কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়?

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়? যখনই আপনি একটা ব্লগ সাইট বানাতে চাইবেন ঠিক তার আগে আপনাকে ভেবে নিতে হবে যে আপনি কি Domain Name রেজিস্ট্রেশন করবেন। আপনার Topic এবং KeyWord এর উপর নির্ভর করে একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা হলো সফলতার প্রথম চাবিকাঠি।

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত ডোমেইন নাম নির্বাচন করতে হয়
ব্লগের জন্য ডোমাইন নির্বাচন করার উপযুক্ত উপায়

আপনি প্রথম যখন একটি ব্লগ সাইটের জন্য ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন বা নির্বাচন করার সময় দেখতে পারবেন যে কেউ একজন আপনার পছন্দের ডোমেইনটি অনেক আগের রেজিস্ট্রেশন করে ফেলেছে।

নতুন ব্লগার যারা আছেন তাদের জন্য  Domain সিলেকশন একটি বড় চ্যালেঞ্জের ব্যাপার কেননা  ভাল একটি ডোমাইন ওয়েবসাইটের সৌন্দর্য বহন করে।

কিভাবে ব্লগের জন্য উপযুক্ত Domain Name নির্বাচন করতে হয়?

আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে যখনই আপনি ব্লগের জন্য Domain Name  নির্বাচন করবেন সেটি যাতে সহজ সুন্দর এবং ছোট ডোমেইন নামে হয়। একটি সুন্দর এবং আকর্ষণীয় ডোমেইন নেম আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর অনেকাংশে বাড়িয়ে দিতে পারে।

যারা নতুন ব্লগের জন্য ডোমেইন নেম রেজিস্ট্রেশন করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমার পক্ষ থেকে কিছু আইডিয়া শেয়ার করব।

সে আইডিয়া মোতাবেক আপনি যদি একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করেন অবশ্যই আপনার এসইও এবং ওয়েবসাইটের এর জন্য ভাল দিক বহন করে।

এছাড়াও ডোমেইন সম্পর্কে যাবতীয় গাইডলাইনস এই পোষ্টের মাধ্যমে আলোচনা করা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ

ডোমেইন বলতে কি বুঝায়?

What is domain? How to choose a best Domain for your blog? ব্লগিং লাইফে যারা নতুন অথবা ইন্টারনেটে যারা একদম নতুন রয়েছে তাদের অনেকেরই প্রশ্ন থাকে যে ডুমাইন বলতে আসলে কি বোঝায় এটা কি কাজে লাগে। এই ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেট মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দিনে দিনে মানুষ তাদের প্রত্যেকটি ব্যবসা অনলাইনে প্রতিবেশী বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। আপনার ব্যবসাকে যদি অনলাইন মুখে করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার একটি ওয়েবসাইট এবং একটি ভালো মানের ডুমাইন হতে হবে।

সহজভাবে বলতে গেলে বলা যায়, ডুমাইন হলো মানুষের নামের মত। ডোমেইন নাম হলো একটা ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট ঠিকানা এবং যে কোন ব্রাউজার থেকে আপনি সেই ওয়েবসাইট অথবা ডোমেন এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে যেতে পারবেন।

একটি ডোমেইন ছাড়া আপনার ব্যবসা বা অন্যান্য সমস্ত কিছু অনলাইনে সবার মাঝে প্রকাশ করতে পারবেন না।

উদাহরণস্বরূপ আপনাকে বলা যায়ঃ 

ধরুন আপনি ঢাকা যাবেন কিন্তু কোথায় যাবেন নির্দিষ্ট ঠিকানা আপনার জানা নেই। তাহলে কোনমতে আপনি সেই নির্দিষ্ট জায়গাতে যেতে পারবেন না যদি না আপনি সেই ঠিকানার নাম জানেন।

তেমনি আপনি যদি কোন ওয়েবসাইটে যেতে চান যদি আপনি সেই ওয়েবসাইটের নাম না জানেন তাহলে আপনি সেই নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে কখনো যেতে পারবেন না।

ডোমেইন নাম অনেকটা মানুষের নামের মতোই তবে তাদের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে যে  সে একই মানুষের নাম বিভিন্ন জন ব্যবহার করতে পারে কিন্তু একটি ডোমেইন নাম বিভিন্ন জন ব্যবহার করতে পারবে না।

একটি ডোমেইন নাম শুধুমাত্র একজনই ব্যবহার করতে পারে এবং এটি ওয়ার্ল্ডে শুধুমাত্র ইউনিক নাম থাকে। আপনি লক্ষ্য করলে দেখতে পারবেন। যে আপনার মোবাইল ফোনের নম্বর সেম টু সেম আর একটাও নেই।

ঠিক তেমনি ডোমেইন।  আপনার ডোমেইন নামের সাথে মিল রেখে আর অন্য কেউ কোন ধরনের ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে না।

আমরা সবাই কম বেশি Facebook.com , Youtube.com and Google.com কে চিনি আর এদের কেই ওয়েবসাইট  বলে। তবে এসব ওয়েবসাইটের মাঝে আলাদা আলাদা বিষয় নিয়ে কাজ করে।

আর এসব ওয়েবসাইট এর যে লেখা লিখে যাওয়া হয় যেমন আপনি যদি ফেসবুক এ যেতে চান তাহলে আপনাকে লিখতে হবে facebook.com . ঠিক তেমনি Youtube and Google.com এ যদি যেতে চান তাহলে আপনাকে Youtube.com and Google.com লিখে যেতে হবে। আর এই সব নামকেই ডোমাইন বলে।

আমাদের ওয়েবসাইটের ডোমাইন নাম Banglaitblog.com আর এই নামে অন্য কেউ ডোমাইন নাম রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে না

আরো পড়ুন…

Domain Name সঠিক বানানের রাখা

একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন কখনোই ভুল নামে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করবেন না। ভূল নামে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এর ফলাফল হয়তোবা আপনি প্রথম প্রথম বুঝতে পারবেন না।

কিন্তু একটা সময় আপনি আস্তে আস্তে বুঝতে পারবেন যে ভুল নামে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এর ফলাফল কিরকম খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে আপনার ব্লগ সাইটের জন্য। মনে করুন আপনার ওয়েবসাইটের বিষয় হল নিউজ প্রকাশ করা আর আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য এমন ডোমেইন নিলেন khoboraseporun.com অথবা ekhonanernewz.co

এখন এই ধরনের ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম অনেক বড় হয়ে থাকলে অনেক খারাপ প্রভাব পরবে আপনার জন্য এবং ইউজাররা খুব সহজেই এই নামগুলো মনে রাখতে পারবে না যার কারণে পরবর্তীতে আপনার ওয়েবসাইটে আর সে সকল ভিজিটর কখনো খুঁজে পাবেন না।

ছোট এবং আকর্ষণীয় ডোমেইন নাম

আপনার ব্লগ অথবা ওয়েবসাইটের জন্য অবশ্যই ছোট এবং মনে রাখা যায় এমন ডোমেইন নাম নির্বাচন করবেন । এতে করে যখন আপনার ভিজিটর আপনার ব্লগে কোন সময় ভিজিট করতে চাই তাহলে খুব সহজেই ব্রাউজারে আপনার ওয়েবসাইটের নামটি টাইপ করতে পারবে।

আর যদি আপনি এমন একটি ডোমাইন নির্বাচন করেন যে নাম এর কোন অর্থ নাই এবং  ডোমাইন এর নাম অনেক বড় যা মনে রাখা বা টাইপ করা খুবই কষ্টের।

এতে করে পরবর্তীতে সেই ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগে কখনো ভিজিট করতে পারবেনা। আর এইভাবে আপনার ব্লগ এবং ওয়েবসাইটের জন্য ভিজিটর হারাবেন আর এস এর ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলির মধ্যে ডোমাইন অনেক ভূমিকা পালন করে।

আরো পড়ুনঃ 

ফ্রী এক্সটেনশন ডোমেইন থেকে বিরত থাকা

একটা জিনিস অবশ্যই ভাল করে জানেন যে ফ্রি জিনিসের কোয়ালিটি খুব একটা ভালো থাকেন এবং ফিউচারে ফ্রি জিনিস নিয়ে খুব একটা দাম পাওয়া সম্ভব হয় না। ঠিক তেমনি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের জন্য ফ্রি এক্সট্রানশনের   ডোমাইন নাম দিয়ে আপনি কখনোই ওয়েবসাইট জনপ্রিয় করতে পারবেন না।

আর আপনি যদি ফ্রি ডোমেইন নেম এক্সটেনশন দিয়ে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগকে তৈরি করেন করেন তাহলে খুব একটা কোয়ালিটিফুল বা প্রফেশনাল ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানাতে পারবেন না। এর জন্য আপনাকে এমন একটি ডোমেইন নাম সিলেক্ট করতে হবে যা কোয়ালিটিফুল এবং খুব সহজে মানুষের নজর কাড়তে পারে।

নিম্নে কিছু ফ্রি ডোমেইন এক্সটেনশন গুলো তুলে ধরা হলোঃ

  • .Tk
  • .Ml
  • .GQ
  • .GQ
  • .GA

উপরের ফ্রি ডোমাইন এক্সটেনশন গুলো দিয়ে আপনার ব্লগের জন্য বা ওয়েবসাইটের জন্য এসব Domain Name এক্সটেনশন দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাহলে কখনো আপনার ওয়েবসাইটে প্রফেশনাল হিসেবে তৈরি হবে না। তাই সবসময় চেষ্টা করবেন ফ্রি এক্সটেনশন ডোমেইনগুলো রেজিস্ট্রেশন বা ওয়েবসাইটের জন্য সিলেক্ট করা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।

Keyword এর সাথে মিল রেখে Domain

আর অবশ্যই অবশ্যই আপনার Keyword সাথে মিল রেখে আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করবেন এতে করে আপনার ভিজিটরের খুব সুবিধা হবে যে আপনার ওয়েবসাইটটি কি কোন বিষয়ে। যেমন ধরুন আমাদের ওয়েবসাইটের নাম হল বাংলা আইটি ব্লগ / Banglaitblog.com 

আর কেউ যদি আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করে তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারবে আমাদের ওয়েবসাইটটি হল টেকনোলজি নিয়ে লেখালেখি করা এবং অনলাইনে কিভাবে আয় করা যায় এ বিষয়ে লেখালেখি হয় । খুব সহজেই ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট তাদের ব্রাউজারে বুকমার্ক করে নিবে এবং নিয়মিত ভিজিট করবে।

আর Keyword  এর সাথে মিল রেখে ডোমাইন রেজিস্ট্রেশন করার একটি লাভজনক বিষয় হলো যখনই কেউ গুগল-সার্চে কোন keyword  লিখে সার্চ দেয় এবং আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম যদি সেই keyword এর সাথে মিল থাকে তাহলে গুগল আপনার ওয়েবসাইটটির রেজাল্ট দেখাবে।

আর এই বিষয়টি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ভিজিটর আসার জন্য।

Expired Domain রেজিস্ট্রেশন থেকে বিরত থাকা

আমরা অনেকেই জানি যে এক্সপায়ার্ড ডোমাইন কি বা কাকে বলে। তো চলুন আজকে আপনাদেরকে দেখাব এক্সপায়ার্ড ডোমাইন কি বা কাকে বলে।

খুব সহজ ভাষায় বলতে গেলে বলা যায়, যে কোন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার পর একটা নির্দিষ্ট মেয়াদ বেঁধে দেয়া হয়। আর সেই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এর মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই যদি পুনরায় আবার রেজিস্ট্রেশন না করে থাকে তাহলে সেই ডোমেইনটি Expired হয়ে যাই।

আর নির্দিষ্ট সময়ের পর যে কেউ সেই ডোমেইনটি আবার পুনরায় রেজিস্ট্রেশন করে নিতে পারে। তবে  Expired ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার আগে অবশ্যই আপনাকে সেই ডোমাইনের পুরাতন হিস্টরি গুলো চেক করে নেবেন। কেননা অনেক সময় ডোমেইন গুগল এবং সোশ্যাল মিডিয়া এবং অন্যান্য সার্ভিস থেকে ব্যান করে দেয়।

আর সেজন্য ডোমেইন এর প্রকৃত মালিক টি আর সেই ডোমেইনটির পুনরায় রেজিস্ট্রেশন করে না। একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন কেউ কখনো ভালো ডোমাইন কোনো কারণ ছাড়াই হাত ছাড়া করবে না।

অবশ্যই এক্সপায়ার ডোমেইন কেনার আগে ডোমাইনের পুরাতন কার্যকলাপ গুলো চেক করে নিবেন। ডোমেইনগুলো আপনি খুব সহজেই এই ওয়েবসাইট http://web.archive.org/ থেকে চেক করে নিতে পারবেন যে এই ওয়েবসাইটে আগের রেজিস্ট্রেশন হয়েছিল কিনা।

আর যদি আগের রেজিস্ট্রেশন হয়ে থাকে তাহলে উপরের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার পছন্দ করা ডোমাইন এর আগের রেকর্ড গুলা দেখতে পাওরবেন।

ডোমেইনে হাইফেন ব্যবহার না করা

আর একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন যে আপনার Domain যখন রেজিস্ট্রেশন করবেন এ সময় আপনার ডোমাইনের ভিতরে কোনো হাইপেন (-) ব্যবহার করবেন না এতে করে আপনার ওয়েবসাইট এবং এসইওর এর জন্য খারাপ প্রভাব ফেলবে।

কেননা কোন ভিজিটর চাইবে না যে কোন ডোমেইন এর ভিতরে হাইপেন ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করার জন্য। এ বিষয়ে কারও কারও জন্য বিরক্তিকর হতে পারে।

যেমন ধরুন আপনার একটি ওয়েবসাইটকে অথবা ব্লগসাইট আছে এবং সেই ওয়েবসাইট বা ব্লগের নাম এরকম Bangla-it-post.com or Techtune-bd.com.

আর এরকম ডোমেইন নাম কোন ভিজিটর মনে রাখতে পারবে না কেননা একটা ডোমেইন এর সাথে হাইফেন ব্যবহার করে blog site করা মানে অনেকটা কঠিন পথে পাড়ি দেয়ার মত কেননা এরকম ডোমেইনের নাম দিয়ে ব্লগ সাইট অথবা ওয়েবসাইট পপুলার করতে অনেক সময় চলে যাবে.

সেজন্য অবশ্যই চেষ্টা করবেন যে আপনার ডোমেইন এর ভিতরে কোন রকম হাইফেন ব্যবহার না করা।

আরো পড়ুন…

নাম্বার যুক্ত ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন না করা

ডোমেইন এর সাথে নাম্বার যুক্ত করে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা হল একটি বোকামির কাজ কারন অনেকেই চাইবে না যে ডোমেইন এর সাথে আবার নম্বর যুক্ত করে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করার জন্য।

ভিজিটররা অবশ্যই চাইবে যে কিভাবে খুব সহজে একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগে প্রবেশ করা যায় কোন রকম হাইফেন অথবা নম্বর ব্যবহার না করে। কেননা অনেক ভিজিটর আপনার ডোমেইন এর হাইফেন অথবা নাম্বার মনে রাখতে সক্ষম নয় সেজন্য আপনাকে ইউনিক অথবা একটি ছোট নাম বেছে নিতে হবে।

যেমন ধরুন আপনার ডোমেইন টির নাম হল বাংলা Banglatips247.com or banglaOnline4345.com এখন একটি বিষয় লহেয়াল করুন। কেউ কি চাইবে অথবা কোন ভিজিটর কি পারবে যে এই ডোমেইন নাম গুলো মনে রেখে পরবর্তীতে আবার ভিজিট করার জন্য?

এখন দেখুন কোন ভিজিটরের এরকম ডোমেইন নাম মনে রাখতে সক্ষম হবে না অথবা পরবর্তীতে ভিজিট করার জন্য পুনরায় টাইপ করতে ইচ্ছা হবে না কারণ এত বড় নাম সাথে নাম্বার যুক্ত করা সম্ভব না।

এজন্য অবশ্যই আপনার ডোমেইন এর সাথে নাম্বার এবং হাইফেন ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

কিভাবে ডোমাইন নামে সিলেক্ট করব?

ধরুন আপনার ওয়েবসাইটটি এডুকেশন রিলেটেড যেখানে আপনি বিভিন্ন পরীক্ষার রেজাল্ট ফরম ফিলাপ এবং বিভিন্ত চাকরীর ইনফরমেশন শেয়ার করবেন। তাহলে সে অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইটের এনাম হতে পারে এরকম।

  • Eduinfo.com
  • resultnews.com
  • nunotice.com
  • Jobnotice.com

ঠিক তেমনি আপনি যদি প্রযুক্তি বিষয়ে অথবা বিভিন্ন টপিক নিয়ে লেখালেখি করেন সে অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইটটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করে নিবেন।

আরো পড়ুন…

শেষ কথা:

ডোমেইন নাম একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট ভিজিটর এবং গুগলের মাঝে পপুলার করার জন্য। এজন্য অবশ্যই চেষ্টা করবেন একটি ভাল ইউনিক ডোমেইন  নাম এবং ছোট আকর্ষণীয় ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করার জন্য। খুব সহজে আপনার ওয়েবসাইটে পয়েন্ট আকারে প্রকাশ পেয়ে যাবে।

আমাদের প্রতিরোধে আপনার বিন্দুমাত্র ভালো লেগে থাকে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং নিয়মিত আমাদের বাংলা আইটি ব্লগ সাইট টি ভিজিট করবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap