ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে ২০২১ – Bangla it blog

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম : আপনি ভিডিও দেখবেন, আর আটোমেটিক আপনার একাউন্টে টাকা যুক্ত হবে। বিষয়টা অনেকের কাছে হাস্যকর মনে হতে পারে।

কেননা, আপনার মনে হতে পারে যে,ভিডিও দেখলে মানুষ কেন আপনাকে টাকা দিবে, তাইতো?

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে
ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে

কিন্তুু অবিশ্বাস করা সেই মানুষ গুলোকে জানিয়ে দিতে চাই যে, বর্তমানে কিন্তুু আপনার মতো এমন অনেক তরুন তরুনী আছে। যারা মূলত ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করে আসছে। 

শুধু তাই নয়, আপনি এই ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করে খুব সহজেই বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারবেন। যা আপনার বা আমার জন্য বিশেষ একটি সুবিধার দিক।

অন্যান্য অনলাইন আয় করার ক্ষেএ গুলোতে কাজ করার পর পেমেন্ট নিতে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়। কিন্তুু আপনি এখানে যে ভিডিও দেখে টাকা আয় করবেন। সেগুলো কোনো প্রকার ঝামেলা ছাড়াই বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

💡PRO TIPS: আজকের আর্টিকেলে বিশ্বের জনপ্রিয় কিছু ভিডিও দেখে টাকা আয় করার এপস এবং ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করবো। যেখানে আপনি কোনো প্রকার পরিশ্রম ছাড়াই ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

হ্যালো বন্ধু, স্বাগতম আপনাকে Bangla it Blog এর ভিডিও দেখে টাকা আয় করার নতুন একটি এপিসোডে।

আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার সমস্ত খুটিনাটি সম্পর্কে বিষদভাবে জানতে পারবেন। 

সত্যি কি ভিডিও দেখে টাকা আয় করা যায়? 

যারা মূলত অনলাইন ইনকাম সেক্টরে একেবারে নতুন। তাদের মনে এই প্রশ্নটি হামেশাই জেগে থাকে। সেটি হলো, সত্যিই কি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করা সম্ভব? –

তো আমার মনে হলো যে, আর্টিকেলের মূল টপিকে যাওয়ার আগে এই বিষয়টিকে একটু ক্লিয়ার করা উচিত।

আপনি আরো দেখুন…

দেখুন, আমরা তো সবাই জানি যে, আজকের দিনে অনলাইন থেকে ইনকাম করার অনেক গুলো উপায় রয়েছে। আর সেই অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় গুলো নিয়ে আমি বেশ কিছু আর্টিকেল পাবলিশ করেছি।

তবে এইসব উপায় গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি উপায় হলো ভিডিও দেখে আয় করা।

হুমম, যদি আপনি কয়েক বছর অতীতে ফিরে যান। তাহলে সেই সময়ে কিন্তুু ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার তেমন কোনো সোর্স ছিলো না।

কিন্তুু বর্তমান সময়ের মানুষ গুলো এখন ইন্টারনেট মুখী হচ্ছে। যার কারনে অফলাইন এর পাশাপাশি অনলাইন সেক্টর গুলোতেও বিপুল পরিমানে কাজের সোর্স তৈরি হচ্ছে।

আপনি চাইলে এমন অনেক মানুষের উদাহরন দিতে পারবো। যারা অন্যান্য মানুষ গুলোর মতো হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করেনা। অথচ তারা তাদের হাতে থাকা মোবাইল অথবা কম্পিউটার দিয়ে শুধুমাএ ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করে আসছে।

তো মানুষ কত টাকা ইনকাম করছে, সেটা জেনে আপনার কোনো লাভ হবে না। বরং আপনি কি পরিমান টাকা অনলাইন থেকে ইনকাম করছেন।

সেটাই কিন্তুু মুখ্য বিষয়। আর আপনি যদি আপনার Online Income এর জার্নিটা এখন থেকেই শুরু করতে চান। তাহলে আজকের পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। 

কেন আপনি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করবেন? 

ভাই অনলাইন থেকে তো অনেক ভাবে আয় করা যায়। কিন্তুু আপনি কেন শুধু ভিডিও দেখে টাকা আয় করবেন? -হয়তবা আপনার মনে এই প্রশ্নটি ঘুরপাক খাচ্ছে।

তো এবার আপনার সেই প্রশ্নের উওরটি দেয়ার চেস্টা করবো ৷

দেখুন, আজকের দিনে অনলাইন থেকে আয় করার এমন অনেক উপায় আছে। কিন্তুু আপনি যদি সেই উপায় গুলো অনুসরন করে অনলাইন থেকে আয় করার চেস্টা করেন।

তাহলে কিন্তুু আপনাকে অনেক কাঠঘর পোড়াতে হবে। অপরদিকে আপনি যদি ভিডিও দেখে আয় করার চেস্টা করেন। তাহলে আপনি বেশ কিছু দিক থেকে সুবিধা ভোগ করবেন। 

০১| দক্ষতার প্রয়োজন পড়বে না

বর্তমান সময়ে যেমন দক্ষতা বা পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্ম সংস্থান এর সুযোগ পাওয়া যায়না। ঠিক তেমনি আপনি যদি অনলাইনে কাজ করে টাকা আয় করতে চান।

তাহলেও কিন্তুু আপনাকে যথেষ্ট দক্ষতা সম্পন্ন হতে হবে। কিন্তু মজার বিষয় হলো ভিডিও দেখে আয় করার জন্য কোনো প্রকার দক্ষতার প্রয়োজন হবে না।

কারন ভিডিও কিভাবে দেখতে হয়, এটা তো আমাদের সবার ই জানা আছে। সেই দিক থেকে বিবেচনা করলে এই কাজটি তুলনামুলক ভাবে অনেক সহজ একটি কাজ। আর এই কাজ গুলো যে কোনো ব্যক্তিই করতে পারবে। 

০২| মোবাইল দিয়েই টাকা আয় করতে পারবেন 

যদি আপনি অনলাইন প্লাটফর্ম এর বড় বড় সেক্টর গুলোতে কাজ করেন। তাহলে কিন্তুু আপনার হাতে একটি কোয়ালিটি সম্পন্ন ল্যাপটপ অথবা কম্পিউটার থাকতে হবে।

কেননা, এই ডিভাইস গুলো না থাকলে আপনি মানসম্মত ভাবে অনলাইনে কোনো কাজ করতে পারবেন না।

কিন্তুু আপনি যদি ভিডিও দেখে ইনকাম করতে চান। তাহলে আপনি এই কাজটি নিজের হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়েই করতে পারবেন।

সেজন্য আপনাকে আর আলাদা ভাবে কোনো ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ কিনে নেয়ার প্রয়োজন হবে না। 

০৩| অনলাইন আয় এর স্বপ্ন পূরন 

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা অনলাইন থেকে আয় করার জন্য প্রানপন চেস্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কিন্তুু দুঃখজনক হলেও সত্য যে তারা নিজের সময় ও শ্রম গুলো ব্যয় করার পরিবর্তে কোনো প্রকার টাকা আয় করতে পারেননি। যার কারনে তাদের অনলাইন থেকে আয় করার স্বপ্নটা স্বপ্নই থেকে যায়।

কিন্তুু আপনার সেই স্বপ্নটি সত্যি হবে যদি আপনি ভিডিও দেখে ডলার ইনকাম করার কাজ গুলো করে থাকেন। কেননা, আপনি এই কাজ গুলো থেকে অনেক কম সময়ের মধ্যে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  

কারা ভিডিও দেখে টাকা আয় করতে পারবে? 

সব কাজ কি সব ধরনের ব্যক্তিদের মাধ্যমে করা সম্ভব হয়? – না, বরং কাজের উপর ভিওি করেই উপযুক্ত ব্যক্তিরাই প্রসংশিত হয়।

ঠিক তেমনি সেই মানুষ গুলো ভিডিও দেখে আয় করতে পারবে। যাদের মধ্যে নির্দিষ্ট কিছু গুনাবলি থাকবে।

তবে জানার বিষয় হলো, video দেখে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনার ভেতরে কি কি গুনাবলি থাকতে হবে। তো চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

০১| ভিডিও দেখার আগ্রহ থাকতে হবে

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছে যারা মূলত ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন। তো সেই মানুষ গুলোর জন্য ভিডিও দেখে আয় করার কাজটি একেবারে উপযুক্ত হবে বলে আমি মনে করি।

কিন্তুু সমস্যা হলো যেসব মানুষ এর ভিডিও দেখার প্রতি তেমন একটা আগ্রহ নেই। সেই মানুষ গুলোর জন্য এই কাজটি বেশ কষ্টকর মনে হবে।

কেননা, যখন আপনি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার চেস্টা করবেন। তখন আপনি বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেখতে হবে। আপনাকে মাঝে মাঝে এমস টপিক এর ভিডিও দেখতে হবে।

যার টপিক গুলো আপনার পছন্দ না। তাই বলে আগ্রহ হারিয়ে ফেললে চলবে না। বরং আপনাকে যথেষ্ট আগ্রহ নিয়ে ভিডিও দেখার কাজগুলি করতে হবে। 

০২| অনলাইন থেকে আয় করার চেস্টা 

চেস্টা ছাড়া কোনো কাজে সফলতা পাওয়া সম্ভব না। সেটা আপনি অনলাইন বলেন কিংবা অফলাইন বলেন। আপনি যেখানেই সফলতা অর্জন করার চেস্টা করুন না কেন।

আপনার ভিতরে অবশ্যই সফলতা পাওয়ার আপ্রান চেস্টা থাকতে হবে। এবং এই চেস্টা একদিন আপনাকে সফলতার চুড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছে দিতে সহায়তা করবে।

ঠিক একইভাবে আপনি যদি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করতে চান। তাহলে আপনার মধ্যে টাকা আয় করার আপ্রান চেস্টা থাকতে হবে।

অন্যথায় আপনি এই কাজেও সফলতা অর্জন করতে পারবেন না। 

০৩| হতাশা গ্রস্থ না হওয়া 

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা মূলত কোনো কাজে সফলতা না আসলে হতাশ হয়ে পড়ে। কিন্তুু সেই মানুষ গুলো যদি হতাশা গ্রস্থ না হয়ে পুনরায় সেই কাজে সফলতা পাওয়ার তাগিদে কাজ করে।

তাহলে সেই ব্যক্তি গুলো সফলতার স্বাদ গ্রহন করতে পারবে।

ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যদি ভিডিও দেখে আয় করার দিকটা ভেবে দেখেন। তাহলে এখানেও কিন্তুু সফলতা আর ব্যর্থটা দুটোর স্বাদই বহন করতে হবে।

কেননা, আপনি যখন ভিডিও দেখে টাকা আয় করার চেস্টা করবেন। তখন আপনাকে বিভিন্ন এপস কিংবা ওয়েবসাইট এ কাজ করতে হবে।

এখন কাজ করার সময় দেখা যাবে কিছু কিছু এপসে পেমেন্ট দিবে না ৷ অর্থ্যাৎ আপনি কাজ তো করবেন ঠিকি। কিন্তুু এর বিনিময়ে কোনো টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

এখন এই কারনে হতাশ হয়ে কাজ করা বন্ধ করলে হবে না। বরং অন্যান্য যে এপস বা ওয়েবসাইট গুলোতে বিশ্বততার সাথে পেমেন্ট করে। সেগুলোতে অনবরত কাজ চালিয়ে যেতে হবে। 

ভিডিও দেখে ইনকাম করার জন্য কি কি লাগবে?

আর্টিকেল এর শুরু থেকে আমরা এমন অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। প্রথমত আমি এটা বিশ্বাস করার চেস্টা করেছি যে, বর্তমান সময়ে সত্যিই অনলাইন থেকে ভিডিও দেখে টাকা আয় করা সম্ভব।

এরপর আপনি যদি ভিডিও দেখে টাকা আয় করতে চান। তাহলে আপনার কি কি গুনাবলি থাকতে হবে। সে বিষয়ে পরিস্কারভাবে আলোচনা করার চেস্টা করেছি।

তো আশা করি উপরোক্ত আলোচনা গুলি আপনি বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। তবে যদি না বুঝে থাকেন। তাহলে উপরোক্ত তথ্য গুলো আরেকবার পড়ার জন্য অনুরোধ করবো।

তো এবার আপনাকে জেনে নিতে হবে যে, একজন মানুষ যদি অনলাইন প্লাটফর্মে ভিডিও দেখে টাকা আয় করতে চায়। তাহলে তার কাছে কি কি ইকুইপমেন্ট থাকতে হবে।

তো চলুন এবার তাহলে সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

১| ভিডিও দেখার মতো একটি ডিভাইস 

যেহুতু আপনি ভিডিও দেখে আয় করবেন। সেহুতু সবার আগে আপনার হাতে এক বা একাধিক ডিভাইস থাকতে হবে। যেমন, আপনার হাতে একটি মোবাইল ফোন কিংবা একটা কম্পিউটার থাকতে হবে।

এবং সেটা অবশ্যই আপনার নিজস্ব ডিভাইস হতে হবে।

এখন হয়তবা অনেকের মনে প্রশ্ন জাগবে যে, মোবাইল দিয়ে কি ভিডিও দেখে আয় করা যাবে কিনা? যদি আপনার মনে এমন প্রশ্ন জেগে থাকে। তাহলে শুনুন…

দেখুন অতীত সময়ের দিনগুলোতে যে মোবাইল ফোন গুলো ছিলো। সেগুলো কিন্তুু এতো বেশি উন্নত ছিলোনা। যতোটা আমরা আজকের দিনে দেখতে পাচ্ছি।

আর বর্তমান সময়ের মোবাইল ফোন গুলো অনেক বেশি উন্নত হওয়ার কারনে আজকের দিনে মোবাইল দিয়েই অনেক ধরনের কাজ করা সম্ভব হচ্ছে।

তাই একটা কথা আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারবে যে, আপনি আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোন দিয়ে খু্ব সহজেই ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

২| একটি ভালো ইন্টারনেট কানেকশন 

যদি আপনি ভিডিও দেখে টাকা আয় করার চিন্তা করেন। তাহলে আপনার হাতে একটি ভালো কোয়ালিটি সম্পন্ন ডিভাইস থাকার পাশাপাশি একটি ভালো ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে।

তবে যদি আপনার ইন্টারনেট কানেকশন টি যথোপযুক্ত না হয়। তাহলে কিন্তুু আপনি এই কাজটি ভালো ভাবে করতে পারবেন না।

কেননা, আপনি হয়তবা জেনে থাকবেন যে ভিডিও প্লে হতে কিন্তুু অনেক ভালো ইন্টারনেট কানেকশন এর প্রয়োজন হয়ে থাকে। আর যদি আপনার কানেকশনটি ভালো না হয়।

তাহলে কিন্তুু আপনি ঠিক মতো ভিডিও প্লে করতে পারবেন না। সেজন্য চেস্টা করবেন আপনি যে ইন্টারনেট কানেকশনটি ব্যবহার করবেন। সেটি যেন অনেক দ্রুত গতি সম্পন্ন হয়।

তো আপাততো এই কয়েকটি ইকুইপমেন্ট থাকলেই যথেষ্ট। এবং এগুলোর মাধ্যমে আপনি খুব সহজে অনলাইন থেকে ভিডিও দেখে ইনকাম করতে পারবেন। 

কোথায় ভিডিও দেখে ইনকাম করবেন?

যাক এবার আমরা আর্টিকেল এর মূল টপিকে ফিরে আসবো। আমরা শুরু থেকে জানলাম যে আজকের দিনে ভিডিও দেখেও টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

এবং একজন মানুষ ভিডিও দেখে টাকা আয় করার জন্য কি কি গুনাবলি সম্পন্ন হতে হবে এবং কি কি ইকুইপমেন্ট এর প্রয়োজন হবে। সে সব গুলো বিষয় নিয়ে উপরে আলোচনা করা হয়েছি।

আপনি আরো পড়ুন…

এবং আমার দীর্ঘবিশ্বাস আপনি উপরে আলোচিত বিষয় গুলি বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

তো এবার আপনাকে জেনে নিতে হবে যে, এমন কোন ধরনের App বা Website আছে। যেখানে আপনি ভিডিও দেখার মতো সহজ কাজ গুলো করার মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন।

চলুন তাহলে এবার সে নিয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

⚠️ALART: দেখুন আজকের আর্টিকেলে আমি যেসব এপস বা ওয়েবসাইট নিয়ে রিভিউ করবো। সেগুলো বর্তমান সময়ে বিশ্বস্ততার সাথে পেমেন্ট করে থাকে। 

কিন্তুু ভবিষ্যতে যদি এই এপস বা ওয়েবসাইট গুলো কোনো প্রকার স্ক্যামিং করে। তাহলে আমি কোনো ভাবেই দায়ী থাকবো না। কেননা, আমি কোনো প্রকার প্রমোশনাল কনটেন্ট এলাউ করি না।

আমি চাই আমার ভিজিটররা যেন অনলাইনে সঠিকভাবে কাজ করার মাধ্যমে যেন টাকা আয় করতে পারে।

তো বর্তমানে আপনি এমন অনেক ধরনের এপস বা ওয়েবসাইট এর নাম দেখে থাকবেন। যেগুলোতে আপনি ভিডিও দেখা টাকা আয় করতে পারবেন।

কিন্তুু সেগুলোর মধ্যে বেশিরভাগ ই হলো স্ক্যামার। অর্থ্যাৎ তারা আপনাকে দিয়ে কাজ করিয়ে নিবে ঠিকি। কিন্তুু আপনি সেই কাজের বিনিময়ে কোনো প্রকার পেমেন্ট পাবেন না।

কিন্তুু আজকে এই আর্টিকেলে আপনি এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ এপস এবং ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে পারবেন। যেখানে আপনি যদি সঠিকভাবে কাজ করেন।

তাহলে এখান থেকে আপনি বেশ ভালো পরিমান টাকা অনলাইন থেকে আয় করে নিতে পারবেন। তো চলুন এবার সেই এপস গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

০১| AppNana (Free Gift Card)

বর্তমান সময়ে ভিডিও দেখে টাকা আয় করার জন্য বেশ অন্যতম একটি এপস হলো, App Nana. যেখানে আপনি ভিডিও দেখার মতো সহজ সহজ কাজ গুলো করতে পারবেন।

এবং এই সহজ কাজটি করে আপনি অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

সচারচর আমরা অনলাইনে যেসব Earning App দেখি। সেগুলোতে মূলত বিভিন্ন ধরনের গেমস খেলতে হয়, এপস ইনস্টল করতে হয়। কিন্তুু Appnana নামক এপসটি তে আপনাকে কোনো ধরনের গেমস খেলতে হবে না।

আপনি এখানে শুধু ভিডিও দেখবেন। আর আপনার একাউন্টে অটোমেটিক টাকা যুক্ত হতে থাকবে।

যারা মূলত অনলাইন সম্পর্কে খুব বেশি দক্ষতা সম্পন্ন নয়। তাদের জন্য এই ধরনের ইনকাম এপস গুলো বেশ উপযুক্ত হবে বলে আমি মনে করি। 

AppNana থেকে আয় করার উপায়ঃ 

যেহুতু এটি একটি নন গেমিং এপস। সেহুতু এখানে আপনার আয় করার মূল প্রক্রিয়া হলো ভিডিও দেখা। এর বাইরে আপনি এখানে কোনো ধরনের কাজ দেখতে পারবেন না। 

AppNana থেকে পেমেন্ট নেয়ার উপায়ঃ 

উপরের আলোচনায় আমি বলেছিলাম যে আপনি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। কিন্তুু দুঃখজনক হলেও সত্য যে এখানে আপনি কোনো ভাবে BKash Payment নিতে পারবেন না।

তবে এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের গিফট কার্ড নিতে পারবেন। যেমনঃ Xbox Gift card, Google play, Amazon ইত্যাদি। 

০২| iRazoo Apps 

অনলাইন প্লাটফর্মে ভিডিও দেখে টাকা আয় করার আরও একটি অন্যতম এপস হলো iRazoo Apps. মূলত এই এপসটি কে অন্যতম বলার কারন হলো, এই এপসটি বিগত কয়েক বছর ধরে বিশ্বস্ততার সাথে পেমেন্ট করে আসছে।

তাই যারা এখনও অনলাইন থেকে এক টাকাও আয় করতে পারেননি। তাদের জন্য iRazoo Apps টি অনেক হেল্পফুল হবে বলে আমি মনে করি। 

iRazoo Apps থেকে আয় করার উপায় 

সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, এই এপসে আপনি ভিডিও দেখে আয় করার পাশাপাশি আরও অনেক উপায়ে আয় করতে পারবেন।

যেমন, এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের Task দেখতে পারবেন। যেগুলো কমপ্লিট করে আপনি বাড়তি কিছু টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

iRazoo Apps থেকে পেমেন্ট নেয়ার উপায়

তবে এখানে আপনি যে কাজ করবেন ৷ সেগুলোর বিনিময়ে সরাসরি টাকা আয় করতে পারবেন না। তাই আপনি এখানে যে কাজগুলো করবেন।

সেগুলো প্রথমে Coin আকারে আপনার একাউন্টে জমা হবে। এরপর সেই কয়েন গুলোকে ডলারে কনভার্ট করতে হবে। এরপর সেই ডলার গুলো প্রথমে PayPal একাউন্টে নিতে হবে।

এরপর পেপাল থেকে আপনি আপনার Bank Account এ ট্রান্সফার করতে পারবেন। 

০৩|  SuccessBux (Earning Apps)

বর্তমান সময়ে অনলাইন ইনকাম প্লাটফর্ম এর জনপ্রিয় একটি এপস হলো  SuccessBux. যেখানে আপনি ভিডিও দেখে টাকা আয় করার পাশাপাশি আরও বিভিন্ন উপায়ে অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন ৷

বলা বাহুল্য যে এখানে আপনি টাকা আয় করার যেসব উপায় দেখতে পারবেন। সেগুলো তুলননমূলক ভাবে অনেক সহজ। অর্থ্যাৎ যে কোনো ব্যক্তি এই ধরনের কাজ গুলো করতে পারবেন।

SuccessBux থেকে আয় করার উপায় 

আপনি চাইলে এই ইনকাম এপস থেকে বিভিন্ন উপায়ে আয় করতে পারবেন। যেমন, প্রথমত এখানে আপনি ভিডিও দেখে আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও ভিডিও দেখার পাশাপাশি আপনি রেফার করে এবং রিভিউ করেও এবং রেডিও শুনে টাকা আয় করতে পারবেন। এছাড়াও এখানে এক ধরনের পেইড মেম্বারশিপ এর সিস্টেম আছে।

যেখানে আপনি জয়েন হতে পারলে আরও বেশি পরিমানে আয় করতে পারবেন। 

SuccessBux থেকে পেমেন্ট নেয়ার উপায়

এই এপস থেকে আপনি যে পরিমান টাকা আয় করবেন। সেগুলো আপনার একাউন্টে ডলার হিসেবে যুক্ত হবে।

এবং যখন আপনার একাউন্টে ১$ যুক্ত হবে। তখন আপনি আপনার PayPal অথবা Payza একাউন্ট এর মাধ্যমে উইথড্র করতে পারবেন।

এরপর এই একাউন্টে থাকা ডলার গুলো আপনি আপনার Bank Account এর মাধ্যমে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন। 

০৪| Dollartune Earning App

ভিডিও দেখে ডলার আয় করার আরও একটি জনপ্রিয় এপস হলো Dollartune. কারন এই এপসটি নতুন হওয়ার একেবারে নতুন।

কিন্তুু বিশ্বস্ততার সাথে কাজ করার কারনে এখানে বর্তমান প্রায় ১ লক্ষ মানুষ কাজ করে আসছে।

আর যেহুতু এখানে ১ লাখের মতো মানুষ কাজ করছে। সেহুতু আপনিও Dollartune নামক এপসটি তে একেবারে নিশ্চিন্তে কাজ করতে পারবেন। 

Dollartune থেকে আয় করার উপায়  

অন্যান্য এপস গুলোতে যেমন আপনি ভিডিও দেখার পাশাপাশি আরও বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আয় করার সুযোগ পাবেন। কিন্তুু আপনি যদি Dollartune এপসে কাজ করেন।

তাহলে আপনাকে শুধুমাএ ভিডিও দেখে ডলার আয় করতে হবে। এর বাইরে আপনি আর কোনো কাজের সুযোগ পাবেন না। 

Dollartune থেকে পেমেন্ট নেয়ার উপায় 

এখানে আপনি যে ভিডিও দেখার কাজটি করবেন। সেই কাজের বিনিময়ে আপনি সরাসরি ডলার আয় করতে পারবেন না।

কারন এখানে আপনাকে আগে পয়েন্ট আর্ন করতে হবে। এবং পরবর্তীতে সেই পয়েন্ট এর বিনিময়ে যে পরিমান টাকা জমা হবে। সেগুলো Paytm এর মাধ্যমে উইথড্র করে নিতে পারবেন। 

০৫| My Points (PTC Website)

অনলাইন থেকে সহজে আয় করার জনপ্রিয় একটি এপ্লিকেশন বেস ওয়েবসাইট হলো My Points. যেখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের কাজ করে প্রচুর পরিমান টাকা অনলাই থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

বলা বাহুল্য যে অন্যান্য ইনকাম করার এপস গুলোর তুলনায় My Points এর অনেক বেশি ইউজার রয়েছে। কেননা, এখানে আপনি যে কাজ করবেন। সেই টাকা গুলো আপনি বিশ্বস্ততার সাথে উইথড্র করতে পারবেন। 

কিভাবে My Points থেকে টাকা আয় করবেন 

আপনি এখানে ভিন্ন ভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করতে পারবেন। যেমন, এই এপসে বিভিন্ন ধরনের সার্ভে করা হয়। আপনি যদি সঠিকভাবে এই সার্ভে গুলো করতে পারেন।

তাহলে এর মাধ্যমে আপনি বেশ ভালো পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন। এছাড়াও এখানে আপনি মেইল রিড, ওয়াচ এড, নিউজ দেখেও প্রচুর পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

My Points থেকে উইথড্র নেয়ার উপায় 

আপনি এই এপ্লিকেশন বেস ওয়েবসাইট থেকে যে পরিমান টাকা আয় করবেন। সেগুলো প্রথমে আপনার একাউন্টে ডলার হিসেবে যুক্ত হবে।

এরপর সেই ডলার গুলো আপনি Paypal, Payza ছাড়াও আরও ভিন্ন মাধ্যমে টাকা উইথড্র করতে পারবেন। 

০৬| Pad2YouTube 

আমরা সবাই ইউটিউব সম্পর্কে জানি। কেননা, YouTube হলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় একটি ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম।

কিন্তুু আমরা যখন এই প্লাটফর্মে ভিডিও দেখি, তখন কিন্তুু আমরা এই কাজের বিনিময়ে কোনো প্রকার টাকা আয় করতে পারবেন না।

কিন্তুু এমন একটি অনলাইন প্লাটফর্ম আছে যেখানে আপনি ইউটিউব এর ভিডিও দেখার মতো সহজ কাজ গুলো করে বেশ ভালো পরিমান টাকা অনলাইন থেকে ইনকাম করে নিতে পারবেন।

এবং সেই প্লাটফর্ম এর নাম হলো Paid2YouTube. 

কিভাবে Paid2YouTube থেকে টাকা আয় করবেন?

এখানে আপনার মূল কাজ হলো অন্যান্য মানুষের ইউটিউব ভিডিও দেখা। তবে শুধু ভিডিও দেখার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং এখানে আপনি ভিডিও দেখার পাশাপাশি ভিডিও তে প্রদর্শিত যে বিজ্ঞাপন গুলো শো করবে।

সেগুলো থেকেও বেশ ভালো পরিমানে ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন। আপনি এখানে একেকটি ভিডিও দেখা, বিজ্ঞাপনে ক্লিক এবং সাবস্ক্রাইব করা থেকে ০.৫$ থেকে শুরু করে ১$ পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন। 

Paid2YouTube থেকে টাকা উইথড্র করার উপায়

চলুন এবার জেনে নেয়া যাক যে কিভাবে আপনি Paid2YouTube তে ভিডিও দেখার কাজ করে যে টাকা গুলো আয় করবেন। সেগুলো আপনি কিভাবে ইনকাম করবেন ৷

তো আপনি এই অনলাইন ইনকাম করার সেক্টর থেকে যে পরিমান টাকা আয় করবেন। সেগুলো আপনি PayPal এর মাধ্যমে উওলন করতে পারবেন। 

০৭| Creations Rewards

আজকে যতগুলো অনলাইন ইনকাম করার এপস বা ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করেছি। তার মধ্যে সবচেয়ে অন্যতম একটি ওয়েবসাইট হলো Creations Rewards.

যেখানে আপনি এমন বিভিন্ন উপায় আছে। যেগুলোর মাধ্যমে আপনি অনেক টাকা অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন। 

কিভাবে Creations Rewards থেকে টাকা আয় করবেন? 

আমি শুরুতেই বলেছি যে আপনি এখান থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করতে পারবেন। যেমনঃ এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের টাস্ক দেখতে পারবেন ৷

যেগুলো করে আপনি মোটা অংকের টাকা আয় করে নিতে পারবেন ৷ এছাড়াও এই ওয়েবসাইটে আপনি বিভিন্ন ধরনের মুভির ট্রেইলার দেখে এবং অফার পূরন করার মাধ্যমেও টাকা আয় করে নিতে পারবেন। 

Creations Rewards থেকে টাকা উইথড্র করার উপায় 

অন্যান্য ওয়েবসাইট বা এপসের মতো এখানে ভিন্ন উপায়ে আয় করা গেলেও। এই সাইটের পেমেন্ট মেথডে বেশ ভিন্নতা লক্ষ্য করতে পারবেন।

এখানে আপনি যে পরিমান টাকা আয় করবেন। সেগুলো আপনি গিফট কার্ডের মাধ্যমে রিডিম করতে পারবেন। 

ভিডিও দেখে কত টাকা ইনকাম করা যাবে?

আর্টিকেল এর শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আপনি ভিডিও দেখে টাকা আয় করার সমস্ত খুটিনাটি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

কেননা, আমি ভিডিও দেখে আয় করা রিলেটেড যে সমস্ত বিষয় আছে। তার সবগুলো নিয়ে বিষদভাবে আলোচনা করার চেস্টা করেছি।

তো এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, আপনি যদি ভিডিও দেখে আয় করেন। তাহলে মোট কত টাকা আয় করে নিতে পারবেন? চলুন এবার সে নিয়ে একটা ক্লিয়ার ধারনা নেয়া যাক।

দেখুন আপনি যদি কোটি কোটি টাকা আয় করার স্বপ্ন দেখে এই ধরনের কাজ গুলো করতে চান। তাহলে বলবো, ভাই আপনার জন্য এসব উপায় একেবারে উপযুক্ত নয়।

কেননা, এই কাজ গুলো তে আপনি কোটি টাকা কিংবা লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

এখন হয়তবা আপনি ভাবছেন যে, ভাই এতক্ষণ ধরে আপনার আর্টিকেলটি পড়লাম। আর এখন আপনি বলছেন যে টাকা ইনকাম হবে না। এটা কেমন কথা।

ভাই দেখুন, আমি এটা বলছি না যে আপনি একেবারে ইনকাম করতে পারবেন না। হুমমম আপনি অনলাইন ইনকাম এর এই পদ্ধতি অনুসরন করে যে পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন।

আপনার জন্য আরো লেখা…

সেগুলো দিয়ে আপনার সংসার না চলুক। কিন্তুু এই টাকা দিয়ে অনায়াসেই আপনার পকেট খরচটা চলে যাবে।

আর আমার মনে হয় বাড়িতে অযথা বেকার বসে না থেকে এভাবে টুকটাক ইনকাম করাই হবে বুদ্ধিমান এর কাজ।

এতে করে আপনার পকেট খরচের জন্য আর বাড়িতে বাবা মায়ের কাছে চাপটা একটু হলেও কমে যাবে। 

ভিডিও দেখে টাকা আয় পেমেন্ট বিকাশ

আর্টিকেল এর এই পর্যন্ত আসার পর আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে। আমি শুরুতে বলেছিলাম আপনি ভিডিও দেখে যে টাকা আয় করবেন। সেগুলো আপনি BKash Payment নিতে পারবেন।

কিন্তুু আজকে যে গুলো ইনকাম করার এপস বা ওয়েবসাইট নিয়ে কথা বলেছি। সেগুলোতে তো বিকাশ পেমেন্টের কোনো অপশন নেই। তাহলে কেন আমি আর্টিকেলের শুরুতে এই কথাটি বললাম। তাহলে শুনুন…….

ভাই যে এপস গুলো রিয়েল পেমেন্ট করে আমি আজকে সেই এপস গুলোকে রিভিউ করার চেস্টা করেছি। হুমমম বর্তমানে বাংলাদেশেও এমন অনেক ইনকাম করার এপস রয়েছে।

কিন্তুু এগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই স্ক্যামার। অর্থ্যাৎ তারা আপনাকে দিয়ে কাজ করিয়ে নিবে। কিন্তুু যখন আপনি উইথড্র করবেন। তখন আপনাকে বিভিন্ন টালবাহানা দেখিয়ে আর টাকা দিবে না।

আর আমি চাইনা যে আপনি এই কাজগুলো করে সময় ও শ্রম ব্যয় করে সেগুলো বৃথা যাক। কারন আমি চাই আপনি অনলাইনে থাকা এই সব ছোটো খাটো কাজগুলো করে অন্ততপক্ষে অনলাইন ইনকাম করার স্বাদটুকু গ্রহন করেন।

আমার এতেই প্রাপ্তি। 

আপনি কি কি শিখলেন? 

আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ টপিক সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যেমনঃ

  • ভিডিও দেখে প্রতিদিন ৫০০ ১০০০ টাকা আয় করার কিছু উপায় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।
  • মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট কিভাবে নিবেন। সে সম্পর্কে বিষদভাবে জেনেছেন। 
  • ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে ২০২১ সম্পর্কে জেনেছেন।
  • ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম
  • ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম real পেমেন্ট বিকাশে কিভাবে নেয়া যায়। সে নিয়ে বিস্তারিত জেনেছেন।
  • ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার apps গুলোর সাথে পরিচিত হতে পেরেছেন।
  • ফ্রি টাকা ইনকাম করার কিছু উপায় সম্পর্কে জেনেছেন।
  • বিকাশ থেকে টাকা ইনকাম নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে।
  • এবং সর্বশেষে এড দেখে টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট ২০২১ সম্পর্কে জানতে পেরেছন। 

তবে যদি আপনি আর্টিকেলটি কে তেমন গুরুত্ব না দিয়ে স্কিপ করে থাকেন। তাহলে আপনাকে শুধু একটা কথাই বলবো। ভাই আপনি অনেক কিছুই মিস করে ফেলছেন।

কেননা এই আর্টিকেল থেকে আপনার অনলাইন ইনকাম করার স্বপ্ন পূরনে এক ধাপ এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে। 

আমাদের শেষকথা 

আজকের এই আর্টিকেলে আমি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার যে সমস্ত খুটিনাটি বিষয় আছে। তার সবগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

আর আমার বিশ্বাস আপনি এই ভিডিও দেখে টাকা আয় করার সমস্ত উপায় গুলো সম্পর্কে বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন।

এরপরও যদি আপনার কোনো প্রশ্ন থাকে। তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। Bangla it blog এর সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap