গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় – এডসেন্স ইনকাম বৃদ্ধি করার টিপ্স

যারা মূলত অনলাইন থেকে আয় করতে চান। তাদের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত একটি প্লাটফর্ম হলো গুগল এডসেন্স। কেননা, Google Adsense বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বিশ্বস্ত প্ল্যাটফর্ম ৷

যেখানে আপনি নিশ্চিন্তে কাজ করে বিপুল পরিমান পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায়
গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায়

কিন্তুু যারা নতুন হিসেবে এডসেন্স নিয়ে কাজ করে। তাদের সবারই একটা সমস্যা হয়। সেটা হলো তারা প্রাথমিক অবস্থাতে এডসেন্স থেকে তেমন বেশি পরিমানে আয় করতে পারে না।

কারন তারা শুরুর দিকে গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে তেমন ধারনা রাখতে পারে না। আর আজকের আর্টিকেলটি মূলত সেইসব মানুষদের উদ্দেশ্য লেখা হয়েছে।

যারা মূলত Google Adsense নিয়ে কাজ করছে। এবং যারা গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চায়।

হ্যালো বন্ধু, স্বাগতম আপনাকে Bangla it blog এর নতুন একটি এপিসোডে। আজকের এপিসোডে আমরা জানবো গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে।

আর যদি আপনি এডসেন্স নিয়ে কাজ করে থাকেন। এবং আপনি যদি গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আজকের পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

তাহলে কথা দিচ্ছি আজকের পর থেকে আপনিও অন্যদের মতো প্রচুর পরিমান টাকা গুগল এডসেন্স থেকে আয় করে নিতে পারবেন। 

কিভাবে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করা যায়? 

আজকে আমরা গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে অবশ্যই বিস্তারিত জানবো। তবে তার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে যে, আসলে কিভাবে আপনি গুগল এডসেন্স থেকে আয় করবেন

এবং কেন Google Adsense আপনাকে টাকা দিবে।

তো যদি আপনি গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে চান ৷ তাহলে সবার আগে আপনাকে তাদের পার্টনার প্রোগ্রামে যুক্ত হতে হবে। আর আপনি যদি গুগল এর Partner Programme এ যুক্ত হতে চান।

তাহলে আপনাকে গুগলের আন্ডারে একজন কন্টেন্ট ক্রিয়েটর বা পাবলিশার হয়ে কাজ করতে হবে।

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, আপনি কিভাবে তাদের আন্ডারে একজন Content Creator হিসেবে কাজ করবেন? তাহলে শুনুন….

গুগল মূলত কন্টেন্ট ক্রিয়েটর দের জন্য ২টি প্লাটফর্ম উন্মুক্ত করে রেখেছে। একটি হলো ব্লগ বা ওয়েব সাইট। আর একটি হলো ইউটিউব কন্টেন্ট ক্রিয়েটর।

আপনি আরো পড়ুন…

যার মাধ্যমে আপনি গুগলের আন্ডারে একজন পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

এখন আপনি চাইলে একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে। সেই সাইটের মাধ্যমে গুগলের পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

অথবা আপনি যদি চান যে, আপনি একজন Video Creator এর মাধ্যমে কাজ করে গুগলের পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারবেন। মোটকথা এটা সম্পূর্ন আপনার উপরে নির্ভর করবে।  

গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায়

আমরা উপরের আলোচনা থেকে জানতে পারলাম যে, আপনি মূলত দুইভাবে গুগলের আন্ডারে পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

এবং এই দুটো প্লাটফর্ম থেকে আপনি গুগল এডসেন্স থেকে আয় করতে পারবেন। কিন্তুু সমস্যা হলো এই দুটো প্লাটফর্ম থেকে আপনি গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে পারলেও।

এর প্লাটফর্ম গুলোর কাজের দিক থেকে আপনি কিছুটা ভিন্নতা খুজে পাবেন।

যেমন, আপনি যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে চান। তাহলে আপনাকে যেভাবে কাজ করতে হবে। সেই কাজ গুলো যদি আপনি ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে করেন।

তাহলে কিন্তুু আপনার এডসেন্সের আয় বাড়বে না। বরং আপনাকে দুটি প্লাটফর্মে দুইভাবে কাজ করতে হবে। সেজন্য আমি চেস্টা করবো দুটি প্লাটফর্ম কে দুইভাবে আলোচনা করার।

যেন আলোচিত এই বিষয় গুলো আপনার বুঝতে সুবিধা হয়। তো চলুন আর কোনো সময় ব্যয় না করে একেবারে মূল আলোচনা তে ফিরে যাওয়া যাক।  

ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় 

যদি আপনার একটি ওয়েবসাইট থাকে। তাহলে আপনি খুব সহজেই এডসেন্স থেকে ইনকাম করে নিতে পারবেন। তবে গুগল এডসেন্স এর আয় বাড়ানোর জন্য আপনাকে এমন অনেক বিষয়ের দিকে নজর রাখতে হবে।

আপনি যদি সেই বিষয় গুলোর দিকে যথেষ্ট নজর রাখেন। তাহলে আপনার আয় এমনিতেই বাড়বে। আর যদি আপনি সেগুলোর দিকে তেমন গুরুত্ব না দেন। তাহলে কিন্তুু আপনি এডসেন্স থেকে বেশি আয় করতে ব্যর্থ হবেন।

তো চলুন এবার জেনে নেয়া যাক যে, কিভাবে আপনি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে গুগল এডসেন্স এর আয় বৃদ্ধি করতে পারবেন। 

No-1: Increase Your Website Traffic 

দেখুন আপনি এডসেন্স এর আয় বৃদ্ধি করার জন্য যত আইডিয়া বের করুন না কেন। যদি আপনি ওয়েবসাইট এ পর্যাপ্ত পরিমান ভিজিটর না থাকে।

তাহলে কিন্তুু আপনি কোনো ভাবেই এডসেন্স থেকে বেশি পরিমানে আয় করতে পারবেন না। কেননা, আপনার মূল ইনকাম আসবে সেই ভিজিটরদের ক্লিক থেকে।

এখন আপনি যদি আপনার সাইটে পর্যাপ্ত ভিজিটর নিয়ে না আসতে পারেন। তাহলে আপনার সাইটে প্রদর্শন করা বিজ্ঞাপন গুলোতে তেমন কোনো ক্লিক আসবে না, কোনো ইমপ্রেশন আসবে না।

আর যদি বিজ্ঞাপনে Click বা Impression না আসে। তাহলে কিন্তুু আপনার কোনো প্রকার ইনকামও আসবেনা।

তাই আপনি যদি এডসেন্স এর আয় বৃদ্ধি করতে চান। তাহলে সবার আগে আপনাকে আপনার সাইটে ভিজিটর বাড়াতে হবে। তো কিভাবে আপনি আপনার সাইটে ভিজিটর বাড়িয়ে নিবেন।

সে বিষয়ে স্বল্প আকারে জেনে নেয়া যাক। 

How To Increase Website Traffic?

একটি ওয়েবসাইটে কিভাবে ভিজিটর নিয়ে আসবেন। সে নিয়ে আমি অলরেডি অনেক গুলো আর্টিকেল পাবলিশ করেছি। যারা সেই আর্টিকেল গুলো দেখেছেন।

তারা আমার টিপস গুলো অবশ্যই জেনে থাকবেন। কিন্তুু আপনি যদি উক্ত আর্টিকেল গুলো না দেখে থাকেন ৷ তাহলে নিন্মোক্ত টিপস গুলো দেখে নিন।

💡PRO TIPS-1: একটি ওয়েবসাইটে কি পরিমান ভিজিটর আসবে। তার বেশিরভাগ নির্ভর করবে আসলে আপনি কতটুকু কোয়ালিটি সম্পন্ন আর্টিকেল পাবলিশ করছেন।

কেননা, মানুষ গুগলে কোনো কিছু জানার জন্য সার্চ করে। এখন আপনি যদি আর্টিকেল এর মাধ্যমে সেই তথ্য গুলো সঠিকভাবে দিতে পারেন। তাহলে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটে তুলনামূলক বেশি ভিজিটর আসবে।

💡PRO TIPS-2: আপনি যে ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স ব্যবহার করবেন। সর্বদা চেস্টা করবেন সেই সাইটের লোডিং স্পিড যেন অনেক ফাস্ট হয়। কেননা, মানুষ যখন গুগল থেকে আপনার সাইটের লিংকে ক্লিক করবে।

তখন যদি তারা আপনার সাইটে প্রবেশ করতে না পারে। তাহলে কিন্তুু সেই ভিজিটর আপনার সাইট বাদে অন্য সাইটে চলে যাবে। এবং মাঝখান থেকে আপনি সেই ভিজিটর কে হারিয়ে ফেলবেন।

আপনি আরো দেখুন…

No-2: Make Idea For Adsense Ads Placement

যেহুতু এডসেন্স থেকে আয় করার মূল উপায় হলো বিজ্ঞাপন। সেহুতু আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটে এমনভাবে বিজ্ঞাপন গুলোকে প্লেস করতে হবে। যেন, ভিজিটরের মাধ্যমে সেই বিজ্ঞাপন গুলোতে বেশি পরিমানে ক্লিক আসে এবং বেশি পরিমানে Impression আসে।

তবে প্রশ্ন হলো যে, একটি ওয়েবসাইটে গুগলের বিজ্ঞাপন গুলো কিভাবে প্লেসমেন্ট করলে বেশি পরিমান টাকা আয় করা যায়। এবার সে নিয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

💡PRO TIPS-1: তো প্রথম বিষয়টি হলো আপনি কোন কোন পেজ গুলোতে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবেন ৷ সেটি আপনাকে পূর্বে থেকে নির্ধারন করতে হবে।

যেমন, আপনি হোমপেজের কোথায় কোথায় Ads Show করাবেন, আর্টিকেলের কোথায় কোথায় Ads প্রদর্শন করাবেন। তা আপনাকে পূর্বে থেকে নির্ধারন করে নিতে হবে।

তবে এখানে একটা টিপস আছে, সেটি হলো আপনার সাইটের Top এবং End এ এড বসানোর চেস্টা করবেন। এবং আপনার সাইটের আর্টিকেল এর টপ, মিডিল এবং লাষ্ট পজিশনে বিজ্ঞাপন দেখানোর চেস্টা করবেন।

💡PRO TIPS-2: দ্বিতীয় যে বিষয়টি আছে সেটি হলো, আপনি কতগুলো বিজ্ঞাপন শো করছেন তার পরিমান নির্দিষ্ট করা। অর্থ্যাৎ, আপনি চাইলে একসাথে অনেক গুলো Ads Place করতে পারবেন।

কিন্তুু সমস্যা হলো আপনি যদি অতিরিক্ত হারে এই Ads গুলো ব্যবহার করেন। তাহলে কিন্তুু আপনার সাইটের লোডিং স্পিড অনেক গুন কমে যাবে।

তবে এখানে আপনি কিছু টিপস ব্যবহার করতে পারবেন। যেমন, সবার আগে আপনাকে দেখতে হবে যে, কোথায় কোথায় বিজ্ঞাপন গুলা দিলে ভিজিটরের চোখে পড়বে।

💡PRO TIPS-3: গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় হিসেবে আপনাকে আরও একটি বিষয়ের দিকে বিশেষভাবে নজর রাখতে হবে। সেটি হলো আপনি কোন ধরনের Ads গুলোকে আপনার ওয়েবসাইটে শো করছে।

কেননা, গুগল কিন্তুু তাদের পাবলিশার দের জন্য বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন দেখানোর ব্যবস্থা করে রেখেছে। যেমন, Display ads, article ads, auto ads ইত্যাদি।

এখন জানার বিষয় হলো যে, কোন ধরনের এডস গুলোতে বেশি ইনকাম করা যায়। সেটা আপনাকে ভালো ভাবে জানতে হবে।

এক্ষেএে আপনাকে কিছু টিপস অবলম্বন করতে হবে। যেমন আপনি যদি আপনার সাইটে ৪-৫ টি Ads Unit ব্যবহার করেন। তাহলে চেস্টা করবেন ২/৩ টি Display এড ব্যবহার করার। এবং আর্টিকেলের ভিতরে article ads ব্যবহার করতে।

💡PRO TIPS-4: গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় হিসেবে আরও একটি অন্যতম টিপস হলো Auto Ads ব্যবহার করা। কেননা, আপনি যদি অন্যান্য এডস গুলোর সাথে Auto Ads ব্যবহার করেন।

তাহলে কিন্তুু আপনি একটু বেশি বেনিফিট পাবেন।

কেননা এই ধরনের বিজ্ঞাপন গুলো গুগল নিজে থেকে অপটিমাইজ করে। এবং ভিজিটর দের একটিভিটি অনুযায়ী তাদের কে প্রয়োজন অনুসারে বিজ্ঞাপন শো করে।

যার ফলে আপনি মাঝখান থেকে বেশি পরিমানে এডসেন্স থেকে টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

ইউটিউব এর মাধ্যমে এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায়

যাক, উপরের আলোচনা থেকে আমরা ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে পারলাম।

আশা করি সেই আলোচনা গুলো ভালোভাবে বুঝতে পেরেছন। আর যদি না বুঝে থাকেন, তাহলে উপরোক্ত আলোচনা গুলো পুনরায় আরেকবার পড়ুন।

তো এবার আমরা জানবো যে, যদি আপনি ইউটিউব প্লাটফর্মে কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে চান। এবং সেই ইনকাম এর পরিমান বৃদ্ধি করতে চান। তাহলে আপনাকে কি কি উপায় অনুসরন করতে হবে। 

No-1: Increase Your Youtube Video View 

আমরা উপরে যেমন জানতে পারলাম যে, ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে গুগল এডসেন্স এর আয় বাড়ানোর জন্য প্রচুর পরিমানে ভিজিটর এর প্রয়োজন হবে।

ঠিক একইভাবে আপনি যদি ইউটিউব এর মাধ্যমে গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় খুজে থাকেন। তাহলে আপনার চ্যানেল এর ভিডিওতে View বাড়ানো ছাড়া আর কোনো উপায় খুজে পাবেন না।

কেননা, আপনার চ্যানেলকে YouTube এর মাধ্যমে মনিটাইজ করার পর আপনার ভিডিওতে Ads তো ঠিকই শো করবে। কিন্তুু আপনার ভিডিওতে যদি তেমন আশানুরূপ ভিউ না আসে।

মানুষ যদি আপনার ভিডিও না দেখে। তাহলে কিন্তুু আপনি এডসেন্স থেকে তেমন ইনকাম করতে পারবেন না।

তাই এডসেন্সের আয় বাড়ানোর জন্য সবার আগে আপনাকে আপনার YT Channel এর ভিডিও গুলোতে প্রচুর পরিমানে ভিউ নিয়ে আসতে হবে।

তো চলুন সবার আগে আমরা জেনে নেই যে, কিভাবে আপনি আপনার ভিডিওতে প্রচুর পরিমানে ভিউ নিয়ে আসবেন। 

How To Increase Your YouTube View?

যেহুতু ভিডিও তে ভিউ না আসলে আপনার এডসেন্সের আয় বাড়ানোর কোনো উপায় কাজে আসবে না। সেহুতু সবার আগে আপনাকে এই দিকটাতে বেশ ফোকাস রাখতে হবে।

এবং এমন বেশ কিছু বিষয় আছে, যেগুলো আপনাকে মাথায় রেখে কাজ করতে হবে। যেমনঃ

💡PRO TIPS-1: সবার আগে আপনাকে ভিডিও তৈরি করার এমন একটি বিষয় নির্বাচন করতে হবে। যে বিষয় গুলো দর্শকরা দেখতে পছন্দ করে ৷

কেননা, আপনি যদি আপনার নিজের পছন্দ মতো বিষয়ে ভিডিও তৈরি করেন। কিন্তুু মানুষ যদি সেগুলো কে পছন্দ না করে। তাহলে কিন্তুু আপনি শত চেস্টার পরও সফলতা অর্জন করতে পারবেন না।

💡PRO TIPS-2: ইউটিউব ভিডিওতে হিউজ পরিমান ভিউ নিয়ে আসার গোপন একটি টেকনিক হলো Tranding Topic গুলোকে কাউন্ট করা।

এর প্রধান কারন হলো, যখন কোনো কিছু অনলাইনে ভাইরাল হয়। তখন মানুষ এই বিষয় গুলো সম্পর্কে জানার জন্য অনেক বেশি পরিমানে সার্চ করে থাকে।

যার ফলে রাতারাতি সেই ভিডিও গুলো তে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ চলে আসে। তাই চাইলে আপনিও এই টেকনিকটি ফলো করতে পারবেন।

💡PRO TIPS-3: যখন আপনি আপনার চ্যানেলের জন্য ভিডিও তৈরি করবেন। তখন আপনার নিজের কথা চিন্তা না করে সর্বদা দর্শকদের কথা মাথায় রেখে ভিডিও তৈরি করবেন।

কেননা, আপনার ভালো লাগা আর না লাগাতে কোনো যায় আসবে না। বরং দর্শকদের যদি ভালো লাগে তাহলেই আপনি এই সেক্টরে সফলতা পাবেন।

আপনার জন্য আরো লেখা…

কেননা, এখানে দর্শরাই হলো মূল বিষয়। যাদেরকে কেন্দ্র করে আপনার আয় কিরকম হবে, তা নির্ভর করবে।

💡PRO TIPS-4: একজন ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর এর আরও একটি বিষয় মাথায় রাখা উচিত। যেন আপনার তৈরি করা ভিডিও দেখে দর্শকরা যেন কিছু শিখতে পারে।

মানে আপনার ভিডিওতে যেন শিক্ষনীয় কোনো কিছু থাকে। তাহলে দর্শকরা এমনিতেই আপনার ভিডিও দেখতে আগ্রহী হবে।

No-2: Perfect Ads Placing In Your Video

উপরের আলোচনা তে আমরা যেমন এড বসানোর একটা টিপস নিয়ে আলোচনা করেছিলাম। ঠিক তেমনি এখানেও আপনাকে আপনার ভিডিওতে সঠিক জায়গাতে বিজ্ঞাপন বসাতে হবে।

যেন আপনার ভিডিওতে Impression আসার পাশাপাশি অনেক বেশি পরিমানে ক্লিক আসে।

তো ইউটিউব এ মূলত বিভিন্ন ধরনের এড দেখা যায়। যেমনঃ No-Skippable video ads, Skippable ads, Video at formet এবং Bumper ads.

কিন্তুু আপনাকে এতো কিছু এড সম্পর্কে জানার প্রয়োজন নেই। আপনি শুধু স্কিপ এন্ড নন স্কিপ সম্পর্কে জানেই যথেষ্ট বলে আমার কাছে মনে হয়।

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, এই স্কিপ এবং ননস্কিপ এডস কাকে বলে? -যদি আপনি সে সম্পর্কে না জানেন, তাহলে শুনুন….

আমরা ইউটিউবে ভিডিও দেখার সময় যেসব এড দেখতে পাই। তাদের মধ্যে কিছু এড ৩ থেকে ৬ সেকেন্ড দেখার পর সেগুলো কে স্কিপ করতে পারি।

মূলত এই ধরনের এড গুলোকে বলা হয় Skippable ads. আর যেসব এড গুলো সম্পূর্ন দেখতে হয়। এবং কোনো প্রকার স্কিপ করার অপশন থাকে না। মুলত সেই ধরনের এড গুলোকে বলা হয়, Non Skippable Ads.

তো এবার আপনাকে জানতে হবে যে এডসেন্সের আয় বাড়ানোর জন্য আপনাকে কি কি পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

💡PRO TIPS-1: যখন আপনার কোনো একটি ভিডিওতে আশানুরূপ ভিউ আসবে ৷ তখন আপনি ঐ ভিডিও Starting Position এ Non-Skippable এড ব্যবহার করার চেস্টা করবেন।

💡PRO TIPS-2: আপনার ভিডিওতে নিশ্চই কিছু গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট থাকবে। এই গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে আপনি Skippable Ads গুলো সেটআপ করবেন।

এতে করে আপনার সেই গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট দেখার জন্য ভিউয়ার বাধ্য হয়ে আপনার এড দেখবে।

💡PRO TIPS-3: ভিডিওতে এড বসানোর সময় সর্তকতা অবলম্বন করবেন। যেন বিজ্ঞাপনের জন্য দর্শকরা কোনো ভাবেই বিরক্ত বোধ না করে। নাহলে আপনার বিজ্ঞাপনের জ্বালায় দর্শকরা আপনার ভিডিও দেখার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে। 

আমাদের শেষকথা

আশা করা যায় আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি গুগল এডসেন্সের ইনকাম বাড়ানোর উপায় গুলো সম্পর্কে বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

তবে এগুলো ছাড়াও আরও কিছু গুগল এডসেন্সের আয় বাড়ানোর উপায় রয়েছে। আপনি সেগুলো সম্পর্কে জানতে চাইলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন ৷

বাংলা আইটি ব্লগের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Related article

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই লেখা কপি করবেন না!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap