রেফার কিভাবে করে? রেফার করে ইনকাম ২০২১ 

রেফার করে ইনকাম : ভাই, কিভাবে বাংলাদেশি app দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়? রেফার কিভাবে করে? বিকাশ দিয়ে টাকা আয় করা সম্ভব?

এই প্রশ্ন গুলো কোনো না কোনো সময় আপনার মনেও জেগে থাকবে।

রেফার কিভাবে করে? রেফার করে ইনকাম ২০২১ 
রেফার কিভাবে করে? রেফার করে ইনকাম ২০২১

কেননা, বর্তমান সময়ে আপনার মতো অনেক মানুষ প্রচুর পরিমান টাকা অনলাইন থেকে আয় করে আসছে। 

আপনি কি জানেন, আজকের দিনে নিজের মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়? অবাক করার মতো বিষয় হলো, বর্তমানে অনলাইন ইনকাম করা এতোটাই সহজ হয়েছে।

যে আপনি এখন গান শুনে টাকা আয় করতে পারবেন।  আর রেফার করে ইনকাম তো আছেই।

কি ভাই কথা গুলো বিশ্বাস হচ্ছে না? হয়তবা আপনি ভাবছেন যে, এটা কি করে সম্ভব, তাইতো?

দেখুন, এখনকার দিনে এমন অনেক ধরনের Earning Apps ডেভলপ করা হয়েছে। যেগুলো তে আপনি অনেক সহজ সহজ কাজ করে অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন। 

শুধু তাই নয়, Android Earning App এর পাশাপাশি এমন অনেক Earning Website আছে।

যেগুলো থেকে আপনি অনেক বেশি টাকা অনলাইন ইনকাম করে নিতে পারবেন। 

রেফার করে ডলার ইনকাম করার উপায়

বর্তমান সময়ে শতশত অনলাইন ইনকাম করার উপায় আছে। তবে তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হলো রেফার করে ইনকাম করা।

আপনি যদি সঠিকভাবে রেফার করতে পারেন। তাহলে কিন্তুু আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে হিউজ পরিমান টাকা Online Income করতে পারবেন।

কিন্তুু সমস্যা হলো, আমরা তো সবাই জানি যে রেফার করে ইনকাম করা যায়। কিন্তুু এই রেফার আসলে কি। তা সম্পর্কে আমরা সঠিকভাবে জানি না।

আপনার জন্য আরো লেখা…

এখন একটা বিষয় চিন্তা করে দেখুন। আপনি যদি রেফার কি সেটাই না জানেন। তাহলে কি আপনি রেফার করে আয় করতে পারবেন?

না! তাই সবার আগে আপনাকে জানতে হবে যে, রেফার কি এবং রেফার কিভাবে করে? – তো চলুন এবার সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক। 

রেফার মানে কি? | রেফার কিভাবে করে? 

Quick Definition: যখন আপনি কোনো অনলাইন প্লাটফর্ম নিজেকে যুক্ত করবেন।

এবং আপনি স্বয়ং নিজে যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি আপনার পরিচিত মানুষ কে সেই প্লাটফর্মে যুক্ত করার নাম হলো রেফার।

ধুর ভাই! এগুলো কি কইলেন? কিছুই তো বুঝলাম না। ওকে না বুঝলে নিচের Easy Tips টি পড়ে নিন ৷

💡Easy Tips: মনে করুন, আপনি একটা টিকটক এপ ইনস্টল করলেন। এবার আপনি আপনার ছোটো ভাইকে বললেন যে, Tiktok Apps  থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।

তাই তাকেও আপনি টিকটক একাউন্ট খুলে দিলেন ।

তবে একাউন্ট খুলে দিলেন আপনার একাউন্টে থাকা একটি কোড বা লিঙ্ক থেকে। মূলত একেই বলা হয় রেফার।

অর্থ্যাৎ এখানে আপনার রেফারেন্সে টিকটক আরও একটা নতুন user পেলো। তো এই রেফারেন্স করার পদ্ধতি কে বলা হয়, রেফার। 

কেন রেফার করবেন?

আমরা সবাই একটু হলেও স্বার্থপর। যেখানে স্বার্থ নেই সেখানে আমরা কেউ থাকতে চাইনা। এখন রেফার করায় যদি কোনো স্বার্থ না থাকে।

তাহলে কিন্তুু কোনো মানুষ রেফার করতে চাইবে না। এবার এই স্বার্থের বিষয়টা নিয়ে একটু পরিস্কার ধারনা দেয়ার চেস্টা করবো।

💥আপনি কেন রেফার করবেনঃ রেফার কি? – তা জানার পর আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, কেন আপনি রেফার করার কাজ করবেন?

-সহজ উওর টা হবে, আপনি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য রেফার করবেন?

ভাই, রেফার হলো এমন একটি অনলাইন ইনকাম করার মাধ্যম।

যেখানে আপনি অনেক কম পরিশ্রম করার বিনিময়ে অনেক টাকা অনলাইন আয় করতে পারবেন।

এখানে আপনাকে শুধু একটি কাজ করতে হবে। সেটি হলো, বিভিন্ন Apps /Website এর দল ভারী করা।

আপনি তাদের কে যতো বেশি একাউন্ট তৈরি করে দিতে পারবেন। আপনার রেফার করে ইনকাম করার পরিমান ঠিক ততোই বেশি হবে। 

রেফার কোড কি? | Refer কোড কি?

💡Ask You: আচ্ছা ভাই, আপনি আমাকে একটি প্রশ্নের উওর দিন তো। আপনি রেফার করছেন কিনা। সেটা Tiktok কিভাবে বুঝতে পারে?

আর টিকটক কেন আপনাকে রেফার করার বিনিময়ে টাকা প্রদান করবে? – উওরটি কি আপনার জানা আছে। থাক আমিই বলছি…. 

💥রেফার কোড কিঃ মনে করুন আপনি একটা নতুন Tiktok Account Create করলেন। এখন কিন্তুু আপনি টিকটক এপসের একজন ইউজারে পরিনত হয়ে গেলেন।

তো টিকটক এপস থেকে আপনাকে একটি ID Code দেওয়া হবে। কিছুটা এমন “686568” অথবা “FGR5695”.

এবার আপনি যখন আপনার নতুন পরিচিত কারো ফোনে আপনার আইডি কোডটি ব্যবহার করবেন।

তখন কিন্তুু Tiktok কোম্পানি এটা ডিটেক্ট করতে পারবে যে, আপনার রেফারেন্সে আরও নতুন একটা Tiktok Account তৈরি করা হয়েছে। 

এখন নতুন একাউন্ট তৈরি করার সময় আপনি যে আপনার ID Code টি ব্যবহার করলেন।

মূলত সেই কোড কে বলা হয় রেফার কোড। যে কোডের মাধ্যমে আপনি প্রমান করতে পারবেন যে, আপনার রেফারেন্সে নতুন একটি একাউন্ট তৈরি করা হয়েছে।

💥Quick Tips: উপরে শুধুমাত্র টিকটক কে উদাহরন হিসেবে বুঝানো হয়েছে।

তবে টিকটক বাদে অন্যান্য Earning App গুলোতেও আপনি একই পদ্ধতি ব্যবহার করে রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন। 

রেফার কিভাবে করে?

💡PRO TIPS: মনে রাখবেন প্রতিটা এপস এর রেফার করার পদ্ধতি গুলো এক নয়। কিন্তুু আজকে আমি এমন একটি পদ্ধতি নিয়ে কথা বলবো ৷

যেটি অনুসরন করতে পারলে আপনি যে কোনো ধরনের অনলাইন ইনকাম অ্যাপস থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

যদি আপনি রেফার করে টাকা আয় করতে চান।

তাহলে সবার আগে আপনাকে নিচের স্টেপ গুলো সঠিক ভাবে অনুসরন করতে হবে।

#Step-1: মনে রাখবেন, আপনি যে এপস থেকে রেফার করে ইনকাম করতে চান। সেই এপসে রেফার সিস্টেম আছে কিনা।

#Step-2: যদি থাকে তাহলে আপনার প্রথমে সেই এপস গুলোকে ফোনে Install করতে হবে।

তারপর সেই Apps এ আপনাকে নতুন একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

#Step-3: যখন আপনার নতুন একাউন্ট তৈরি করা সম্পন্ন হবে। তখন আপনাকে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য গুলো দিয়ে ভেরিভাই করতে হবে।

যেমন, Gmail, Phone Number ইত্যাদি।

#Step-4: সবশেষে যখন আপনার একাউন্ট ভেরিফেকশন করার কাজ সম্পন্ন হবে। তারপর আপনাকে একটি রেফার কোড অথবা আইডি রেফার লিংক দেওয়া হবে ৷

মনে রাখবেন এটিই আপনার রেফার করার লিংক। 

#Step-5: এরপর আপনাকে দেওয়া এই লিংক কিংবা আপনার রেফার কোড গুলোর মাধ্যমে কেউ যদি নতুন একটি Account তৈরি করে।

তাহলে কিন্তুু আপনি সেখান থেকে বেশ ভালো পরিমান টাকা Online Income করে নিতে পারবেন।

Quick Tips: ফেসবুকে গেলে আপনি প্রায় দেখতে পান যে আপনার Message বক্সে অনেকেই বিভিন্ন এপসের লিংক শেয়ার করে। যেমন, Snack video, Tiktok, Bkash এপস ইত্যাদি।

মূলত আপনাকে মেসেজে দেওয়া এই লিংক গুলোকে বলা হয় রেফার লিংক। 

রেফার করে ইনকাম কি হালাল?

💥রেফার করা হালাল নাকি হারামঃ মনে করুন আপনার হাতে একটি কীটনাশক এর ব্যাগ দেওয়া হলো।

তারপর আপনাকে বলা হলো যে, ঐ কীটনাশক গুলো ধান ক্ষেতের জন্য ব্যবহার করতে।

এখন আপনি যদি বাড়িতে গিয়ে সেই কীটনাশক গুলো নিজেই খেয়ে ফেলেন। তাহলে পরবর্তীতে হিতে বিপরীত হয়ে যাবে, তাইনা?

ঠিক একই দিক থেকে চিন্তা করে দেখুন। কেননা, কোনটা হালাল আর কোনটা হারাম সেটা কিন্তুু আপনার নিজের উপরেই নির্ভর করবে।

আপনি যদি নিজেই কীটনাশক খেয়ে ফেলেন। তাহলে কিন্তুু আপনার মৃত্যু ঘটবে। আর জমিতে ব্যবহার করলে আপনার ফসল আরও ভালো হবে।

মনে রাখবেন, মুদ্রার যেমন এপিট ওপিট আছে। ঠিক তেমনি অনলাইন প্লাটফর্ম গুলোরও কিন্তুু দুটো করে দিক আছে।

কিন্তুু আপনি আসলে কোন দিকটা বেঁচে নিবেন ৷ তা আপনার নিজের উপরেই ডিপেন্ড করবে।

💥তাহলে কি রেফার করা হারাম কাজঃ ভাই শুনেন, রেফার করতে পারলে টাকা দেয়। এমন অনেক ধরনের Android Earning Apps আছে। সেগুলোর মধ্যে কিছু কিছু এপস হালাল যুক্ত।

আর কিছু কিছু Make Money Apps আছে। যেগুলোতে হারাম পন্য ছাড়া কিছুই দেখতে পারবেন না।

আপনি আরো দেখুন…

এখন আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে, আপনি কি হালাল ভাবে রেফার করে ইনকাম করতে চান?

নাকি হারামের সাথে যুক্ত হয়ে ধর্মবিরোধী পথ অনুসরন করার মাধ্যমে রেফার করে আয় করতে চান। 

রেফার করে ইনকাম করার উপায় গুলো কি কি? 

আজকের দিনে রেফার করে ইনকাম করার অনেক গুলো উপায় রয়েছে। যে উপায় গুলো অনুসরন করে আপনি প্রচুর পরিমান টাকা রেফার করে আয় করতে পারবেন।

তবে রেফার করে টাকা ইনকাম করার যত গুলো উপায় আছে। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় দুটি উপায় রয়েছে। যেমনঃ 

  1. অ্যাপ থেকে রেফার 
  2. ওয়েবসাইট থেকে রেফার

এখন আপনি এই দুই প্রকার উপায় সম্পর্কে জানলেন। আর অনলাইন থেকে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করলেন।

বিষয়টা কিন্তুু এমন নয়, বরং সবার আগে আপনাকে এই দুটো উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে।

আর যখন আপনি বিস্তারিত ভাবে জানতে পারবেন। তখন আপনার রেফার করে টাকা আয় করার পথটাও অনেক প্রশত্ব হয়ে যাবে।

অ্যাপ থেকে রেফার কাকে বলে? 

যখন আপনি কোনো Android Apps এর মাধ্যমে রেফার করে ইনকাম করার চেস্টা করবেন। তখন তাকে বলা হবে, অ্যাপ থেকে রেফার করা।

মূলত আপনি যখন এই পদ্ধতি অনুসরন করে অনলাইন ইনকাম করার চেস্টা করবেন। তখন বেশিরভাগ সময় ই আপনাকে App Theke Raffer করতে হবে।

কিন্তুু সমস্যা হলো যে, আজকের দিনে অ্যাপ থেকে রেফার করে টাকা আয় করা যায়। কিন্তুু কোন অ্যাপস এ রেফার করে ইনকাম করবেন।

সেটা তো আমরা সবাই জানি না ৷ তাহলে সবার আগে আপনাকে সেই এপস গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে।

ওয়েট! ওয়েট!! ওয়েট!!! আমরা সেই এপস গুলো সম্পর্কে অবশ্যই বিস্তারিত জানবো।

তবে এপস থেকে রেফার নিয়ে আলোচনার পর কিভাবে আপনি ওয়েবসাইটে রেফার করে ইনকাম করবেন ৷ সে নিয়েও একটু ক্লিয়ার ধারনা নেয়া যাক। 

ওয়েবসাইট থেকে রেফার কাকে বলে? 

উপরে আপনি Apps Raffer Income সম্পর্কে জানতে পারলেন। তো এবার আপনাকে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানতে হবে।

সেটি হলো, কিভাবে ওয়েবসাইট রেফার করে টাকা আয় করা যায়।

দেখুন, যখন আপনি এপস এর মতো ওয়েবসাইটে রেফার করার কাজ গুলো করবেন। তখন তাকে বলা হবে, ওয়েবসাইট থেকে রেফার ৷

মূলত এপস এর মতো ওয়েবসাইট গুলোতেও রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া রয়েছে। যেখানে আপনি তাদের কে নতুন ইউজার দিতে পারলে। তারা আপনাকে কিছু পরিমান টাকা প্রদান করবে। 

রেফার করে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

আজকের দিনে আপনি এমন অনেক ধরনের এপস দেখতে পারবেন। যে এপস গুলো দিয়ে আপনি প্রায় সময়ই রেফার করে টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

আর আপনার মতো এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত টাকা আয় করার জন্য এই রেফার পদ্ধতিকে বেছে নিয়েছে।

💡Quick Note: আজকে আমি আপনাকে যে এপস গুলোর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো। সেগুলো বর্তমান সময়ে রেফার করার বিনিময়ে টাকা দিচ্ছে।

তবে ভবিষ্যতে যদি এই এপস গুলো তাদের নিয়মে কোনো প্রকার পরিবর্তন নিয়ে আসে৷ তাহলে সেজন্য আমি কোনো ভাবে দায়ী থাকবো না।

তো এবার আমি আপনাকে এমন কিছু এপস এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো।

যেগুলোতে আপনি সঠিক ভাবে রেফার করার বিনিময়ে অনেক টাকা আয় করে নিতে পারবেন। যেমনঃ

০১| বিকাশ অ্যাপ থেকে রেফার করে আয়

আমরা সবাই জানি যে বর্তমান সময়ে টাকা লেনদেন করার সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হলো Bkash.

দি আপনি বিকাশ এর ইউজার হিসেব করে দেখেন। তাহলে আপনি রিতীমতো অবাক হয়ে যাবেন।

আর এতো বেশি ইউজার থাকার পরেও বিকাশের তৃষ্ণা যেন কমতেই চায় না।

আর সে কারনেই মূলত Bkash Raffer সিস্টেম চালু করেছে। এখন আপনি যদি বিকাশ কে নতুন কোনো ইউজার দিতে পারেন ৷

তাহলে কিন্তুু আপনি ১০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন।

তবে Bkash Raffer থেকে আপনি সারা বছর এক রকম ইনকাম করতে পারবেন। এমন ধারনা থাকলে বলবো, আপনার ধারনা তে ভুল আছে।

কেননা, বিকাশ কিন্তুু একেক সময় একেক রকম রেফার বোনাস দেয়। তাই আপনার সময়ে বিকাশ রেফার কি পরিমান বোনাস দিচ্ছে। তা অবশ্যই চেক করে নিবেন।

আর আপনাকে একটা কথা বলছি। আপনি বাড়িতে অযথা বসে না থেকে ত্রই apps দিয়ে 300 টাকা ইনকাম করুন কাজ করা খুব সোজা

তাই আপনি এখন থেকেই বিকাশে রেফার করে আয় করা শুরু করে দিন। 

০২| নগদ অ্যাপ থেকে রেফার করে আয়

আমরা সবাই জানি যে, BKash এর সাথে সমান তালে প্রযোগীতা করে যাচ্ছে নগদ। আর এই দুষ্টু প্রতিযোগীতার মাত্রা ঠিক তখনি বেড়ে গেছে।

যখন থেকে Nogod এর ইউজার এর সংখ্যা ক্রমাগত বাড়তে শুরু করেছে।

আর নগদের ব্যবহারকারী যেন আরও বেড়ে যায়। সেই সুবাদে নগদও বিকাশর মতো রেফার করে ইনকাম করার সুযোগ করে দিয়েছে।

যেখানে আপনি যদি Nogod কে নতুন কোনো ইউজার দিতে পারেন।

তাহলে আপনার রেফারেন্স করার বিনিময়ে ২০০-৩০০ টাকা নগদ রেফার করে আয় করে নিতে পারবেন। 

০৩| উপায় অ্যাপ থেকে রেফার করে আয়

শুরুর দিকে তেমন একটা জনপ্রিয়তা না থাকলেও৷ অন্যদের সাথে সমান প্রতিযোগীতা করে আসছে Upay App.

কেননা, তারাও এই লেনদেন করার কাজে নিজেদের কোম্পানি কে অন্যদের নিকট জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে মরিয়া হয়ে উঠছে।

আর সেই লক্ষ্যে পূরন এর উদ্দেশ্যে উপায় এপস রেফার করার পদ্ধতি চালু করেছে।

এখন আপনি যদি নতুন এই এপসকে আপনার পরিচিত কাউকে রেজিষ্ট্রেশন করিয়ে দিতে পারেন ৷

তাহলেও কিন্তুু আপনার ১০০-৪০০ টাকা উপায় অ্যাপ রেফার বোনাস নিতে পারবেন।

আমার মতে আপনার বাড়িতে অযথা বসে না থেকে। উপায় এপসে রেফার করে ইনকাম করা শুরু করে দিতে পারেন৷ 

০৪| টিকটক অ্যাপ রেফার করে আয়

শর্ট ভিডিও প্লাটফর্ম হিসেবে টিকটক যে সবার সেরা। এটা আমরা কেউ অমান্য করতে পারবো না। কেননা, আজকের দিনে Tiktok যতো বেশি ইউজার রয়েছে।

তা আপনি অন্য কোনো শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম এ দেখতে পারবেন না।

কিন্তুু কথায় আছে, যার যতো বেশি আছে। সে আরও বেশি চায়।

আর এই প্রবাদের সত্যতা আপনি তখনি দেখতে পারবেন ৷ যখন আপনি টিকটক এর রেফার প্রোগ্রাম দেখতে পারবেন।

কেননা, Tiktok হলো এমন একটি এপস। যেখানে আপনি প্রতি ১ জন রেফার করার বিনিময়ে ২০০-৩০০ টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

সত্যি বলতে আজকের দিনে টিকটক রেফার থেকে যতো বেশি টাকা ইনকাম করা যায়। তা মনে হয় অন্যান্য এপস থেকে আয় করা অসম্ভব।

তাই চাইলে আপনিও Tiktok রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন হাজার হাজার টাকা।

💡PRO TIPS: উপরে শুধুমাএ ৪ টি অ্যাপস এর কথা বলা হয়েছে। তবে এগুলো ছাড়াও কিন্তুু আরও অনেক ধরনের এপস পাওয়া সম্ভব।

যেগুলোর মাধ্যমে রেফার করে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। কিন্তুু সব গুলো নিয়ে যদি বিস্তারিত আলোচনা করি। তাহলে আর্টিকেলটা অনেক বেশি বড় হয়ে যাবে।

তো রেফার করে আয় করার এমন অনেক গুলো Apps রয়েছে। যেমনঃ

  • Snack Video Apps
  • Acorns Apps
  • Mylo Apps
  • Betterment Apps

আশা করি আপনি যদি উপরের আলোচনায় আলোচিত এপস গুলোতে সঠিকভাবে রেফার করতে পারেন।

তাহলে আপনি সেখান থেকে অনেক বেশি পরিমানে টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

কোন সাইটে রেফার করলে ডলার পাওয়া যাবে

ডলার এর প্রতি আগ্রহ আমাদের কমবেশি সবার মধ্যেই আছে। আপনাকে যদি বলা হয় যে, অনলাইনে আপনি একটা কাজ করলে ১০০০/- পাবেন ৷

তাহলে কিন্তুু আপনার আগ্রহটা ঠিক ততোটা কাজ করবে না। যতোটা আপনাকে ডলার বললে দেখা যাবে।

কেননা, আপনাকে যদি বলা হয় যে, একটি কাজ করলে আপনি ১০$ পাবেন। তাহলে কিন্তুু আপনার আগ্রহ কয়েকগুন বেড়ে যাবে ৷

তো আপনার অনলাইন থেকে ডলার ($) আয় করার স্বপ্নটা এক নিমিষেই পূরন হয়ে যাবে। আপনি যদি নিচে উল্লেখিত ওয়েবসাইট গুলোতে রেফার করে থাকেন ৷

কেননা, নিচের উল্লেখ করা সাইট গুলো থেকে আপনার বা আমার মতো অনেক মানুষ প্রচুর পরিমান ডলার অনলাইন থেকে আয় করে আসছে।

ও হ্যাঁ আরেকটা কথা। নিচে আমি আপনার কাছে যে ওয়েবসাইট গুলো নিয়ে আলোচনা করবো ৷

সেগুলো থেকে আপনি ডলার ইনকাম করার পাশাপাশি বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারবেন।

তবে ওয়েবসাইট ভেদে কিছুটা ভিন্নতা লক্ষ্যে করতে পারবেন।

তো চলুন এবার তাহলে কোন সাইটে রেফার করলে ডলার পাওয়া যাবে। সে সম্পর্কে একেবারে বিস্তারিত ভাবে জেনে নেয়া যাক। 

০১| Amazon Prime থেকে রেফার করে ইনকাম

বর্তমান বিশ্বের অনলাইন কেনাকাটা করার সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি মার্কেটপ্লেস এর নাম হলো Amazon.

আর আপনি উপরে যে Prime শব্দটি দেখতে পাচ্ছেন। সে মূলত এমাজন এর অংশ, যাকে বলা হয় Amazon Prime.

মূলত আপনি এখান থেকেও বিপুল পরিমান টাকা রেফার করে ইনকাম করে নিতে পারবেন।

মজার বিষয় হলো, আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন ৷ যারা অনলাইন থেকে ডলার আয় করার স্বপ্ন দেখে থাকেন।

তো আপনি যদি Amazon Prime এ সঠিকভাবে রেফার করার কাজটি করতে পারেন ৷ তাহলে কিন্তুু আপনার সেই ($) আয় করার স্বপ্নটা খুব সহজেই পূরন হয়ে যাবে। 

০২| Vindale Research থেকে রেফার করে টাকা আয়

Vindale Research হলো সার্ভে রিলেটেড জনপ্রিয় একটা ওয়েবসাইট। যেখানে আপনি Survey Job করার মাধ্যমে ব্যাপক পরিমান টাকা অনলাইন ইনকাম করে নিতে পারবেন।

আর এই সাইটে কিভাবে টাকা আয় করা যায় ৷ সে নিয়ে আমি অন্য একটি আর্টিকেলে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করেছি।

তো সার্ভে জব করার পাশাপাশি এই Apps এ আপনি রেফার করেও টাকা আয় করতে পারবেন।

এটি মূলত বিদেশি এপস হওয়ার কারনে আপনি অনেক মোটা অংকের টাকা রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন।

আর এখান থেকে আপনার উপার্জিত টাকা গুলো ডলার হিসেবেও Withdraw করে নিতে পারবেন৷ 

০৩| MyPoints থেকে রেফার করে ইনকাম

সার্ভে জগতের আরও একটি জনপ্রিয় এপস হলো MyPoints. এখানেও আপনি সার্ভে রিলেটেড কাজ গুলো করে অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন।

কিন্তুু সার্ভে করার পাশাপাশি আপনি এই এপসে রেফার করেও টাকা আয় করতে পারবেন। যা সার্ভে করার তুলনায় অনেক গুন বেশি।

মূলত আপনি এই এপসে যতো বেশি ইউজার কে দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করিয়ে নিতে পারবেন। MyPoints এ আপনার টাকা আয় করার পরিমান ঠিক ততো গুন বেশি বৃদ্ধি পাবে।

তাই আপনার অনলাইন থেকে আয় করার জন্য অবশ্যই MyPoints এ রেফার করে ইনকাম করা উচিত। 

রেফার করে ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট 

উপরে আমি শুধুমাএ কয়েকটি ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করছি। তবে এর ফলে আবার ভাইবেন না যে, এগুলো ছাড়া আর রেফার করে আয় করার ওয়েবসাইট নাই ৷

যদি আপনি এমনটা ভেবে থাকেন। তাহলে বলবো আপনার ধারনা সম্পূর্ণ ভুল। কেননা, এগুলো ছাড়াও কিন্তুু আরও অনেক ধরনের ওয়েব সাইট আছে।

যেখানে আপনি রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন।

তো রেফার করে ইনকাম করা যায়। এমন কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট এর নাম হলোঃ

  1. BeFrugal
  2. TopCashback
  3. Ibotta
  4. Amazon Prime Student
  5. Rakuten
  6. Living Social

এখন উপরোক্ত ওয়েবসাইট গুলো থেকে যে রেফার করে ইনকাম করা যাবে।

এ বিষয়ে আমি শতভাগ নিশ্চিত। এখন আপনি আসলে এসব রেফার করে আয় করার ওয়েবসাইট গুলো থেকে মোট কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

সেটা কিন্তুু সম্পূর্ন আপনার উপর ই নির্ভর করবে। 

ডোমেইন হোস্টিং ওয়েবসাইট থেকে রেফার করে ইনকাম

যে বিষয়টি আর্টিকেল এর শুরুতেই আলোচনা করা উচিত ছিলো ৷ তা আমি সবার শেষে আলোচনা করছি। কারন শেষের এই টিপস টি শুধুমাএ তারাই পাবে ৷

যারা কষ্ট করে এই পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বে।

তো যেহুতু আপনি এই আর্টিকেল এর শেষ পর্যন্ত এসে পড়েছেন৷ সেহুতু অবশ্যই আপনাকে গোপন টিপস সম্পর্কে বলবো।

দেখুন রেফার করে আয় করা যায়। এমন Apps বা Website এর কোনো অভাব নেই। কিন্তুু সব জায়গা থেকে আপনি তেমন আশানুরুপ ইনকাম করতে পারবেন না।

আপনি আরো পড়তে পারেন…

তবে কিছু কিছু ওয়েবসাইট আছে ৷ যেখানে আপনি একটি রেফার থেকে ৫০০ – ১০০০/- পর্যন্ত ইনকাম করে নিতে পারবেন।

আর সেই ওয়েবসাইট গুলো হলো, ডোমেইন এবং হোস্টিং ওয়েবসাইট। যেখানে আপনি অনেক কম শ্রম দিয়েও অনেক বেশি পরিমান টাকা অনলাইন আয় করতে পারবেন।

তো রেফার করে সবচেয়ে বেশি টাকা আয় করা যায়। এমন কিছু ওয়েবসাইট হলোঃ

  1. ShareASale
  2. FlexOffers
  3. Bluehost
  4. WP Engine

এবার আপনি যদি উপরে বর্নিত ওয়েবসাইট গুলোতে ভালোভাবে রেফার করতে পারেন।

তাহলে আপনি নিজেই আপনার রেফার করে আয় করার পরিমান দেখে অবাক হয়ে যাবেন। 

রেফার করে ইনকাম নিয়ে আমাদের শেষকথা 

রেফার করে ইনকাম নিয়ে যতটুকু বিষয় আপনার অজানা ছিলো। তার সবটুকুই আমি এই আর্টিকেলে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করেছি।

আশা করি আজকের আলোচিত বিষয় গুলো আপনি বেশ ভালো ভাবে বুঝতে পেরেছেন।

তবে রেফার করে ইনকাম নিয়ে আপনার মনে যদি আরও কোনো প্রশ্ন থাকে। তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

Bangla it blog এর সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Related article

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই লেখা কপি করবেন না!
Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap