গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট – Bangla it blog

আপনি কি গুগল এডসেন্সের বিকল্প Ad Network সম্পর্কে জানতে চান? – তাহলে আপনি একেবারে সঠিক জায়গা তে চলে এসেছেন।

কারন আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল থেকে আপনি বেশ কিছু এড নেটওয়ার্ক সম্পর্কে জানতে পারবেন।

গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট
গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট

যেগুলো আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। 

আমরা যারা ব্লগিং করি, তাদের সবার কিন্তুু একটাই উদ্দেশ্য থাকে। সেটি হলো ব্লগিং থেকে কিছু পরিমান টাকা ইনকাম করা।

কেননা, আপনি সময় ও শ্রম ব্যয় করবেন। এখন তার বিনিময়ে আপনি যদি কোনো প্রকার অর্থ ইনকাম করতে না পারেন।

তাহলে কিন্তুু ব্লগিং এর পিছনে আপনি যে সময় ব্যয় করবেন ৷ সেগুলোর কোনো মূল্য থাকবে না।

এখন প্রধান যে সমস্যাটির সম্মুখীন হতে হয়। তা হলো, যখন আপনি নতুন একটি ব্লগ সাইট তৈরি করবেন। এবং সেই ব্লগে Google Adsense এর জন্য আবেদন করবেন।

তখন বিভিন্ন কারনে তারা আপনার ব্লগটিকে আর মনিটাইজ করে না। যার কারনে অনেক ব্লগার তাদের ব্লগিং সেক্টর থেকে ছিটকে পড়ে যায়।

আবার এমন অনেক ব্যক্তি আছেন। যারা মূলত Google Adsense Approved করার জন্য আপ্রান চেস্টা চালিয়ে যায়। এদের মধ্যে কেউ কেউ আছেন।

যারা তাদের সাধের ব্লগটি কে মনিটাইজ করতে সক্ষম হয়। 

কিন্তুু যেসব ব্লগার গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল না পাওয়ার কারনে এই ব্লগিং সেক্টর থেকে ছিটকে পড়ে। তাদের মতো বোকা মানুষ এই পৃথিবীতে আর দ্বিতীয়টি নেই।

কারন গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবেও কিন্তুু অনেক ধরনের Ad Network আছে। যেগুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার স্বপ্নের ব্লগ সাইট কে মনিটাইজ করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে প্রশ্ন হলো যে, গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে কোন ধরনের এড নেটওয়ার্ক গুলো ভালো। যেখান থেকে গুগল এডসেন্সের মতো টাকা ইনকাম করা যায়?

তো আপনি যদি এই এড নেটওয়ার্ক গুলো সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে কিন্তুু আপনাকে এই পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

কারন আজকের আর্টিকেলে আমি এমন কিছু Ad Network সম্পর্কে বিস্তারিত বলবো।

যেখান থেকে আপনি আপনার ব্লগ কে মনিটাইজ করতে পারবেন। এবং গুগল এডসেন্সের সমপরিমান বা তার থেকেও বেশি পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

তো আর দেরী না করে চলুন একেবারে মুল আলোচনা তে ফিরে আসা যাক ৷ 

গুগল এডসেন্সের বিকল্প মানে কি?

যেহুতু আজকের আর্টিকেল এর মুল টপিক হলো, গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক নিয়ে। সেহুতু এই বিষয়টি আসলে কি। সেটা আপনাকে জেনে নিতে হবে।

তাহলে আপনার পরবর্তী আলোচনা গুলো বুঝতে সুবিধা হবে। আচ্ছা একটা বিষয় আপনি কখনও ভেবে দেখেছেন যে, গুগল কেন ব্লগারদের টাকা দেয়? -এখানে তাদের বেনিফিট কি?

তাহলে শুনুন.., গুগল আপনাকে টাকা দেয় এর প্রধান কারন হলো আপনি গুগল এর একজন পাবলিশার হিসেবে কাজ করছেন।

আপনার জন্য আরো লেখা… 

আর গুগল এর কাছে বিভিন্ন কোম্পানি তাদের প্রডাক্ট এর প্রমোশন এর জন্য টাকা দিয়ে থাকে। এখন গুগল এই কোম্পানির প্রডাক্ট গুলোকে বিভিন্ন ব্লগ সাইট এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন আকারে প্রচার করে।

এখন গুগল যে আপনার ব্লগের মাধ্যমে তাদের বিজ্ঞাপন গুলো প্রচার করে। তার বিনিময়ে তারা আপনাকে কিছু পরিমান রেভিনিউ শেয়ার করে।

এবং সেখান থেকে কিন্তুু গুগল আপনাকে টাকা দিয়ে থাকে।

এখন এর মানে এই নয় যে, এই বিজ্ঞাপন প্রচার করার কাজটি শুধুমাএ গুগল একাই করে থাকে। যদি আপনি এমনটা ভেবে থাকেন। তাহলে বলবো আপনার ধারনা সম্পূর্ণ ভুল।

কারন গুগল ছাড়াও এমন অনেক নেটওয়ার্ক আছে। যারা বিভিন্ন কোম্পানির বিজ্ঞাপন প্রচারের কাজ করে থাকে।

এখন আপনি যদি চান যে, গুগল এডসেন্স ব্যবহার না করে এইসব অন্যান্য এড নেটওয়ার্ক গুলোর পাবলিশার হিসেবে কাজ করবেন ৷

তাহলেও কিন্তুু আপনার কোনো প্রকার সমস্যা হবে না। কারন এরাও কিন্তুু আপনাকে গুগল এর মতোই একই পদ্ধতি অবলম্বন করে টাকা প্রদান করবে।

তো যখন আপনি গুগল এডসেন্স এর পরিবর্তে অন্যান্য এড নেটওয়ার্ক এর পাবলিশার হিসেবে কাজ করবেন। তখন তাকে বলা হবে, গুগল এডসেন্সের বিকল্প।

আশা করি এই বিষয়টি নিয়ে আপনার মনে আর কোনো প্রশ্ন নেই। 

গুগল এডসেন্সের বিকল্প কেন ব্যবহার করবেন?

উপরের সংক্ষিপ্ত আলোচনা থেকে Google Adsense Alternative কি। সে সম্পর্কে ক্লিয়ার একটা ধারনা পেয়ে গেছেন। তো এখন আপনার মনে আরও একটি প্রশ্ন জাগতে পারে।

সেটি হলো, গুগল এডসেন্স থাকার পরও কেন আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক ব্যবহার করবেন?

তো গুগল এডসেন্সের বিকল্প ব্যবহার করার অনেক গুলো কারন রয়েছে। যেমন, তার মধ্যে প্রধান একটি কারন হলো AdSense Approvel না পাওয়া।

অনেক সময় দেখা যায় যে, যারা মূলত নতুন ব্লগ সাইট তৈরি করে। তাদের প্রথম এবং প্রধান উদ্দেশ্য হয় সেই ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে মনিটাইজ করা ৷

কিন্তুু যখন কোনো কারনবশত সেই ব্লগ সাইট গুলোতে মনিটাইজ করা সম্ভব হয় না। তখন কিন্তুু আপনাকে গুগল এডসেন্সের বিকল্প উপায় খুজে নিতে হবে।

এছাড়াও শুধুমাএ গুগল এডসেন্স এর এপ্রুভাল পেলেই হবে না। কারন যখন আপনি গুগল এর আন্ডারে একজন পাবলিশার হিসেবে কাজ করবেন ৷

তখন আপনাকে একটি এডসেন্স একাউন্ট দেয়ার পরে পিন ভেরিফাই করার প্রয়োজন হয় ৷ এখন এই ধাপটি পূরন করতেও আপনাকে নানা মুখি সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

তো এই কারন গুলোর জন্য আমাদের মধ্যে এমন অনেক ব্লগার আছেন। যারা মূলত গুগল এডসেন্সের বিকল্প পথ খুজে নেয়ার চেস্টা করে।

যদি আপনিও এমন সমস্যায় পড়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই তা কমেন্ট করে জানাবেন। 

গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে কোন এড নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা উচিত? 

যাক, দেখতে দেখতে আপনি আর্টিকেল এর মূল টপিকে ফিরে এসেছেন৷ এতোক্ষন ধরে আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে অনেক ধরনের অজানা তথ্য সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

আশা করি উপরোক্ত আলোচনা গুলো বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

তো এখন আপনাকে জেনে নিতে হবে যে, যখন আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প পথ অনুসরন করবেন৷ তখন আপনি কোন ধরনের এড নেটওয়ার্ক গুলোর সাথে কাজ করবেন।

তো চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

আপনি আরো পড়ুন…

বর্তমান সময়ে আপনি এমন অনেক ধরনের Adsense Alternative এড নেটওয়ার্ক দেখতে পারবেন। এবং সেই নেটওয়ার্ক গুলোর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার ব্লগটিকে মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন।

আর আপনার ব্লগকে মনিটাইজ করার মাধ্যমে বেশ ভালো পরিমান টাকা ব্লগ থেকে আয় করে নিতে পারবেন। 

০১| Infolinks- Monetize Your Website 

বর্তমান সময়ে কোনো একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট কে মনিটাইজ করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি এড নেটওয়ার্ক হলো Infolinks.

যার মাধ্যমে আপনিও খুব সহজেই আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট কে মনিটাইজ করে নিতে পারবেন। এবং সেখান থেকে বেশ ভালো পরিমানে রেভিনিউ নিতে পারবেন ৷

Infolinks এর দেয়া তথ্য অনুযায়ী এই এড নেটওয়ার্ক এর আওতায় বর্তমান সময়ে প্রায় ৩ লক্ষ এর মতো ওয়েবসাইট পাবলিশার হিসেবে কাজ করছে।

আর যেহুতু এতো বেশি মানুষ Infolinks এর পাবলিশার হিসেবে কাজ করছে। সেহুতু আপনিও একেবারে নিশ্চিন্তে এই প্লাটফর্ম এর সাথে কাজ করতে পারবেন। 

কিভাবে Infolinks থেকে টাকা ইনকাম করবেন? 

যদি আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে Infolinks কে ব্যবহার করেন। তাহলে আপনি বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

প্রথমত যখন আপনি তাদের পার্টনার প্রোগ্রামে যুক্ত হবেন। তখন আপনি আপনার ব্লগে বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন। যেমনঃ Native Ads, Banner Ads, Video Ads ইত্যাদি।

এছাড়াও এই এড নেটওয়ার্কে রেফারেল সিস্টেমে যুক্ত হতে পারলে আপনি বাড়তি কিছু টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

কিন্তুু একটা কথা না বললেই নয়, তাহলো আপনার সাইটে যদি ভিজিটর এর পরিমান কম থাকে।

তাহলে কিন্তুু আপনি এই এড নেটওয়ার্ক থেকে খুব বেশি পরিমান টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

এখান থেকে বেশি টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ব্লগ সাইটে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর নিয়ে আসতে হবে। 

আপনার ব্লগকে এই এড নেটওয়ার্ক এর সাহায্য যখন আপনি মনিটাইজ করবেন। এবং সেখান থেকে আপনি যে পরিমান টাকা ইনকাম করবেন।

সেই টাকা গুলো আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে উইথড্র করে নিতে পারবেন। যেমন, আপনি চাইলে সরাসরি PayPal এর মাধ্যমে উইথড্র করে নিতে পারবেন।

আবার আপনি চাইলে সরাসরি Bank Transfer এর মাধ্যমে টাকা উইথড্র করে নিতে পারবেন।

যখন আপনি এখান থেকে টাকা উইথড্র করবেন। তখন আপনার একাউন্টে অবশ্যই ৫০$ থাকতে হবে। তাহলে আপনি এই নেটওয়ার্ক থেকে আয় করা টাকা গুলো আপনার নিজের একাউন্টে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন।

আর এই এড নেটওয়ার্ক এর বিশেষ কিছু গুন আছে। যেমন, আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট যদি অনেক ছোট হয় ৷ তাহলেও আপনি এই প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে খুব সহজেই মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন।

কেননা, এই প্লাটফর্মের মাধ্যমে কোনো একটি ব্লগকে মনিটাইজ করার জন্য খুব বেশি একটা কাঠঘর পোড়ার প্রয়োজন হয় না। 

০২| Media.net- Monetize Your Blog

আজকের দিনে গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে আরও একটি জনপ্রিয় প্লাটফর্ম হলো, Media.net. যা থেকে আপনি গুগল এডসেন্স এর মতোই সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে। যেগুলো মূলত media.net এর মাধ্যমে মনিটাইজ করে বেশ ভালো পরিমান টাকা ব্লগ থেকে আয় করে আসছে।

আমাদের মধ্যে এমন অনেক ব্লগার আছেন। যারা মূলত গুগল এডসেন্স না পাওয়ার কারনে ব্লগিং করা ছেড়ে দেয়। কিন্তুু আপনি এটা জেনে অবাক হয়ে যাবেন।

কারন বর্তমান সময়ে media তে যেভাবে আয় করার সুযোগ রয়েছে। তা কিন্তুু গুগলের সাথে একেবারে সামন্জস্যপূর্ন। অর্থ্যাৎ, গুগল এডসেন্স যে নিয়ম মাফিক চলে।

সেই একই পদ্ধতিতে media তেও কাজ করা হয়ে থাকে।

যেহুতু এই প্লাটফর্ম টি একেবারে গুগল এডসেন্স এর সিমিলার ৷ সেহুতু এখানেও আপনাকে বিভিন্ন নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে।

এবং এই এড নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে যদি আপনি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট কে মনিটাইজ করিয়ে নিতে চান। তাহলে অবশ্যই তাদের দেয়া রুলস গুলো ফলো করতে হবে।

কিন্তুু এখানে কিছু কথা না বললেই নয়। তা হলো এই এড নেটওয়ার্ক টি কিন্তুু এখনও বাংলা ভাষার ওয়েবসাইট কে সাপোর্ট করে না ৷ অর্থ্যাৎ আপনার ব্লগটি যদি বাংলা ভাষায় হয়।

তাহলে কিন্তুু আপনি এই প্লাটফর্ম টিকে ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে আশা করা যায় যে ভবিষ্যতে এই ভাষাতেও মনিটাইজ করার সম্ভাবনা রয়েছে ৷ 

কিভাবে Media.net থেকে টাকা ইনকাম করবেন? 

যদি আপনি এই প্লাটফর্ম থেকে আপনার ব্লগ কে মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারেন। তাহলে আপনি এখান থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কেননা, এখান থেকে আপনি বিভিন্ন প্রকার বিজ্ঞাপন দেখে টাকা আয় করার উপায় করতে পারবেন।

যেমন, Native Ads, Contextual Ads, Benner Ads ইত্যাদি। এছাড়াও এখানে আপনি রেফার প্রোগ্রামে অংশগ্রহন করেও বেশ ভালো পরিমান টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

তবে রেফার প্রোগ্রামে অংশগ্রহন করার জন্য আপনাকে বেশ কিছু রুলস মেনে চলতে হবে। যদি আপনি সেই রুলস গুলো মেনে চলতে পারেন।

তাহলে আপনি এখান থেকে বাড়তি কিছু টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

আপনি আরো দেখতে পারেন…

আপনি এই প্লাটফর্ম থেকে যে পরিমান টাকা ইনকাম করবেন। সেই টাকা গুলো আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে উওলন করে নিতে পারবেন।

যেমন, আপনি আপনার সুবিধা মতো PayPal কিংবা Transfer Via Bank account এর মাধ্যমেও উওলন করে নিতে পারবেন। 

০৩| Revcontent – Native Advertising Platform 

যদি আপনার ব্লগটি গুগল এডসেন্স কতৃক মনিটাইজ করা না যায়। তাহলে আপনার জন্য অন্যতম একটি এড নেটওয়ার্ক হলো Revcontent.

কেননা, এই নেটওয়ার্কে পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারলে আপনি এখান থেকে বিপুল পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

তবে আপনি যদি এড নেটওয়ার্ক হিসেবে Revcontent কে সিলেক্ট করেন। তাহলে কিন্তুু আপনাকে অনেক রুলস মেনে চলতে হবে।

যেমন, উপরোক্ত নেটওয়ার্কের মতো এখানেও কিন্তুু আপনি বাংলা ব্লগ সাইটে এপ্রুভাল নিতে পারবেন না।

কারন এটি এখন পর্যন্ত বাংলা ভাষাকে প্রাধান্য দেয়নি। তাই আপনি যদি এই প্লাটফর্ম এর সাহায্য আপনার ব্লগ কে মনিটাইজ করিয়ে নিতে চান।

তাহলে অবশ্যই আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট টি ইংরেজি ভাষায় হতে হবে।

এছাড়াও এই প্লাটফর্ম থেকে ওয়েবসাইট কে মনিটাইজ করার জন্য আপনার সাইটে প্রচুর পরিমান ভিজিটর থাকতে হবে। কারন আপনার ব্লগে যদি ৫০ হাজার এর কম ট্রাফিক থাকে।

তাহলে কিন্তুু আপনি আপনার সাইটকে এই নেটওয়ার্ক এর সাহায্য মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন না। 

কিভাবে Revcontent থেকে টাকা ইনকাম করবেন? 

আপনি চাইলে এখান থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে টাকা আয় করে নিতে পারবেন। যেমন, আপনি আপনার ব্লগে তাদের দেয়া বিজ্ঞাপন গুলো প্রচার করবেন।

তার বিনিময়ে আপনি বেশ ভালো পরিমান টাকা ব্লগ থেকে ইনকাম করে নিতে পারবেন।

কেননা, এই এড নেটওয়ার্ক টি ব্যবহার করতে হলে আপনার সাইটে প্রচুর পরিমান ভিজিটর থাকতে হবে।

আর আপনার সাইটে যদি হিউজ পরিমানে ভিজিটর থাকে। তাহলে আপনার আয় এর পরিমান বেড়ে যাবে এটাই তো স্বাভাবিক।

আর যখন আপনি এখান থেকে ৫০$ ইনকাম করতে পারবেন। তখন আপনি এই আয় করা টাকা গুলো PayPal একাউন্ট এর মাধ্যমে উওলন করে নিতে পারবেন।

তবে এখানে উইথড্র করার পরবর্তী ৩০ দিন কার্য দিবসের মধ্যে টাকা উওলন করে নিতে পারবেন। 

০৪| YLLIX – Monetize Your Website 

বর্তমান সময়ে গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে আরও একটি জনপ্রিয় এড নেটওয়ার্ক হলো YLLIX. যেখানে আপনি আপনার যে কোনো ধরনের ওয়েবসাইট কে খুব সহজেই মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন।

এবং এখান থেকে আপনি বেশ ভালো পরিমান টাকা ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করে নিতে পারবেন।

সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, আমাদের মধ্যে এমন অনেক ব্লগার আছেন। যারা একেবারে নতুন ব্লগ নিয়ে কাজ করেন। যার ফলে তাদের ব্লগে খুব বেশি পরিমানে ভিজিটর আসে না।

তো সেই সব ব্লগার চাইলে এই নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে তার ব্লগটি কে খুব সহজেই মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবে।

কারন এখানে আপনি ছোট থেকে বড় যে কোনো ধরনের ওয়েবসাইট কে মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন। কারন এখানে তেমন বাধাধরা নিয়ম নেই। যেমটা আপনি অন্যান্য এড নেটওয়ার্ক গুলো তে দেখে থাকেন।

আর সেজন্যই মূলত এই Ad Network কে বেশ ভালো লেগেছে আমার কাছে। 

কিভাবে YLLIX থেকে টাকা ইনকাম করবেন? 

যদি আপনি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন। তাহলে আপনি এই এড নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে যখন আপনি আপনার শখের ব্লগটি কে মনিটাইজ করাবেন।

তখন আপনি তাদের দেওয়া বিজ্ঞাপন প্রচার করে বেশ ভালো পরিমান টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

শুরুর দিকে এই প্লাটফর্ম থেকে সাপ্তাহিক পেমেন্ট দেওয়া হতো। কিন্তুু বর্তমান সময়ে আপনি এখান থেকে যে পরিমান টাকা আয় করবেন।

সেগুলো আপনি ডেইলি পেমেন্ট নিতে পারবেন। অর্থ্যাৎ, আপনি চাইলে এখান থেকে প্রতিদিন উইথড্র করে নিতে পারবেন।

আরও একটি মজার বিষয় হলো, আপনি যখন এই প্লাটফর্মে মাএ ১$ আয় করবেন। তখন আপনি আয় করা সেই টাকা গুলো উওলন করে নিতে পারবেন ৷

যা আমার কাছে ভীষন ভালো লেগেছে। তাই চাইলে আপনিও এই প্লাটফর্মে একজন পাবলিশার হিসেবে কাজ করতে পারবেন। 

০৫| Propeller ads – Make Money From Online 

আজকের আলোচিত সর্বশেষ এড নেটওয়ার্ক এর নাম হলো Propeller ads. যা অন্যান্য প্লাটফর্ম গুলোর মতো সেম পদ্ধতি মেনে দীর্ঘ দিন ধরে কাজ করে আসছে।

আর সে কারনে এই প্লাটফর্ম টি পূর্বের তুলনায় অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তাই আপনিও চাইলে গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে Propeller ads কে ব্যবহার করতে পারবেন।

যদি আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে চান। তাহলে আপনি এখান থেকে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

যেমন, এখানেও আপনি CPC, CPM রেট অনুযায়ী টাকা আয় করতে পারবেন।

তবে এমন অনেক ব্লগার আছেন, যারা বলে থাকে যে এই এড নেটওয়ার্কে নাকি Adult Ads প্রদর্শন করা হয়। কিন্তুু যেহুতু আমি এই ধরনের এড নেটওয়ার্ক গুলো ব্যবহার করিনি।

তাই এই বিষয়ে সঠিক কোনো তথ্য দিতে পারবো না। তবে মজার বিষয় হলো, এই ধরনের এডাল্ট এড থেকে বেশি পরিমান ক্লিক পাওয়া যায়।

যার কারনে আপনার আয় এর পরিমানও অনেক বেশি পরিমানে আসবে। 

কিভাবে Propeller ads থেকে টাকা ইনকাম করবেন? 

আপনি এখান থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন। যেমন, আপনি এখানে তাদের দেওয়া বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে টাকা আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও তাদের দেওয়া রেফারেল প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করেও বাড়তি কিছু টাকা আয় করে নিতে পারবেন। যা আপনার ব্লগ থেকে আয় করার পরিমানকে আরও বাড়িয়ে দিতে সহায়তা করবে।

এখান থেকে আপনি যে পরিমান টাকা আয় করবেন ৷ সেগুলো আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে উওলন করতে পারবেন।

যেমন, PayPal, Skrill এবং ব্যাংক ট্রান্সফার এর মাধ্যমেও উপার্জিত টাকা গুলো উওলন করে নিতে পারবেন ৷

তবে যদি আপনি এই এড নেটওয়ার্ক থেকে টাকা উওলন করতে চান। তাহলে আপনার একাউন্টে কমপক্ষে ৫৫০$ থাকতে হবে। 

All Adsense Alternative Website List

গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে উপরে আমি শুধুমাএ ০৫ টি প্লাটফর্ম নিয়ে আলোচনা করেছি। তবে এগুলো ছাড়াও কিন্তুু আরও অনেক ধরনের এড নেটওয়ার্ক আছে।

যেগুলোর মাধ্যমে আপনি ব্লগ থেকে আয় করে নিতে পারবেন। কেননা, এই প্লাটফর্ম গুলো গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে যথেষ্ট উপযুক্ত এড নেটওয়ার্ক সাইট। যেমনঃ

  • PopAds
  • ADSTERRA
  • Monumetric
  • Revcontent
  • AdThrive
  • Mediavine
  • Bidvertise

তো যদি আপনার এক বা একাধিক ব্লগ ওয়েবসাইট থাকে। এবং কোনো কারনে যদি গুগল এডসেন্স আপনার শখের ওয়েবসাইট কে এপ্রুভাল না দিয়ে রিজেক্ট করে দেয় ৷

তাহলে আপনি উপরোক্ত এড নেটওয়ার্ক গুলোর মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার ব্লগ সাইটকে মনিটাইজ করিয়ে নিতে পারবেন। 

Note For You About Google Adsense Alternative 

দেখুন আজকে যে গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে যেগুলো এড নেটওয়ার্ক নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সেগুলোর জন্য কিন্তুু আমাকে কোনো প্রকার টাকা প্রদান করা হয়নি।

অর্থ্যাৎ, আমিও বিভিন্ন সোর্স থেকে জেনে নেয়ার পর এগুলোকে রিভিউ করেছি।

এখন বর্তমান সময়ে এই সাইট গুলোর যে যে নিয়ম কানুন আছে। সেগুলো আমি স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করেছি। কিন্তুু ভবিষ্যতে যদি এই নেটওয়ার্ক গুলো কোনো প্রকার স্ক্যামিং করে।

আপনি আরো পড়তে পারেন… 

কিংবা নতুন কোনো রুলস যুক্ত করে। তাহলে কিন্তুু আমি কোনোভাবে দায়ী থাকবো না।

তবে এটা আমার বিশ্বাস আছে যে, আপনি যদি আজকের আলোচিত প্লাটফর্ম গুলোতে কাজ করেন। এবং তাদের বিজ্ঞাপন গুলো যদি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে প্রচার করেন।

তাহলে আপনি খুব সহজেই এখান থেকে ভালো পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন৷ যা আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন৷ 

আমাদের শেষ কথা

আজকের আর্টিকেলে গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক গুলো নিয়ে আজকে বিষদভাবে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আজকের আলোচিত বিষয় গুলো বেশ ভালো ভাবে বুঝতে পেরেছেন।

এরপরও যদি আপনি গুগল এডসেন্সের বিকল্প নিয়ে আরও নতুন নতুন তথ্য জানতে চান। তাহলে নিচের দিকে ছোট্ট করে একটা কমেন্ট করে জানাবেন।

বাংলা আইটি ব্লগের সাথে থাকার জন্য অশেষ ধন্যবাদ।

2 thoughts on “গুগল এডসেন্সের বিকল্প এড নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট – Bangla it blog”

  1. অনেক সুন্দর পোস্ট। কিন্ত ভাই আপনার নিজের সাইটে কোনো এড নেই কেন?

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap