মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার | ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন

মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার (Mobile antivirus software download) আজকের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে।

আমি আপনাকে বেশ কিছু এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ডাউনলোড এবং মোবাইল এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব।

মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার | ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন
ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন

তো আপনি যদি কার্যকরী কোন মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার খুঁজে থাকেন বা ভাইরাস কাটার apps download করতে চান

তাহলে আজকের এই আলোচনা টি আপনার জন্য অনেক বেশি হেল্পফুল হবে। এর পাশাপাশি আপনি কিভাবে ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড করবেন।

কিভাবে সেই সফটওয়্যার গুলোর মাধ্যমে আপনার মোবাইলের ভাইরাস দূর করবেন এবং মোবাইল পরিষ্কার করার সফটওয়্যার ডাইনলোড করবেন।

আপনি আরোও দেখুন…

সে নিয়ে আজকে আমি স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করব। তো চলুন, এবার মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

সে সাথে জনাতে পারব যে, ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার , মোবাইলে ভাইরাস দূর করার উপায় এবং অটোমেটিক ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার নিয়ে।

মোবাইলের সেরা ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার গুলোর তালিকা

দেখুন বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষ এন্ড্রয়েড স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে। আর এই স্মার্ট ফোন গুলো দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করার কারণে।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভুলের জন্য আমাদের মোবাইলে ভাইরাস ঢুকে যায়। তবে এই ধরনের ভাইরাস গুলো প্রবেশ করার সময় আমরা বুঝতে না পারলেও।

যখন এই ভাইরাস গুলো আমাদের ফোনের ক্ষতি করা শুরু করে। তখন কিন্তু আমরা ঠিক ওই বুঝতে পারি যে, আমাদের মোবাইলে ভাইরাস প্রবেশ করেছে।

তো আপনার মোবাইলে ভাইরাস ঢুকে যেন কোন ধরনের ক্ষতি করে না পারে। সেজন্য আজকে আমি আপনার সাথে কার্যকরী সব ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার নিয়ে আলোচনা করব।

মূলত আপনি যদি আপনার মোবাইলের মধ্যে এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার গুলো ইন্সটল করেন।

তাহলে আপনার মোবাইলে থাকা সকল ভাইরাস গুলো স্ক্যান করে ডিটেক্ট করতে পারবে।

এর পাশাপাশি যদি আপনার মোবাইলের মধ্যে এমন কোন ভাইরাস থাকে। যেগুলো আপনার মোবাইলের ক্ষতি করছে।

তাহলে এই সফটওয়্যার গুলো সেই সকল ভাইরাস কে একবারই দূর করে দিবে। তবে সে জন্য আপনাকে মোবাইলে ভাইরাস কাটার নিয়ম গুলো সম্পর্কে জানতে হবে।

চলুন এবার তাহলে মোবাইলে ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড করার পাশাপাশি। সেই সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করার সেই নিয়ম সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Avast Mobile Security

বর্তমান সময়ে আপনি মোবাইলের জন্য মোট যত গুলো মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার দেখতে পারবেন।

তার মধ্যে অন্যতম হলো, Avast Mobile Security. কেননা এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি দীর্ঘদিন থেকে ভাইরাস রোধ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের সার্ভিস দিয়ে আসছে।

এছাড়াও এই বিশেষ ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি মোবাইলের মধ্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করার পাশাপাশি।

কম্পিউটার ব্যবহারকারীরা প্রচুর পরিমাণে এই সফটওয়্যার কে ব্যবহার করে থাকে। এর প্রধান কারণ হলো, আপনি যদি মোবাইলের ভাইরাস দূর করার জন্য এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করেন।

তাহলে আপনি বিশেষ কিছু ফিচার দেখতে পারবেন। সেগুলো হলোঃ

  1. এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মধ্যে রয়েছে অনেক শক্তিশালী এন্টিভাইরাস ইঞ্জিন।
  2. এছাড়াও আপনি এন্টি থিফট এর সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।
  3. যদি কোন হ্যাকার বা কোন ধরনের ভাইরাস আপনার মোবাইল অ্যাটাক করে। তাহলে আপনি এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিক ভাবে তা জানতে পারবেন।
  4. এই সফটওয়্যার টি আপনার মোবাইলের সকল ধরনের ফাইল গুলো কে স্ক্যান করবে।
  5. আপনার মেমোরি তে থাকা বিভিন্ন ধরনের জাঙ্ক ফাইল গুলো কে রিমুভ করতে সাহায্য করবে।
  6. এছাড়াও আপনি এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনার ওয়াইফাই স্পিড টেস্ট করতে পারবেন।

তো আপনি যদি এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি ব্যবহার করেন। তাহলে আপনি কি কি সুবিধা করতে পারবেন, তা উপরে উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করার সময় আপনি দুটো ভার্সন দেখতে পারবেন। একটি হল ফ্রি ভার্সন এবং অন্যটি হলো পেইড ভার্সন।

যদি আপনি এই সফটওয়্যার এর পেইড ভার্সন ব্যবহার করেন। তাহলে বাড়তে কিছু সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

তবে সে জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রদান করতে হবে।

Kaspersky Mobile Antivirus

মোবাইল এর জন্য ভাইরাস কাটার ক্ষেত্রে অন্যতম একটি অ্যাপস হলো, Kaspersky Mobile Antivirus.

যার সাহায্য আপনি যেকোনো ধরনের মোবাইল ভাইরাস কে খুব সহজেই দূর করতে পারবেন।

কেননা এই বিশেষ ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে।

যদি আপনি এই সফটওয়্যার টি আপনার মোবাইলে ইন্সটল করে রাখেন। তাহলে কিন্তু আপনার মোবাইলটি ভাইরাস থেকে অনেক সুরক্ষিত থাকবে।

এর পাশাপাশি যদি কোন কারনে আপনার মোবাইলে ভাইরাস ঢুকে যায়।

তাহলে তাৎক্ষণিক ভাবে এই বিশেষ অ্যাপস টি থেকে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে। এছাড়াও আপনি বেশ কিছু ফিচার দেখতে পারবেন। যেমনঃ

  1. মোবাইলের জন্য ম্যালওয়ার ভাইরাস অনেক ক্ষতিকর। কিন্তু এই সফটওয়্যার এর সাহায্য আপনি মোবাইলে ম্যালওয়্যার প্রটেকশন পাবেন।
  2. আপনি চাইলে আপনার ইচ্ছা মতো এই সফটওয়্যার দিয়ে ভাইরাস স্ক্যান করতে পারবেন।
  3. যদি আপনার মোবাইলে ভাইরাস অ্যাটাক করে। তাহলে প্রথমেই এই সফটওয়্যার টি সেই সকল ভাইরাস কে প্রটেক্ট করবে।
  4. কোন কারনে যদি আপনার ফোনটি হারিয়ে যায়। তাহলে এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি আপনার হারিয়ে যাওয়ার ডিভাইসের লোকেশন জানতে পারবেন।
  5. যখন আপনি ইন্টারনেটের মধ্যে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ভিজিট করবেন। তখন সেই সাইটে যদি ভাইরাস থাকে তাহলে এই সফটওয়্যার টি আপনাকে জানিয়ে দিবে।
  6. বিভিন্ন ধরনের থার্ড পার্টি অ্যাপস গুলো মোবাইলে ইন্সটল করার সময় ভাইরাস থাকলে। তা এই সফটওয়ারের মাধ্যমে জানতে পারবেন।

 Download Mobile Antivirus: Touch Here

দেখুন আমরা যারা মোবাইলের বিষয়ে অনেক সতর্ক থাকি। তারা সর্বদাই মোবাইল এর ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার খুঁজে থাকি।

তো আপনি যদি ভালো কোন ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার খুঁজে থাকেন। তাহলে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করে দেখবেন।

আশা করি, ভাইরাস কাটার জন্য এই সফটওয়্যার টি আপনার কাছে অনেক ভালো লাগবে।

AVG Antivirus Free

মোবাইলে ভাইরাস কাটার পাশাপাশি আপনি যদি আপনার মোবাইলের বিভিন্ন প্রকারের প্রাইভেসি প্রটেকশন দিয়ে রাখতে চান।

তাহলে এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি আপনার জন্য একেবারেই উপযুক্ত হবে।

কেননা এর সাহায্য আপনি আপনার মোবাইলের ভেতরে থাকা সকল ধরনের ভাইরাস কাটতে পারবেন।

এবং ভাইরাস কাটার পাশাপাশি আপনি এমন সব ফিচার দেখতে পারবেন। যে গুলো আপনার সর্বদাই কাজে লাগবে। 

আর ইতিমধ্যেই প্রায় একশ মিলিয়নের বেশি মানুষ তাদের মোবাইলে ভাইরাস কাটার জন্য এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করে আসছে।

তো চলুন, এবার জেনে নেওয়া যাক এই মোবাইলে ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর ভেতরে কি কি রয়েছে।

  1. আপনার মোবাইলে থাকা বিভিন্ন ধরনের গেম, অ্যাপ্লিকেশন, সেটিংস, ফাইল ইত্যাদি যাবতীয় সবকিছুর রিয়েল টাইম স্ক্যান করতে পারবেন।
  2. এর পাশাপাশি আপনার মোবাইলের মধ্যে কোন অ্যাপস গুলো মোবাইল এর বেশি ক্ষতি করছে তা সম্পর্কে জানতে পারবেন।
  3. আপনার ফোন মেমোরি কিংবা মেমোরি কার্ড এর অতিরিক্ত জায়গা দখল করা অকেজো ফাইল গুলো কে রিমুভ করতে পারবেন।
  4. এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মধ্যে রয়েছে ভিপিএন ব্যবহার করার মত সুবিধা।
  5. ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় কোন ওয়েবসাইটে যদি ভাইরাস থাকে। তাহলে আপনি এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে নোটিফিকেশন পাবেন।
  6. আপনার মোবাইলে ইন্সটল করা কোনো অ্যাপস যদি অবৈধ ভাবে কোন পারমিশন বা এক্সেস নেয়। তাহলে আপনি তা জানতে পারবেন।

Download Mobile Antivirus: Touch Here

মূলত আপনি যদি আপনার মোবাইলের মধ্যে এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি ইন্সটল করে রাখেন।

তাহলে আপনার মোবাইলে ভাইরাস প্রবেশ করা বেশ কষ্টকর হয়ে যাবে। কেননা যখন এই ধরনের কোন অবৈধ ফাইলস আপনার মোবাইলে প্রবেশ করবে।

তখন আপনি তাৎক্ষণিক ভাবে তার নোটিফিকেশন জানতে পারবেন। এবং প্রয়োজন অনুযায়ী এই সফটওয়্যার থেকে উক্ত ভাইরাস গুলো ডিলিট করে দিতে পারবেন।

Norton 360 Deluxe

মোবাইলে ভাইরাস কাটার জন্য অনেক পাওয়ারফুল একটি সফটওয়্যার হল, Norton 360 Deluxe.

কারণ এটি মোবাইলের মধ্যে ভাইরাস থেকে রক্ষা করার জন্য যে সকল ফিচার গুলো থাকার প্রয়োজন হয়।

তার প্রত্যেক টি ফিচার এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মধ্যে দেখতে পারবেন।

আপনার জন্য আরোও লেখা…

এর পাশাপাশি এই অ্যাপসের ভেতরে আপনি এমন কিছু ফিচার দেখবেন। যা আপনার কাছে অনেক ভালো লাগবে।

চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক আপনার মোবাইলে এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ইন্সটল করলে। আপনি কি কি সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

  1. এই অ্যাপসের ভেতরে রয়েছে অনেক শক্তিশালী ভিপিএন। যার সাহায্য আপনি অনেক ধরনের ব্লক ওয়েবসাইট কিংবা ব্যান করা এপস এর মধ্যে প্রবেশ করতে পারবেন।
  2. আপনি যদি ওয়াইফাই ব্যবহার করে থাকেন। তাহলে ওয়াইফাই থেকে কোন ধরনের ভাইরাস রিলেটেড সমস্যা হলে আপনি তা এই অ্যাপস থেকে জানতে পারবেন।
  3. ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় যেটুকু সিকিউরিটি দেওয়ার প্রয়োজন হয়। তার সবটুকুই আপনি এই সফটওয়্যার থেকে পাবেন।
  4. সবচেয়ে বড় সুবিধা হল এড ব্লোকার। যার মাধ্যমে আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দেখতে হবে না।
  5. কোন অ্যাপস যদি আপনার মোবাইল থেকে গোপন ভাবে কোন পার্সোনাল ডেটা চুরি করার চেষ্টা করে। তাহলে আপনি এই এন্টিভাইরাস থেকে নোটিফিকেশন পাবেন।
  6. কোন হ্যাকার যখন আপনার ফোন হ্যাক করার চেষ্টা করবে। তখন এই এন্টিভাইরাস টি বিশেষ ভাবে প্রটেকশন দিবে।

Download Mobile Antivirus: Touch Here

তবে এখানে একটা কথা বলে রাখা উচিত। আপনি যদি আপনার মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর জন্য এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে চান।

তাহলে আপনাকে পেইড ভার্শন ব্যবহার করতে হবে। তবে আপনি চাইলে নতুন অবস্থায় প্রথম 14 দিন এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারবেন।

এবং তারপরে আপনাকে পেমেন্ট করে এই অ্যাপস টি ব্যবহার করতে হবে।

Bitdefender Mobile Security

যখন এন্ড্রয়েড মোবাইলের সূচনা হয়েছিল। তখন থেকেই এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি ব্যাপক ভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছে।

কেননা এই সফটওয়্যার টি রিলিজ করা হয়েছিল ২০১১ সালে। এবং সেই সময়ের মানুষ তাদের মোবাইলে থাকা ভাইরাস দূর করার জন্য এই সফটওয়্যার কে ব্যবহার করত।

কেননা এই সফটওয়্যারটির এমন কিছু ফিচার রয়েছে যেগুলো আপনার কাছে অনেক ভালো লাগবে।

চলুন এবার তাহলে এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মধ্যে থাকা গুরুত্বপূর্ণ ফিচার গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

  1. প্রথমত আপনি এই সফটওয়্যার এর মধ্যে অ্যাপস লক করার সুবিধা পাবেন। যার ফলে আপনার অনুমতি ছাড়া অন্য কেউ ওপেন করতে পারবে না।
  2. সেই সাথে আপনি অনেক শক্তিশালী ভিপিএন এর সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।
  3. অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করার সময় যদি সে গুলো তে ভাইরাস থাকে। তাহলে আপনি এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে জানতে পারবেন।
  4. যদি আপনার মনে হয়, আপনার মোবাইলটি তে ভাইরাস ঢুকেছে। তাহলে আপনি সাথে সাথেই এই সফটওয়্যার দিয়ে আপনার পুরো মোবাইল টি স্ক্যান করে নিতে পারবেন।
  5. এই সফটওয়্যার টি মোবাইলে ইন্সটল করা থাকলে আপনি বাড়তি একটা প্রটেকশন পাবেন।
  6. এ গুলোর পাশাপাশি আপনি আপনার মোবাইল স্ক্যান করার জন্য টাইম সিডিউল সেট করে রাখতে পারবেন।

● Download Mobile Antivirus: Touch Here

আমি শুরুতেই বলেছি যে, এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি সর্ব প্রথম রিলিজ করা হয়েছিল ২০১১ সালে।

এবং সেই সময় থেকে এখন পর্যন্ত এই সফটওয়্যারটির ব্যাপক পরিমাণ জনপ্রিয়তা রয়েছে।

তাই আপনি যদি ভাল কোন মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার খুঁজে থাকেন। তাহলে একবার হলেও এই সফটওয়্যার টি ট্রাই করে দেখবেন।

Mobile Security & Antivirus

অন্যান্য মোবাইল এন্টিভাইরাস গুলোর মত এটি হলো অনেক জনপ্রিয় এবং কার্যকরী একটি মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার।

তো আমাদের মধ্যে এমন অনেকে আছেন যারা মূলত মোবাইল অথবা ট্যাবলেট ব্যবহার করে।

আর সেজন্য আপনাকে অবশ্যই এই ধরনের ডিভাইস ব্যবহার করার ক্ষেত্রে অনেক সতর্ক থাকতে হবে।

কেননা এই ধরনের ডিভাইস গুলো তে যখন ভাইরাস প্রবেশ করে। তখন বিভিন্ন ধরনের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

কিন্তু আপনি যদি এই ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি ব্যবহার করেন। তাহলে কিন্তু আপনার এই ধরনের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক অংশে কমে যাবে। কারণঃ

  1. হ্যাকার যদি আপনার মোবাইলের মধ্যে ভাইরাস প্রবেশ করার চেষ্টা করে। তাহলে আপনি এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে যথেষ্ট প্রটেকশন পাবেন।
  2. এখানে আপনি ফেসবুক প্রাইভেসির বিশেষ এক ধরনের স্ক্যানার ব্যবহার করতে পারবেন।
  3. এছাড়াও আপনার প্রয়োজনীয় এপ্স গুলো কে লক করার ফিচার দেখতে পারবেন।
  4. আপনার মোবাইলের হেল্থ কেমন আছে তা আপনি চেক করে নিতে পারবেন।
  5. মোবাইলের মেমোরি কার্ড কিংবা ফোন মেমোরিতে কোন যদি ভাইরাস জনিত ফাইল থাকে। তাহলে আপনি তা স্ক্যান করার মাধ্যমে ডিলিট করে দিতে পারবেন।
  6. আপনি যদি আপনার মোবাইলে ওয়াইফাই কানেকশন এর মাধ্যমে কানেক্ট করেন। তাহলে তার স্পিড কত রয়েছে তা দেখে নিতে পারবেন।
  7. যদি কোন কারনে আপনার মোবাইল টা হারিয়ে যায়। তাহলে সেই মোবাইল টি বর্তমানে কোন লোকেশনে আছে তা দেখতে পারবেন।

● Download Mobile Antivirus: Touch Here

মূলত মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর মধ্যে যে সকল ফিচার গুলো থাকার প্রয়োজন হয়।

তার প্রতিটি ফিচার আপনি এই সফটওয়্যার মধ্যে দেখতে পারবেন।

আর এই সফটওয়্যার টি আপনাকে এমন সব ভাইরাস এর ক্ষেত্রে প্রোডাকশন দিবে, যা আপনি কল্পনা করতে পারবেন না।

সেই সাথে আপনি যখন স্ক্যান করবেন তখন আপনার মোবাইলের মধ্যে থাকা যে কোনো ধরনের ভাইরাস কে। এই সফটওয়্যার টি খুব সহজেই ডিটেক্ট করতে পারবে।

WOT Mobile Security Protection

বর্তমান সময়ে নতুন একটি মোবাইলে ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার রিলিজ করা হয়েছে।

আর সেই সফটওয়্যার এর নাম হলো, WOT Mobile Security Protection.

মূলত আমরা অনেকে আছি যারা নতুন এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করছি। তো তাদের ক্ষেত্রে এই ধরনের ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করা অনেক কঠিন মনে হতে পারে।

কিন্তু আপনি যদি এমন নতুন মোবাইল ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন। তাহলে আপনার জন্য এই মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার টি অনেক উপযুক্ত হবে।

কেননা এই সফটওয়্যারটির ডিজাইন অনেক সহজ। যার ফলে যেকোন ধরনের মানুষ এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারবে।

  1. এই এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার এর মধ্যে একটি ওয়েব ব্রাউজার রয়েছে। যার সাহায্য আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারবেন।
  2. বিভিন্ন ধরনের ভাইরাস অ্যাটাক করার সময় আপনার মোবাইল এর মধ্যে নোটিফিকেশন প্রদান করবে।
  3. আপনি চাইলে এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে যেকোনো মোবাইল নম্বর কে ব্ল্যাকলিস্ট এর মধ্যে রাখতে পারবেন।
  4. বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট থেকে আসা বিজ্ঞাপন গুলো ব্লক করে রাখতে পারবেন।
  5. যে সকল এডাল্ট ওয়েবসাইট রয়েছে। সেই ওয়েবসাইট গুলো এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে পুরোপুরি ভাবে ব্লক করে রাখতে পারবেন।
  6. আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী যে কোন সময়ে এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে। আপনার মোবাইলের যাবতীয় কিছু স্ক্যান করে নিতে পারবেন।
  7. আপনার মোবাইল টা যদি ওয়াইফাই এর সাথে কানেক্ট থাকে। তাহলে তার স্পিড জেনে নিতে পারবেন।

● Download Mobile Antivirus: Touch Here

আপনি যদি মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার হিসেবে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করেন।

তাহলে যে সকল ফিচার দেখতে পারবেন। সে গুলো উপরে উল্লেখ করা হয়েছে। যার মাধ্যমে আপনি আপনার মোবাইলকে ভাইরাস এর হাত থেকে প্রটেক্ট করতে পারবেন।

আপনি আরোও পড়তে পারেন…

আর আপনি যদি বিনামূল্যে কোন ধরনের এন্টিভাইরাস খুজে থাকেন। তাহলে এই এন্টিভাইরাস টি আপনার জন্য অনেক উপযুক্ত হবে।

মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার নিয়ে কিছু কথা

প্রিয় পাঠক, আমরা যারা মোবাইল ব্যবহার করি। তারা বেশ ভালো করেই জানি যে, মোবাইল দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করার কারণে।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ভাইরাস দ্বারা অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আর যদি কোন কারণে আপনার মোবাইলে ভাইরাস আক্রমণ করে।

তাহলে কিন্তু আপনার মোবাইলের অনেক ধরনের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

তবে আপনার মোবাইল টি যাতে করে ভাইরাসের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। সে কারণে আজকে আমি আপনাকে কার্যকরী সব মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছি।

এর পাশাপাশি আমি আপনাকে আজকে মোবাইল ভাইরাস কাটার সফটওয়্যার ডাউনলোড লিংক দিয়েছি।

যেখান থেকে আপনি চাইলে এই এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার গুলো ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap