কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায় | ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায়

 কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায় : বিশ্বের জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ফেসবুক এর মধ্যে বিভিন্ন রকমের ফিচার রয়েছে।

কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায় | ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায়
ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায়

যেমন, একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী ইচ্ছা করলেই একটি ফেসবুক পোস্ট করতে পারবে। এবং অন্যান্য ব্যবহারকারীরা সেই ফেসবুক পোস্ট এর মধ্যে লাইক এবং কমেন্ট করতে পারবে।

মূলত এগুলো হলো ফেসবুকের জনপ্রিয় কিছু ফিচার। যার মাধ্যমে facebook মানুষ এর মনে জায়গা দখল করে নিতে পেরেছে।

তো আমরা অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী আছি। যারা আসলে জানতে চাই যে, কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়।

আপনার জন্য আরোও লেখা আছে…

কেননা আমরা অন্য বন্ধুদের ফেসবুক পোস্ট এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে লাইক কমেন্ট দেখতে পাই। কিন্তু আমাদের পোস্ট এর মধ্যে লাইক এর সংখ্যা অনেক কম থাকে।

যার কারণে আমরা অধিকাংশ সময়, ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় গুলো খুজে থাকি।

আর্টিকেল সূচি

ফেসবুক লাইক কি? What is Facebook Like?

আমরা যারা ফেসবুক ব্যবহার করি। তারা বেশ ভালো করে জানি যে ফেসবুকের মধ্যে বিভিন্ন রকমের অপশন রয়েছে।

যেমন, মেসেজ অপশন, পোস্ট অপশন, নোটিফিকেশন অপশন ইত্যাদি। তবে এই অপশন গুলো কে আরো আকর্ষণীয় করার জন্য। ফেসবুক বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করেছে।

তার মধ্যে অন্যতম হলো, ফেসবুক লাইক (Facebook Like). কেননা ফেসবুক হলো এমন একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। যেখানে মানুষ তার মতামত গুলো স্বাধীনভাবে প্রকাশ করতে পারে।

আর আপনি যখন কোন একজন ফেসবুক বন্ধুর মতামত এর সাথে সম্মতি প্রদান করবেন।

কিংবা তার মতামত যদি আপনার ভালো লাগে। তাহলে আপনি Facebook Like এর মাধ্যমে সেটা প্রকাশ করতে পারবেন।

ফেসবুক লাইক হল ফেসবুকের অন্যতম FB React. যার মাধ্যমে আপনি কোন ফেসবুক পোস্ট এর প্রতি আপনার যে অনুভূতি, তা প্রকাশ করতে পারবেন।

কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়

How to increase facebook like? এখন যে বিষয়টি জানা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সেটি হলো যে। কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়।

তো আপনি যদি ফেসবুকে লাইক বাড়াতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে দুইটি উপায় অনুসরণ করতে হবে। যার মাধ্যমে আপনি আপনার ফেসবুকে প্রচুর পরিমাণে লাইক নিতে পারবেন।

আর সেই দুই টি ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় নিয়ে এবার আমি বিস্তারিত আলোচনা করব।

ফেসবুক এর নিয়ম অনুসরণ করে 

দেখুন ফেসবুক বিশেষ কিছু অ্যালগরিদম এর উপর নির্ভর করে কাজ করে থাকে। এখন আপনি যদি আপনার ফেসবুক পোস্ট অথবা ভিডিও এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে লাইক নিয়ে আসতে চান।

তাহলে আপনাকে অবশ্যই facebook এর সেই অ্যালগরিদম অনুযায়ী কাজ করতে হবে। আর আপনি যদি এই পদ্ধতি অনুসরণ করে facebook কে লাইক নেওয়ার চেষ্টা করেন।

তাহলে আপনার ফেসবুক আইডি এর কোন প্রকারের সমস্যা হবে না।

বরং সময়ের সাথে সাথে আপনার ফেসবুকের লাইক বৃদ্ধি পাবে। তার পাশাপাশি আপনার প্রোফাইল এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফলোয়ার আসার সম্ভাবনা থাকবে।

ফেসবুক অটো লাইক নিয়ে

এটি হলো একটি অবৈধ ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায়। কারণ আপনি যদি আপনার ফেসবুক এর মধ্যে হাজার হাজার লাইক নিতে চান।

তাহলে আপনি অটো লাইক ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমান সময়ে আপনি অনলাইনে এমন অনেক ধরনের অটো লাইক ওয়েবসাইট এবং অটো লাইক অ্যাপ দেখতে পারবেন।

যেখানে আপনি আপনার আইডি দিয়ে লগইন করবেন।

তারপরে আপনি সেই অ্যাপস কিংবা ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনার facebook এর মধ্যে হাজার হাজার লাইক নিতে পারবেন। মূলত আপনি যদি কোন প্রকারের সেলিব্রেটি না হয়ে থাকেন।

তারপরেও আপনার পোস্ট এর মধ্যে বিশ্বের বড় বড় সেলিব্রেটিদের মত হাজার হাজার লাইক থাকবে। যা দেখে অন্যরা বেশ অবাক হয়ে যাবে।

ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় – ১

উপরের আলোচনার মাধ্যমে আমি আপনাকে মোট দুইটি পদ্ধতি দেখিয়ে দিয়েছি। আর যারা আসলে জানতে চান যে, কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়।

তাদের জন্য উপরের এই দুটি পদ্ধতি অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

তবে এখন অনেকের মনে প্রশ্ন জেগে থাকবে যে, কিভাবে এই পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করে আমরা আমাদের ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারব।

তো যদি আপনার মনে এই ধরনের প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে এবার আমি আপনাকে ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

এবং সর্বপ্রথম আপনাকে আমি ফেসবুকের নিয়ম অনুযায়ী লাইক বাড়ানোর উপায় সম্পর্কে বলবো। মূলত আপনি যদি এই নিয়ম অনুসরণ করেন।

তাহলে আপনার ফেসবুক আইডির কোন প্রকার সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। এবং আপনি নিশ্চিন্তে আপনার ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

চলুন এবার তাহলে ফেসবুকের নিয়ম অনুযায়ী ফেসবুক লাইক বাড়ানোর উপায়টি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

অডিয়েন্স পছন্দ করুন

যদি আপনি ফেসবুকের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে লাইক পেতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনাকে অডিয়েন্সের কথা মাথায় রাখতে হবে।

এবং আপনাকে ফেসবুক এর মধ্যে এমন ধরনের পোস্ট করতে হবে। যা অডিয়েন্স এর কাছে অনেক ভালো লাগে। একটা সাধারণ বিষয় লক্ষ্য করে দেখুন।

যখন আপনি ফেসবুক ব্যবহার করেন। তখন যদি কোন পোস্ট আপনার ভালো লাগে তাহলে আপনি সেই পোস্ট এর মধ্যে লাইক করবেন রিয়েক্ট দিবেন।

কিন্তু যদি কোন ফেসবুক এর পোস্ট আপনার ভালো না লাগে। তাহলে কি আপনি সেই পোস্টে লাইক করবেন? কখনোই করবেন না, তাই তো।

ঠিক একই ভাবে যখন আপনি আপনার ফেসবুক এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে লাইক আনার চেষ্টা করবেন।

তখন আপনাকেও এই কথা টি মাথায় রাখতে হবে। এবং আপনার অডিয়েন্স আসলে কোন ধরনের কনটেন্ট দেখতে ভালোবাসে।

সেই দিকটা বিশেষভাবে বিবেচনা করে আপনাকে নিয়মিত কন্টেন্ট পাবলিশ করতে হবে। এবং এভাবে আপনি আপনার অডিয়েন্স এর থেকে আশানরূপ লাইক নিয়ে নিয়ে আসতে পারবেন।

সঠিক সময়ে পোস্ট করুন

দেখুন যেহেতু আপনার পোস্ট দেখার পরে অডিয়েন্সরা লাইক কমেন্ট করবে। সেহেতু সবার প্রথমে আপনাকে আপনার অডিয়েন্স কে বুঝতে হবে।

যেমন, প্রথমত আপনি আপনার অডিয়েন্স এর ভালোলাগা কনটেন্ট গুলো কে বুঝবেন। এবং যে ধরনের কনটেন্ট গুলো আপনার অডিয়েন্স দেখতে পছন্দ করে।

সেই ধরনের কনটেন্ট আপনাকে পোস্ট করতে হবে। কিন্তু আপনি চাইলেই আপনার ইচ্ছামত যে কোন সময়ে এ ধরনের পোস্ট করতে পারবেন না।

যদি এমন টা করেন তাহলে আপনি ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন না। যার কারণে আপনার অডিয়েন্স আসলে কোন সময়ে বেশিভাগ সময় ফেসবুকের মধ্যে একটিভ থাকে।

তা আপনাকে বুঝতে হবে, কেননা যখন একটি নতুন পোস্ট করবেন। তখন সেই পোস্টটি আপনার অডিয়েন্সের নিকট গিয়ে পৌঁছাবে। কিন্তু সে যদি facebook এর মধ্যে একটিভ না থাকে।

তাহলে কিন্তু তার নিকট আপনার পোস্ট টি আর পৌঁছাতে পারবে না।

যার কারণে আপনাকে আগে থেকে জেনে নিতে হবে যে, আপনার অডিয়েন্স আসলে কোন কোন সময় গুলো তে বেশি ফেসবুক ব্যবহার করে।

কনটেস্ট এর ব্যবস্থা করুন

ফেসবুক এর মধ্যে একটি অডিয়েন্স পাওয়ার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো কনটেস্ট এর ব্যবস্থা করা। মনে করুন আপনি ছোট একটি কনটেস্টের ব্যবস্থা করেছেন।

এবং সেখানে আপনি নির্দিষ্ট এক বা একাধিক পুরস্কার এর সুবিধা দিলেন। এখন সেই কনটেস্ট এর মধ্যে আপনি দেখতে পারবেন।

যে, অনেক ফেসবুক ইউজার এসে যুক্ত হবে। সেই সাথে এমন অনেকেই থাকবেন যারা মূলত তার পরিচিত বন্ধু বান্ধবদের আপনার কনটেস্টের মধ্যে মেনশন করবে।

এর ফলে আপনি আপনার ফেসবুক পোস্ট এর রিচ অনেক গুণ বৃদ্ধি করতে পারবেন। আর আপনি এভাবে আপনার পোস্ট এর রিচ যত বেশি বৃদ্ধি করতে পারবেন।

আপনার সেই ফেসবুক এর মধ্যে লাইক অধিক পরিমাণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। আর আপনি যদি এই কাজটি করার জন্য কনটেস্ট এর ব্যবস্থা করেন।

তাহলে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে যে। এই ধরনের কনটেস্ট গুলো অনেক সহজ করতে হবে। যাতে করে মানুষ খুব সহজেই আপনার উক্ত কনটেস্ট এ যুক্ত হতে পারে।

এবং এভাবে আপনি আপনার ফেসবুকে এর লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

বিভিন্ন পেজে কমেন্ট করুন

যারা আসলে তাদের ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে চায়। তাদের জন্য দারুন একটি পদ্ধতি হলো বিভিন্ন ফেসবুক পেজ এর মধ্যে গিয়ে কমেন্ট করা।

তবে আপনি ফেসবুকের মধ্যে যে কোন পেজে কমেন্ট করলেই আপনার ফেসবুকের লাইক বাড়বে বিষয়টা হলে এমন নয়। বরং আপনাকে জনপ্রিয় সব ফেসবুক পেজ এর পোস্ট কমেন্ট করতে হবে।

যেমন ধরুন, আমাদের বাংলাদেশের মধ্যে প্রথম আলো এর ফেসবুক পেজ অনেক জনপ্রিয়। এবং সেই পেজ এর মধ্যে অনেক একটিভ ইউজার রয়েছে।

এখন আপনি যদি প্রথম আলো তে পাবলিশ হওয়া কোন ধরনের খবরের মধ্যে কমেন্ট করেন।

সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ফেসবুকের মধ্যে লাইক বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। আর বিষয়টা অবাক করার মতো হলেও সত্য।

আপনি আরোও পড়তে পারেন…

যে, আজকের দিনে আপনাদের মত এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত তাদের ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য এই পদ্ধতি কে অনুসরণ করে থাকে।

এবং আপনি যদি এই পদ্ধতি টি সঠিক ভাবে অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে আপনিও খুব সহজেই আপনার ফেসবুকের লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

নিজের ফেসবুক গ্রুপ তৈরি করুন

ফেসবুক গ্রুপ হল উন্নত একটি প্ল্যাটফর্ম। যেখানে ইউজাররা তাদের ইছামত লাইক কমেন্ট করতে পারে। এবং আপনার যখন একটু ফেসবুক গ্রুপ থাকবে।

তখন আপনার নিকট অনেক বড় একটা অডিয়েন্স থাকবে। যাদের কে কাজে লাগিয়ে আপনি আপনার ফেসবুক এর মধ্যে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

যেমন ধরুন, আপনি যখন আপনার ফেসবুক পেজের মধ্যে কোন পোস্ট করবেন। তখন আপনি সেই পোস্ট টি আপনার তৈরি করা ফেসবুক গ্রুপের মধ্যে শেয়ার করতে পারবেন।

এর ফলে আপনার ফেসবুক গ্রুপের মধ্যে থাকা অডিয়েন্স আপনার উক্ত ফেসবুক পোস্ট সম্পর্কে জানতে পারবে।

এবং তারা আপনার শেয়ার করার লিঙ্ক থেকে সরাসরি আপনার ফেসবুক পেজের মধ্যে যেতে পারবে।

এর ফলে আপনি আপনার ফেসবুকের মধ্যে অধিক পরিমাণে একটিভ অডিয়েন্স নিয়ে আসতে পারবেন। এবং আপনার ফেসবুকের লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

ট্রেন্ডিং বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন

দেখুন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয় ট্রেনিং এর মধ্যে আসে। আর আপনি যদি আপনার ফেসবুকের মধ্যে লাইক বাড়িয়ে নিতে চান।

তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই ট্রেনিং বিষয় গুলোর দিকে যথেষ্ট পরিমাণে খেয়াল রাখতে হবে। এবং সেই বিষয় গুলোর উপর ভিত্তি করে আপনাকে কনটেন্ট তৈরি করতে হবে।

তারপরে সেই কনটেন্ট গুলো আপনার ফেসবুকের মধ্যে আপলোড করতে হবে। কারণ যখন কোন একটি বিষয় ট্রেনিং এর মধ্যে আসে।

তখন প্রচুর পরিমাণ মানুষ সেই ট্রেনিং বিষয় এর উপর নির্ভর করে তৈরি করা কনটেন্ট গুলো দেখতে পছন্দ করে। এবং যার ফলে অডিয়েন্সরা উক্ত ট্রেনিং বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারে।

এখন আপনি যদি এই জানিয়ে দেওয়ার কাজটি আপনার ফেসবুকের মধ্যে করতে পারেন।

তাহলে আপনার সেই ফেসবুকের লাইক বেড়ে যাবে এটা স্বাভাবিক বিষয়। তাই অবশ্যই আপনাকে এই ট্রেনিং বিষয়ের দিকে যথেষ্ট পরিমাণে গুরুত্ব দিতে হবে।

এবং সেই ট্রেনিং টপিক গুলো নিয়ে নিয়মিত পোস্ট করতে হবে।

ভালো ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করুন

একটা সাধারণ বিষয় সর্বদাই মাথায় রাখবেন। ফেসবুক এর মধ্যে আপনি যত বেশি ভালো ছবি অথবা ভিডিও কনটেন্ট আপলোড করতে পারবেন।

আপনার সেই কনটেন্ট গুলোর ফেসবুক রিচ অনেক বেশি বৃদ্ধি পাবে।

তবে কনটেন্ট আপলোড করার পাশাপাশি আপনি ফেসবুকের মধ্যে থাকা বিভিন্ন ধরনের ভালো ভালো ছবি অথবা নজর কাড়ানো ভিডিও গুলো। আপনার ফেসবুকের মধ্যে শেয়ার করতে হবে।

যার ফলে অডিয়েন্স এর কাছে আপনার শেয়ার করা সেই ভিডিও কিংবা ভালো ভালো ছবি গুলো পৌঁছাবে। এবং তাদের কাছে সেই ভিডিও এবং ভালো ছবি গুলো অনেক বেশি আকর্ষণীয় বলে মনে হবে।

এবং তারা আপনার ফেসবুকের মধ্যে লাইক করবে। এর পাশাপাশি অনেক ফেসবুক ইউজার থাকবে যারা আপনার ফেসবুকের মধ্যে কমেন্ট করবে।

এরফলে আপনি অধিক পরিমাণে আপনার ফেসবুকের মধ্যে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

কমেন্ট এর উত্তর দিন

মনে করুন আপনি কোন একটি ফেসবুক পেজের মধ্যে আপলোড করা পোস্ট কিংবা ভিডিওতে কমেন্ট করেছেন।

এখন যদি সেই ফেসবুক পেজ থেকে আপনাকে আপনার কমেন্টের রিপ্লে দেওয়া হয়। তাহলে কিন্তু বিষয়টা আপনার কাছে অনেক ভালো লাগবে।

ঠিক একই ভাবে যখন আপনি আপনার কোন ফেসবুক পেজ এর মধ্যে কোন পোস্ট করবেন। এবং সেই পোস্টের মধ্যে যখন ফেসবুক ইউজাররা এসে কমেন্ট করবে।

তখন অবশ্যই আপনাকে সেই কমেন্ট গুলোর সঠিক উত্তর দিতে হবে। এবং এভাবে আপনি যত বেশি আপনার অডিয়েন্স এর কাছ থেকে আসা কমেন্ট এর উত্তর দিবেন।

আপনি আপনার অডিয়েন্স এর কাছে ঠিক ততটাই বেশি মূল্য পাবেন। তাই চেষ্টা করবেন আপনার পোস্ট এর মধ্যে আসা কমেন্ট গুলোর রিপ্লাই দেওয়ার।

যা আপনার ফেসবুক লাইক বাড়িয়ে দিতে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় – ২

How to get facebook auto like? উপরের আলোচনার মাধ্যমে আমি আপনাকে ফেসবুকের নিয়ম অনুযায়ী কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়।

সে সম্পর্কে বিস্তারিত বলেছি। তবে এই ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় টি বাদেও আরো একটি অবৈধ উপায় রয়েছে। যাকে কাজে লাগিয়ে আপনি আপনার ফেসবুকে প্রচুর পরিমাণে লাইক নিতে পারবেন।

তবে আপনি যদি এই ধরনের অবৈধ পদ্ধতি অনুসরণ করে ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে চান। তাহলে আপনার বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

চলুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক যে অটো লাইক ব্যবহার করলে আসলে কি কি ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

  1. আপনার ফেসবুক আইডির মাধ্যমে উক্ত অটো লাইক অ্যাপ কিংবা ওয়েবসাইটের মধ্যে লগইন করতে হবে।
  2. আর যখন আপনি এই কাজটি করবেন। তখন আপনি নিজের অজান্তেই আপনার ফেসবুকের সকল এক্সেস আপনি অন্যদের হাতে তুলে দিবেন।
  3. এই কাজটি করার ফলে আপনি প্রথমত আপনার ফেসবুকের এক্সেস হারাবেন। অর্থাৎ আপনার ফেসবুক আইডির সকল তথ্য অন্যের হাতে চলে যাবে।
  4. সে কারণে আপনার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়ে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকবে।
  5. আর যখন আপনার ফেসবুক আইডির এক্সেস অন্য কারো হাতে থাকবে। তখন সে তার ইচ্ছামত আপনার ফেসবুক আইডি টি ব্যবহার করতে পারবে।
  6. যেহেতু এই ধরনের অটো লাইক অ্যাপস বা ওয়েবসাইট গুলো রোবোটিক ভাবে আপনার কমেন্ট এবং লাইক করবে। সেহেতু আপনার ফেসবুক আইডি ডিজেবল হওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকবে।
  7. অটো লাইক ব্যবহার করার ফলে ফেসবুক আইডি একবারই ব্লক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

তো যদি আপনি অবৈধ উপায় অনুসরণ করে ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে চান। তাহলে আপনার যে সকল সমস্যা হবে।

সেই সমস্যা গুলো উপরে উল্লেখ করা হয়েছে। আর আমার দৃষ্টিকোণ থেকে ফেসবুকের নিয়ম অনুযায়ী লাইক বাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা উচিত।

কিন্তু আপনি যদি রিস্ক নিতে চান। তাহলে আপনি ফেসবুকের অবৈধ পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

আর বর্তমান সময়ে আপনি অনলাইন এর মধ্যে এমন অনেক ধরনের অটো লাইক নেওয়ার অ্যাপস দেখতে পারবেন। যার মাধ্যমে আপনি আপনার ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

এর পাশাপাশি আপনি যদি কোন ধরনের অ্যাপস ব্যবহার করতে না চান। সেক্ষেত্রে আপনি অনলাইনে এমন ডজন ডজন ওয়েবসাইট দেখতে পারবেন।

যে ওয়েবসাইট গুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার ফেসবুকে লাইক বাড়াতে পারবেন।

তবে এইসব এপ্স কিংবা ওয়েবসাইট গুলো কে আপনার ফেসবুক আইডির এক্সেস দেওয়ার আগে দ্বিতীয়বার ভেবে নিবেন। তাহলে আপনার ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়া থেকে রক্ষা পাবে।

Q: ফেসবুকে অটো লাইক পাওয়ার উপায়?

A:  আপনি যদি ফেসবুকের মধ্যে অটো লাইক নিতে চান। তাহলে আপনাকে বিভিন্ন ধরনের অটো লাইক অ্যাপস কিংবা ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে হবে।

যেখানে আপনি আপনার ফেসবুক আইডি দিয়ে লগইন করবেন। এবং তারপরে আপনি আপনার ফেসবুক পোস্ট এর মধ্যে আপনার ইচ্ছামত অটো লাইক এবং অটো কমেন্ট নিতে পারবেন।

Q: ১ ক্লিকে ৫০০ লাইক নেয়ার উপায়?

A:  আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত এক ক্লিকে ৫০০ লাইক নেওয়ার উপায় খুঁজে থাকে।

তো যদি আপনি এমনটা করতে চান। তাহলে আপনাকে ফেসবুক লাইক নেয়ার অ্যাপ গুলো ব্যবহার করতে হবে।

যেখানে আপনি একটি ক্লিক করার মাধ্যমে আপনার ফেসবুকের মধ্যে ৫০০ লাইক পর্যন্ত নিতে পারবেন।

Q: ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায়?

A: বর্তমান সময়ে ফেসবুকের মধ্যে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট বেশি পাওয়ার উপায় হচ্ছে ভালো ভালো পোস্ট করা।

কেননা যখন আপনি ধারাবাহিক ভাবে আপনার ফেসবুক এর মধ্যে ভালো ভালো পোস্ট করবেন। তখন মানুষ আপনার পোস্ট গুলো মিস করতে চাইবে না।

যার ফলে আপনাকে বন্ধু করতে চাইবে। আর এর ফলে আপনার ফেসবুক এর মধ্যে বেশি বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট আসবে।

Q: ফেসবুকে লাইক ব্লক হলে কি করব?

A: আপনাকে কিছুই করতে হবে না বরং যখন আপনার ফেসবুকে লাইক ব্লক হবে। তখন আপনাকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

যদি আপনি পারেন তাহলে আপনার সেই ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করে রেখে দিন। তার কয়েকদিন পরে আবার পুনরায় আপনার সেই ফেসবুক আইডিটি একটিভ করুন।

তাহলে দেখবেন যে, আপনার ফেসবুক লাইক ব্লক থেকে আনব্লক হয়ে গেছে।

Q: ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার উপায়

A: ফেসবুক এর মধ্যে আমরা অনেকেই ভাইরাল হতে চাই। তবে এই ভাইরাল হওয়া কিন্তু মোটেও সহজ কাজ নয়। বরং তার জন্য আপনাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে।

আপনাকে বিভিন্ন টপিক নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে হবে। আর যখন আপনি আপনার এই ভিডিও গুলো আপনার টার্গেট করা অডিয়েন্স পৌঁছাতে পারবেন।

তখন আপনি খুব সহজেই ফেসবুকে ভাইরাল হতে পারবেন।

Q: কিভাবে অটো লাইক পাওয়া যায়?

A: ফেসবুকের মধ্যে অটো লাইক পাওয়ার দুটি উপায়ে রয়েছে। আর প্রথমটি হল যে ফেসবুক অটো লাইক অ্যাপস এর মাধ্যমে পাওয়া যায়।

এবং দ্বিতীয়টি হল ফেসবুক অটো লাইক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পাওয়া যায়। আর আপনি চাইলে যে কোনো একটি পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনার ফেসবুকের মধ্যে অটো লাইকার নিতে পারবেন।

আপনি আরোও দেখুন…

ফেসবুক লাইক নিয়ে আমাদের কিছু কথা

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে চান। আর সে কারণে তারা জানতে চান যে, কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়ানো যায়।

আর সেই সকল মানুষদের উদ্দেশ্য করেই আজকে আমি ফেসবুকে লাইক বাড়ানোর উপায় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

আর আপনি যদি এই উপায় গুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে আপনি খুব সহজে আপনার ফেসবুকে লাইক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

এবং অন্যান্য মানুষের মতো আপনার ফেসবুক পোস্ট এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে লাইক এবং কমেন্ট নিতে পারবেন।

আর এই ফেসবুক সম্পর্কে আরো কোন কিছু জানতে চাইলে কমেন্ট করে জানাবেন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব আপনার অজানা বিষয় গুলো কে জানিয়ে দেওয়ার।

সবশেষে বলবো যে টেকনোলজি রিলেটেড কোন বিষয় খুব সহজ ভাষায় জানতে চাইলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট এর মধ্যে ভিজিট করতে করবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Scroll to Top
Share via
Copy link