমে উওলন করতে পারবেন। 

#No-3: Poll Pay 

সার্ভে জগতের জনপ্রিয় একটি এপস হলো Poll Pay. এই এপসে আপনি বিভিন্ন ধরনের সার্ভে দেখতে পারবেন ৷ সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো, এই এপসে যে Survey গুলো দেখা যায়৷ সেগুলো তুলনামূলক ভাবে খুব সহজ।

আপনার যদি স্বল্প পরিমানে ইংরেজিতে ধারনা থাকে৷ তাহলে এই সার্ভে গুলো সম্পন্ন করতে আপনাকে তেমন বেগ পেতে হবে না।

[💡PRO TIPS: আপনি যেখানেই সার্ভে করুন না কেন ৷ যখন আপনি কোনো সার্ভে করার সময় যদি কোনো সমস্যায় পড়েন ৷ তাহলে Google Translate এর সহায়তা নিতে পারবেন ৷ ]

যখন আপনি সঠিকভাবে এই এপসে থাকা সার্ভে গুলো সম্পন্ন করতে পারবেন ৷ তখন আপনি বেশ ভালো পরিমানে ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

এবং আপনার উপার্জিত টাকা গুলো বিভিন্ন মাধ্যমে উওলন করতে পারবেন। যেমন, PayPal Cash, Free Voucher, Amazon Gift Card সহো আরও বিভিন্ন ধরনের ওয়ালেট এর মাধ্যমে টাকা উওলন করতে পারবেন। 

#No-4: Current Rewards

আপনি অনেক সময় “গেমস খেলে টাকা ইনকাম” অথবা “গান শুনে টাকা ইনকাম” এর কথা শুনে থাকবেন ৷ যদি আপনিও এই কাজ গুলো করে ইনকাম করতে চান। তাহলে আপনার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত এপস হলো Current Rewards.

হ্যাঁ! এই এপসে আপনি খুব সহজেই বেশি পরিমানে আয় করতে পারবেন। সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, আপনি যদি আপনার কোনো বন্ধু বা পরিচিত মানুষকে এই এপসে রেফার করে জয়েন করাতে পারেন ৷

তাহলে আপনি সেই রেফার করা ব্যক্তির কাজ অনুযায়ী আজীবন ৫% ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন ৷

তবে শুধু গেম খেলা বা গান শুনার মধ্যেই এই এপসটি সীমাবদ্ধ নয়। বরং আপনি এখানে আরও বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন যেমন, Weekly Giveaway, Lock Screen Rewards থেকেও ইনকাম করতে পারবেন ৷

আর আপনি এই এপস থেকে যে টাকা গুলো ইনকাম করবেন। তা আপনি বিভিন্ন Wallet এর মাধ্যমে উইথড্র করতে পারবেন।

[💡NOTE: এটি খুব বিশ্বস্ত একটি এপস। আর জনপ্রিয়তার দিক থেকেও এই এপসটির অবস্থান শীর্ষে রয়েছে। গুগল প্লে স্টোরে এই এপসের রেটিং হলো 4.5 ]

⚠️Worning For Earn Money From Apps

মনে রাখবেন, হুট করে টাকা ইনকাম করার জন্য যেকোনো এপসে কাজ করবেন না। কারন এই এপস গুলো কিন্তুু আপনার মতো বা আমার মতোই মানুষ পরিচালনা করে থাকে।

এখন তারা যে পরিমান ইনকাম করে। সেখান থেকে কিছু পরিমান টাকা আপনাকে প্রদান করবে ৷ এটাই হলো মূল কাজের প্রক্রিয়া। যে প্রক্রিয়া বেশিরভাগ এপস পরিচালনা করা হয়।

কিন্তুু যখন এপসের মালিকের ইনকাম বন্ধ হয়ে যায় ৷ তখন তারা আপনার দ্বাড়ায় কাজ করিয়ে নিলেও কোনো প্রকার উইথড্র করতে দিবে না ৷ কারন তারা কখনই নিজের পকেটের টাকা আপনাকে দিবে না ৷

আপনি আরো দেখুন…

সেজন্য আপনি যে এপসেই কাজ করুন না কেন ৷ সবার আগে সেই এপসের রিভিউ দেখে নিবেন। কোনটা এপস Scam করে আর কোন এপস গুলো বিশ্বস্ত। সে সম্পর্কে গুগল থেকে ধারনা নিবেন। তাহলে আর ধরা খাওয়ার মতো কোনো সম্ভাবনা থাকবে না ৷ 

আমাদের শেষকথা

“এপস থেকে ইনকাম” এবং “কোনো অ্যাপ থেকে ইনকাম করা যায়”- আশা করি সে সম্পর্কে একটা ক্লিয়ার ধারনা পেয়ে গেছেন। এরপরও যদি কোনো প্রশ্ন থাকে৷ তাহলে কমেন্ট করে জানাবেন।

আর পরবর্তী পর্বে আমি বাংলাদেশি ইনকাম করার Apps সম্পর্কে আলোচনা করবো। যদি আপনি বাংলাদেশি Apps থেকে ইনকাম করতে চান। তাহলে বাংলা আইটি ব্লগের সাথে থাকবেন। 

অ্যাপ থেকে ইনকাম করা ছাড়াও বিভিন্ন উপায়ে কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন সেই সকল পদ্ধতি নিয়ে নিয়ে আমাদের ব্লগের আরো অনেক আর্টিকেল রয়েছে।

চাইলে আপনি সে আর্টিকেলগুলো পরড় অনলাইন থেকে আয় করার পদ্ধতি গুলো দেখে নিতে পারেন।

10 thoughts on “টাকা আয় করার apps : কোন app দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় ?”

    1. সব এপের নামে বলা হয়েছে… আপনি কোন এপের কথা বলেছেন বোঝতে পারি নাই…

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপি করা যাবে না !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap